ন্যাশনাল লীগ ফর ডেমোক্র্যাসি

উইকিপিডিয়া, মুক্ত বিশ্বকোষ থেকে
সরাসরি যাও: পরিভ্রমণ, অনুসন্ধান
ন্যাশনাল লীগ ফর ডেমোক্র্যাসি (এনএলডি)
အမျိုးသား ဒီမိုကရေစီ အဖွဲ့ချုပ်
ইংরেজি নাম ন্যাশনাল লীগ ফর ডেমোক্র্যাসি
বর্মী নাম အမျိုးသား ဒီမိုကရေစီ အဖွဲ့ချုပ်
এমেরিটাস চেয়ারম্যান তিন ও
সভানেত্রী অং সান সু কি
প্রতিষ্ঠা ২৭ সেপ্টেম্বর ১৯৮৮ (১৯৮৮-০৯-২৭)
সদর দপ্তর ৯৭বি ওয়েস্ট শিগনদিং রোড,[১] বাহান টাউনশীপ, ইয়াংগুন, মায়ানমার (বার্মা)
মতাদর্শ সামরিক একনায়কতন্ত্র বিরোধী,
গণতান্ত্রিক সাম্যবাদ,[২]
উদারবাদী গণতন্ত্র
আন্তর্জাতিক অধিভুক্তি সোশ্যালিস্ট ইন্টারন্যাশনাল,[৩]
প্রগেসিভ অ্যালায়েন্স,[৪]
লিবারেল ইন্টারন্যাশনাল (পর্যবেক্ষক)[৫]
অ্যামিওথা হুত্তে আসন সংখ্যা
৪ / ২২৪
পিথু হুত্তে আসন সংখ্যা
৩৭ / ৪৪০
ওয়েবসাইট
www.nldofficial.org

ন্যাশনাল লীগ ফর ডেমোক্র্যাসি (বর্মী: အမျိုးသား ဒီမိုကရေစီ အဖွဲ့ချုပ်, আইপিএ: [ʔəmjóðá dìmòkəɹèsì ʔəpʰwḛdʑoʊʔ]) মায়ানমারের (বার্মা) প্রধান রাজনৈতিক দল। গণতান্ত্রিক সামাজিক-উদার রাজনৈতিক দল হিসেবে ২৭ সেপ্টেম্বর, ১৯৮৮ তারিখে প্রতিষ্ঠা করা হয়। সোশ্যালিস্ট ইন্টারন্যাশনালের[৬][৭] বিশেষ সম্মানসূচক সভাপতি ও নোবেল শান্তি পুরস্কার বিজয়ী অং সান সু কি দলটির মহাসচিব হিসেবে দায়িত্ব পালন করছেন।

ইতিহাস[সম্পাদনা]

১৯৯০ সালে বার্মার সাধারণ নির্বাচনে নিরঙ্কুশ সংখ্যাগরিষ্ঠতা লাভ করে দলটি। কিন্তু ক্ষমতাসীন সামরিক একনায়কতান্ত্রিক সরকার ঐ ফলাফল প্রত্যাখ্যান করে। নভেম্বর, ২০১০ সালে নির্বাচনের জন্য নিবন্ধিত না হবার ঘোষণার প্রেক্ষিতে[৮] ৬ মে, ২০১০ তারিখে দলটিকে অবৈধ ঘোষণা করা হয়।

নভেম্বর, ২০১১ সালে ভবিষ্যতের নির্বাচনে প্রতিদ্বন্দ্বিতার লক্ষ্যে এনএলডি রাজনৈতিক দলরূপে ইচ্ছা প্রকাশ করে। ১৩ ডিসেম্বর, ২০১১ তারিখে বার্মার ইউনিয়ন নির্বাচন কমিশন তাদের আবেদনের প্রেক্ষিতে নিবন্ধিত করে।[৯] ২০১২ সালের উপ-নির্বাচনে কিয়ার ফিউ পার্টি এসএনডিপি’র কাছে একটিমাত্র আসনে পরাজিত হয়। দলটি ৪৪ আসনের বিপরীতে ৪৩টি জয় করে।[১০] দল নেতা অং সান সু কি কমু আসন থেকে বিজয়ী হন।[১১]

১৯৯০ সালের সংসদীয় নির্বাচনে ৫৯% ভোট পেয়ে ৩৯২ আসনে জয় পায়। তন্মধ্যে ক্ষমতাসীন ন্যাশনাল ইউনিটি পার্টি ১০ আসনে জয় পেয়েছিল।[১২] কিন্তু স্লর্ক নামের ক্ষমতাসীন সামরিকবাহিনী সরকার গঠনে এনএলডিকে আমন্ত্রণ জানায়নি।[১৩] নির্বাচনের পর দলটি দমন-নিপীড়নে পড়ে ও ১৯৮৯ সালে সু কি’কে গৃহে অন্তরীণ করে রাখা হয়। এনএলডি’র একদল জ্যেষ্ঠ সদস্য গ্রেফতার থেকে দূরে থাকেন ও জাতীয়ভাবে জোট সরকার গঠন করে।

২০১৫ সালের সাধারণ নির্বাচনে জাতীয় পরিষদের উভয় কক্ষে নিরঙ্কুশ সংখ্যাগরিষ্ঠতা অর্জন করে। এরফলে দীর্ঘ কয়েক দশক সামরিক আইনের অবসান ঘটিয়ে দেশটি গণতন্ত্রের দিকে ধাবিত হবে।

তথ্যসূত্র[সম্পাদনা]

  1. Frangos, Alex; Patrick Barta (৩০ মার্চ ২০১২)। "Once-Shunned Quarters Becomes Tourist Mecca"। Wall Street Journal। সংগৃহীত ২ এপ্রিল ২০১২ 
  2. http://www.broadleft.org/mm.htm
  3. http://www.socialistinternational.org/viewArticle.cfm?ArticleID=282
  4. http://progressive-alliance.info/participants/
  5. http://www.liberal-international.org/site/Observer_Members.html
  6. http://www.socialistinternational.org/viewArticle.cfm?ArticleID=1951
  7. http://library.fes.de/pdf-files/iez/06070.pdf
  8. "National League for Democracy disbanded in Myanmar"। Haiti News। ৪ মে ২০১০। সংগৃহীত ১১ নভেম্বর ২০১০ 
  9. Suu Kyi's Myanmar opposition party wins legal status, The Associated Press, 13 December 2011
  10. "It is the victory of the people: Aung San Suu Kyi on Myanmar – World News – IBNLive"। Ibnlive.in.com। ১০ মে ২০১১। সংগৃহীত ৫ এপ্রিল ২০১২ 
  11. "The disappearing virtual library – Opinion"। Al Jazeera English। সংগৃহীত ৫ এপ্রিল ২০১২ 
  12. Houtman, Daigaku & Kenkyūjo, 1999, p. 1
  13. Junta must free Burma's leading lady, The Australian, 19 May 2009

গ্রন্থপঞ্জী[সম্পাদনা]

বহিঃসংযোগ[সম্পাদনা]