নাসিরনগর আশুতোষ পাইলট উচ্চ বিদ্যালয়

উইকিপিডিয়া, মুক্ত বিশ্বকোষ থেকে
পরিভ্রমণে ঝাঁপ দিন অনুসন্ধানে ঝাঁপ দিন
নাসিরনগর আশুতোষ পাইলট উচ্চ বিদ্যালয়
নাসিরনগর আশুতোষ পাইলট উচ্চ বিদ্যালয়.JPG
নাসিরনগর আশুতোষ পাইলট উচ্চ বিদ্যালয়ের প্রধান ফটক.jpg
নাসিরনগর আশুতোষ পাইলট উচ্চ বিদ্যালয়ের প্রবেশমুখ
অবস্থান
উপজেলা ডাকবাংলো, নাসিরনগর ইউনিয়ন

, ,
স্থানাঙ্ক২৪°১১′৪৮″ উত্তর ৯১°১১′৪০″ পূর্ব / ২৪.১৯৬৬৩০° উত্তর ৯১.১৯৪৪৪৩° পূর্ব / 24.196630; 91.194443স্থানাঙ্ক: ২৪°১১′৪৮″ উত্তর ৯১°১১′৪০″ পূর্ব / ২৪.১৯৬৬৩০° উত্তর ৯১.১৯৪৪৪৩° পূর্ব / 24.196630; 91.194443
তথ্য
ধরনমাধ্যমিক
প্রতিষ্ঠাকাল১৯৩৭ সাল
প্রতিষ্ঠাতাকমলারঞ্জন রায়
বিদ্যালয় বোর্ডমাধ্যমিক ও উচ্চ মাধ্যমিক শিক্ষা বোর্ড, কুমিল্লা
বিদ্যালয় জেলাব্রাহ্মণবাড়িয়া
সেশনজানুয়ারি
বিদ্যালয় কোড৯১২৬
  • EIIN ১০৩৪৪৬
সভাপতিবদরুদ্দোজা মোঃ ফরহাদ হোসেন, সংসদ সদস্য, ব্রাহ্মণবাড়িয়া-১
প্রধান শিক্ষকআবদুল রহিম
সহকারী প্রধানশিক্ষকঅরবিন্দু গোপ
অনুষদ৩টি(বিজ্ঞান,ব্যবসা শিক্ষা এবং মানবিক)
শ্রেণী৬ষ্ঠ থেকে ১০ম
লিঙ্গছেলে এবং মেয়ে
বয়সসীমা১১-১৬
ভাষার মাধ্যমবাংলা
সময়সূচিসকাল ১০.০০টা থেকে বিকেল ৪.০০টা
বিদ্যালয়ের কার্যসময়৭ ঘণ্টা
শ্রেণীকক্ষ১২টি কক্ষ
ক্যাম্পাসমফঃস্বল
ক্যাম্পাসের ধরনআধা সরকারি
রঙশার্ট      আকাশী নীল এবং প্যান্ট     নেভি ব্লু
স্লোগানশিক্ষাই আলো
অ্যাথলেটিক্সক্রিকেট, ফুটবল, হ্যান্ডবল, কাবাডি ইত্যাদি
মাস্কটবইয়ের সঙ্গে আলোকিত মোমবাতি এবং দোয়াত কলম
ডাকনামআশুতোষ
প্রত্যয়নকুমিল্লা বোর্ড
ইমেইলnasirnagaraphighschool@yahoo.com
যোগাযোগ+৮৮০১৭১৬-৪৬৮৪৬৩
ওয়েবসাইট

নাসিরনগর আশুতোষ পাইলট উচ্চ বিদ্যালয় বাংলাদেশের ব্রাহ্মণবাড়িয়া জেলার নাসিরনগর উপজেলার একটি উচ্চ বিদ্যালয়। ১৯৩৭ সালে প্রতিষ্ঠিত এই বিদ্যালয়টি ব্রাহ্মণবাড়িয়ার অন্যতম প্রাচীন শিক্ষা প্রতিষ্ঠান।এটি উপজেলার শীর্ষস্থানীয় সুনামধন্য বিদ্যালয়।উপজেলার লঙ্গন নদীর তীরে এটি অবস্থিত।

অবস্থান[সম্পাদনা]

নাসিরনগর আশুতোষ পাইলট উচ্চ বিদ্যালয় বাংলাদেশের পূর্ব-মধ্য অঞ্চলের ব্রাহ্মণবাড়িয়া জেলার নাসিরনগর উপজেলাধীন একটি মাধ্যমিক বিদ্যালয়।এটি উপজেলার সুপ্রাচীন বিদ্যাপিঠ। বিদ্যালয়ের পূর্বদিকে ২০০ মিটার দূরে বাজার এবং নাসিরনগর থানা ,উত্তরে লঙ্গন নদী ও মেদিনী হাওড়,পশ্চিমে উপজেলা ডাকবাংলো এবং দক্ষিণে উপজেলা তহসিল অফিস(ভূমি) অবস্থিত।

ইতিহাস[সম্পাদনা]

ইতিহাস সূত্রে যানা যায়, নাসিরনগর আশুতোষ পাইলট উচ্চ বিদ্যালয়ের প্রতিষ্ঠাতা জমিদার শ্রীমান কমলারঞ্জন রায়ের পিতামহ শ্রী আশুতোষ রায় এর নাম অনুসারে ০১ জানুয়ারি ১৯৩৭ সালে বিদ্যালয়ের নামকরণ করেন।

প্রধান শিক্ষকের তালিকা[সম্পাদনা]

  • বিদ্যালয়ের সাবেক ও বর্তমান প্রধান শিক্ষকগণের তালিকা:
নাম পদ
দায়ীত্ব গ্রহণ দায়িত্ব ত্যাগ
জনাব, শশী ভূষণ ঘোষ প্রধান শিক্ষক ১ জানুয়ারি ১৯৩৭ ৩১ ডিসেম্বর ১৯৪৫
জনাব, পৃথ্বীশ চন্দ্র ভদ্র প্রধান শিক্ষক ১ জানুয়ারি ১৯৪৬ ৩১ ডিসেম্বর ১৯৪৯
জনাব, সুরেশ চন্দ্র চক্রবর্তী প্রধান শিক্ষক ১ জানুয়ারি ১৯৫০ ৩১ মার্চ ১৯৫৩
জনাব, বীরেন্দ্র চন্দ্র চক্রবর্তী ভারপ্রাপ্ত প্রধান শিক্ষক ১ এপ্রিল ১৯৫৩ ৩০ নভেম্বর ১৯৫৩
জনাব, জগদীশ চন্দ্র রায় প্রধান শিক্ষক ১ ডিসেম্বর ১৯৫৩ ১২ আগস্ট ১৯৬১
জনাব, আব্দুল হান্নান চৌধুরী প্রধান শিক্ষক ১৩ আগস্ট ১৯৬১ ১৩ এপ্রিল ১৯৯২
জনাব, কাজী রমিজ আলী ভারপ্রাপ্ত প্রধানশিক্ষক ১৪ এপ্রিল ১৯৯২ ১৮ অক্টোবর ১৯৯৩
জনাব, শফিউল আযম ভারপ্রাপ্ত প্রধানশিক্ষক ১৯ অক্টোবর ১৯৯৩ ৯ জুন ১৯৯৫
জনাব, শফিউল আযম প্রধান শিক্ষক ১০ জুন ১৯৯৫ ৩০ মার্চ ২০০৩
১০ জনাব, মহেন্দ্র চন্দ্র দাস ভারপ্রাপ্ত প্রধানশিক্ষক ৩১ মার্চ ২০০৩ ১৯ এপ্রিল ২০০৬
১১ জনাব, মহেন্দ্র চন্দ্র দাস প্রধান শিক্ষক ২০ এপ্রিল ২০০৬ ১ জানুয়ারি ২০০৯
১২ জনাব,মো.আবু গণি ভারপ্রাপ্ত প্রধানশিক্ষক ২ জানুয়ারি ২০০৯ ৮ মার্চ ২০১০
১৩ জনাব, মো.আব্দুল রহিম প্রধান শিক্ষক ৯ মার্চ ২০১০ বর্তমান

বর্তমান শিক্ষকগণের তালিকা[সম্পাদনা]

নাসিরনগর আশুতোষ পাইলট উচ্চ বিদ্যালয়ের বর্তমান কর্মরত শিক্ষকগণের তালিকা:

নাম পদ
জনাব, আব্দুল রহিম প্রধান শিক্ষক
জনাব, অরবিন্দু গোপ সহকারী প্রধান শিক্ষক
জনাব, আবু গণি সিনিয়র শিক্ষক
জনাব, মো.ছাইদ মিয়া সিনিয়র শিক্ষক
জনাব, অমৃত লাল সরকার সিনিয়র শিক্ষক
জনাব, আসাদ উদ্দিন ভূঁইয়া সিনিয়র শিক্ষক
জনাব, মো.নুরুল আলম সিনিয়র শিক্ষক
মিসেস, দিলরওশন পান্না সিনিয়র শিক্ষিকা
জনাব, মো. আব্দুল্লাহ সিনিয়র শিক্ষক
১০ মিসেস, মাধুরী লতা দাস সিনিয়র শিক্ষিকা
১১ মিসেস, রত্না রাণী দাস সিনিয়র শিক্ষিকা
১২ জনাব,চন্দন কুমার দেব সিনিয়র শিক্ষক
১৩ জনাব, পলাশ মজুমদার সহকারী শিক্ষক
১৪ জনাব, লিটন চন্দ্র বিশ্বাস সহকারী শিক্ষক
১৫ জনাব, নজরুল ইসলাম সহকারী শিক্ষক
১৬ জনাব, মো.আব্দুল মাজিদ সহকারী শিক্ষক
১৭ জনাব, জসীম উদ্দিন সহকারী শিক্ষক
১৮ জনাব, কামরুল ইসলাম সহকারী শিক্ষক
১৯ জনাব, মৃণাল কান্তি সরকার এসিটি(সেকায়েপ)
২০ মিসেস, পপি রাণী দাস খন্ডকালীন শিক্ষিকা

শিফট/শিক্ষা কার্যক্রম[সম্পাদনা]

এই বিদ্যালয়ে মাত্র একটি শিফটে কার্যক্রম পরিচালিত হয়ে থাকে।শনিবার,রবিবার,সোমবার,মঙ্গলবার,বুধবার সপ্তাহের এই ৫ দিন সকাল ১০:২০ থেকে বিদ্যালয়ের কার্যক্রম শুরু হয়।দুপুর ১টায় ১ ঘণ্টার বিরতি দেওয়া হয় এবং বিকাল ৪ টার সময় বিদ্যালয়ের কার্যক্রম শেষ হয়।সপ্তাহের এই ৫ দিনে প্রতিদিন ৭টি করে ক্লাস নেওয়া হয়।বৃহস্পতিবারে ১০.২০ এ ক্লাস শুরু হয় এবং দুপুর ১টায় ছুটি হয় এবং সেদিন সর্বমোট ৪টি ক্লাস নেওয়া হয়।শুক্রবারে সাপ্তাহিক ছুটি থাকে এবং ওইদিন বিদ্যালয়ের সকল কার্যক্রম বন্ধ থাকে।

সহশিক্ষা কার্যক্রম[সম্পাদনা]

পাঠ্যবইয়ের পাশাপাশি সহশিক্ষা কার্যক্রমেও রয়েছে এই বিদ্যালয়ের যথেষ্ট সুনাম[১]।সহশিক্ষা কার্যক্রম দ্বারা এই বিদ্যালয়টি জেলা,বিভাগ তথা জাতীয় পর্যায়ে অনেক অনেক খ্যাতি অর্জন করেছে[২]।এই বিদ্যালয়ে রয়েছে 'ইয়াং জিনিয়াস সায়েন্স ক্লাব','বিতর্ক ক্লাব' ইত্যাদি যা সহশিক্ষা কার্যক্রমগুলোর গুরুত্বপূর্ণ সাক্ষ্য বহন করে।তাছাড়া সামাজিক সচেতনতা সৃষ্টির জন্য রয়েছে 'সূর্যকিশোর ও স্বর্ণকিশোরীর[৩]' মতো ক্লাব।

ছাত্র-ছাত্রী[সম্পাদনা]

পুরস্কার ও সম্মাননা[সম্পাদনা]

কৃতি শিক্ষার্থী[সম্পাদনা]

তথ্যসূত্র[সম্পাদনা]

  1. Dainikshiksha। "নাসিরনগরে সৃজনশীল মেধা অন্বেষণ প্রতিযোগিতা - দৈনিকশিক্ষা"Dainik shiksha (ইংরেজি ভাষায়)। সংগ্রহের তারিখ ২০২০-১০-২০ 
  2. Dainikshiksha। "৭ মার্চের ভাষণ প্রতিযোগিতায় দ্বিতীয় সাদিয়া - দৈনিকশিক্ষা"Dainik shiksha (ইংরেজি ভাষায়)। সংগ্রহের তারিখ ২০২০-১০-২০ 
  3. প্রতিবেদক, নিজস্ব। "'আমরা স্বর্ণকিশোরী'"Prothomalo। সংগ্রহের তারিখ ২০২০-১০-২০