ফিশ মার্কহাম

উইকিপিডিয়া, মুক্ত বিশ্বকোষ থেকে
পরিভ্রমণে ঝাঁপ দিন অনুসন্ধানে ঝাঁপ দিন
ফিশ মার্কহাম
ফিশ মার্কহাম.jpg
আনুমানিক ১৯৫০ সালের সংগৃহীত স্থিরচিত্রে ফিশ মার্কহাম
ব্যক্তিগত তথ্য
পূর্ণ নামলরেন্স অ্যান্ডারসন মার্কহাম
জন্ম(১৯২৪-০৯-১২)১২ সেপ্টেম্বর ১৯২৪
এমবাবানে, সোয়াজিল্যান্ড
মৃত্যু৫ আগস্ট ২০০০(2000-08-05) (বয়স ৭৫)
পিটারমারিৎজবার্গ, নাটাল, দক্ষিণ আফ্রিকা
ডাকনামফিশ
ব্যাটিংয়ের ধরনডানহাতি
বোলিংয়ের ধরনলেগ ব্রেক
ভূমিকাবোলার
সম্পর্কনেভিল মার্কহাম
আন্তর্জাতিক তথ্য
জাতীয় পার্শ্ব
একমাত্র টেস্ট
(ক্যাপ ১৭০)
১২ ফেব্রুয়ারি ১৯৪৯ বনাম ইংল্যান্ড
ঘরোয়া দলের তথ্য
বছরদল
১৯৪৬/৪৭ - ১৯৫০/৫১নাটাল
খেলোয়াড়ী জীবনের পরিসংখ্যান
প্রতিযোগিতা টেস্ট এফসি
ম্যাচ সংখ্যা ১৭
রানের সংখ্যা ২০ ২৬৮
ব্যাটিং গড় ২০.০০ ১৫.৭৬
১০০/৫০ ০/০ ১/০
সর্বোচ্চ রান ২০ ১৩৪
বল করেছে ১০৪ ২১৩৫
উইকেট ৫৩
বোলিং গড় ৭২.০০ ১৬.৮৪
ইনিংসে ৫ উইকেট
ম্যাচে ১০ উইকেট
সেরা বোলিং ১/৩৪ ৭/১০৬
ক্যাচ/স্ট্যাম্পিং ০/০ ৬/-
উৎস: ইএসপিএনক্রিকইনফো.কম, ১৩ জুন ২০১৯

লরেন্স অ্যান্ডারসন মার্কহাম (ইংরেজি: Fish Markham; জন্ম: ১২ সেপ্টেম্বর, ১৯২৪ - মৃত্যু: ৫ আগস্ট, ২০০০) সোয়াজিল্যান্ডের এমবাবানে এলাকায় জন্মগ্রহণকারী প্রথিতযশা দক্ষিণ আফ্রিকান আন্তর্জাতিক ক্রিকেটার ছিলেন। দক্ষিণ আফ্রিকা ক্রিকেট দলের অন্যতম সদস্য ছিলেন তিনি। ১৯৪৯ সালে সংক্ষিপ্ত সময়ের জন্যে দক্ষিণ আফ্রিকার পক্ষে আন্তর্জাতিক ক্রিকেটে অংশগ্রহণ করেছিলেন।[১]

ঘরোয়া প্রথম-শ্রেণীর দক্ষিণ আফ্রিকান ক্রিকেটে নাটালের প্রতিনিধিত্ব করেছেন। দলে তিনি মূলতঃ ডানহাতি লেগ ব্রেক বোলার হিসেবে খেলতেন। এছাড়াও, নিচেরসারিতে ডানহাতে কার্যকরী ব্যাটিংশৈলী উপস্থাপন করে গেছেন ‘ফিশ’ ডাকনামে পরিচিত ফিশ মার্কহাম

প্রথম-শ্রেণীর ক্রিকেট[সম্পাদনা]

১৯৪৬-৪৭ মৌসুম থেকে ১৯৫০-৫১ মৌসুম পর্যন্ত ফিশ মার্কহামের প্রথম-শ্রেণীর খেলোয়াড়ী জীবন চলমান ছিল। এ সময়ে তিনি মাত্র সতেরোটি প্রথম-শ্রেণীর খেলায় অংশ নেন। তন্মধ্যে, ১৯৪৭-৪৮ মৌসুমের কারি কাপে ওয়েস্টার্ন প্রভিন্সের বিপক্ষে ৭/১০৬ নিয়ে ব্যক্তিগত সেরা বোলিং পরিসংখ্যান দাঁড় করান।[২] এর এক সপ্তাহ পর অরেঞ্জ ফ্রি স্টেটের বিপক্ষে ব্যক্তিগত সর্বোচ্চ ১৩৪ রানের দূর্দান্ত ইনিংস উপহার দেন। নয় নম্বরে ব্যাটিংয়ে নেমে তিনি এ রান তুলেন। দলীয় সংগ্রহ এ পর্যায়ে ১৬৬/৭ ছিল। অসি ডসনের সাথে অষ্টম উইকেট জুটিতে ১৭৪ রান যুক্ত করেন। খেলায় তিনি উভয় ইনিংসে তিনটি করে উইকেট পেয়েছিলেন। এরফলে তার দল ইনিংস ব্যবধানে জয় তুলে নেয়।[৩]

আন্তর্জাতিক ক্রিকেট[সম্পাদনা]

ফিশ মার্কহাম মূলতঃ ডানহাতি লেগ ব্রেক বোলার হিসেবে খেলতেন। এছাড়াও, নিচেরসারিতে ডানহাতি ব্যাটিং করতেন তিনি। সমগ্র খেলোয়াড়ী জীবনে একটিমাত্র টেস্টে অংশগ্রহণের সুযোগ পেয়েছিলেন তিনি। ১২ ফেব্রুয়ারি, ১৯৪৯ তারিখে জোহেন্সবার্গে ইংল্যান্ডের বিপক্ষে টেস্ট ক্রিকেটে অভিষেক ঘটে ফিশ মার্কহামের।

১৯৪৮-৪৯ মৌসুমে ইংল্যান্ড দল দক্ষিণ আফ্রিকা গমন করে। সিরিজের চতুর্থ খেলায় তার এ অভিষেক পর্ব সম্পন্ন হয়। টাফটি মানঅ্যাথল রোয়ানের সাথে তৃতীয় স্পিনার হিসেবে অংশ নেন। একমাত্র ইনিংসে ২০ রান তুলেছিলেন। এছাড়াও, খেলায় একটিমাত্র উইকেটের সন্ধান পান। ফলশ্রুতিতে, পরের টেস্ট থেকে বাদ পড়েন।[৪] এরপর থেকে তাকে আর টেস্ট ক্রিকেট অঙ্গনে খেলতে দেখা যায়নি।

ব্যক্তিগত জীবন[সম্পাদনা]

৫ আগস্ট, ২০০০ তারিখে ৭৫ বছর বয়সে নাটালের পিটারমারিৎজবার্গে ফিশ মার্কহামের দেহাবসান ঘটে। তার ভ্রাতা নেভিল মার্কহাম নাটালের পক্ষে প্রথম-শ্রেণীর ক্রিকেটে অংশগ্রহণ করেছিলেন।

তথ্যসূত্র[সম্পাদনা]

  1. "Fish Markham"। www.cricketarchive.com। সংগ্রহের তারিখ ২০১২-০১-০৯ 
  2. "Western Province v Natal 1947-48"CricketArchive। সংগ্রহের তারিখ ২৬ ডিসেম্বর ২০১৭ 
  3. "Natal v Orange Free State 1947-48"CricketArchive। সংগ্রহের তারিখ ২৬ ডিসেম্বর ২০১৭ 
  4. "Scorecard: South Africa v England"। www.cricketarchive.com। ১৯৪৯-০২-১২। সংগ্রহের তারিখ ২০১২-০১-০৯ 

আরও দেখুন[সম্পাদনা]

বহিঃসংযোগ[সম্পাদনা]