নুরুজ্জামান আহমেদ

উইকিপিডিয়া, মুক্ত বিশ্বকোষ থেকে
পরিভ্রমণে ঝাঁপ দিন অনুসন্ধানে ঝাঁপ দিন
নুরুজ্জামান আহমেদ
Nuruzzaman Ahmed MP.jpg
সমাজকল্যাণ মন্ত্রণালয়ের মন্ত্রী
দায়িত্বাধীন
অধিকৃত কার্যালয়
৭ জানুয়ারি ২০১৯
সমাজকল্যাণ মন্ত্রণালয়ের প্রতিমন্ত্রী
কাজের মেয়াদ
১৯ জুন ২০১৬ – ৬ জানুয়ারি ২০১৯
পূর্বসূরীসৈয়দ মহসিন আলী
উত্তরসূরীরাশেদ খান মেনন
খাদ্য মন্ত্রণালয়ের
কাজের মেয়াদ
১৪ জুলাই ২০১৫ – ১৯ জুন ২০১৬
উত্তরসূরীকামরুল ইসলাম
লালমনিরহাট-২ আসনেরের সংসদ সদস্য
ব্যক্তিগত বিবরণ
জন্ম (1950-01-03) জানুয়ারি ৩, ১৯৫০ (বয়স ৬৯)
লালমনিরহাট, বাংলাদেশ
জাতীয়তাবাংলাদেশ
রাজনৈতিক দলবাংলাদেশ আওয়ামী লীগ
পিতাকরিম উদ্দিন আহমেদ
শিক্ষাস্নাতক
পেশারাজনীতিবিদ
ধর্মইসলাম

নুরুজ্জামান আহমেদ (৩ জানুয়ারি ১৯৫০) একজন বাংলাদেশী রাজনীতিবিদ এবং সমাজকল্যাণ মন্ত্রণালয়ের দায়িত্বপ্রাপ্ত মন্ত্রী।[১] তিনি ২০১৪ ও ২০১৮ সালের যথাক্রমে দশম ও একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনে বাংলাদেশ আওয়ামী লীগের মনোনয়নে লালমনিরহাট-২ (কালীগঞ্জ-আদিতমারী) আসন থেকে সংসদ সদস্য নির্বাচিত হন।[২]

প্রারম্ভিক জীবন[সম্পাদনা]

নুরুজ্জামান আহমেদ ১৯৫০ সালের ৩ জানুয়ারি লালমনিরহাট জেলার কালীগঞ্জ উপজেলার কাশিরাম গ্রামে জন্মগ্রহণ করেন।[৩] তার পিতার নাম করিম উদ্দিন আহমেদ ও মাতার নাম নূরজাহান বেগম। করিম উদ্দিন আহমেদও লালমনিরহাট-২ আসন থেকে ১৯৭০১৯৭৩-এর নির্বাচনে সংসদ সদস্য নির্বাচিত হন।

নুরুজ্জামান আহমেদ স্থানীয় বিদ্যালয়ে তার শিক্ষাজীবন শুরু করেন। ১৯৬৫ সালে তুষভান্ডার উচ্চ বিদ্যালয় থেকে মাধ্যমিক সম্পন্ন করেন। ১৯৬৭ সালে উচ্চ মাধ্যমিক সম্পন্ন করে কারমাইকেল কলেজে ভর্তি হন এবং ব্যবসায়ে স্নাতক সম্পন্ন করেন।[৩]

রাজনৈতিক জীবন[সম্পাদনা]

নুরুজ্জামান আহমেদ পারিবারিকভাবেই রাজনীতির সাথে সম্পৃক্ত ছিলেন। ছাত্রজীবনে তিনি বাংলাদেশ ছাত্রলীগে যোগদানের মাধ্যমে সক্রিয় রাজনীতিতে প্রবেশ করেন। রাজনৈতিক জীবনের শুরুতে স্থানীয় উনিয়ন পরিষদ চেয়ারম্যান হিসেবে ১৯৮৩ থেকে ১৯৯০ সাল পর্যন্ত দায়িত্ব পালন করেন। এরপর ১৯৯০ সালে কালীগঞ্জ উপজেলার চেয়ারম্যান নির্বাচিত হন এবং ২০০৯ সালে দ্বিতীয়বারের মত নির্বাচিত হন।[৩]

২০১৪ সালের দশম জাতীয় সংসদ নির্বাচনে নুরুজ্জামান আহমেদ আওয়ামী লীগের মনোনীত প্রার্থী হিসেবে লালমনিরহাট-২ (কালীগঞ্জ-আদিতমারী) আসন থেকে প্রথমবারের মত জাতীয় সংসদের সদস্য নির্বাচিত হন।[৪] ২০১৮ সালের একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনে একই আসন থেকে তিনি আওয়ামী লীগের প্রার্থী হিসেবে মনোনয়ন পান।[৪]

সংসদ সদস্য হওয়ার এক বছর পর ২০১৫ সালের ১৪ই জুলাই তিনি খাদ্য মন্ত্রণালয়ের প্রতিমন্ত্রী হিসেবে দায়িত্ব গ্রহণ করেন।[৫] ২০১৬ সালের ১৯শে জুন তাকে সমাজকল্যাণ মন্ত্রণালয়ের প্রতিমন্ত্রী হিসেবে নিযুক্ত করা হয়। একই বছরের ২১শে জুন থেকে ৬ জানুয়ারি ২০১৯ পর্যন্ত এ দায়িত্ব পালন করেন।[৩][৫] একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনে জয়ী হওয়ার পর তিনি একই মন্ত্রণালয়ের মন্ত্রী হিসেবে ২০১৯ সালের ৭ জানুয়ারি থেকে দায়িত্ব পালন করছেন।

ব্যক্তিগত জীবন[সম্পাদনা]

ব্যক্তিগত জীবনে নুরুজ্জামান আহমেদ, হোসনে আরা বেগমের সাথে বিবাহ বন্ধনে আবদ্ধ হন।[৩] এই দম্পতির তিন সন্তান রয়েছে।[৩]

তথ্যসূত্র[সম্পাদনা]

  1. প্রতিবেদক, নিজস্ব (২২ জুন ২০১৬)। "সমাজকল্যাণ মন্ত্রণালয়ের প্রতিমন্ত্রী হিসেবে যোগ দিলেন নুরুজ্জামান আহমেদ"বণিক বার্তা। ২০১৮-১২-২০ তারিখে মূল থেকে আর্কাইভ করা। সংগ্রহের তারিখ ১৫ ডিসে ২০১৮ 
  2. নুরুজ্জামান আহমেদ, লালমনিরহাট-২। "Constituency 17_10th_Bn"। সংগ্রহের তারিখ ২০১৮-০১-২২ 
  3. "নুরুজ্জামান আহমেদ এম.পি"msw.gov.bd। ৯ জানুয়ারি ২০১৮। ২০ ডিসেম্বর ২০১৮ তারিখে মূল থেকে আর্কাইভ করা। সংগ্রহের তারিখ ২০ ডিসেম্বর ২০১৮ 
  4. "নুরুজ্জামান আহমেদ"প্রথম আলো। ১০ নভে ২০১৮। সংগ্রহের তারিখ ১৫ ডিসে ২০১৮ [স্থায়ীভাবে অকার্যকর সংযোগ]
  5. "খাদ্যের নুরুজ্জামান হলেন সমাজকল্যাণ প্রতিমন্ত্রী"bangla.bdnews24.com। ১৪ জুলাই ২০১৫। সংগ্রহের তারিখ ১৫ ডিসে ২০১৮