পাঞ্জাব সরকার (ভারত)

উইকিপিডিয়া, মুক্ত বিশ্বকোষ থেকে
পরিভ্রমণে ঝাঁপ দিন অনুসন্ধানে ঝাঁপ দিন
পাঞ্জাব সরকার
Emblem-Punjab-Protocol-Manual-page98-appendix12.svg
সরকারের আসনচণ্ডীগড়
কার্যনির্বাহী
রাজ্যপালভিপি. সিং বদনোর
মুখ্যমন্ত্রীঅমরিন্দর সিং
প্রধান সচিব করণ অবতার সিং [১]
আইনসভা
বিধানসভা
স্পিকাররানা কানওয়ার পাল সিং
ডেপুটি স্পিকারআজাইব সিং ভাট্টি
বিধানসভার সদস্য১১৭
বিচারালয়
উচ্চ আদালতপাঞ্জাব ও হরিয়ানা উচ্চ ন্যায়ালয়
প্রধান বিচারপতিরবি শঙ্কর ঝা

পাঞ্জাব সরকার হচ্ছে ভারতের পাঞ্জাব রাজ্য তথা এর অন্তর্ভুক্ত ২২টি জেলার সর্বোচ্চ শাসনতান্ত্রিক কর্তৃপক্ষ। এটি পাঞ্জাব রাজ্য সরকার কিংবা স্থানীয়ভাবে রাজ্য সরকার হিসাবেও পরিচিত। পাঞ্জাব সরকার একজন রাজ্যপালের নেতৃত্বে নির্বাহী বিভাগ, একটি বিচার বিভাগ এবং পাঞ্জাব। বিধানসভা নামে একটি আইনসভা নিয়ে গঠিত। চণ্ডীগড় ভারতের একটি কেন্দ্রশাসিত অঞ্চল হলেও এটি একই সাথে হরিয়ানা এবং পাঞ্জাব রাজ্যের রাজধানী এবং এখানে রাজ্যের বিধানসভা (আইনসভা) এবং সচিবালয় অবস্থিত।

নির্বাহী বিভাগ[সম্পাদনা]

ভারতের অন্যান্য রাজ্যের মতো পাঞ্জাব রাজ্যের প্রধান হলেন রাজ্যপাল (গভর্নর)। তিনি কেন্দ্রীয় সরকারের পরামর্শে রাষ্ট্রপতি কর্তৃক নিযুক্ত হন। তিনি পাঞ্জাবের সাংবিধানিক প্রধান হওয়ায় তার পদটি মূলত আনুষ্ঠানিক। বর্তমানে ভিপি. সিং বদনোর পাঞ্জাবের রাজ্যপাল হিসেবে দায়িত্ব পালন করছেন।

অন্যদিকে কংগ্রেস নেতা অমরিন্দর সিং হচ্ছেন পাঞ্জাবের বর্তমান মুখ্যমন্ত্রী। মুখ্যমন্ত্রী হলেন সরকারের নির্বাহী প্রধান এবং তার উপরেই সরকারের নির্বাহী ক্ষমতার বেশিরভাগই ন্যস্ত থাকে। মুখ্যমন্ত্রী এবং তার নিয়োগকৃত মন্ত্রিসভার মাধ্যমে পাঞ্জাবের প্রশাসনিক কার্যক্রম পরিচালিত হয়ে থাকে।

আইনবিভাগ[সম্পাদনা]

পাঞ্জাবের বর্তমান বিধানসভাটি এককক্ষবিশিষ্ট। পাঞ্জাব বিধানসভা মোট ৬০ জন বিধায়কের (সদস্য বা এম.এল.এ) সমন্বয়ে গঠিত। কোন কারণে নির্দিষ্ট সময়ের আগে বিধানসভা ভেঙ্গে না গেলে এর মেয়াদ ৫ বছর।[২]

বিচার বিভাগ[সম্পাদনা]

পাঞ্জাবহরিয়ানার রাজধানী চণ্ডীগড়ে পাঞ্জাব ও হরিয়ানা উচ্চ ন্যায়ালয় অবস্থিত। এই আদালত পাঞ্জাবহরিয়ানা রাজ্যে উদ্ভূত মামলাগুলির ক্ষেত্রে এখতিয়ার এবং ক্ষমতা প্রয়োগ করে।[৩]

২০১৭ সালের বিধানসভা নির্বাচনের মন্ত্রিপরিষদ[সম্পাদনা]

২০১৭ সালের বিধানসভা নির্বাচনে কংগ্রেস পাঞ্জাব বিধানসভায় মোট ৮০টি আসন জয়লাভের ফলে সংখ্যাগরিষ্ঠতা অর্জন করে সরকার গঠন করে।

নীচে বর্তমান সরকারের মন্ত্রিপরিষদের মন্ত্রীর তালিকা এবং তাদের বিভাগ দেওয়া রয়েছে। এই তালিকায় এপ্রিল ২০১৮ এ অন্তর্ভুক্ত ৯ জন নতুন মন্ত্রী এবং তাদের বরাদ্দকৃত বিভাগও অন্তর্ভুক্ত রয়েছে।[৪]

নাম বিধানসভা আসন দল দপ্তর
অমরিন্দর সিং পাটিয়ালা শহর ভারতীয় জাতীয় কংগ্রেস মুখ্যমন্ত্রী, প্রশাসনিক সংস্কার, কৃষি ও কৃষক কল্যাণ, উদ্যান, জমি ও জলা সংরক্ষণ, আবগারি ও কর, সাধারণ প্রশাসন, স্বরাষ্ট্র ও বিচার, আইন ও আইন বিষয়ক বিষয়, নজরদারি, কর্মী, নাগরিক বিমান, প্রতিরক্ষা সেবা কল্যাণ, আতিথেয়তা, বিনিয়োগ প্রচার, তথ্য ও জনসম্পর্ক, পরিবেশ, বন্যজীবন, এনআরআই বিষয়ক
চরণজীত সিং চন্নী চামকৌর সাহিব ভারতীয় জাতীয় কংগ্রেস স্থানীয় সরকার, পর্যটন ও সাংস্কৃতিক বিষয়, কারিগরি শিক্ষা ও শিল্প প্রশিক্ষণ প্রতিষ্ঠান, কর্মসংস্থান সৃষ্টি
ব্রহ্ম মহিন্দ্র পাতিয়ালা গ্রামীণ ভারতীয় জাতীয় কংগ্রেস স্বাস্থ্য ও পরিবার কল্যাণ, চিকিৎসা শিক্ষা ও গবেষণা, সংসদীয় বিষয়াদি, নির্বাচন, অভিযোগ দূরীকরণ
মনপ্রীত সিং বাদল বাথিন্দা শহর ভারতীয় জাতীয় কংগ্রেস অর্থ, পরিকল্পনা, কর্মসূচি বাস্তবায়ন, শাসন সংস্কার
সাধু সিং ধরমসৎ নাভা ভারতীয় জাতীয় কংগ্রেস বন এবং বন্যজীবন, মুদ্রন ও স্টেশনারি, এসসি ও বিসি কল্যাণ
ত্রিপত রাজিন্দর সিং বাজওয়া ফতেহগড় চুরিয়ান ভারতীয় জাতীয় কংগ্রেস পল্লী উন্নয়ন ও পঞ্চায়েত, আবাসন ও নগর উন্নয়ন
অরুণা চৌধুরী দিনা নগর ভারতীয় জাতীয় কংগ্রেস সামাজিক সুরক্ষা, মহিলা ও শিশু উন্নয়ন, পরিবহন
রাজিয়া সুলতানা মালেরকোটলা ভারতীয় জাতীয় কংগ্রেস জল সরবরাহ ও স্যানিটেশন (জনস্বাস্থ্য), উচ্চ শিক্ষা
বলবীর সিং সিধু সাহিবজাদা অজিত সিং নগর ভারতীয় জাতীয় কংগ্রেস পশুপালন ও দুগ্ধ উন্নয়ন, শ্রম
সুখবিন্দর সিং সরকারিয়া রাজা সানসি ভারতীয় জাতীয় কংগ্রেস রাজস্ব, পুনর্বাসন ও দুর্যোগ ব্যবস্থাপনা, পানি সম্পদ
সুখজিন্দর সিং রন্ধাওয়া ডেরা বাবা নানক ভারতীয় জাতীয় কংগ্রেস সহযোগিতা, জেল
বিজয় ইন্দর সিংলা সানগ্রুর ভারতীয় জাতীয় কংগ্রেস গণপূর্ত, তথ্য প্রযুক্তি, শিক্ষা
ভারত ভূষণ আশু লুধিয়ানা পশ্চিম ভারতীয় জাতীয় কংগ্রেস খাদ্য ও নাগরিক সরবরাহ, ভোক্তা বিষয়াদি
সুন্দর শাম অরোরা হোশিয়ারপুর ভারতীয় জাতীয় কংগ্রেস শিল্প ও বাণিজ্য
ওম প্রকাশ সোনি মধ্য অমৃতসর ভারতীয় জাতীয় কংগ্রেস স্কুল শিক্ষা, স্বাধীনতা সংগ্রামী
রানা গুরমিত সিং সোধি গুরু হার সাহাই ভারতীয় জাতীয় কংগ্রেস যুব ও ক্রীড়া বিষয়াদি
গুরপ্রীত সিং কাঙ্গার রামপুরা ফুল ভারতীয় জাতীয় কংগ্রেস শক্তি, নব্য ও নবায়নযোগ্য শক্তির উৎস

বিধানসভার বর্তমান বিরোধী দল[সম্পাদনা]

পাঞ্জাব বিধানসভায় প্রধান বিরোধী দল হচ্ছে আম আদমি পার্টি এবং বিরোধী দলনেতা হরপাল সিং চিমা[৫] এবং সরবজিৎ কৌর মানুকে হচ্ছেন বিরোধী দলের উপ-নেতা।[৬] ২০১৭ সালের বিধানসভা নির্বাচনে দলটি ২০টি আসন জিতেছিল। কিন্তু বর্তমানে বিধানসভায় আম আদমি পার্টি মোট ১৯জন বিধায়ক রয়েছে।

আম-আদমি পার্টি সহ অন্য বিরোধীদলগুলো হলো:

দল বিধায়ক সংখ্যা বিধানসভায় নেতা
আম আদমি পার্টি ১৯ হরপাল সিং চিমা
শিরোমণি অকালী দল ১৪ সুখবীর সিং বাদল
ভারতীয় জনতা পার্টি দিনেশ সিং
লোক ইনসাফ পার্টি সিমরজিৎ সিং বাইনস

বিভাগ এবং এজেন্সি[সম্পাদনা]

আরও দেখুন[সম্পাদনা]

তথ্যসূত্র[সম্পাদনা]

  1. Govt. of Punjab
  2. "Punjab Legislative Assembly"Legislative Bodies in India। National Informatics Centre, Government of India। সংগ্রহের তারিখ ২০০৮-০৫-১২ 
  3. "Jurisdiction and Seats of Indian High Courts"। Eastern Book Company। সংগ্রহের তারিখ ২০০৮-০৫-১২ 
  4. New Cabinet Ministers of Punjab
  5. "AAP removes Khaira, appoints Harpal Cheema as leader of opposition"। The Tribune। ২০১৮-০৭-২৭। সংগ্রহের তারিখ ২০১৮-০৭-২৭ 
  6. "AAP's new leaders after election" 

বহিঃসংযোগ[সম্পাদনা]