নিউক্লিয়ার ব্ল্যাস্ট রেকর্ডস

উইকিপিডিয়া, মুক্ত বিশ্বকোষ থেকে
Jump to navigation Jump to search
নিউক্লিয়ার ব্ল্যাস্ট রেকর্ডস
প্রতিষ্ঠাকাল ১৯৮৭
প্রতিষ্ঠাতা মারকুস স্টেইজার
পরিবেশক মেজর
ধরন হেভি মেটাল
দেশ  জার্মানি
অবস্থান ডনযডর্ফ
প্রাতিষ্ঠানিক ওয়েবসাইট http://www.nuclearblast.de/

নিউক্লিয়ার ব্ল্যাস্ট রেকর্ডস হল একটি স্বাধীন রেকর্ড লেবেল ও ডাক যোগে অ্যালবাম পাঠানোর প্রতিষ্ঠান যার অফিস আছে জার্মানি, আমেরিকাব্রাজিলে। ১৯৮৭ সালে জার্মানির মারকুস স্টেইজার এটা প্রতিষ্ঠা করেন। প্রাথমিকভাবে তারা শুধু হার্ডকোর পাঙ্ক অ্যালবাম বের করলেও তারা পরে মেলোডিক ডেথ মেটাল, গ্রিন্ডকোর, পাওয়ার মেটাল, ব্ল্যাক মেটাল ও উৎসর্গকৃত অ্যালবাম বের করা শুরু করে। নিউক্লিয়ার ব্ল্যাস্টকে মেটাল ধারার উপরের দিকের অ্যালবাম বলে মনে করা হয়। তাদের সবচেয়ে সফল শিল্পীরা হলেন টেস্টামেন্ট, এক্সোডাস, মনেমিক, ব্ল্যাইন্ড গার্ডিয়ান, সয়েলওয়ার্ক, ইন ফ্লেমস, মেশুজ্ঞাহ, ডিমু বরগীর, নাইল, ডেথ, বেহেমথ,এপিকা,ইলুভেইতি, ইকুইলিব্রিয়াম, নাইটউইশওভারকিল

চার সপ্তাহের জন্য ১৯৮৭ সালে সারা আমেরিকা ঘুরে মারকুস স্টেইজার দেখতে পেলেন তার প্রিয় ব্যান্ড ব্ল্যাস্টের জনপ্রিয়তা। এই লেবেলের নাম শুরুতে শুধুমাত্র ব্ল্যাস্ট নামে ছিল। পরে তা নিউক্লিয়ার ব্ল্যাস্ট নামে পরিবর্তিত হয়। এই লেবেল আমেরিকার কিছু হার্ডকোর ব্যান্ডের মিক্সড অ্যালবাম প্রথম প্রকাশনা হিসেবে বাজারে ছাড়ে যা ১ বছরে ১০০০ কপির মতো বিক্রি হয়। পরে তারা গ্রিন্ডকোর ব্যান্ডের একটি মিক্সড অ্যালবাম বাজারে ছাড়ে যা ৩০০০০ কপি বিক্রি হয়। ১৯৯০-এর দশকের প্রথম দিকে ইউরোপের আন্ডারগ্রাউন্ডে ব্ল্যাক মেটাল জনপ্রিয় হয়ে ওঠে। নিউক্লিয়ার ব্ল্যাস্ট তখন ডিমু বরগীরডিসসেকশন ব্যান্ডের সাথে চুক্তি করে যা এখনো আছে। ১৯৯৭ সালের শেষের দিকে তাদের ছিল ২০ জন কর্মচারী ও তারা ডাকযোগে ৫০টি দেশে তাদের ক্যাটালগ পাঠায়। ১৯৯০-এর দশকের শেষের দিকে ও ২০০০-এর দশকের প্রথম দিকে তারা পাওয়ার মেটালে আগ্রহী হয়ে ওঠে। তারা হ্যালোইনহ্যামারফল ব্যান্ডের সাথে চুক্তিবদ্ধ হয়। সুইডিশ ব্যান্ড মেশুগাহ প্রথম নিউক্লিয়ার ব্ল্যাস্ট ব্যান্ড যারা বিলবোর্ডে চলে আসে ১৬৫তম স্থানে তাদের অ্যালবাম নাথিংকে নিয়ে। এই ব্যান্ডকে নিয়ে রোলিং স্টোন ম্যাগাজিনও নিবন্ধ লেখা শুরু করে। ২০০৭ সালে নিউক্লিয়ার ব্ল্যাস্ট তাদের ২০ বছর পূর্তি উপলক্ষে ২টি ডিস্কের একটি অ্যালবাম বের করে। এতে অনেক নামী দামী মেটাল শিল্পীরা গান পরিবেশন করেন।

বহিঃসংযোগ[সম্পাদনা]