পেনাল্টি কার্ড

উইকিপিডিয়া, মুক্ত বিশ্বকোষ থেকে
একটি ফুটবল খেলায় হলুদ কার্ড দেখানো হয়েছে

পেনাল্টি কার্ড হল এমন একটি কার্ড, যেটি কোনও খেলায় খেলোয়াড়, কোচ বা টিম আধিকারিককে দেখানো হয়, সতর্কতা, তিরস্কার ও দণ্ড দেওয়ার উপায় হিসাবে। পেনাল্টি কার্ডগুলি সাধারণত ব্যবহার করে রেফারী বা আম্পায়াররা। এটি দেখিয়ে বোঝানো হয় যে কোনও খেলোয়াড় কোনও অপরাধ করেছে। কর্মকর্তা কার্ডটি নিজের মাথার উপরে ধরে রাখবেন এবং যে অপরাধ করেছে তার দিকে তাকাবেন বা নির্দেশ করবেন। এই প্রক্রিয়ায় সিদ্ধান্তটি সমস্ত খেলোয়াড়, দর্শক এবং অন্যান্য কর্মকর্তাদের কাছে ভাষা-নিরপেক্ষভাবে পরিষ্কার করে তোলে। আধিকারিকের দ্বারা ব্যবহৃত কার্ডের রঙ বা আকারটি অপরাধের ধরন বা গুরুত্ব এবং শাস্তির যে স্তর প্রয়োগ করতে হবে তা নির্দেশ করে। হলুদ এবং লাল কার্ড হল সাধারনত ব্যবহৃত কার্ড, যে দুটি যথাক্রমে সতর্কতা এবং বহিষ্কার নির্দেশ করে।

ইতিহাস এবং উৎস[সম্পাদনা]

ফুটবল খেলায় রেফারির অভিপ্রায় জানাতে ভাষা-নিরপেক্ষ রঙিন কার্ড ব্যবহার করার ধারণার উদ্ভাবক ইংলিশ রেফারি কেন অ্যাস্টন[১] অ্যাস্টনকে ফিফা রেফারি কমিটিতে নিয়োগ দেওয়া হয়েছিল এবং ১৯৬৬ ফিফা বিশ্বকাপে সকল রেফারির জন্য তিনি দায়বদ্ধ ছিলেন। কোয়ার্টার ফাইনালে, ইংল্যান্ড আর্জেন্টিনার বিরুদ্ধে ওয়েম্বলি স্টেডিয়ামে খেলেছিল। ম্যাচের পরে, সংবাদপত্রের প্রতিবেদনে উল্লেখ করা হয়েছিল যে রেফারি রুডলফ ক্রেইটলিন ইংরেজ পক্ষের ববিজ্যাক চার্লটনকে সতর্ক করেছিলেন এবং আর্জেন্টিনার আন্তোনিও র‍্যাটিনকে বহিষ্কার করেছিলেন। খেলা চলাকালীন রেফারির সিদ্ধান্ত পরিষ্কার করে বোঝা যায়নি, সুতরাং ইংল্যান্ডের ব্যবস্থাপক অ্যাল্ফ র‍্যামসে ম্যাচ পরবর্তী স্পষ্টিকরণের জন্য ফিফার প্রতিনিধিটির কাছে যান। এই ঘটনার পর অ্যাস্টন চিন্তা করতে শুরু করেন কিভাবে খেলোয়াড় এবং দর্শক উভয়ের কাছেই রেফারির সিদ্ধান্তগুলি আরও পরিষ্কার করে বোঝানো যায়। অ্যাস্টন বুঝতে পেরেছিলেন যে ট্র্যাফিক লাইটের ভাষা নীতিগুলি (হলুদ - নিরাপদ হলে থামুন, লাল - থামিয়ে দিন) ভাষার বাধা অতিক্রম করবে এবং পরিষ্কার বোঝা যাবে যে কোনও খেলোয়াড়কে সতর্ক করা হল না বহিষ্কার করা হল।[১] ফলস্বরূপ, মেক্সিকোতে ১৯৭০ ফিফা বিশ্বকাপে প্রথমবারের মতো বহিষ্কারের ইঙ্গিত করার জন্য লাল কার্ড এবং সতর্কতা চিহ্নিত করার জন্য হলুদ কার্ড ব্যবহার করা হয়েছিল। পেনাল্টি কার্ডের ব্যবহারটি তখন থেকেই গৃহীত হয়েছে এবং বিভিন্ন ক্রীড়া নিয়মাবলী দ্বারা প্রসারিত হয়েছে। প্রতিটি খেলাধুলা তার নির্দিষ্ট নিয়ম বা আইনগুলির ওপর ভিত্তি করে এই কার্ডের ব্যবহারকে অভিযোজিত করেছে।

সাধারণত ব্যবহৃত পেনাল্টি কার্ড[সম্পাদনা]

হলুদ কার্ড[সম্পাদনা]

হলুদ কার্ড বেশ কয়েকটি খেলাতে ব্যবহৃত হয় এবং বেশিরভাগ ক্ষেত্রে সতর্কতা বা অস্থায়ী বহিষ্করণ নির্দেশ করে

একটি হলুদ কার্ড বিভিন্ন ক্রীড়া নিয়মাবলীতে ব্যবহৃত হয়। বিভিন্ন খেলাধুলায় এর অর্থ বিভিন্ন প্রকার; তবে এটি সাধারণত খেলোয়াড়কে তার আচরণ সম্পর্কে সতর্কতা নির্দেশ করে বা অস্থায়ী বহিষ্করণ নির্দেশ করে। উদাহরণের মধ্যে আছে:

  • ফুটবল: কোনও খেলোয়াড়কে আইনসম্মতভাবে সতর্ক করা হয়েছে তা বোঝাতে রেফারি একটি হলুদ কার্ড ব্যবহার করেন।[২] এরপরে খেলোয়াড়ের বিবরণ তিনি একটি ছোট নোটবুকে লিখে রাখেন;

সুতরাং সতর্ক করাকে "সংরক্ষণ" হিসাবেও মনে করা যায়। যে খেলোয়াড়কে সতর্ক করা হয়েছে সে খেলা চালিয়ে যেতে পারে; তবে, যে খেলোয়াড় খেলার মধ্যে দ্বিতীয় সতর্কতা পায় তাকে বহিষ্কার করা হয় (আবার হলুদ কার্ড দেখানো হয় এবং তারপরে একটি লাল কার্ড), এর অর্থ সেই খেলোয়াড়কে তৎক্ষণাৎ মাঠ ছেড়ে চলে যেতে হবে এবং সে আর খেলায় অংশ নিতে পারবে না। অন্য কোন বিকল্প খেলোয়াড় দ্বারা এই খেলোয়াড়ের প্রতিস্থাপন করা যাবে না। খেলার আইনের ১২ নম্বর ধারায় (যা আন্তর্জাতিক ফুটবল অ্যাসোসিয়েশন বোর্ড দ্বারা ঠিক করা হয়েছে এবং ফিফা দ্বারা ব্যবহৃত হয়েছে) অপরাধ ও অসদাচরণের প্রকারগুলি তালিকাভুক্ত করা হয়েছে যেগুলির জন্য সতর্ক করতে হবে বা সতর্কতামূলক। এতে আরও বলা হয়েছে যে "কেবলমাত্র একজন খেলোয়াড়, বিকল্প, বিকল্প খেলোয়াড় বা দলের আধিকারিক" সতর্ক হতে পারে।[২]

ক্রিস্তিয়ানো রোনালদোকে হলুদ কার্ড দেখানো হয়েছে
বেশিরভাগ প্রতিযোগিতামূলক খেলায়, বেশ কয়েকটি খেলার পর একটি নির্দিষ্ট সংখ্যক হলুদ কার্ড জমা হওয়ার ফলে পরবর্তীকালের খেলার জন্য একটি নির্দিষ্ট সংখ্যক আপত্তিজনক খেলোয়াড়কে অযোগ্য ঘোষণা করা হয়,

অধিক্ষেত্র অনুসারে কার্ড এবং খেলার সঠিক সংখ্যা পরিবর্তিত হয়।

আরও তথ্যের জন্য হলুদ কার্ড দেখুন
  • অ্যাথলেটিক্স: ট্র্যাক ইভেন্টগুলিতে, একটি হলুদ কার্ড ট্র্যাক এবং ফিল্ড উভয় ক্ষেত্রে ব্যক্তিগত সতর্কতা হিসাবে ব্যবহৃত হয়। এটি বোঝায় যে একটি দ্বিতীয় হলুদ কার্ড দেখানো হলে অযোগ্যতা ঘটবে।[৩] আইএএএফ বিধিতে ভুল পদক্ষেপ সতর্কতা বাতিল করা হয়েছে; ভুল শুরু করলে এখন সংযুক্ত ইভেন্টগুলি বাদে অন্য ক্ষেত্র তাৎক্ষণিকভাবে অযোগ্য করে দেওয়া হয়, এবং সংযুক্ত ইভেন্টে একটি তির্যক হলুদ / কালো কার্ড দেখিয়ে ভুল পদক্ষেপের জন্য সতর্কতা নির্দেশ করা হয়।[৪] তবে, ২০১২ সাল অনুযায়ী, ভুল পদক্ষেপের নিয়মটি হল,- ভুল পদক্ষেপ ঘোষণা করতে গেলে বন্দুকের গুলির আগেই কোনও অ্যাথলিটের হাত অবশ্যই ট্র্যাক থেকে উঠে যেতে হবে বা তার পা অবশ্যই প্রারম্ভিক ব্লক থেকে সরে যাবে। অতএব, কোনও অ্যাথলিট যদি তাদের চূড়ান্ত 'সেট' অবস্থানে থাকাকালীন একটি আকস্মিক টান দেয় তবে তার সর্বাধিক শাস্তি হলুদ কার্ড।

আরো দেখুন[সম্পাদনা]

তথ্যসূত্র[সম্পাদনা]

  1. "Ken Aston – the inventor of yellow and red cards"। fifa.com। সংগ্রহের তারিখ ফেব্রুয়ারি ২০, ২০১৩ 
  2. "Laws of the Game"। fifa.com। সংগ্রহের তারিখ জুন ৬, ২০০৮ 
  3. "IAAF Starting Guidelines" (PDF) 
  4. "IAAF sanctions immediate disqualification for false starts come January"The Daily Telegraph। London। আগস্ট ১২, ২০০৯। সংগ্রহের তারিখ আগস্ট ২৫, ২০১৫