পাটীগণিত

উইকিপিডিয়া, মুক্ত বিশ্বকোষ থেকে
Jump to navigation Jump to search
১৮৩৫ সালে প্রকাশিত শিশুদের জন্য পাটিগণিতের একটি বই

পাটিগণিত হচ্ছে গণিতের অন্যতম প্রাচীন একটি শাখা যেখানে বস্তুর গণনা সংক্রান্ত হিসাব নিকাশ যোগ বিয়োগ গুণ ভাগের মাধ্যমে সরাসরি করা হয়। পদ্যে রচিত একটি পাটিগণিতের সমস্যা এ রকম:

চৌবাচ্চা ছিল এক প্রকাণ্ড বিশাল
দুই নলে জল আসে সকাল-বিকাল
এক নলে পূর্ণ হতে বিশ মিনিট লাগে
অন্য নলে পূর্ণ হয় না আধা ঘণ্টার আগে
চৌবাচ্চা পূর্ণের সময় করোগো নির্ণন
দুই নল খুলে দিলে লাগে কতক্ষণ।[১]

উৎপত্তি[সম্পাদনা]

পাটীগণিত গণিতের একটি শাখা। প্রাচীন কাল থেকে মানুষ নানান রকমের হিসাব-নিকাশ করেছে বিভিন্ন পদ্ধতিতে । পাটীগণিত সেসব পদ্ধতির মধ্যে অন্যতম। প্রাচীন কালের অনেক মণীষী পাটিগণিতের উৎকর্ষ সাধন করে। তাদের মধ্যে পিথাগোরাস, গ্যালিলিও, মহাবীর, রামানুজন প্রমুখ উল্লেখযোগ্য।


ইতিহাস[সম্পাদনা]

যাদবের পাটিগণিত[সম্পাদনা]

ভারতীয় উপমহাদেশের বিশিষ্ট গণিতবিদ ছিলেন যাদব চন্দ্র চক্রবর্তী যিনি সচারচর যাদব বাবু নামে অভিহিত ছিলেন। ব্রিটিশ সরকার তাকে “গণিত সম্রাট” উপাধি দিয়েছিল।[২] ১৮৯০ সালে তিনি প্রকাশ করেন গণিতশাস্ত্রের অন্যতম শ্রেষ্ঠ বই “Arithmetic”। এটি সাধারণ্যে “যাদবের পাটিগণিত” হিসেবে পরিচিতি লাভ করে। এটি বিভিন্ন ভাষায় অনূদিত হয় এবং বিভিন্ন দেশে পাঠ্যপুস্তক হিসেবে গৃহীত হয়।[৩]

ডায়োফেন্টাসের সমীকরণ[সম্পাদনা]

বিস্তার[সম্পাদনা]

আরও দেখুন[সম্পাদনা]

তথ্যসূত্র[সম্পাদনা]

  1. আনন্দবাজার পত্রিকা
  2. "বাংলার"গণিত সম্রাট"যাদব চন্দ্র চক্রবর্তী" 
  3. প্রথম আলো