প্রতিশোধ

উইকিপিডিয়া, মুক্ত বিশ্বকোষ থেকে
প্রতিশোধ
পরিচালকসুখেন দাস
চিত্রনাট্যকারসুখেন দাস
কাহিনিকারবারি দেবী
শ্রেষ্ঠাংশেউত্তম কুমার
সৌমিত্র চট্টোপাধ্যায়
সাবিত্রী চট্টোপাধ্যায়
শুভেন্দু চট্টোপাধ্যায়
সুরকারঅজয় দাস
মুক্তি৩১ জুলাই ১৯৮১
দৈর্ঘ্য১২১ মিনিট
দেশভারত
ভাষাবাংলা

প্রতিশোধ হল একটি জনপ্রিয় বাংলা চলচ্চিত্র যা পরিচালনা করেন সুখেন দাস[১] এই চলচ্চিত্রটি ১৯৮১ সালে রত্না ফিল্মস কর্পোরেশন ব্যানারে মুক্তি পেয়েছিল এবং এই চলচ্চিত্রটি সংগীত পরিচালনা করেছিলেন অজয় দাস[২] এই চলচ্চিত্রটির মুখ্য চরিত্রে অভিনয় করেন উত্তম কুমার, মহুয়া রায়চৌধুরী, সৌমিত্র চট্টোপাধ্যায়, সাবিত্রী চট্টোপাধ্যায়, শুভেন্দু চট্টোপাধ্যায়[৩]


কাহিনী[সম্পাদনা]

বড় ভাই, হীরেনবাবু (উত্তম কুমার) অসুস্থ হয়ে পড়েন এবং তার সম্পত্তি তার ছোট ভাইয়ের হাতে তুলে দেন। ছোট ভাই তার বড় ভাইকে প্রতারণা করে। সে তার বড় ভাইকে হত্যার ষড়যন্ত্র করে এবং তার ভাগ্নেকে জেলে পাঠায়। ভাগ্নে তখন জেল থেকে ফিরে দেখে সব বদলে গেছে। তার মামা আরও দুষ্ট হয়ে উঠেছে। এরপর কেষ্টোদার সাথে তার বন্ধুত্ব হয়। তিনি তার স্ত্রীকে এমন জায়গায় পাঠান যেখানে সে সুরক্ষিত থাকে কারণ সে সত্য জানে। তার ভাগ্নে রঞ্জন (সুখেন দাস) জেলে ক্যারাটে চ্যাম্পিয়নের সাথে বন্ধুত্ব করে। তিনি যুদ্ধের সমস্ত কৌশল শিখেছেন এবং প্রতিশোধের জন্য প্রস্তুত। কেষ্টোদা চুরি করতে গিয়ে ধরা পড়ে কারণ সে তার বোনকে সনাতন বাবুর কবল থেকে বাঁচাতে চায় যে অর্থের বিনিময়ে কেষ্টোর বোনকে একজন বৃদ্ধ লোকের সাথে বিয়ে দিতে বাধ্য করে। সে এমন করছে যেহেতু বৃদ্ধ লোকটি সনাতন বাবুর চাকর এবং সে কেষ্টের বোনকে বিয়ে করতে চায়। তবে সুখেন দাস সান্তনাম বাবুর কবল থেকে রক্ষা করেন। ইতিমধ্যে হীরেনবাবু, যাকে মৃত বলে মনে করা হয়েছিল তাকে জীবিত পাওয়া গেলেও তার স্মৃতিশক্তি হারিয়েছে। সে এদিক ওদিক ভিক্ষা করে খাবার চায়। অবশেষে একদিন যখন পুলিশ অফিসার এবং সনাতন বাবু ফিরছেন তখন হীরেনবাবুর সাথে দুর্ঘটনা ঘটে। ফলে সে তার স্মৃতি ফিরে পায়। সনাতন বাবু তাকে আবার মেরে ফেলার চেষ্টা করেন কিন্তু এবার রঞ্জন তাকে রক্ষা করেন। অবশেষে, ছোটু (সাবিত্রী চ্যাটার্জি) সনাতন বাবুর স্ত্রীও রঞ্জনের দ্বারা মুক্তি পায়। সে পুলিশকে সত্য বিবৃতি দেয় এবং সনাতন বাবুকে অবশেষে জেলে পাঠানো হয়।


শ্রেষ্ঠাংশে[সম্পাদনা]

সাউন্ডট্রাক[সম্পাদনা]

সবগুলি গানের সুরকার অজয় দাস

গান
নং.শিরোনামশিল্পীদৈর্ঘ্য
১."ভাইয়ের কপালে দিলাম ফোঁটা"অরুন্ধতী হোম চৌধুরী২:৪৯
২."কী বিষের ছোবল দিবি"মান্না দে২:৪৪
৩."শুধু ব্যাথার আঘাতে বারে বারে"হেমন্ত মুখোপাধ্যায়৩:৩১
৪."গাজনে নাচন কোঁদন"তরুণ ব্যানার্জী , শ্যামাশ্রী মজুমদার৩:৫২
৫."আজ মিলন তিথির পূর্নিমা চাঁদ"কিশোর কুমার ৪:২২
৬."হয় তো আমাকে কারো মণে নেই"কিশোর কুমার ৩:৫০

[৪]


তথ্যসূত্র[সম্পাদনা]

  1. FilmiClub। "Pratishodh (1981)"FilmiClub (ইংরেজি ভাষায়)। সংগ্রহের তারিখ ২০২২-০৪-০১ 
  2. "Pratisodh (1981) Movie: Watch Full Movie Online on JioCinema"Jiocinema (ইংরেজি ভাষায়)। সংগ্রহের তারিখ ২০২২-০৪-০১ 
  3. "Pratisodh (1981) - Review, Star Cast, News, Photos"Cinestaan। সংগ্রহের তারিখ ২০২২-০৪-০১ 
  4. https://www.jiosaavn.com/album/pratisodh/65EUL7ctmgs_

বহিঃসংযোগ[সম্পাদনা]