নির্দোষ অতিক্রমণ

উইকিপিডিয়া, মুক্ত বিশ্বকোষ থেকে
পরিভ্রমণে ঝাঁপ দিন অনুসন্ধানে ঝাঁপ দিন
১৯৮৮ সালের ১২ ফেব্রুয়ারি যুক্তরাষ্ট্র নৌবাহিনীর ক্রুজার ইউএসএস ইয়র্কশায়ার সোভিয়েত জলসীমায় তার "নির্দোষ অতিক্রমণের অধিকার" অনুশীলনের সময় সোভিয়েত ফ্রিগেট বেজাভেৎনি (ডানে) সোভিয়েত জলসীমা থেকে তাকে আন্তর্জাতিক জলসীমায় হঠিয়ে দেওয়ার জন্য ইচ্ছাকৃতভাবে চাপ প্রয়োগ শুরু করে। এ ঘটনা ঠাণ্ডা যুদ্ধের সর্বশেষ ঘটনা হিসেবে পরিচিত।

নির্দোষ অতিক্রমণ (Innocent passage) আন্তর্জাতিক সমুদ্র আইন অনুসারে একটি বিশেষ ধারণা যে ধারণা মোতাবেক এক দেশের জলযান বিশেষ কিছু বিধিনিষেধ সাপেক্ষে অন্য দেশের আঞ্চলিক জলসীমার মধ্য দিয়ে চলাচল করতে পারবে। ১৯৮২ সালে সাক্ষরিত আন্তর্জাতিক সমুদ্র আইন বিষয়ক জাতিসংঘ কনভেনশনের ১৭ নম্বর অনুচ্ছেদ অনুসারে, সকল রাষ্ট্রের জলযান আঞ্চলিক সমুদ্রের মধ্য দিয়ে নির্দোষ অতিক্রমণ করতে পারবে।[১] ১৮ নম্বর অনুচ্ছেদে অতিক্রমণ (passage) বলতে অভ্যন্তরীণ জলরাশিতে প্রবেশ না করে অথবা তার বাইরে নোঙর স্থাপন বা বন্দরের সুযোগসুবিধা গ্রহণ না করে শুধু আঞ্চলিক সমুদ্র পাড়ি দেওয়া এবং অভ্যন্তরীণ জলরাশি, নোঙর করার স্থান ও বন্দর অভিমুখে যাত্রা না করাকে বোঝায়। অতিক্রমণ অবশ্যই দ্রুত ও ধারাবাহিক হতে হবে। জলযান থামানো বা নোঙর করা যাবে না। কিন্তু সাধারণ নৌ চলাচল প্রসঙ্গে অথবা গুরুতর বিপর্যয় কিংবা দৈব দূর্বিপাকের কারণে অথবা বিপন্ন দুর্দশাগ্রস্ত কোন ব্যক্তি, বিমান বা জাহাজকে সাহায্য করার জন্য যতটুকু প্রয়োজন কেবল ততটুকুই নোঙর করা যেতে পারে। এছাড়া যতক্ষণ পর্যন্ত অতিক্রমণ উপকূলীয় রাষ্ট্রের শান্তি-শৃঙ্ক্ষলা অথবা নিরাপত্তার জন্য ক্ষতিকর হবে না, ততক্ষণ পর্যন্ত তা নির্দোষ বলে গণ্য হবে। অতিক্রমণ কনভেনশন ও আন্তর্জাতিক আইনের অন্যান্য নিয়মানুসারে করতে হবে।

তবে কোন বিদেশী জাহাজ যদি আঞ্চলিক সমুদ্রে এমন কোন কাজ করে যা উপকূলীয় রাষ্ট্রের শান্তি শৃঙ্ক্ষলা অথবা নিরাপত্তার জন্য ক্ষতিকর হয়, তবে অতিক্রমণটি নির্দোষ হবে না। ১৯ নম্বর অনুচ্ছেদে এ বিষয়ে বিস্তারিত বর্ণনা করা হয়েছে।

তথ্যসূত্র[সম্পাদনা]

  1. "UN Convention on the Law of the Sea: PART II, TERRITORIAL SEA AND CONTIGUOUS ZONE"। United Nations। সংগ্রহের তারিখ ২৭ সেপ্টেম্বর ২০১৩