পাঞ্জিরি

উইকিপিডিয়া, মুক্ত বিশ্বকোষ থেকে
পরিভ্রমণে ঝাঁপ দিন অনুসন্ধানে ঝাঁপ দিন
পাঞ্জিরি
Panjeeri
প্রকারমিষ্টান্ন
উৎপত্তিস্থলপাকিস্তানের পাঞ্জাব
প্রধান উপকরণআটা, চিনি, ঘি, শুকনো ফল, ভেষজ গঁদ
রন্ধনপ্রণালী: পাঞ্জিরি  মিডিয়া: পাঞ্জিরি

পাঞ্জিরি পাঞ্জাব অঞ্চলের পাকিস্তানী এবং ভারতীয় ঋতু প্রধান খাবার,[১] যেটি একটি পুষ্টিকর সম্পূরক হিসাবে গণ্য করা হয়। এটি গমের আটা, চিনি এবং ভাজা ঘি থেকে তৈরি করা হয়, যার মধ্যে প্রচুর পরিমাণে শুকনো ফল, ভেষজ গঁদ মেশান হয়। এটি সাধারণত শীতকালে ঠান্ডা দূর করতে খাওয়া হয়। পাঞ্জিরি গরম খাবার হিসেবে বিবেচনা করা হয় এবং স্তন্য দুগ্ধ উৎপাদনে এটি সাহায্য করে, তাই পাঞ্জিরি, নবজাতক/জাতিকার মাকে খাওয়ান হয়। এটা প্রাচীন কালে হিন্দুরা হাজার হাজার বছর ধরে ব্যবহার করেছেন, বহু শতাব্দী পরে শিখরা ব্যবহার করতে আরম্ভ করেন। পূজার প্রসাদ হিসাবেও পাঞ্জিরি ব্যবহৃত হয়।

উপকরণ[সম্পাদনা]

রন্ধন প্রণালী[সম্পাদনা]

  • মোটা কড়াইতে ৫০০ গ্রাম ঘি গরম করতে হবে।
  • একের পর এক শুকনো ফলগুলি সোনালি-বাদামী হওয়া অবধি ভাজতে হবে। প্রথমে বাদাম, কাজু বাদাম, আখরোট,পেস্তা, মাখানা এবং শেষে মগজ(খরমুজের ছাড়ান বীজ)। কাগজে অতিরিক্ত তেল বার করে দেবার জন্য সরিয়ে রাখতে হবে।
  • ওই একই ঘিতে পলাশ ভেজে নিতে হবে।
  • এরপর নারকেল কুচিগুলি ভেজে নিতে হবে।
  • খরমুজার দানা ছাড়া সমস্ত ভাজা শুকনো ফলগুলি মোটামুটি গুঁড়ো করতে হবে। একটি বড়ো প্যানে শুকনো ফল গুড়ো, নারকেল কুচি ও মগজ মিশিয়ে রেখে দিতে হবে। পলাশকেও মিহি গুড়ো করে সরিয়ে রাখতে হবে।
  • বাকী ঘিতে আটাকে রোস্ট করতে হবে সোনালি রঙের হওয়া পর্যন্ত এবং যতক্ষণ না ঘি আটার থেকে আলাদা হয়ে যায়।
  • আঁচ কম করে গুঁড়ানো গঁদের ক্রিস্টালগুলিকে ভাজা আটার ওপর ছড়িয়ে দিতে হবে, যতক্ষণ না ক্রিস্টালগুলি ফেপে ওঠে ও চড়চড় করা বন্ধ হয়।
  • সটের গুড়ো ও জোয়ান ভাজা আটার মধ্যে মিশিয়ে,সমস্ত মিশ্রণটিকে নাড়তে হবে, যতক্ষণ সমস্ত উপকরণগুলি ভাল করে মিশে যায়।
  • আঁচ বন্ধ করে মিশ্রণটি আরও ৫-১০ মিনিট নাড়তে হবে।
  • এবার শুকনো ফল গুঁড়ো,মগজ,চিনি এবং পলাশ, ভাজা আটার মিশ্রণের সঙ্গে ভাল করে মেশাতে হবে। মিশ্রণটি বড় পাত্রে রেখে ঠাণ্ডা করতে হবে।
  • মিশ্রণটি এয়ারটাইট পাত্রে ভরে রাখতে হবে।

আরো দেখুন[সম্পাদনা]

তথ্যসূত্র[সম্পাদনা]

টেমপ্লেট:ভারতীয় খাবারের পদ টেমপ্লেট:পাকিস্তানি খাবারের পদ