বিষয়বস্তুতে চলুন

প্রত্যক্ষ পরীক্ষণ

উইকিপিডিয়া, মুক্ত বিশ্বকোষ থেকে

প্রত্যক্ষ পরীক্ষণ (ইংরেজি direct examination) অথবা examination-in-chief হচ্ছে সাক্ষীর কাছ থেকে প্রমাণ নিয়ে আদালতে দাখিলের একটা পর্যায়। ডাইরেক্ট এক্সামিনেশন হচ্ছে যে পক্ষ সাক্ষীকে আদালতের বিচারে সাহায্যের জন্য ডাকে; তাদের দ্বারা সাক্ষীর কাছে প্রশ্নোত্তর। পার্টি (উকিল) যে দাবী আদালতের কাছে পেশ করেছে; সে দাবী যে সঠিক তা সমর্থনের জন্য যে প্রমাণ উপস্থাপন করা হয়; এ প্রক্রিয়াটাই সচরাচর ডাইরেক্ট এক্সামিনেশন হিসেবে পরিচিত।

ডাইরেক্ট এক্সামিনেশনে সাধারণত ইঙ্গিতপূর্ণ প্রশ্ন করা নিষিদ্ধ। এঈ নিষেধাজ্ঞার ফলে উকিল তার মনমত উত্তর সাক্ষী থেকে বের করে নিতে অসমর্থ হয়। তবে এই নিয়মে একটা ব্যতিক্রমও দেখা যায়; যেমন: যে পক্ষ সাক্ষীকে ডেকেছে; যদি দেখা যায় সাক্ষীর বক্তব্য উল্টো সে পক্ষেরই বিপক্ষে যায়; তখন উকিল আদালতের কাছে অনুরোধ করতে পারে; যাতে আদালত সে সাক্ষীকে বৈরী সাক্ষী বলে ঘোষণা দিতে পারে। যদি আদালত সে কাজ করে; তাহলে সেই উকিল সাক্ষীকে প্রত্যক্ষ পরীক্ষনের সময় ইঙ্গিতপূর্ণ প্রশ্ন করতে পারেন।

ট্রায়াল এডভোকেসিতে প্রত্যক্ষ পরীক্ষনের কৌশল পড়ানো হয়।[১] প্রত্যেকটি প্রত্যক্ষ পরীক্ষণ সমগ্র কেসের কৌশলের সাথে অঙ্গাঙ্গীভাবে জড়িত।[২]

আরও দেখুন[সম্পাদনা]

তথ্যসূত্র[সম্পাদনা]

  1. Lubet, Steven; Modern Trial Advocacy, NITA, New York, NY 2004 pp. 45 et. seq. আইএসবিএন ১৫৫৬৮১৮৮৬৬
  2. Dreier, A.S.; Strategy, Planning & Litigating to Win; Conatus, Boston, MA, 2012, pp. 46-73; আইএসবিএন ০৬১৫৬৭৬৯৫২