ফিল নীল

উইকিপিডিয়া, মুক্ত বিশ্বকোষ থেকে
পরিভ্রমণে ঝাঁপ দিন অনুসন্ধানে ঝাঁপ দিন
ফিল নীল
ব্যক্তিগত তথ্য
পূর্ণ নামফিল নীল
জন্ম (1954-06-05) ৫ জুন ১৯৫৪ (বয়স ৬৪)
আন্তর্জাতিক তথ্য
জাতীয় পার্শ্ব
ঘরোয়া দলের তথ্য
বছরদল
ওরচেস্টারশায়ার
খেলোয়াড়ী জীবনের পরিসংখ্যান
প্রতিযোগিতা এফসি এলএ
ম্যাচ সংখ্যা ৩৫৪ ৩৩৯
রানের সংখ্যা ১৭৪৪৫ ৭২৫৩
ব্যাটিং গড় ৩৬.৪৯ ৩০.২২
১০০/৫০ ৮৯/২৮ ৩২/২
সর্বোচ্চ রান ১৬৭ ১২৮
বল করেছে ৪৭২ ৫০
উইকেট
বোলিং গড় ১৮৪.৫০ ২৫.০০
ইনিংসে ৫ উইকেট -
ম্যাচে ১০ উইকেট -
সেরা বোলিং ১/১৫ ২/৪৬
ক্যাচ/স্ট্যাম্পিং ১৩৪/– ৯২/–
উৎস: ক্রিকইনফো, ৮ সেপ্টেম্বর ২০১৮

ফিলিপ অ্যান্থনি ফিল নীল, ওবিই (ইংরেজি: Phil Neale; জন্ম: ৫ জুন, ১৯৫৪) উত্তর লিঙ্কনশায়ারের স্কানথর্প এলাকায় জন্মগ্রহণকারী সাবেক ও বিখ্যাত ইংরেজ প্রথম-শ্রেণীর ক্রিকেট তারকা। ঘরোয়া প্রথম-শ্রেণীর ইংরেজ কাউন্টি ক্রিকেটে ওরচেস্টারশায়ারের প্রতিনিধিত্ব করেছেন। এছাড়াও দলটির অধিনায়কের দায়িত্বে ছিলেন ফিল নীল। দলে তিনি মূলতঃ ডানহাতি ব্যাটসম্যান হিসেবে খেলতেন। এছাড়াও, ক্রিকেটের পাশাপাশি ফুটবল খেলায়ও সমান দক্ষতা প্রদর্শন করেছেন। লিঙ্কন সিটি, স্কানথর্প ইউনাইটেড, ওরচেস্টার সিটি ও গ্লুচেস্টার সিটির পক্ষে খেলেছেন।[১]

প্রথম-শ্রেণীর ক্রিকেট[সম্পাদনা]

ফিল নীল মূলতঃ ডানহাতি মাঝারিসারির ব্যাটসম্যান হিসেবে খেলতেন। ১৯৭৬ সালে ওরচেস্টারশায়ারের পক্ষে প্রথম-শ্রেণীর ক্রিকেটে অভিষেক ঘটে তাঁর। প্রথম পূর্ণাঙ্গ মৌসুমেই নয় শতাধিক রান তুলে সকলের নজর কাড়েন। এরপর থেকেই পরবর্তী ১৫ মৌসুম দলের নিয়মিত সদস্যরূপে খেলতে থাকেন। তন্মধ্যে আট মৌসুমে সহস্রাধিক ও অন্য পাঁচ মৌসুমে নয় শতাধিক রান তুলেছিলেন। ইংল্যান্ড এ দলের সদস্য হিসেবে সফরকারী পাকিস্তানের বিপক্ষে একমাত্র খেলায় অংশগ্রহণের সুযোগ হয় তাঁর।

অধিনায়কত্ব লাভ[সম্পাদনা]

১৯৮২ সাল থেকে কাউন্টি দলে নেতৃত্ব দেয়ার জন্য তাঁকে মনোনীত করা হয়। তাঁর নেতৃত্বে ১৯৮০-এর দশকের শেষার্ধ্বে ওরচেস্টারশায়ার প্রভূতঃ সফলতা পায়। ১৯৮৭ ও ১৯৮৮ সালে সানডে লীগ এবং ১৯৮৮ ও ১৯৮৯ সালে কাউন্টি চ্যাম্পিয়নশীপের শিরোপা জয় করে। নীলের অধিনায়কত্ব গ্রহণ ও আকর্ষণীয় চুক্তিনামা সেরা ক্রিকেটারদেরকে ওরচেস্টারশায়ারে যোগ দিতে উদ্বুদ্ধ করে। ইংল্যান্ডের বিখ্যাত অল-রাউন্ডার ইয়ান বোথামের সাথে একত্রে পেশাদারী পর্যায়ে স্কানথর্প ইউনাইটেডের পক্ষে ফুটবলে অংশ নিয়েছেন। সমারসেট থেকে চলে আসার পর ওরচেস্টারশায়ারে যোগ দিয়েছিলেন ইয়ান বোথাম।

দল গোছানো, ব্যক্তিত্ববোধ ও সুন্দর ক্রীড়াশৈলী উপস্থাপনার প্রেক্ষিতে ১৯৮৯ সালে উইজডেন কর্তৃক অন্যতম বর্ষসেরা ক্রিকেটারের সম্মাননায় অভিষিক্ত হন তিনি।

মে, ১৯৮৫ সালে ব্রাডফোর্ড সিটি স্টেডিয়ামে সংঘটিত অগ্নিকাণ্ডে ৫৬জন দর্শকের প্রাণহানিতে প্রত্যক্ষদর্শী ছিলেন। ঐ সময় তিনি লিঙ্কনের সদস্যরূপে ব্রাডফোর্ড সিটির বিপক্ষে খেলছিলেন।

অবসর[সম্পাদনা]

১৯৯২ সালে প্রথম-শ্রেণীর ক্রিকেটকে বিদায় জানান। এরপর তিনি প্রথিতযশা কোচ হিসেবে ব্যাপক পরিচিতি পান। কাউন্টি ক্রিকেট ও জাতীয় পর্যায়ে দলীয় ব্যবস্থাপকের দায়িত্ব পালন করেন। সকল খেলায় অংশ নিয়ে ৩৬.৫০ গড়ে সতেরো হাজারের অধিক রান তুলেছেন।[২]

২০০০ সাল থেকে ইংল্যান্ড ক্রিকেট দলের অপারেশন্স ম্যানেজার হিসেবে কাজ করছেন।[৩]

তথ্যসূত্র[সম্পাদনা]

বহিঃসংযোগ[সম্পাদনা]

ক্রীড়া অবস্থান
পূর্বসূরী
গ্লেন টার্নার
ওরচেস্টারশায়ার ক্রিকেট অধিনায়ক
১৯৮২–১৯৯১
উত্তরসূরী
টিম কার্টিস