নারকেল দুধ

উইকিপিডিয়া, মুক্ত বিশ্বকোষ থেকে
Jump to navigation Jump to search
নারকেলের দুধ
Cononut milk.JPG
বাটিতে নারকেলের দুধ
অঞ্চল বা রাজ্য ট্রপিক্যাল অঞ্চল
প্রধান উপকরণ নারকেল
রান্নার বই: নারকেলের দুধ  মিডিয়া: নারকেলের দুধ

নারকেলের দুধ হচ্ছে এক ধরণের তরল যা কোরানো নারকেল থেকে নিষ্কাশন করা হয়।[১] নারিকেল দুধ অস্বচ্ছ এবং স্বাদযুক্ত। এতে তেলের পরিমান বেশী যার অধিকাংশ স্যাচুরেটেড ফ্যাট। নারিকেল দুধ একটি জনপ্রিয় খাদ্য উপকরণ যা দক্ষিণ-পূর্ব এশিয়া, ক্যারিবীয় অঞ্চল এবং দক্ষিণ আমেরিকার উত্তরাংশের দেশগুলোতে ব্যবহৃত হয়।

সংজ্ঞা[সম্পাদনা]

নারকেল দুধ এর গাঢ় দ্রবণ এবং দুধবর্ণ চেহারার কারণে সহজে নারকেল পানি থেকে আলাদা করা যায়। নারিকেল পানি সরাসরি নারকেল বীজের মধ্যে পাওয়া যায়। অন্যদিকে নারকেল দুধ হচ্ছে পানি এবং শাঁসের একটি মিশ্রিত রূপ। 

প্রস্তুতি[সম্পাদনা]

সনাতন পদ্ধতিতে নারিকেল দুধ প্রস্তুতির জন্য নারিকেলের শাঁস কোরানো হচ্ছে।

ঐতিহ্যগত ভাবে নারিকেলের খোসা ছাড়িয়ে শক্ত আবরণ দুই ভাগে বিভক্ত করে কুরানির সাহায্যে নারকেল খুরে নেওয়া হয়। এই কোরানো নারকেলের সাথে সামান্য পানি মিশিয়ে ভালো করে হাত দিয়ে ডলে চটকানো হয়। ফলে নারকেলের চর্বি পানির সংগে মিশে দুধের আকার ধারণ করে। 

কৌটাজাত নারকেল দুধ

রসনায়[সম্পাদনা]

খাদ্য[সম্পাদনা]

নারকেল দুধ এবং চাল আটা পিটা করতে serabi

নারকেলের দুধ দিয়ে পোলাও, পিঠা, ইলিশ মাছ, মাংস রান্নার প্রচলন বহু পুরোনো। রূপচর্চার জন্য নারকেলের দুধ ব্যবহার করা হয়।  দক্ষিন পূর্বাঞ্চলীয় এশিয়া এবং ক্যারিবিয়ায় চালের সাথে নারকেল দুধ মিশিয়ে নারকেল ভাত রান্না করা হয়। নারকেল ভাতকে ইন্দোনেশিয়ায় নাসি লেমাক এবং মালয়েশিয়ায় নাসি উদুক বলে। এশিয়ায় ঐতিহ্যবাহী সেরাবি প্রস্তুতিতে নারকেল দুধ ব্যবহার করা হয়। 

বাংলাদেশে হাঁসের মাংস রান্নায় নারকেলের দুধ ব্যবহার করা হয়। ডিমের কোর্মা এবং বিভিন্ন প্রকার পিঠা প্রস্তুতিতে নারকেল দুধ ব্যবহার করা হয়। ব্রাজিলে নারিকেল দুধ উত্তরপূর্বাঞ্চলের রসনায় বিশেষ করে সমুদ্রজাত খাদ্য, স্ট্যু এবং ডেজার্টে ব্যবহৃত হয়। কলম্বিয়া এবং পানামায় মিষ্টি টিটোটে তৈরিতে কোরানো নারকেল এবং নারকেল দুধ ব্যবহৃত হয়। ভেনেজুয়েলায় মাংসে নারিকেল দুধ ব্যবহার করা হয়।

পানীয়[সম্পাদনা]

সেনডল একটি সবুজ জেলিযুক্ত পানীয় যা হিমায়িত নারকেল দুধ ও তালের চিনি দিয়ে প্রস্তুত করা হয়।

দক্ষিণ পূর্ব এশিয়ায় নারিকেল দুধ ব্যবহার করে বিভিন্ন ধরণের পানীয় প্রস্তুত করা হয়। সেনডল একটি সবুজ জেলিযুক্ত পানীয় যা হিমায়িত নারকেল দুধ ও তালের চিনি দিয়ে প্রস্তুত করা হয়। চালের আটা থেকে সবুজ জেলি প্রস্তুত করা হয়। দক্ষিণ চীন এবং তাইওয়ানের দুটো জনপ্রিয় পানীয় মিষ্টিযুক্ত নারকেল দুধ এবং পানি মিশিয়ে পাতলা করা নারকেল দুধ। ব্যান্ড্রেক এবং বাজিগর ইন্দোনেশিয়ার দুটো জনপ্রিয় পানীয় যা নারকেল দুধ থেকে প্রস্তুত করা হয়।

স্বাস্থ্য ঝুঁকি[সম্পাদনা]

নারকেল দুধের অন্যতম একটি উপাদান হচ্ছে নারকেল তেল। বিভিন্ন স্বাস্থ্য সংস্থা যেমন যুক্তরাষ্ট্রের ফুড এন্ড ড্রাগ এডমিনিস্ট্রেশন,[২] বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থা,[৩] আন্তর্জাতিক পুষ্টি মহাবিদ্যালয়,[৪] যুক্তরাষ্ট্রের স্বাস্থ্য ও মানবসেবা অধিদপ্তর,[৫] আমেরিকান ডায়েটিক এসোসিয়েশন,[৬] আমেরিকান হার্ট এসোসিয়েশন,[৭] ব্রিটেনের জাতীয় স্বাস্থ্য সেবা,[৮]এবং কানাডার পুষ্টিবিদগণ উচ্চমাত্রার সম্পৃক্ত চর্বির কারণে নারকেল দুধ খাওয়াকে নিরুৎসাহিত করেছে। অতিরিক্ত নারিকেল দুধ খেলে রক্তে কোলেস্টেরল বেড়ে যাওয়ার সম্ভাবনা থাকে। লরিক এসিড উচ্চ ঘনমাত্রার লিপোপ্রোটিন কোলেস্টেরল বাড়িয়ে দেয়।[৯][১০]

তথ্যসূত্র[সম্পাদনা]

  1. "Coconut milk" (PDF)। Philippine Coconut Authority। ২০১৪। সংগ্রহের তারিখ ২২ সেপ্টেম্বর ২০১৬ 
  2. "Nutrition Facts at a Glance - Nutrients: Saturated Fat"Food and Drug Administration। ২২ ডিসেম্বর ২০০৯। সংগ্রহের তারিখ ১৬ মার্চ ২০১১ 
  3. "Avoiding Heart Attacks and Strokes" (pdf)। World Health Organization। সংগ্রহের তারিখ ৬ এপ্রিল ২০১১ 
  4. Singh RB, Mori H, Chen J, Mendis S, Moshiri M, Zhu S, Kim SH, Sy RG, Faruqui AM (ডিসেম্বর ১৯৯৬)। "Recommendations for the prevention of coronary artery disease in Asians: a scientific statement of the International College of Nutrition"। J Cardiovasc Risk3 (6): 489–494। doi:10.1097/00043798-199612000-00002PMID 9100083 
  5. "Dietary Guidelines for Americans 2010" (PDF)। Department of Health and Human Services। সংগ্রহের তারিখ ১৭ মার্চ ২০১১ 
  6. "American Dietetic Association and Dietitians of Canada Offer Up-to-Date Guidance on Dietary Fat"American Dietetic Association। সংগ্রহের তারিখ ১৬ মার্চ ২০১১ 
  7. "Tropical Oils"American Heart Association। সংগ্রহের তারিখ ১৬ মার্চ ২০১১ 
  8. "Lower your cholesterol"National Health Service। সংগ্রহের তারিখ ১৬ মার্চ ২০১১ 
  9. Mensink RP, Zock PL, Kester AD, Katan MB (মে ২০০৩)। "Effects of dietary fatty acids and carbohydrates on the ratio of serum total to HDL cholesterol and on serum lipids and apolipoproteins: a meta-analysis of 60 controlled trials" (pdf)Am. J. Clin. Nutr.77 (5): 1146–55। PMID 12716665 
  10. Eyres L, Eyres MF, Chisholm A, Brown RC (২০১৬)। "Coconut oil consumption and cardiovascular risk factors in humans"। Nutr Rev74 (4): 267–80। doi:10.1093/nutrit/nuw002PMID 26946252