প্রবেশদ্বার:লিনাক্স

উইকিপিডিয়া, মুক্ত বিশ্বকোষ থেকে

ভূমিকা

টাক্স পেঙ্গুইন, লিনাক্সের মাস্কট

লিনাক্স বা গ্নু/লিনাক্স (ইংরেজি: GNU/Linux) বলতে লিনাক্স কার্নেলের সাথে বিশেষত গ্নু ও অন্যান্য উপাদানের সংমিশ্রণে প্যাকেজ করা অপারেটিং সিস্টেমের একটি পরিবারকে বুঝায়। সাধারণত, ডেস্কটপ ও সার্ভার দু'ধরনের ব্যবহারের জন্যেই লিনাক্স ডিস্ট্রিবিউশন বা ডিস্ট্রো নামে একটি আকারে প্যাকেজকৃত থাকে। একটি লিনাক্স ডিস্ট্রিবিউশনকে বোঝানোর উপাদানই হলো এর কার্নেল - লিনাক্স কার্নেল, যেটি একটি অপারেটিং সিস্টেম কার্নেল, যা লিনাস টরভল্ডস ১৭ সেপ্টেম্বর ১৯৯১ তারিখে প্রথম প্রকাশ করেন। অনেক লিনাক্স ডিস্ট্রিবিউশনই লিনাক্স শব্দটি তাদের অপারেটিং সিস্টেমের নামের সাথে ব্যবহার করে এবং ফ্রি সফটওয়্যার ফাউন্ডেশন গ্নু/লিনাক্স শব্দটি এ অপারেটিং সিস্টেম পরিবারকে বুঝাতেই ব্যবহার করে।

লিনাক্স মূলত ইন্টেল এক্স৮৬ স্থাপত্যের(আর্কিটেকচার) উপর ভিত্তি করে ব্যক্তিগত কম্পিউটারের জন্য উন্নয়ন করা হলেও, বর্তমানে এটি অন্য যেকোন অপারেটিং সিস্টেমের চেয়ে বেশি প্ল্যাটফর্মে পোর্ট করা হয়েছে। স্মার্টফোন জগতে লিনাক্স কার্নেল-ভিত্তিক অপারেটিং সিস্টেম অ্যান্ড্রয়েডের আধিপত্যের কারণে, বর্তমানের অন্য সব অপারেটিং সিস্টেমের চেয়ে লিনাক্সের সবচেয়ে বড় ইন্সটল-ভিত তৈরি হয়েছে। লিনাক্স সার্ভার এবং অন্যান্য বড় আইরন সিস্টেম, যেমন মেইনফ্রেম কম্পিউটার, এবং বৃহত্তর ৫০০ সুপারকম্পিউটারে ব্যবহৃত একমাত্র অপারেটিং সিস্টেম (লিনাক্স ২০১৭ সালের নভেম্বর থেকে, অন্য সব প্রতিযোগীদের এ বাজার ধীরে ধীরে সরিয়ে দিচ্ছে)। প্রায় ২.৩% ডেস্কটপ কম্পিউটারে বর্তমানে লিনাক্স ব্যবহার করা হয়। লিনাক্স কার্নেল-ভিত্তিক ক্রোম অপারেটিং সিস্টেম চালিত ক্রোমবুক মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের কে-১৩ শিক্ষার বাজারে গুরুত্বারোপ করে এবং মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রে ৩০০ ডলারের নিচের নোটবুক বিক্রির ২০% ক্রোমবুকই প্রতিনিধিত্ব করে। লিনাক্স গ্রত্থিত সিস্টেম-ডিভাইসগুলোতেও অনেক বেশি ব্যবহার করা হয়, যার মধ্যে টিভো এবং অনুরূপ ডিভিআর ডিভাইস, রাউটার, সুবিধা স্বয়ংক্রিয়করণ নিয়ন্ত্রণ, টিভি, ভিডিও গেম কনসোল এবং স্মার্টওয়াচ অন্তর্ভুক্ত। অনেক স্মার্টফোন এবং ট্যাবলেট কম্পিউটার অ্যান্ড্রয়েড এবং অন্যান্য লিনাক্স ডিস্ট্রোতে চলে।

লিনাক্সকে মুক্ত সোর্সমুক্ত সফটওয়্যার ধারার একটি আদর্শ উদাহরণ হিসেবে বিবেচনা করা হয়। অন্যান্য স্বত্ত্ব-সংরক্ষিত অপারেটিং সিস্টেম যেমন উইন্ডোজ এবং ম্যাক ওএস হতে লিনাক্স বিভিন্নভাবে আলাদা। লিনাক্সের অন্তর্নিহিত সোর্স কোড যে কেউ গ্নু জেনারেল পাবলিক লাইসেন্স মোতাবেক বাধাহীনভাবে ব্যবহার করতে পারেন, এর উন্নতিসাধন করতে পারেন, এমনকি পুনর্বিতরণও করতে পারেন।

একেবারে ঠিকভাবে বলতে গেলে, লিনাক্স বলতে শুধু লিনাক্স কার্নেলকেই বোঝায়। তবে যেসব ইউনিক্স-সদৃশ অপারেটিং সিস্টেম লিনাক্স কার্নেলের উপর ভিত্তি করে নির্মিত এবং মূলত গ্নু (ও অন্যান্য) প্রকল্পের কোড সংগ্রহ (লাইব্রেরি) ও হাতিয়ার (টুলস) ওই কার্নেলের সাথে যুক্ত করে বানানো হয়েছে, সাধারণভাবে সেসব অপারেটিং সিস্টেমকে লিনাক্স হিসেবে সংজ্ঞায়িত করা হয়।

আরও ব্যাপক অর্থে একটি লিনাক্স ডিস্ট্রিবিউশন বলতে লিনাক্স অপারেটিং সিস্টেম ও এর সাথে সরবরাহকৃত বিপুল পরিমাণের অ্যাপলিকেশন সফটওয়্যারের সমষ্টিকে বোঝায়। লিনাক্স ডিস্ট্রিবিউশনগুলো সহজেই কম্পিউটারে সংস্থাপন (ইন্সটল) ও হালনাগাদ (আপডেট) করা যায়।

কিছু ডেস্কটপ পরিবেশ যেমন গ্নোম, কেডিই প্লাজমা ও এক্সএফসিই সাধারণত কেবল লিনাক্সের সাথে জড়িত বলে ধারণা করা হলেও এগুলো অন্যান্য অপারেটিং সিস্টেমেও (যেমন ফ্রিবিএসডি-তে) ব্যবহৃত হয়।

প্রাথমিকভাবে কেবল কিছু উৎসাহী ব্যক্তিই মূলত লিনাক্স ব্যবহার ও এর উন্নতিসাধন করতেন। এখন বড় বড় কর্পোরেশন যেমন ডেল, আইবিএম, সান মাইক্রোসিস্টেম্‌স, হিউলেট-প্যাকার্ড, নভেলসহ আরও অনেক বড় কোম্পানি সার্ভারে ব্যবহারের জন্যে লিনাক্সকে বেছে নিয়েছে। ডেস্কটপ বাজারেও লিনাক্সের চাহিদা ও জনপ্রিয়তা বাড়ছে। লিনাক্স বিশেষজ্ঞ ও লিনাক্স সমর্থকদের মতে লিনাক্সের এই উত্থানের পেছনে কারণ লিনাক্স সস্তা, নিরাপদ, নির্ভরযোগ্য এবং এটি কোনো নির্দিষ্ট বিক্রেতার কাছ থেকে কিনতে হয় না, অর্থাৎ এটি বিক্রেতা-অধীন নয়।

লিনাক্স প্রাথমিকভাবে ইন্টেল ৩৮৬ মাইক্রোপ্রসেসরের জন্য তৈরি করা হলেও এখন এটি বর্তমানের সব জনপ্রিয় (এমনকি অনেক পুরনো ও বিরল) কম্পিউটার স্থাপত্যের অধীনে কাজ করে। গ্রত্থিত ব্যবস্থা(এম্বেডেড সিস্টেম), যেমন মোবাইল ফোন, ব্যক্তিগত ভিডিও রেকর্ডার, ইত্যাদি থেকে শুরু করে ব্যক্তিগত ডেস্কটপ বা ল্যাপটপ কম্পিউটার, এমনকি সুপারকম্পিউটার - সব জায়গাতেই এখন লিনাক্স ব্যবহৃত হয়। (সম্পূর্ণ নিবন্ধ...)


নির্বাচিত নিবন্ধ

উবুন্টু একটি জনপ্রিয় ওপেন সোর্স কম্পিউটার অপারেটিং সিস্টেমলিনাক্স ডিস্ট্রিবিউশন যেটি ডেবিয়ান লিনাক্সের উপর ভিত্তি করে তৈরি করা হয়েছে। উবুন্টুর তিনটি দাপ্তরিক সংস্করণ রয়েছেঃ পিসির জন্যে উবুন্টু ডেস্কটপ, ক্লাউডসার্ভারের জন্যে উবুন্টু সার্ভার এবং ইন্টারনেট অব থিংসের জন্যে উবুন্টু কোর। উবুন্টুর নতুন সংস্করণ প্রতি ছয় মাস অন্তর প্রকাশ করা হয়, যেখানে দীর্ঘ সমর্থিত শাখাগুলো প্রতি দুই বছর অন্তর প্রকাশ করা হয়।

উবুন্টুর পেছনে রয়েছে ক্যানোনিকেল নামের একটি সংগঠন। ক্যানোনিকেল বিনামূল্যের নির্ভরযোগ্য নিরাপত্তা হালনাগাদ প্রদান করে প্রতিটি সংস্করণের সাথেই, প্রকাশের তারিখ থেকে একটি নির্দিষ্ট সময় পর্যন্ত। উবুন্টুর সাথে সংযুক্ত প্রিমিয়াম সেবা বিক্রির মাধ্যমে ক্যানোনিকেল লিমিটেড মুনাফা অর্জন করে।

উবুন্টুতে তৈরি করা হয়েছে বিভিন্ন ধরনের সফটওয়্যার প্যাকেজের উপর ভিত্তি করে। এর অধিকাংশই ফ্রি সফটওয়্যার লাইসেন্সের অধিনে প্রকাশিত। এই ধরনের সফটওয়্যার মুক্ত সফটওয়্যার নামে পরিচিত। তবে মূল অনুমতিপত্র হিসাবে ব্যবহার করা হয় গ্নু জিপিএল এবং গ্নু এলজিপিএল। এই অনুমতিপত্রে স্পষ্টভাবে উল্লেখ করা থাকে যে ব্যবহারকারীরা এটি চালানো, নকল করা, বিতরণ করা, পরিবর্তন করা, পরিবর্ধন করা এবং এর উপর ভিত্তি করে নতুন কোন সফটওয়্যার প্রকাশের ব্যাপারে সম্পূর্ণ স্বাধীন। ক্যানোনিকাল লিমিটেড নামের যুক্তরাজ্য ভিত্তিক একটি প্রতিষ্ঠান উবুন্টুর প্রধান পৃষ্ঠপোষক। মার্ক শাটলওয়ার্থ নামের দক্ষিণ আফ্রিকান এক উদ্যোক্তা এই প্রতিষ্ঠঅনের মালিক। উবুন্টু ফ্রি এবং মুক্ত সফটওয়্যার হিসাবে বিতরণের উদ্দেশ্যে ক্যানোনিকাল কমিউনিটি ডেভলপারদের সহযোগীতা নিয়ে থাকে। উবুন্টু, অপারেটিং সিস্টেম হিসাবে বিক্রি করে লাভবান না হয়ে উবুন্টু ভিত্তিক বিভিন্ন সেবা এবং পেশাদার মানের কারিগরি সহায়তা প্রদানের মাধ্যমে মুনাফা লাভ করে।

ক্যানোনিকাল প্রতি ৬ মাস পরপর উবুন্টুর নতুন সংস্করণ প্রকাশ করে। সাধারণভাবে এই সংস্করণসমূহ ব্যবহার করার ক্ষেত্রে পরবর্তী ১৮ মাস পর্যন্ত সহযোগীতা করা হয়ে থাকে। নিরাপত্তা ত্রুটি,প্যাচ, সফটওয়্যার সমূহ এবং মূল অপারেটিং সিস্টেমের বাগ ইত্যাদি সংশোধন করা এবং সফটওয়্যার সমূহের ছোট হালনাগাদ সমূহ প্রকাশ করে। এলটিএসসংস্করণ সমূহ প্রতি দুই বছর পর পর প্রকাশ করা হয়ে থাকে এবং এর ডেক্সটপ সংস্করণ পরবর্তী তিন বছর এবং সার্ভার সংস্করণগুলো ব্যবহারে পরবর্তী পাঁচ বছর সহায়তা করা হতো, যদিও উবুন্টু ১২.০৪ থেকে ডেক্সটপ সংস্করণ এবং সার্ভার সংস্করণগুলো ব্যবহারে পরবর্তী পাঁচ বছর হালনাগাদসহ এবং অন্যান্য সহায়তা দেওয়া হচ্ছে । বর্তমানে উবুন্টুর সর্বশেষ সংস্করণ হল উবুন্টু ২০.০৪ (ফোকাল ফোসসা)। এটি প্রকাশ করা হয় ২৬ এপ্রিল, ২০১৮ তারিখে। (সম্পূর্ণ নিবন্ধ...)

নির্বাচিত জীবনী

লিনাস বেনেডিক্ট টরভল্ডস (/ˈlnəs ˈtɔːrvɔːldz/ LEE-nəs TOR-vawldz, সুয়েডিয় উচ্চারণ: [ˈliːnʉs ˈtuːrvɑlds] (শুনুন); জন্ম ডিসেম্বর ২৮, ১৯৬৯, হেলসিঙ্কি, ফিনল্যান্ড), একজন বিশ্বখ্যাত সুয়েডীয়-ফিনীয় সফটওয়্যার প্রকৌশলী। তিনি লিনাক্স কার্নেলের আদি রচয়িতা ও নিয়ন্ত্রণকারী এবং মুক্ত সোর্স আন্দোলনের নেতৃস্থানীয় ব্যক্তি। তিনি ২০১৪ সালে আইইই কম্পিউটার সমিতির কম্পিউটিং অগ্রদূত পুরস্কার লাভ করেন। তার রচিত লিনাক্স কার্নেল পরবর্তীতে লিনাক্স, অ্যান্ড্রয়েড এবং গুগল ক্রোম অপারেটিং সিস্টেমগুলোর ভিত্তি হিসেবে ব্যবহৃত হয়েছে। (সম্পূর্ণ নিবন্ধ...)


নির্বাচিত ছবি

সিগ্রুপস এর উপর ভিত্তি করে কন্টেইনার।

সিগ্রুপস লিনাক্স কার্নেলের একটি অবিচ্ছেদ্য অংশ। কন্টেইনার তাদের উপর ভিত্তি করে হতে পারে।

আপনি কি জানেন?

যা করতে হবে

  • এই প্রবেশদ্বারটি সমৃদ্ধ করতে পারেন।
  • লিনাক্স উইকিপ্রোজেক্ট (ইংরেজি) যোগ দিতে পারেন।
  • আপনার ব্যবহারকারীর পাতায় {{ব্যবহারকারী/লিনাক্স ব্যবহারকারী}} ব্যবহারকারী বাক্সে যোগ করতে পারেন।
  • উইকিপিডিয়াতে লিনাক্স সম্পর্কিত নিবন্ধগুলি উন্নয়নে সহযোগিতা করতে পারেন।

উপবিষয়শ্রেণীসমূহ

বিষয়সমূহ

সম্পর্কিত উইকিমিডিয়া


উইকিসংবাদে লিনাক্স
উন্মুক্ত সংবাদ উৎস


উইকিউক্তিতে লিনাক্স
উক্তি-উদ্ধৃতির সংকলন


উইকিসংকলনে লিনাক্স
উন্মুক্ত পাঠাগার


উইকিবইয়ে লিনাক্স
উন্মুক্ত পাঠ্যপুস্তক ও ম্যানুয়াল


উইকিবিশ্ববিদ্যালয়ে লিনাক্স
উন্মুক্ত শিক্ষা মাধ্যম


উইকিমিডিয়া কমন্সে লিনাক্স
মুক্ত মিডিয়া ভাণ্ডার


উইকিঅভিধানে লিনাক্স
অভিধান ও সমার্থশব্দকোষ


উইকিউপাত্তে লিনাক্স
উন্মুক্ত জ্ঞানভান্ডার


উইকিভ্রমণে লিনাক্স
উন্মুক্ত ভ্রমণ নির্দেশিকা

সার্ভার ক্যাশ খালি করুন