পাইকপাড়া ইউনিয়ন

উইকিপিডিয়া, মুক্ত বিশ্বকোষ থেকে
Jump to navigation Jump to search
পাইকপাড়া
ইউনিয়ন
পাইকপাড়া ইউনিয়ন।
নাম: ৪ নং পাইকপাড়া ইউনিয়ন।
Bangladesh adm location map.svg
বাংলাদেশে পাইকপাড়া ইউনিয়নের অবস্থান
পাইকপাড়া সিলেট বিভাগ-এ অবস্থিত
পাইকপাড়া
পাইকপাড়া
পাইকপাড়া বাংলাদেশ-এ অবস্থিত
পাইকপাড়া
পাইকপাড়া
বাংলাদেশে পাইকপাড়া ইউনিয়নের অবস্থান
স্থানাঙ্ক: ২৪.২০৮৩° উত্তর ৯১.৫২২২° পূর্ব
দেশ  বাংলাদেশ
বিভাগ সিলেট বিভাগ
জেলা হবিগঞ্জ জেলা
উপজেলা চুনারুঘাট উপজেলা উইকিউপাত্তে এটি সম্পাদনা করুন
স্থাপিত ১৯৯৯
সরকার
 • ইউপি চেয়ারম্যান আলহজ্ব শামসুজ্জামান শামীম। (স্বতন্ত্র প্রার্থী)
স্বাক্ষরতার হার
 • মোট ১৮.১%
সময় অঞ্চল বিএসটি (ইউটিসি+৬)
পোস্ট কোড ৩৩২০
ওয়েবসাইট [http:/paikparaup.habiganj.gov.bd/ ইউনিয়ন তথ্য বাতায়ন]

লুয়া ত্রুটি মডিউল:মানচিত্রের_কাঠা এর 184 নং লাইনে: attempt to perform arithmetic on local 'lat_d' (a nil value)।

পাইকপাড়া ইউনিয়ন বাংলাদেশের হবিগঞ্জ জেলার একটি প্রশাসনিক এলাকা। }}

গণপ্রজাতন্ত্রী বাংলাদেশ সরকারের সীল.svg পাইকপাড়া ইউনিয়ন বাংলাদেশর চুনারুঘাট উপজেলার একটি প্রশাসনিক এলাকা।বাংলাদেশে পাইকপাড়া ইউনিয়নর অবস্থান স্থানাঙ্ক: ২৪°১২′৩৪″ উত্তর ৯১°৩১′১১″ পূর্ব

শিক্ষার হারঃ: ১৮.১%

আয়তন: ১১,১১৩ একর (৫২.৪বর্গ কিলোমিটার)। ইউনিয়ন এর মধ্যে ৪৫২৬ টি ঘরের ইউনিট আছে।

   শিক্ষা প্রতিষ্ঠান
  1. আলহাজ্ব মোজাফফর উদ্দীন উচ্চ বিদ্যালয়

নাম করন[সম্পাদনা]

অতি প্রাচীনকালে (খোয়াই) নদীপথে প্রচুর চুনা পাথর আসত। ব্যবসায়ীগণ এখানে এসে চুনা পাথর ক্রয় বিক্রয় করতেন। প্রথমে লোকে বলত চুনা পাথরের ঘাট, পরে এটি হয়ে যায় ঐতিহ্যবাহী জনপদ ।

অর্থনীতি[সম্পাদনা]

শ্রমশক্তি

পেশা ভিত্তিক জনগোষ্ঠী - কৃষি ৪২.২৬%, কৃষি শ্রমিক ২০.৫৫%, অকৃষি শ্রমিক ৬.৪৫%, ব্যবসা ৮.২%, চাকরি ৪.৬৯%, শিল্প ১.৭%, মত্সজীবী ২.৭৩%, অন্যান্য ১৩.৪২%।

শিল্প

শিল্প-কারখানাঃ টেক্সটাইল মিল, সিরামিক কারখানা, খাদ্য প্রক্রিয়াজাত করন কারখানা, ছাতা কারখানা, আটা কল, চাল কল, আইস ফ্যাক্টরী, সাবান কারখানা, শুকনো মাছ প্রক্রিয়াজাতকরণ কেন্দ্র, বিস্কুট ফ্যাক্টরী। কুটির শিল্পঃ ওয়েভিং, বাঁশের কাজ, স্বর্ণকার, কর্মকার, কুমার, সেলাই এবং ওয়েল্ডিং।

খনিজ

প্রাকৃতিক গ্যাস, সিলিকা বালি, খনিজ বালি।

গ্যাস ক্ষেত্রঃ ৩টি; রশিদপুর গ্যাস ক্ষেত্র (১৯৬০), বিবিয়ানা গ্যাস ক্ষেত্র (১৯৯৮) এবং হবিগঞ্জ গ্যাস ক্ষেত্র (১৯৬৩)। এই গ্যাস ক্ষেত্রগুলির আনুমানিক সর্বমোট মজুদ ৫.৫ ট্রিলিয়ন কিউবিক ফুট।
বাণিজ্য

রপ্তানী পন্যঃ ধান, মাছ, চিংড়ি, ব্যাঙ-এর পা, শুকনো মাছ, চা, পান পাতা, গুড়, রবার, বাঁশ, প্রাকৃতিক গ্যাস, তেল এবং টেক্সটাইল। জেলার মাথাপিছু আয় ৩৪৯০ ডলার। ইন্ডাস্ট্রিয়াল পার্ক গড়ে তোলা হয়েছে। এই অঞ্চলে বেশ কিছু শিল্প কারখানা গড়ে উঠেছে। এদের মধ্যে স্টার সিরামিকস, প্রাণ আর এফ এল ইত্যাদি উল্লেখযোগ্য।


জনসংখ্যার উপাত্ত[সম্পাদনা]

মোট জনসংখ্যা ২,৬৭,০২০ জন (প্রায়), এর মধ্যে পুরুষ ১,৩৫,১২০ জন এবং মহিলা ১,৩১,৯০০ জন। জনসংখ্যার ঘনত্ব প্রায় ৪৭২ জন/ বর্গকিমি।

খেলাধুলা[সম্পাদনা]

শিক্ষা মুলক সংস্থা[সম্পাদনা]

কৃতী ব্যক্তিত্ব[সম্পাদনা]

  1. শাহ্‌ ইসমাঈল তালুকদার, প্রখ্যাত সংগীত শিল্পী, পরিচালক।

village[সম্পাদনা]

  1. paikpara
  2. goneshpur
  3. noabad
  4. abad
  5. ujjalpur
  6. gajipur
  7. sotong
  8. nijmagurunda
  9. juarmagurunda
  10. borodhulia

Fidåå (আলাপ) @shah