ফেলুদা ফেরত

উইকিপিডিয়া, মুক্ত বিশ্বকোষ থেকে
পরিভ্রমণে ঝাঁপ দিন অনুসন্ধানে ঝাঁপ দিন
ফেলুদা ফেরত
ছিন্নমস্তার অভিশাপ – ফেলুদা ফেরত.jpeg
ধারাবাহিকের প্রথম মৌসুমের পোস্টার
ধরনগোয়েন্দা থ্রিলার
ভিত্তিসত্যজিৎ রায় কর্তৃক 
যত কাণ্ড কাঠমান্ডুতে ও ছিন্নমস্তার অভিশাপ
লেখকসত্যজিৎ রায়
পরিচালকসৃজিত মুখোপাধ্যায়
অভিনয়ে
আবহ সঙ্গীত রচয়িতাশ্রীজাত
উদ্বোধনী সঙ্গীতগল্প নিয়ে ফেলুদা ফিরছে আবার
সুরকারজয় সরকার[১]
মূল দেশভারত
মূল ভাষাবাংলা
মৌসুমের সংখ্যা
পর্বের সংখ্যা১২
নির্মাণ
প্রযোজক
চলচ্চিত্রকারঅভিষেক চক্রবর্তী
পরিবেশকআড্ডাটাইমস
মুক্তি
মূল নেটওয়ার্কআলফা আই (বাংলাদেশ)
আড্ডাটাইমস (ভারত)
বহিঃসংযোগ
নির্মাণ ওয়েবসাইট

ফেলুদা ফেরত সত্যজিৎ রায়ের খ্যাতনামা গোয়েন্দা সিরিজ ফেলুদার উপর নির্মিত ওয়েব সিরিজ। আড্ডাটাইমসের প্ল্যাটফর্মে নির্মিত এ ওয়েব সিরিজ পরিচালনা করছেন সৃজিত মুখোপাধ্যায়। ফেলুদা চরিত্রে প্রথমবারের মত অভিনয় করছেন টোটা রায় চৌধুরী। একইসাথে লালমোহন গাঙ্গুলি চরিত্রে অনির্বান সেনগুপ্ত এবং তোপসের চরিত্রে দেখা যাবে কল্পন মিত্রকে।[২]

৩১ ডিসেম্বর ২০১৯ তারিখে নতুন ফেলুদা চরিত্রদের প্রথম দর্শন (ফার্স্ট লুক) প্রকাশ করা হয়।[৩][৪] ২রা মে সত্যজিৎ রায়ের জন্মশতবার্ষিকীর দিন সন্দীপ রায় অনলাইনে সিরিজটির সূচনা সঙ্গীতের উদ্বোধন করেন।[৫][৬][৭] প্রতিটি গল্প ছয়টি পর্ব করে দেখানো হবে।[৮]

৭ নভেম্বর সিরিজটির প্রথম কাহিনি ছিন্নমস্তার অভিশাপ এর প্রথম দর্শন পোস্টার মুক্তি পায়। পরে ১৬ নভেম্বর ট্রেলার মুক্তি দেয়া হবে বলে প্রাথমিকভাবে ঘোষণা দেয়া হয়।[৯][১০][১১] তবে ১৫ নভেম্বর প্রথম ফেলুদা চরিত্রে অভিনয় করা খ্যাতনামা অভিনয়শিল্পী সৌমিত্র চট্টোপাধ্যায় মৃত্যুবরণ[১২] করলে আড্ডাটাইমস ট্রেইলার মুক্তির দিন পিছিয়ে ২১ নভেম্বর নির্ধারণ করে।[১৩] ঐদিন প্রথম মৌসুম ছিন্নমস্তার অভিশাপ এবং এর পরদিন দ্বিতীয় মৌসুম যত কাণ্ড কাঠমাণ্ডুতের ট্রেলার মুক্তি দেওয়া হয়।[১৪][১৫] ২০২০ সালের বড়দিনে ধারাবাহিকের প্রথম মৌসুম ছিন্নমস্তার অভিশাপ মুক্তি লাভ করে।[১৬]

কাহিনী[সম্পাদনা]

প্রাথমিকভাবে ছিন্নমস্তার অভিশাপ এবং যত কাণ্ড কাঠমান্ডুতে কাহিনী নিয়ে ওয়েব সিরিজ নির্মাণ করবেন সৃজিত।[১৭] ফেলুদার স্রষ্টা সত্যজিৎ রায়ের ছেলে এবং অধিকাংশ ফেলুদা চলচ্চিত্র, ধারাবাহিকের পরিচালক সন্দীপ রায়ের থেকে এই ওয়েবসিরিজের জন্য কাহিনির সত্ত্ব কিনে নেওয়া হয়।[৭]

ছিন্নমস্তার অভিশাপ[সম্পাদনা]

১৯৭৭ সালের পটভূমিতে রচিত এ কাহিনি। ফেলুদা, তপেশ আর জটায়ু হাজারিবাগে ছুটি কাটাতে যায়, পথে একজন ব্যক্তিকে লিফট দেন তারা। ব্যক্তির পিতা শব্দ-জব্দ প্রিয় মানুষ মহেশ চৌধুরী। তিনি তার কৈলাস নামক বিরাট অট্টালিকায় পরে একদিন আমন্ত্রণ জানান এই তিনজনকে। মহেশবাবু এই তিনজনকে তার জন্মদিন উপলক্ষে এক বনভোজনে রাজরাপ্পার কাছে ছিন্নমস্তার মন্দিরে যাওয়ার জন্য বলেন। সেখানে গিয়ে তিনি ফেলুদাকে বলেন যে মহশেবাবু তার দ্বিতীয় সন্তান বীরেনকে খুব মিস করেন, যে কীনা ১৯ বছর বয়সে প্রথাবিরোধী জীবনযাপনের জন্য ঘর ছেড়েছিল এবং ১০ বছর আগে বাবাকে শেষ চিঠি লেখার পর থেকে কোনো যোগাযোগ নেই। ঘটনাচক্রে মহেশ পাহাড়ের ওপর হৃদরোগে আক্রান্ত হন এবং ভীষণভাবে জখম হন। এর মধ্যে জানা যায় হাজারিবাগে আসা গ্রেট ম্যাজেস্টিক সার্কাস থেকে সুলতান নামের এক বাঘ পালিয়েছে। সার্কাসে গিয়ে কারান্ডিকার নামের মূল রিংমাস্টারের সাথে পরিচয় হয় তাদের। এদিকে মহেশবাবু মৃত্যুশয্যায় শেষবারের মত ফেলুদার সাথে কথা বলতে চাইলে সাংকেতিক ভাষায় তিনি কিছু বলেন। ফেলুদা তার ডায়েরি আর বীরেনের দেয়া চিঠিগুলো নিয়ে পড়তে থাকে। ফেলুদা আবিষ্কার করে যে পারিবারিক রহস্য লুকিয়ে আছে। ঐদিন রাতে ফেলুদার বাড়িতে আক্রমণ ঘটে। এর পরদিন বাঘ ধরার জন্য সবাই অভিযান চালায়, ঐদিনই রহস্যের যবনিকাপাত ঘটে।[১৬]

অভিনয়ে[সম্পাদনা]

  • ফেলুদা চরিত্রে টোটা রায় চৌধুরী
  • তপেশরঞ্জন মিত্র বা তপেশ বা তোপসে চরিত্রে কল্পন মিত্র
  • জটায়ু চরিত্রে অনির্বাণ চক্রবর্তী
ছিন্নমস্তার অভিশাপ পর্বসমূহে
যত কাণ্ড কাঠমাণ্ডুতে পর্বসমূহে
  • মগনলাল মেঘরাজ চরিত্রে খরাজ মুখোপাধ্যায়
  • অনন্তলাল বাটরা চরিত্রে ভরত কল

নির্মাণ[সম্পাদনা]

চরিত্র নির্বাচন[সম্পাদনা]

৫ নভেম্বর, ২০১৯ খ্রিস্টাব্দে ফেসবুক ও টুইটারে পোস্ট দিয়ে সৃজিত জানান তার নতুন এ ওয়েবসিরিজের কথা। নতুন ফেলুদা চরিত্রে কে অভিনয় করবেন এ নিয়ে বিভ্রান্তি ছিল। অনির্বাণ ভট্টাচার্য, টোটা রায় চৌধুরী, যিশু সেনগুপ্ত এবং আবির চট্টোপাধ্যায়-সহ বেশ কয়েকটি নাম নিয়ে আলোচনা হয়। জটায়ুর চরিত্রে অনির্বাণ চক্রবর্তীকে নির্বাচন করা হয় শুরুতেই। তোপসের চরিত্র নিয়ে একেবারে নতুন কিছু করার কথাও ভাবা হয়।[৭]

পরবর্তীতে ১২ নভেম্বর টোটাকে এ চরিত্রের জন্য মনোনিত করে ঘোষণা দেওয়া হয়।[২২] এটাই পরিচালকের সাথে তার প্রথম কাজ।[২][২৩] সৃজিত বলেন, চরিত্র নির্বাচনের ক্ষেত্রে বেশ কয়েকটি দিক খেয়াল রাখা হয়। আবির ওয়েব ধারাবাহিক করবেন কী না তা নিয়ে বিভ্রান্ত ছিলেন। অনির্বান হইচই নামক অপর এক ওয়েব প্ল্যাটফর্মের সাথে চুক্তিবদ্ধ। এছাড়া ফেলুদার স্কেচের সাথে টোটার মিল রয়েছে। তাই টোটাকে নির্বাচন করা হয়।[৩] চরিত্রটি পাওয়ার পর টোটা ফেলুদা চরিত্রের মত নিয়মিত যোগব্যায়াম শুরু করেন।।[২৪] অভিনয়ের ক্ষেত্রে তিনি মূলত পরিচালকের মতকেই অনুসরণ করেছেন বলে জানান।[২৫] তিনি বলেন যে গোটা অভিনয়জীবনে তিনি "ফেলুদা চরিত্রে অভিনয় করতে" চেয়েছেন।[২৬]

তোপসে চরিত্রে নতুন মুখ নেওয়ার কথা বলেছিলেন পরিচালক। পরবর্তীতে কল্পন মিত্রকে এ চরিত্রের জন্য নির্বাচন করা হয়।[২৭] মগনলাল মেঘরাজ চরিত্রের জন্য রজতাভ দত্ত আর খরাজ মুখোপাধ্যায়কে ভাবা হয়েছিল। পরবর্তী স্কেচের মিলের সাথে সাদৃশ্য রেখে এ চরিত্রে নির্বাচন করা হয় খরাজকে।[২৮]

প্রযোজনা ও উন্নয়ন[সম্পাদনা]

ফেলুদা ফেরত ধারাবাহিকের প্রাথমিক পোস্টার

ফেলুদাকে নিয়ে পূর্বেও ওয়েব ধারাবাহিক নির্মিত হয়েছিল। বাংলাদেশের আলফা-আই এর কর্ণধার শাহরিয়ার শাকিল ২০১৫ সালে ফেলুদার ২০টি কাহিনির স্বত্ত্ব কিনে নিয়েছিলেন।[২৯][৩০] আলফা-আইয়ের ওয়েব প্ল্যাটফর্ম বায়োস্কোপ এবং ভারতের ওয়েব প্ল্যাটফর্ম আড্ডাটাইমস মিলিতভাবে প্রথমবারের মত শেয়াল দেবতা রহস্য কাহিনির উপর ওয়েব ধারাবাহিক নির্মাণ করেন। আড্ডাটাইমস প্ল্যাটফর্মের কর্ণধার সুরিন্দার ফিল্মসের প্রযোজক রাজীব মেহরা এবং নিসপাল সিংহ রানে। এরপর ঘুরঘুটিয়ার ঘটনা এবং গোলকধাম রহস্য কাহিনির উপরও ধারাবাহিক নির্মিত হয়। এ ধারাবাহিকে ফেলুদার ভূমিকায় অভিনয় করেছিলেন পরমব্রত চট্টোপাধ্যায়, পরিচালনাও তিনিই করেছিলেন।[৭] তোপসের ভূমিকায় ছিলেন ঋদ্ধি সেন।[৩১] এরপর আলফা-আইয়ের প্রযোজনায় স্বতন্ত্রভাবে ফেলুদা নির্মিত হয় বাংলাদেশে।[৩২] নতুন এই ফেলুদার চরিত্রে অভিনয় করেন আহমেদ রুবেল, পরিচালনা করেন তৌকির আহমেদ[৩৩] ফেলুদা ফেরতের সহপ্রযোজক হিসেবেও থাকছে আলফা আই।

২০১৯ সালের শেষদিকে নিসপালের অফিসে এক মিটিংয়ে প্রথম সৃজিত জানেন যে আড্ডাটাইমস আবারও ফেলুদা বানাচ্ছে। তখন সৃজিত আগ্রহ প্রকাশ করেন। এরপর সন্দীপ রায়ের থেকে স্বত্ত্ব নিয়ে কাজ শুরু হয়। পূর্বের ধারাবাহিকের মূল চরিত্র ফেলুদা বা তোপসে কেউই এতে থাকছেন না। পরমব্রতও আড্ডাটাইমসের ব্যানারে আর ফেলুদা বানাচ্ছেন না।[৩৪] পরবর্তীতে ৫ নভেম্বর সৃজিত এবং রাজীব মেহরা তাদের সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে সন্দীপের সাথে একত্রে ছবিসহ ওয়েবসিরিজের ঘোষণা দেন।[৩৫] পরবর্তীতে ৩১ ডিসেম্বর ২০১৯ সালের শেষদিনে সিরিজের প্রথম দর্শন উন্মোচন করা হয়।[৮]

সৃজিত বলেন ফেলুদা নির্মাণ করাটা তার কাছে স্বপ্ন সত্যি হওয়ার মত।[৩৬] তিনি ফেলুদার মূল কাহিনিকে অক্ষুণ্ণ রেখে একান্ত প্রয়োজনমত পরিবর্তন করেছেন বলে জানান। এ ক্ষেত্রে দর্শক খুব বেশি পরীক্ষা-নিরীক্ষা পছন্দ করবেন না বলে তিনি মনে করেন।[৩৭] নির্মাণের ক্ষেত্রে কাহিনির সাথে থাকা স্কেচগুলোকে সর্বাধিক গুরুত্ব দিয়েছেন।[২৫]

নামকরণ[সম্পাদনা]

সৃজিত একবার বেঙ্গালুরুতে থাকাকালীন‌ বৃদ্ধ ফেলুদাকে নিয়ে নাটক করেছিলেন। সেই নাটকর নাম ছিল ফেলুদা ফেরত। সেই অনুসরণেই নতুন এ ধারাবাহিকের নাম দেওয়া হয় ফেলুদা ফেরত[৩৮]

দৃশ্যায়ন[সম্পাদনা]

২০১৯ সালের ডিসেম্বরে শুরু হয়ে ২০২০ সালের ফেব্রুয়ারি পর্যন্ত ধারাবাহিকের দৃশ্যায়ন হয়।[৩৯] জলপাইগুড়ির গরুমারা জাতীয় উদ্যানে ফেলুদা ফেরত-এর শুটিং শুরু করেন সৃজিত। জাতীয় পার্কে দৃশ্যায়ন করতে গিয়ে গরুমারার সংরক্ষিত বনাঞ্চলঘেঁষা এলাকায় মূর্তি নদের তীরে ড্রোন ব্যবহার করা হয়। সেই সময় বন বিভাগের দুই কর্মী বাধা দেন তাদের। আইন ভাঙার কারণে ২০ হাজার টাকা জরিমানা দিতে হয় তাদের।[৪০] পরবর্তীতে মুর্শিদাবাদে ধারাবাহিকের দৃশ্যায়ন হয়।[৪১] উত্তরবঙ্গের চাপড়ামারি জঙ্গলেও ওয়েব সিরিজের দৃশ্যায়ন হয়।[৪২]

ছিন্নমস্তার অভিশাপ গল্পের প্রেক্ষাপটে সার্কাস-কেন্দ্রিক। কাহিনি অনুযায়ী সেখানে বাঘ, সিংহ ইত্যাদি ছিল। কিন্তু আইন অনুযায়ী বন্যপ্রাণীকে নিয়ে চলচ্চিত্র নির্মাণ বন্ধ। তাই গ্রাফিক্সের কাজ করার প্রয়োজন হতে পারে। এর আগেও ফেলুদার রয়েল বেঙ্গল রহস্য চলচ্চিত্রে সন্দীপ গ্রাফিক্সের বাঘ ব্যবহার করেছিলেন। নেপালে দৃশ্যায়নের সম্ভাব্য সমস্যা নিয়েও আলোচনা করা হয়। কারণ নেপালে ভূমিকম্পের পর কাঠমান্ডু শহরের চেহারা ব্যাপক পরিবর্তিত হয়।[৩১] সত্যজিৎ রচিত বিবরণ অনুযায়ী দৃশ্যায়ন তাই সম্ভব নয়। সৃজিত ছিন্নমস্তার অভিশাপ তৎকালীন অর্থাৎ কাহিনি রচনার সময়ের প্রেক্ষিতে, এবং যত কাণ্ড কাঠমাণ্ডুতে বর্তমান সময়ের প্রেক্ষাপটে নির্মাণের কথা জানিয়েছেন।[৩৮]

সঙ্গীত[সম্পাদনা]

এই ওয়েবধারাবাহিকের সঙ্গীত পরিচালনা করেন জয় সরকার। ২রা মে ফেলুদার লেখক সত্যজিৎ রায়ের ৯৯তম জন্মদিনে পরিচালক, সন্দীপ রায় এবং সঙ্গীতশিল্পী অনুপম রায়, রূপঙ্কর বাগচীরূপম ইসলামের অনলাইন উপস্থিতিতে ধারাবাহিকের সূচনা সঙ্গীত গল্প নিয়ে ফেলুদা ফিরছে আবার মুক্তি পায়। সন্দীপ রায় ডিজিটালভাবে গানটির উদ্বোধন করেন। জয় সরকারের সঙ্গীত পরিচালনায়, শ্রীজাতর লেখা এ গানটি গেয়েছেন অনুপম, রূপঙ্কর ও রূপম।[৫][৪৩] ফেলুদার জন্য সত্যজিৎ রায়ের আঁকা স্কেচের পটভূমিতে সূচনা সঙ্গীতটি প্রকাশিত হয়।[৩৯]

মুক্তি[সম্পাদনা]

ট্রেলার[সম্পাদনা]

প্রাথমিকভাবে ওয়েব ধারাবাহিকের প্রথম মৌসুম ছিন্নমস্তার অভিশাপ এর ট্রেলার মুক্তি দেয়ার দিন নির্ধারিত হয় ১৬ নভেম্বর। ১৫ নভেম্বর ফেলুদাস্রষ্টা সত্যজিৎ রায়ের পরিচালনায় পর্দায় প্রথম ফেলুদা চরিত্রে আবির্ভূত সৌমিত্র চট্টোপাধ্যায় মৃত্যুবরণ করেন।[১২] শ্রদ্ধাবশত ট্রেলার মুক্তির দিন পিছিয়ে ২১ তারিখ নির্ধারিত হয়। ঐদিন ফেলুদা চরিত্রে সর্বোচ্চসংখ্যক অভিনয় করা সব্যসাচী চক্রবর্তী এবং সৌরভ গাঙ্গুলি, সাহেব ভট্টাচার্য্যসহ চলচ্চিত্রের কলাকুশলীদের উপস্থিতিতে ট্রেলার মুক্তি দেওয়া হয়।[১৫][৪৪][৪৫] অনুষ্ঠানটি সদ্যপ্রয়াত সৌমিত্রের উদ্দেশ্যে পরিচালিত হয়।[৪৬] এর পরদিন অর্থাৎ ২২ তারিখ মুক্তি পায় দ্বিতীয় মৌসুম যত কাণ্ড কাঠমাণ্ডুতে-এর ট্রেলার।

ছিন্নমস্তার অভিশাপের ট্রেলারের মোট দৈর্ঘ্য ১ মিনিট ৪৮ সেকেন্ড। পূর্বের ঘোষণা অনুযায়ী এই মৌসুম নির্মিত হয় কাহিনি রচনার প্রেক্ষাপটে। ২১ নভেম্বর মুক্তি পাওয়া ট্রেলারে "চিত্রনাট্য ও স্ংলাপ" কথার পরিবর্তে রচনায় (written) অংশে পরিচালক সৃজিতের নাম ছিল, যা দর্শকদের মধ্যে বিভ্রান্তি সৃষ্টি করে ও সমালোচনার জন্ম দেয়। পূর্বে ঋতুপর্ণ ঘোষ, সত্যজিৎ রায় প্রমুখ নির্মাতার চলচ্চিত্রের উদাহরণ দেখিয়ে বলেন যে রচনায় বলতে চিত্রনাট্য ও সংলাপকেই বোঝানো হয়।[৪৭] তবুও বিতর্ক এড়াতে ২২ তারিখ দুপুরে ট্রেলারটি পুনরায় আপলোড করা হয়, আগেরটা সরিয়ে।[২০] দ্বিতীয় মৌসুম যত কাণ্ড কাঠমাণ্ডুতের ট্রেলারের দৈর্ঘ্য ২ মিনিট ২ সেকেন্ড, এটি বর্তমান সময়ের প্রেক্ষাপটে নির্মিত।[১৫]

প্রথম মৌসুমের মুক্তি[সম্পাদনা]

২০২০ সালের শেষে বড়দিনে ধারাবাহিকের প্রথম মৌসুম মুক্তি পায়।[৪৮] মুক্তির পর থেকে বিভিন্ন পর্যালোচনায় কলা-কুশলীদের অভিনয়ের প্রশংসা করা হয়। পরিচালক টুইটারে জানান যে মুক্তির পর থেকে আইএমডিবি রেটিং এবং পর্যালোচনা দেখে তৃতীয় মৌসুমের কথা ভাবছেন তিনি।[৪৯][৫০]

পর্যালোচনা[সম্পাদনা]

সংবাদ প্রতিদিন এই প্রথম মৌসুমকে ৪/৫ তারকা দিয়ে ফেলুদা ও জটায়ু চরিত্রে টোটা ও অনির্বাণের ভঙ্গি, চাহনি, অভিনয়ের প্রশংসা করে। তবে কিছু স্থানে ব্যাকগ্রাউন্ড সঙ্গীত না হলেও চলতো বলে পর্যালোচনায় মত প্রকাশ করা হয়।[৫১] আনন্দবাজার পত্রিকা ওয়েব ধারাবাহিকটিকে ৬/১০ দিয়ে চরিত্রের প্রশংসা করে। তবে আবহসঙ্গীতকে দুর্বল বলে অভিহিত করা হয়েছে।[৫২] আজতাক ৪/৫ দিয়ে চরিত্রায়ণের প্রশংসা করে। তবে ভিএফএক্সের কাজকে দূর্বল হিসেবে বলা হয়েছে।[৫৩] সিনেস্তান ধারাবাহিককে ৪/৫ তারকা দিয়ে এর সাথে যুক্ত অভিনয়শিল্পীদের অভিনয়ের প্রশংসা করলেও অতিরিক্ত বই অনুসরণের সমালোচনা করে। তারা উল্লেখ করে যে ফেলুদার লেখক সত্যজিৎ পর্দায় ফেলুদার চলচ্চিত্র নির্মাণের সময় নিজেই কিছু পরিবর্তন করেছিলেন।[৫৪]

চরিত্র ও কাহিনির প্রেক্ষাপট[সম্পাদনা]

ছিন্নমস্তার অভিশাপ কাহিনির ভিত্তিতে পর্দায় প্রথমবারের মত এ ওয়েব ধারাবাহিকে দেখানো হচ্ছে। তবে যত কাণ্ড কাঠমাণ্ডুতে কাহিনির ভিত্তিতে সন্দীপ রায় এর আগে দুইবার টিভির জন্য ধারাবাহিক নির্মাণ করেছিলেন। প্রথমবার হিন্দি ভাষায় করা হয়েছিল, কিস্সা কাঠমাণ্ডু কা নামে।[৫৫] এখানে ফেলুদা চরিত্রে শশী কাপুর, তোপসে ও জটায়ু চরিত্রে যথাক্রমে অলঙ্কার যোশি এবং মোহান আগাসে অভিনয় করেন। সত্যজিৎ রায় নিজেই এর চিত্রনাট্য লিখেছিলেন। তবে ধারাবাহিকটি নেতিবাচকভাবে সমালোচিত হয়। পরবর্তীতে ডিডি বাংলার জন্য আবারও বাংলায় এই কাহিনির ভিত্তিতে ধারাবাহিক নির্মাণ করা হয়। সেখানে ফেলুদা চরিত্রে সব্যসাচী চক্রবর্তী, তোপসে চরিত্রে শাশ্বত চট্টোপাধ্যায় এবং জটায়ু চরিত্রে অনুপ কুমার অভিনয় করেন। জটায়ু চরিত্রে অনুপ কুমারকে পরিচালক নিজেই মানতে পারেননি। এরপরে বিভু ভট্টাচার্য্য এ চরিত্রে অভিনয় করেন।[৫৬] ফেলুদা ফেরত ওয়েব ধারাবাহিকে জটায়ু চরিত্রে প্রথমবারের মত অভিনয় করছেন অনির্বান সেনগুপ্ত[২]

তথ্যসূত্র[সম্পাদনা]

  1. "ফেলুদা সিরিজ়ে জয়ের সুর"আনন্দলোক। সংগ্রহের তারিখ ৭ জানুয়ারি ২০২০ 
  2. "এক্সক্লুসিভ: ওয়েব সিরিজে 'ফেলুদা'কে? ফাঁস করলেন সৃজিত"আনন্দবাজার পত্রিকা। ১২ নভেম্বর ২০১৯। সংগ্রহের তারিখ ৩১ ডিসেম্বর ২০১৯ 
  3. "সৃজিতের 'ফেলুদা ফেরত', প্রকাশ্যে সিরিজের লুক"ইন্ডিয়ান এক্সপ্রেস। ১ জানুয়ারি ২০২০। সংগ্রহের তারিখ ১ জানুয়ারি ২০২০ 
  4. "ফেলুদার প্রথম লুক প্রকাশ করলেন সৃজিত!"এই সময় পত্রিকা। ৩১ ডিসেম্বর ২০১৯। সংগ্রহের তারিখ ১ জানুয়ারি ২০২০ 
  5. "সত্যজিতের জন্মদিনে সৃজিতের শ্রদ্ধার্ঘ্য, প্রকাশ্যে 'ফেলুদা ফেরত' এর টাইটেল সং"আনন্দবাজার পত্রিকা। ২ মে ২০২০। সংগ্রহের তারিখ ৩ মে ২০২০ 
  6. "ফেলুদার গান আসছে, শনিবার চোখ রাখুন ৫টায়!"এই সময় পত্রিকা। ২ মে ২০২০। সংগ্রহের তারিখ ২ মে ২০২০ 
  7. "এ বার ফেলুদাকে নিয়ে ওয়েব সিরিজে আসছেন সৃজিত"আনন্দবাজার পত্রিকা। ৫ নভেম্বর ২০১৯। সংগ্রহের তারিখ ৩১ ডিসেম্বর ২০১৯ 
  8. "বছরের শেষ দিন নতুন ফেলুদা–দর্শন"দৈনিক প্রথম আলো। ৩১ ডিসেম্বর ২০১৯। সংগ্রহের তারিখ ১ জানুয়ারি ২০২০ 
  9. "১৬ নভেম্বর আসছে ট্রেলার, অপেক্ষার অবসান ঘটিয়ে প্রকাশ্যে 'ফেলুদা ফেরত'-এর ফার্স্টলুক"জি ইউজ। ৭ নভেম্বর ২০২০। সংগ্রহের তারিখ ৮ নভেম্বর ২০২০ 
  10. "প্রকাশ্যে সৃজিতের 'ফেলুদা ফেরত'-এর ফার্স্ট লুক, জেনে নিন কবে আসছে ট্রেলার"হিন্দুস্তান টাইমস বাংলা। ৭ নভেম্বর ২০২০। সংগ্রহের তারিখ ৮ নভেম্বর ২০২০ 
  11. "প্রকাশ্যে 'ফেলুদা ফেরত' ওয়েব সিরিজের ফার্স্ট লুক, ট্রেলার কবে মুক্তি পাবে জানেন?"সংবাদ প্রতিদিন। ৭ নভেম্বর ২০২০। সংগ্রহের তারিখ ৮ নভেম্বর ২০২০ 
  12. "চলে গেলেন সৌমিত্র চট্টোপাধ্যায়"প্রথম আলো। ১৫ নভেম্বর ২০২০। সংগ্রহের তারিখ ১৫ নভেম্বর ২০২০ 
  13. "নেই পর্দার প্রথম ফেলুদা, শোকস্তব্ধ বাংলা, স্থগিত ফেলুদা ফেরতের ট্রেলার মুক্তি"এশিয়ান নিউজ। ১৬ নভেম্বর ২০২০। সংগ্রহের তারিখ ১৬ নভেম্বর ২০২০ 
  14. "প্রকাশ্যে সৃজিতের 'ফেলুদা ফেরত'-এর ট্রেলার, নজর কাড়লেন নতুন 'ফেলুদা' টোটা"জি নিউজ। ২২ নভেম্বর ২০২০। সংগ্রহের তারিখ ২২ নভেম্বর ২০২০ 
  15. "প্রকাশ্যে সৃজিতের 'ফেলুদা ফেরত'-এর ঝলক, নস্টালজিয়া উসকে দিল 'ছিন্নমস্তার অভিশাপ'"হিন্দুস্তান টাইমস বাংলা। ২২ নভেম্বর ২০২০। সংগ্রহের তারিখ ২২ নভেম্বর ২০২০ 
  16. "আড্ডাটাইমসে 'ফেলুদা ফেরত'"ইত্তেফাক। ২৫ ডিসেম্বর ২০২০। সংগ্রহের তারিখ ২৬ ডিসেম্বর ২০২০ 
  17. "'ফেলুদা' নিয়ে সময় নষ্ট নয়, কাঠমাণ্ডুতে রেকি শুরু সৃজিত অ্যান্ড কোম্পানির!"এই সময় পত্রিকা। ৩০ নভেম্বর ২০১৯। সংগ্রহের তারিখ ৩১ ডিসেম্বর ২০১৯ 
  18. "ফেলুদা-শঙ্কুর মাঝে সৃজিত, ফেলুদা ফেরতে যোগ দিলেন ধৃতিমান"হিন্দুস্তান টাইমস। ২৬ ডিসেম্বর ২০১৯। সংগ্রহের তারিখ ১১ জানুয়ারি ২০২০ 
  19. "সৃজিতের ওয়েব সিরিজে ধৃতিমান, প্রকাশ্যে 'ছিন্নমস্তার অভিশাপ'-এর নয়া কাস্টিং"সংবাদ প্রতিদিন। ৮ জানুয়ারি ২০২০। সংগ্রহের তারিখ ১ জানুয়ারি ২০২০ 
  20. "‌'‌রিটেন বাই সৃজিত মুখার্জি'?‌ জোর তর্কের জেরে '‌ফেলুদা ফেরত'‌–এর ট্রেলারে চলল কাঁচি"আজকাল। ২২ নভেম্বর ২০২০। সংগ্রহের তারিখ ২২ নভেম্বর ২০২০ 
  21. "সৃজিতের ফেলুদা, সার্কাসে খেলা দেখাবেন ঋষি"এই সময় পত্রিকা। ৩ জানুয়ারি ২০২০। সংগ্রহের তারিখ ১১ জানুয়ারি ২০২০ 
  22. "'ফেলুদা ফেরত'-এর ফেলু মিত্তির টোটা, ফাঁস করলেন সৃজিত"সংবাদ প্রতিদিন। ১২ নভেম্বর ২০১৯। সংগ্রহের তারিখ ১ জানুয়ারি ২০২০ 
  23. "একটা সুযোগ দিয়ে দেখুন, ভাল লাগলে হাততালি দেবেন, না হলে গালাগালি: টোটা"আনন্দবাজার পত্রিকা। ১৫ নভেম্বর ২০১৯। সংগ্রহের তারিখ ১ জানুয়ারি ২০২০ 
  24. "সৃজিতের ফেলুদা বলে কথা, প্রস্তুতিতে খামতি রাখছেন না টোটা"ইন্ডিয়ান এক্সপ্রেস। ৩১ ডিসেম্বর ২০১৯। সংগ্রহের তারিখ ১ জানুয়ারি ২০২০ 
  25. "Decoding Feluda"টেলিগ্রাফ ইন্ডিয়া। ২৫ ডিসেম্বর ২০২০। সংগ্রহের তারিখ ২৬ ডিসেম্বর ২০২০ 
  26. "Feluda is the only character I solicited for in my entire career"সিনেস্তান। ২৩ নভেম্বর ২০২০। সংগ্রহের তারিখ ২৬ ডিসেম্বর ২০২০ 
  27. "অবশেষে খোঁজ মিলল সৃজিতের তোপসের"ইন্ডিয়ান এক্সপ্রেস। ২১ নভেম্বর ২০১৯। সংগ্রহের তারিখ ১ জানুয়ারি ২০২০ 
  28. "মগনলাল মেঘরাজের চরিত্রে খরাজ"বর্তমান পত্রিকা। ১ জানুয়ারি ২০২০। সংগ্রহের তারিখ ২ জানুয়ারি ২০২০ 
  29. "বাংলাদেশে সত্যজিৎ রায়ের ফেলুদা সিরিজ"বাংলানিউজ২৪। ১৮ এপ্রিল ২০১৫। সংগ্রহের তারিখ ৭ জানুয়ারি ২০২০ 
  30. "ফেলুদা পা রাখছেন বাংলাদেশে"আনন্দবাজার পত্রিকা। ২৮ মার্চ ২০১৬। সংগ্রহের তারিখ ৩০ ডিসেম্বর ২০২০ 
  31. "নতুন জটায়ু"আজকাল পত্রিকা। ৯ নভেম্বর ২০১৯। সংগ্রহের তারিখ ১ জানুয়ারি ২০২০ 
  32. "'নয়ন রহস্য' থেকে আগে ছবি তৈরি হয়নি: আহমেদ রুবেল"প্রথম আলো। ১৯ মে ২০১৯। সংগ্রহের তারিখ ৭ জানুয়ারি ২০২০ 
  33. "বাংলাদেশি ফেলুদা বানাচ্ছেন তৌকির"ঢাকা ট্রিবিউন। ১৭ এপ্রিল ২০১৯। সংগ্রহের তারিখ ৭ জানুয়ারি ২০২০ 
  34. "প্রকাশ্যে সৃজিতের টিম 'ফেলুদা ফেরত'"সংবাদ প্রতিদিন। ৩১ ডিসেম্বর ২০১৯। সংগ্রহের তারিখ ১ জানুয়ারি ২০২০ 
  35. "প্রথম ওয়েবসিরিজ ফেলুদাকে নিয়ে, ঘোষণা করলেন সৃজিত"ইন্ডিয়ান এক্সপ্রেস। ৫ নভেম্বর ২০১৯। সংগ্রহের তারিখ ১ জানুয়ারি ২০২০ 
  36. "Feluda Pherot is a collaboration with my childhood memories of the sleuth"সিনেস্তান। ২৬ নভেম্বর ২০২০। সংগ্রহের তারিখ ২৬ ডিসেম্বর ২০২০ 
  37. "ফেলুদা আধুনিক হয়েছে, কিন্তু ভিতরের মানুষটা একই রয়েছে"বর্তমান। ২৩ ডিসেম্বর ২০২০। সংগ্রহের তারিখ ২৬ ডিসেম্বর ২০২০  line feed character in |শিরোনাম= at position 29 (সাহায্য)
  38. "ছিন্নমস্তার অভিশাপে ফেলুদাকে ফেরত নিয়ে আসছেন সৃজিত!"এই সময় পত্রিকা। ৫ নভেম্বর ২০১৯। সংগ্রহের তারিখ ৩১ ডিসেম্বর ২০১৯ 
  39. "মহারাজার শতবর্ষে সৃজিতের সেলাম, সত্যজিতের জন্মদিনেই প্রকাশ্যে 'ফেলুদা ফেরত' সিরিজের গান"সংবাদ প্রতিদিন। ২ মে ২০২০। সংগ্রহের তারিখ ৩ মে ২০২০ 
  40. "ড্রোন উড়িয়ে শুটিং করায় বিপাকে সৃজিত, হল জরিমানা"আনন্দবাজার পত্রিকা। ২৭ ডিসেম্বর ২০১৯। সংগ্রহের তারিখ ১ জানুয়ারি ২০২০ 
  41. "ফেলুদা, সৃজিত এবং সিরাজের হুঁকো-রহস্য..."এই সময় পত্রিকা। ৮ জানুয়ারি ২০২০। সংগ্রহের তারিখ ১১ জানুয়ারি ২০২০ 
  42. স্রবন্তী বন্দ্যোপাধ্যায় (৫ ফেব্রুয়ারি ২০২০)। "চাপড়ামারির জঙ্গল থেকে বেরিয়ে এলেন ফেলুদা, তোপসে, লালমোহনবাবু! সঙ্গে কে?"আনন্দবাজার পত্রিকা। সংগ্রহের তারিখ ১ এপ্রিল ২০২০ 
  43. "সত্যজিৎ রায়ের জন্মদিনে মুক্তি পেল 'ফেলুদা ফেরত'-এর নামগাম"এই সময় পত্রিকা। ২ মে ২০২০। সংগ্রহের তারিখ ৩ মে ২০২০ 
  44. "অপেক্ষার অবসান, 'ফেলুদা ফেরত'-এর ট্রেলারে নজর কাড়লেন নয়া 'ফেলু মিত্তির' টোটা"ইন্ডিয়ান এক্সপ্রেস। ২২ নভেম্বর ২০২০। সংগ্রহের তারিখ ২২ নভেম্বর ২০২০ 
  45. "মুক্তি পেল সৃজিতের 'ছিন্নমস্তার অভিশাপ'-এর ট্রেলার, নজরকাড়া নয়া 'ফেলুদা' টোটা"এই সময়। ২২ নভেম্বর ২০২০। সংগ্রহের তারিখ ২২ নভেম্বর ২০২০ 
  46. "সৃজিতের 'ফেলুদা ফেরত'-এর ট্রেলার লঞ্চে সব্যসাচী-সৌরভ, শ্রদ্ধা জানানো হল সৌমিত্রকে"জি নিউজ। ২১ নভেম্বর ২০২০। সংগ্রহের তারিখ ২২ নভেম্বর ২০২০ 
  47. "ফেলুদা কি সৃজিতের রচনা! বিতর্কে বদলে গেল ছিন্নমস্তার অভিশাপ"এই সময়। ২২ নভেম্বর ২০২০। সংগ্রহের তারিখ ২৬ ডিসেম্বর ২০২০ 
  48. "যত কাণ্ড ক্রিসমাসেই! ডিসেম্বরে সৃজিতের হাত ধরে ফিরছেন ফেলুদা"আনন্দবাজার পত্রিকা। ২২ নভেম্বর ২০২০। সংগ্রহের তারিখ ২২ নভেম্বর ২০২০ 
  49. "বড়দিনে সৃজিতের উপহার, সিরিজে ফেলুদার বাজিমাত, টোটা ঝড়ে কাবু দর্শক"এশিয়ানেটনিউজ। ১ জানুয়ারি ২০২১। সংগ্রহের তারিখ ১ জানুয়ারি ২০২১ 
  50. "সৃজিতের মাস্টারস্ট্রোক"সংবাদ প্রতিদিন। ১ জানুয়ারি ২০২১। সংগ্রহের তারিখ ১ জানুয়ারি ২০২১ 
  51. "সৃজিতের মগজাস্ত্রের অব্যর্থ নিশানায় 'ফেলুদা ফেরত', তুরুপের তাস টোটা-অনির্বাণ"সংবাদ প্রতিদিন। ২৬ ডিসেম্বর ২০২০। সংগ্রহের তারিখ ২৭ ডিসেম্বর ২০২০ 
  52. "নতুন মোড়কে চেনা স্বাদ"আনন্দবাজার পত্রিকা। ২৯ ডিসেম্বর ২০২০। সংগ্রহের তারিখ ৩০ ডিসেম্বর ২০২০ 
  53. "মাস্টার কার্ড টোটা, বাঁধা ছকের বাইরে সৃজিতের 'ফেলুদা' ম্যাজিক"আজতাক। ২৮ ডিসেম্বর ২০২০। সংগ্রহের তারিখ ৩০ ডিসেম্বর ২০২০ 
  54. "Feluda is the only character I solicited for in my entire career"সিনেস্তান। ৩০ ডিসেম্বর ২০২০। সংগ্রহের তারিখ ১ জানুয়ারি ২০২১ 
  55. সন্দীপ ২০০৫, পৃ. ১৫–২১
  56. সন্দীপ ২০০৫, পৃ. ৩৬–৪৮

গ্রন্থপঞ্জী[সম্পাদনা]

  • রায়, সন্দীপ (২০০৫), আমি আর ফেলুদা, আমি আর ফেলুদা, ভারত: দীপ প্রকাশন 

বহিঃসংযোগ[সম্পাদনা]