পলাতকা (কাব্যগ্রন্থ)

উইকিপিডিয়া, মুক্ত বিশ্বকোষ থেকে
পলাতকা
লেখকরবীন্দ্রনাথ ঠাকুর
দেশভারত
ভাষাবাংলা
ধরনকবিতা
প্রকাশনার তারিখ
১৯১৮
পলাতকা-রবীন্দ্রনাথ ঠাকুর

পলাতকা হল রবীন্দ্রনাথ ঠাকুর কর্ত্তৃক রচিত একটি বাংলা কাব্যগ্রন্থ।[১][২] এটি ১৯১৮ সালে প্রকাশিত হয়। [১][২] এটি রবীন্দ্রনাথের কাব্য রচনার "বলাকা পর্ব"-এর অন্তর্গত একটি উল্লেখযোগ্য সৃষ্টি।[১]

পটভূমি[সম্পাদনা]

"পলাতকা" কাব্যগ্রন্থটি রচনা করার ক্ষেত্রে রবীন্দ্রনাথকে প্রধানত দুটি গুরুত্বপূর্ণ বিষয় প্রভাবিত করেছিল– (১) সমগ্র দেশব্যাপী রাজনৈতিক উত্তেজনা এবং (২) নারীদের করুণ সামাজিক অবস্থা। এই গ্রন্থে কবির বিদ্রোহের দৃষ্টিভঙ্গী এবং সমাজজীবন সম্পর্কে তাঁর সংবেদনশীলতার কথা গভীরভাবে পরিলক্ষিত হয়।[২][৩]

কবিতার তালিকা[সম্পাদনা]

এতে থাকা কবিতাগুলি হল:

  • পলাতকা
  • চিরদিনের দাগা
  • মুক্তি
  • ফাঁকি
  • মায়ের সম্মান
  • নিষ্কৃতি
  • মালা
  • ভোলা
  • ছিন্ন পত্র
  • কালো মেয়ে
  • আসল
  • ঠাকুরদাদার ছুটি
  • হারিয়ে-যাওয়া
  • শেষ গান
  • শেষ প্রতিষ্ঠা

তথ্যসূত্র[সম্পাদনা]

  1. বাংলা সাহিত্যের ইতিবৃত্ত, ড. দুলাল চক্রবর্তী, জুলাই - ২০০৭, বাণী বিতান।
  2. "দৈনিক জনকন্ঠ || ২৫ বৈশাখ স্মরণে ॥ রবীন্দ্রনাথের 'পলাতকা' নারী নিপীড়নের চিত্র"দৈনিক জনকন্ঠ। সংগ্রহের তারিখ ২০২০-০৭-২৮ 
  3. Noble, Barnes &। "Palataka ( Bengali Edition )|Paperback"Barnes & Noble (ইংরেজি ভাষায়)। সংগ্রহের তারিখ ২০২০-০৭-২৮ 

বহিঃসংযোগ[সম্পাদনা]