প্রবাহ কোষ গণনা

উইকিপিডিয়া, মুক্ত বিশ্বকোষ থেকে
পরিভ্রমণে ঝাঁপ দিন অনুসন্ধানে ঝাঁপ দিন
বেক্টন ডিকিনসন প্রবাহ কোষ-গণক যন্ত্র

প্রবাহ কোষ-গণনা (ইংরেজি: Flow cytometry) একটি প্রযুক্তি যার সাহায্যে একটি তরলে উপস্থিত বিভিন্ন কণার ভৌত ও রাসায়নিক বৈশিষ্ঠ্যের বিশ্লেষণ করা যাবে।এই প্রযুক্তিতে কোষের উপাদানগুলো প্রথমে প্রতিপ্রভ করা হয় এবং লেজারের(ইংরেজি: Laser) মাধ্যমে বিভিন্ন তরঙ্গদৈর্ঘ্যের আলোকরশ্মি বিকিরণে তাদের উত্তেজিত করা হয়। এই প্রতিপ্রভার সাহায্যে একটি কোষের পরিমাণ ও বৈশিষ্ঠ্য নির্ণয় করা যায়।এই প্রযুক্তি ব্যবহার করে প্রতি সেকেন্ডে ১০০০ কণার বৈশিষ্ঠ্য বিশ্লেষণ করা সম্ভব।

প্রবাহ কোষ-গণনার প্রয়োগ[সম্পাদনা]

লেজার-নির্ভর এই প্রযুক্তি নিম্নলিখিত কার্যপ্রক্রিয়ায় উপযোগী- (১)কোষ-গণনা (২)কোষ-বাছাই (৩)প্রোটিন প্রকৌশল

চিকিৎসা-বিজ্ঞানে প্রবাহ কোষ-গণনার অপরিসীম অবীদান রয়েছে;তার মধ্যে অন্যতম-শ্বেতকণিকাধিক্যঘটিত রক্তাল্পতা নির্ধারন। বিভিন্ন ক্লিনিক্যাল চর্চা ও গবেষণাতেও তার ব্যবহার লক্ষনীয়।

ইতিহাস ও নামকরণ[সম্পাদনা]

১৯৫৩ সালে প্রথম ইম্পিডেন্স-নির্ভর প্রবাহ কোষ-গণনা যন্ত্র ব্যবহৃত হয়। এই যন্ত্রটি কৌল্টার তত্ত্বে নির্মিত। [১] কোষ-বাছাইকারী আধুনিক প্রবাহ কোষ-গণনা যন্ত্রের আবিস্কারক ম্যাক ফুল্উইলার।[২] ওউল্ফগ্যাঙ্গ গোডে বিশ্বের প্রথম প্রতিপ্রভা সক্রিয় প্রবাহ কোষ-গণনা যন্ত্রটি তৈরী করেন ১৯৬৮ সালে।এই যন্ত্রের প্রাথমিক নাম ছিল প্রৈতি কোষ-আলোকামিতি যন্ত্র।১৯৭৬ সালে এই প্রযুক্তি প্রবাহ কোষ-গণনা নামে সুখ্যাতি অর্জন করে।[৩]

আরও তথ্য জন্য Flow cytometry

প্রবাহ কোষ-গণনা যন্ত্র[সম্পাদনা]

প্রবাহ কোষ-গণনা (ফেক্স)

এই যন্ত্রটি প্রতি সেকেন্ডে হাজার হাজার কণার বৈশিষ্ঠ্য বিশ্লেষণ এবং নির্দিষ্ট গুণগত কণা পৃথক করতে সক্ষম।এই ৫টি গঠনকারী অংশ নিয়েই প্রবাহ কোষ-গণনা যন্ত্রটি নির্মিত- (১)প্রবাহ কোষের তরল ধারাঃ এটি কোষগুলোকে শ্রেনীবদ্ধ করে আলোক-মরীচি দিয়ে চালিত করে। (২)পরিমাপ-পদ্ধতিঃ এটি যন্ত্রের পরিবাহিতা নির্ধারণ করতে সাহায্য করে। (৩)অ্যানালগ থেকে ডিজিটাল পরিবর্তকঃএটি প্রতিপ্রভ-সংকেতকে বৈদ্যুতিক সংকেতে পরিবর্তন করে কম্পিউটারে বিশ্লেষণের উপযুক্ত করে তোলে। (৪)পরিবর্ধক যন্ত্রঃএটি সংকেতের তীব্রতা বৃদ্ধি করে। (৫)কম্পিউটারঃএটি সংকেতগুলো বিশ্লেষণে সাহায্য করে।

আধুনিক যন্ত্রগুলোতে বহুসংখ্যক লেজার এবং প্রতিপ্রভা সনাক্তকারী পদ্ধতি ব্যবহৃত হওয়ায় এই প্রযুক্তি আরও পরিপূর্ণতা লাভ করেছে।

প্রবাহ কোষ-গণনার কার্যপ্রক্রিয়া[সম্পাদনা]

প্রদত্ত কোষসমূহকে প্রথমে এক একটি কোষে ভাঙা হয় এবং তাদের টেস্ট-টিউবে নিয়ে প্রবাহ কোষ-গণনা যন্ত্রে রাখা হয়।কোষ সংবলিত এই তরলটি প্রবাহ-কক্ষে প্রবেশ করে। (১)প্রবাহ-কক্ষঃপ্রতি সেকেন্ডে ৫০০ কোষ এই কক্ষ দিয়ে বাহিত হয়;যার মাধ্যমে ধীর গতিতে কোষের গতিপ্রকৃতি লক্ষ্য করা যায়। (২)লেজারঃলেজার-রশ্মি প্রতিটি কোষকে আঘাত করে,যার মাধ্যমে কোষের ভৌত বৈশিষ্ঠ্য সম্পর্কে জানা যায়। (৩)আলো সনা্ক্তকারী যন্ত্রঃএটি আলোক-সংকেতগুলোকে বৈদ্যুতিক সংকেতে পরিবর্তন করে কম্পিউটারে করে কোষের পরিসংখ্যান ও উপাদান সম্পর্কিত তথ্য দেয়। (৪)ফিল্টার/বিশ্লেষকঃএটি প্রতিপ্রভ আলোকরশ্মিকে বর্ণ-সনাক্তকারী যন্ত্রের দিকে পরিচালিত করে। (৫)বর্ণ-সনাক্তকারী যন্ত্রঃএটি প্রতিপ্রভ রশ্মিকে শোনণ করে এবং সেই তথ্য কম্পিউটারে পৌ৺ছে দেয়। (৬)কম্পিউটারঃ২টি সনাক্তকারী যন্ত্র থেকে তথ্য কম্পিউটার বিশ্লেষন করে চূড়ান্ত ফলাফল দেয়।

প্রতিপ্রভা-সক্রিয় কোষ নির্বাচক[সম্পাদনা]

প্রতিপ্রভা-সক্রিয় কোষ নির্বাচক একটি বিশেষ প্রকারের প্রবাহ কোষ গণনা পদ্ধতি যার সাহায্যে প্রতিপ্রভা সংকেতের আরও নি৺খূত ও দ্রুত বিশ্লেষন করা যাবে।প্রতিটি কোষের আলো-বিক্ষিপণ ও প্রতিপ্রভ বৈশিষ্ঠ্যের উপর এর কার্যপ্রক্রিয়া নির্ভর করে।এই যন্ত্রের দ্বারা পরিমেয় পরিমিতিগুলো হল-

  • রক্তে কর্কটরোগ নির্ধারণ
  • উৎসেচকের কার্যপ্রক্রিয়া
  • ক্রোমোজোমের বিশ্লেষন
  • কোষ-ঝিল্লির তরলতা
  • কোষের জীবৎকাল

বিবিধ ক্ষেত্রে প্রবাহ কোষ-গণনা প্রযুক্তির অবদান রয়েছে;যেমন-আণবিক জীববিজ্ঞান,উদ্ভিদ জীববিজ্ঞান,রোগবিজ্ঞান ও সামুদ্রিক জীববিজ্ঞান। চিকিৎসা-শাস্ত্রেও তার অবদান রয়েছে।

তথ্যসূত্র[সম্পাদনা]

  1. টেমপ্লেট:Ref patent
  2. PMID 5891056 (PubMed)
    কয়েক মিনিটের মধ্যে স্বয়ংক্রিয়ভাবে উদ্ধৃতি সম্পন্ন করা হবে। Jump the queue বা expand by hand
  3. DE 1815352, Wolfgang Dittrich & Wolfgang Göhde, "Flow-through Chamber for Photometers to Measure and Count Particles in a Dispersion Medium" 

আরো পড়ুন[সম্পাদনা]

বহিঃসংযোগ[সম্পাদনা]

টেমপ্লেট:Pathology