ন্যাশনাল ইনস্টিটিউট অব নিউরোসায়েন্সেস ও হাসপাতাল

উইকিপিডিয়া, মুক্ত বিশ্বকোষ থেকে
পরিভ্রমণে ঝাঁপ দিন অনুসন্ধানে ঝাঁপ দিন
ন্যাশনাল ইনস্টিটিউট অব নিউরোসায়েন্সেস ও হাসপাতাল
ন্যাশনাল ইনস্টিটিউট অব নিউরোসায়েন্সেস ও হাসপাতালের মনোগ্রাম.jpg
প্রতিষ্ঠিত২০১২
পরিচালককাজী দীন মোহাম্মদ
অবস্থান
আগারগাঁও, শেরেবাংলা নগর
, ,
ওয়েবসাইটhttp://www.nins.gov.bd

ন্যাশনাল ইনস্টিটিউট অব নিউরোসায়েন্সেস ও হাসপাতাল বাংলাদেশ সরকার পরিচালিত আগারগাঁওয়ে অবস্থিত একটি পূর্ণাঙ্গ স্নায়ুবিজ্ঞান প্রতিষ্ঠান। স্নায়ুরোগ বিশেষজ্ঞ অধ্যাপক কাজী দীন মোহাম্মদ প্রতিষ্ঠানটির প্রতিষ্ঠাতা পরিচালক।[১][২]

ইতিহাস[সম্পাদনা]

১০ তলা ভবনে ৩শ' বেডের অত্যাধুনিক নিউরো সায়েন্স ইনস্টিটিউটটি সম্পূর্ণ সরকারি অর্থায়নে আগারগাঁওয়ে ২০০৩ সালে পূর্ণাঙ্গ নিউরোসায়েন্স ইনস্টিটিউট করার লক্ষ্যে স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয় থেকে প্রকল্প হাতে নেয়া হয়। ২০০৯ সালে নিউরোলজি ও নিউরো সার্জারি বিষয়ক পূর্ণাঙ্গ চিকিত্সা সেবা দেশে প্রতিষ্ঠা করার কার্যক্রম শুরু করা হয়। ২০১২ সালের সেপ্টেম্বর মাসে উদ্বোধনের মধ্য দিয়ে ইনস্টিটিউটটি চালু করা হয়। এই ইনস্টিটিউটটি প্রতিষ্ঠায় ব্যয় হয় ২৩১ কোটি টাকা। সিঙ্গাপুর, যুক্তরাষ্ট্র ও যুক্তরাজ্যের আদলে নিউরো সায়েন্স ইনস্টিটিউটের অপারেশন ও চিকিত্সা সেবা চালু করা হয়। চিকিৎসাসেবার পাশাপাশি প্রতি বছর নিউরোলজি ও নিউরো সার্জারি বিষয়ক উচ্চতর ডিগ্রিধারী বিশেষজ্ঞ তৈরি হচ্ছে ইনস্টিটিউটটিতে।[৩][৪]

বিভাগ[সম্পাদনা]

  • নিউরোলজি বিভাগ
  • নিউরোসার্জারি বিভাগ
  • পেডিয়াট্রিক নিউরোলজি বিভাগ
  • পেডিয়াট্রিক নিউরোসার্জারি বিভাগ
  • নিউরোফিজিওলজি বিভাগ
  • নিউরইনটার্নেশন বিভাগ
  • নিউরোরিহেবিটেশন বিভাগ
  • নিউরোরেডিওলজি বিভাগ
  • নিউরোপ্যাথোলজি বিভাগ
  • ট্রান্সফিউশন মেডিসিন বিভাগ
  • ক্রিটিকাল কেয়ার মেডিসিন বিভাগ
  • কার্ডিওলজি বিভাগ
  • নিউরো-অ্যানাস্থেসিয়া বিভাগ
  • পরীক্ষাগার বিজ্ঞান বিভাগ

আরো দেখুন[সম্পাদনা]

তথ্যসূত্র[সম্পাদনা]

  1. "National Institute of Neurosciences and Hospital – NINS | ShopnoBaz"shopnobaz.com (ইংরেজি ভাষায়)। ২০১৭-০৪-২২ তারিখে মূল থেকে আর্কাইভ করা। সংগ্রহের তারিখ ২০১৭-০৪-২৩ 
  2. nins। "Home"www.nins.com.bd (ইংরেজি ভাষায়)। ২০১৭-০৪-২২ তারিখে মূল থেকে আর্কাইভ করা। সংগ্রহের তারিখ ২০১৭-০৪-২৩ 
  3. "উন্নত চিকিৎসা, তবে শয্যা সঙ্কটে নিউরোসায়েন্স হাসপাতাল || শেষের পাতা"জনকন্ঠ। সংগ্রহের তারিখ ২০১৯-০৭-০৯ [স্থায়ীভাবে অকার্যকর সংযোগ]
  4. "বহির্বিভাগের রোগীরা সন্তুষ্ট"প্রথম আলো। সংগ্রহের তারিখ ২০১৯-০৭-০৯ 

বহিঃসংযোগ[সম্পাদনা]