নৈশকালীন শৈশ্নিক স্ফীতাবস্থা

উইকিপিডিয়া, মুক্ত বিশ্বকোষ থেকে

নৈশকালীন শৈশ্নিক স্ফীতাবস্থা হল ঘুমের সময় এবং জেগে ওঠার সময় মানব শিশ্নের স্বতঃস্ফূর্ত উত্থান। একে নিদ্রা-সম্পর্কিত উত্থান, সকালের মহিমা বা সকালের কাঠ-ও বলা হয়ে থাকে।[১] শারিরতাত্ত্বিক লিঙ্গোত্থান সমস্যা বা গভীর হতাশা বিহীন পুরুষগণ[২] এই অভিজ্ঞতা লাভ করেন, সাধারণত একবার ঘুমের সময় তিন থেকে পাচবার, মূলত ক্রমাগত চোখের সরণজনিত ঘুমের সময়।[৩] এটি শিশ্নের স্বাস্থ্য ভালো রাখতে অবদান রাখে বলে বিশ্বাস করা হয়।[৪]

তথ্যসূত্র[সম্পাদনা]

  1. Schmidt, Markus H; Schmidt, Helmut S (মার্চ ২০০৪)। "Sleep-related erections: Neural mechanisms and clinical significance"। Current Neurology and Neuroscience Reports4 (2): 170–178। এসটুসিআইডি 26939007ডিওআই:10.1007/s11910-004-0033-5পিএমআইডি 14984691 
  2. Thase, Michael E.; Reynolds, Charles F.; Jennings, J. Richard; Frank, Ellen; Howell, Joseph R.; Houck, Patricia R.; Berman, Susan; Kupfer, David J. (১৯৮৮-০৫-০১)। "Nocturnal penile tumescence is diminished in depressed men"Biological Psychiatry (ইংরেজি ভাষায়)। 24 (1): 33–46। আইএসএসএন 0006-3223এসটুসিআইডি 24315629ডিওআই:10.1016/0006-3223(88)90119-9পিএমআইডি 3370276 
  3. "Tests for Erection Problems"WebMD, Inc। সংগ্রহের তারিখ ২০০৭-০৩-০৩ 
  4. Why guys rise and, well, rise in the morning?, The Body Odd, NBC News, October 2010