পার্সি বিশি শেলি

উইকিপিডিয়া, মুক্ত বিশ্বকোষ থেকে
পরিভ্রমণে ঝাঁপ দিন অনুসন্ধানে ঝাঁপ দিন
পার্সি বিশি শেলি (Percy Bysshe Shelley)
পার্সি বিশি শেলি। আলফ্রেড ক্লিন্টের আঁকা।
পার্সি বিশি শেলি। আলফ্রেড ক্লিন্টের আঁকা।
জন্ম(১৭৯২-০৮-০৪)৪ আগস্ট ১৭৯২
ইংল্যান্ড হরসেম, সাসেক্স, ইংল্যান্ড
মৃত্যু৮ জুলাই ১৮২২(1822-07-08) (বয়স ২৯)
ইতালি ইতালি
পেশাকবি
সাহিত্য আন্দোলনRomanticism
উল্লেখযোগ্য রচনাবলিOde To The West Wind, To The Skylark, Music

পার্সি বিশি শেলি ১৭৯২ সালের ৪ই আগস্ট সাসেক্সের হরসেমে জন্মগ্রহণ করেন। তার বাবা ছিলেন একজন সংসদ সদস্য। শেলি ইটন এবং অক্সফোর্ড বিশ্ববিদ্যালয়ে শিক্ষা গ্রহণ করেন। অক্সফোর্ডে এসে শেলি প্রগতিবাদী লেখক যেমন, টম পেইন এবং উইলিয়াম গডউইনের লেখাসমূহ পড়া শুরু করেন। ১৮১১ সালে নাস্তিকতাকে সমর্থন করে একটি পুস্তিকা লেখার জন্য সে বিশ্ববিদ্যালয় থেকে বহিষ্কৃত হয়।

তিনি উনিশ শতকের প্রথম দিকের একজন ইংরেজি কবি ছিলেন। তিনি ইংরেজ সাহিত্যে রোমান্টিক আন্দোলনের সবচেয়ে গুরুত্বপূর্ণ কবিদের মধ্যে ভাবা হয়। তার কিছু কবিতা,Ozymandias ও Ode to the West Wind, ইংরেজিতে অন্যতম বিখ্যাত কবিতা হিসেবে ধরা হয়।[১] [২]

ইতালি উপকূলে একটি নৌকা দুর্ঘটনায় মাত্র ত্রিশ বছর বয়সে তিনি অকাল মৃত্যুবরণ করেন।

জীবন[সম্পাদনা]

শিক্ষা[সম্পাদনা]

বাড়িতে শিক্ষা জীবন শুরু হয় শেলীর ,পরে তাকে Syon House academy তে পাঠানো হয়। তারপর তাকে ১৮০৪ সালে Eton এ পাঠানো হয় ,যেখানে লাজুক শেলী হয়ে উঠেন "খ্যাপা শেলী"। সেখানে তিনি Zastrozzi[৩] এর মতন লেখনি লিখেন।

তার ম্যাট্রিকুলেশন সম্পন্ন হয় University College,Oxford হতে ১৮১০ সালে।

সেই বছরেই "The Necessity of Atheism" পুস্তিকা প্রকাশের জন্য তাকে ও তার বন্ধু Thomas Jefferson Hogg কে বহিস্কার করা হয়।

বিয়ে[সম্পাদনা]

শেলী হ্যারিয়েট ওয়েস্টব্রূক নামক এক রমনীর প্রেমে পড়েন ,যে একজন অবসর প্রাপ্ত হোটেল কিপারের মেয়ে ছিলেন ।

তারা ১৮১১ সালে পালিয়ে গিয়ে এডিনবার্গ নামক জায়গায় বিয়ে করেন । ১৮১৩ সালে তাদের লন্ডনে একটি বাচ্চা হয় । তারপরেই শেলীর দীর্ঘ কবিতা Queen Mab [৪] কবিতা টি প্রকাশিত হয় । ইতিমধ্যে, হ্যারিয়েটের সাথে বিবাহ একটি ব্যররথতা প্রমাণিত হয়েছিল ।১৮১৪ সালে ,শেলি উইলিয়াম ও মেরি ওলস-টোমক্রাফট গডউইনের মেয়ে মেরির সাথে দেখা করেছিলেন।

মেরি তার বিশ্বাস ভাগ করে নিয়েছিলেন যে বিবাহটি কেবল মাত্র একটি স্বেচ্ছাসেবী চুক্তি ছিল মাত্র ।

তারপরেই শেলী আর মেরি গডউইন সুইজারল্যান্ড এ পালিয়ে যান, কিন্তু Mary Godwin সঙ্গে পালানোর জন্য তার স্ত্রীকে ছেড়ে যান। শেলি এর প্রথম স্ত্রী আত্মহত্যা করার পরে, শেলি Mary Godwin বিয়ে করেন; যিনি পরে ফ্রাংকেনস্টাইন লেখক মেরি শেলি হিসাবে বিখ্যাত হয়ে ওঠেন।

তথ্যসূত্র[সম্পাদনা]

  1. https://0.freebasics.com/xupsells/?encryptedcontinueuri=https%3A%2F%2Fbooks.google.co.uk%2Fbooks%3Fid%3DyTY6AAAAcAAJ%26pg%3DPA323&encryptedbackuri=https%3A%2F%2Fhttps-en-m-wikipedia-org.0.freebasics.com%2Fwiki%2FSpecial%3AMobileCite%2F893144236&why=not_zero_rated&no_header=1%7CLife of Percy Bysshe Shelley
  2. Bbc History- Percy Bysshe Shelley (1792-1822)
  3. SHELLEY, PERCY. (২০১৯)। ZASTROZZI.। BLURB। আইএসবিএন 0-464-19995-6ওসিএলসি 1090285745 
  4. Shelley and the Revolutionary Idea। Cambridge, MA and London, England: Harvard University Press। আইএসবিএন 978-0-674-42994-9