নাবিলা মুনিব

উইকিপিডিয়া, মুক্ত বিশ্বকোষ থেকে
পরিভ্রমণে ঝাঁপ দিন অনুসন্ধানে ঝাঁপ দিন
নাবিলা মুনিব
Nabila Mounib.jpg
ইউনিফাইড সোস্যালিস্ট পার্টির সাধারণ সম্পাদক
দায়িত্বাধীন
অধিকৃত কার্যালয়
১৬ই জানুয়ারি ২০১২[১]
পূর্বসূরীমোহাম্মদ মুজাহিদ
ব্যক্তিগত বিবরণ
জন্ম১৪ই ফেব্রুয়ারি ১৯৬০[২]
কাসাব্লাংকা, মরক্কো
জাতীয়তামরক্কোন
রাজনৈতিক দলইউনিফাইড সোস্যালিস্ট পার্টি
দাম্পত্য সঙ্গীইউসেফ হাজ্বি
প্রাক্তন শিক্ষার্থীমোহাম্মদ ভি বিশ্ববিদ্যালয়, মন্টপিলিয়ার ২ বিশ্ববিদ্যালয়

নাবিলা মুনিব, (জন্ম ১৯৬০ কাসাব্ল্যাংকায়), হচ্ছেন একজন মরক্কোর রাজনীতিবিদ যিনি বর্তমানে ইউনিফাইড সোস্যালিস্ট পার্টি এর (পিএসইউ) সাধারণ সম্পাদক হিসাবে দায়িত্ব করেন। তিনি মরক্কোর কোন রাজনৈতিক দলের প্রধান হিসেবে নির্বাচিত প্রথম নারী।[৩]

প্রারম্ভের জীবন[সম্পাদনা]

মুনিব হচ্ছেন আহমেদ মুনিবের কন্যা, একজন কূটনীতিক যিনি ওরান-এ মরক্কোর দূত হিসেবে কাজ করেছিলেন, ১৯৭০ এর দশকে তিনি তার শৈশবের অংশ সেখানে অতিবাহিত করেছিলেন এবং ১৯৭৭ সালে আলজেরিয়ায় উচ্চ বিদ্যালয় থেকে পাশ করেছিলেন। তার মা, খাদিজা বেলমেক্কি ফেজ এর একটি ধনী পরিবার থেকে এসেছেন।[৩] পরে তিনি রাবাত বিশ্ববিদ্যালয়ে অধ্যয়ন করেন এবং সংক্ষিপ্তভাবে মন্টপিলিয়ারে পড়াশোনা করেন যেখানে তিনি এন্ডোক্রিনলজি এর উপর পিএইচডি অর্জন করেন,[৪] পরে তিনি আইন চক কাসাব্লাংকা বিশ্ববিদ্যালয়ে শিক্ষক হিসেবে নিযুক্ত হন, সেখানে তিনি তারপর থেকে জীববিজ্ঞান (এন্ডোক্রিনলজি) পড়াতেন।[৫]

রাজনৈতিক কর্মজীবন[সম্পাদনা]

১৯৮৫-এ, যখন তিনি ফ্রান্সে তার ডক্টরেট থিসিসের প্রস্তুতি নিচ্ছিলেন, তিনি "ইয়োথ অফ ডেমোক্রেটিক স্টুডেন্ট"-এ সক্রিয় ছিলেন, তারপর "তথ্য ও মত প্রকাশের স্বাধীনতা সংস্থা"-এ (ওএলআইই) যোগদান করেন এবং "জনপ্রিয় গণতান্ত্রিক অ্যাকশন" (ওএডিপি) সংগঠন যা অন্য বাম সংগঠন ইউনিফাইড সোস্যালিস্ট পার্টির সঙ্গে একত্রিত হয়ে যায়।[৬][৭]

২০০০ সালের প্রথম দিকে, মুনিব ইউনিফাইড সোস্যালিস্ট পার্টির সাথে এটির বিভিন্ন নামের সাথে সম্পৃক্ত ছিলেন, কিন্তু ২০১১ সালের আরব বসন্তের বিক্ষোভের স্রোতের পর থেকে কেবলমাত্র প্রচার মাধ্যমে সক্রিয়ভাবে যুক্ত হন। ১৬ই জানুয়ারি ২০১২-এ, তিনি তার দলের একমাত্র প্রার্থী হিসাবে সাধারণ সম্পাদক নির্বাচিত হন এবং একটি রাজনৈতিক দলের নেতৃত্ব দেওয়ার ক্ষেত্রে নির্বাচিত প্রথম মরোক্কোন মহিলা নির্বাচিত হন।[৮]

রাজনৈতিক পদক্ষেপ[সম্পাদনা]

২০১১ সালে মরোক্কোর সাংবিধানিক গণভোটের সময়, তিনি তার রাজনৈতিক আন্দোলন এবং গনতান্ত্রিক বাম জোটকে বয়কটের জন্য ডেকেছিলেন, তিনি বলেন, সংবিধান গণতান্ত্রিক ছিল না বলে এটি সর্বাধিক ক্ষমতা সর্বসাধারণের হাতে বজায় রাখে এবং ক্ষমতাগুলির বাস্তব বিচ্ছেদ নিশ্চিত করে না।

২০১২ সালের নভেম্বরে মরক্কোর ম্যাগাজিন টেলকূয়েল কর্তৃক প্রশ্ন করা হলে, তিনি বলেছিলেন যে তার স্বল্পমেয়াদী প্রকল্পটি একটি অগ্রগতিশীল গণতান্ত্রিক মৈত্রীতন্ত্রে বাম দলের একীকরণ।[৯] আগস্ট ২০১৩-এ, ড্যানিয়েল গালবান স্ক্যান্ডাল প্রকাশ্যে আসার পর, তিনি খোলাখুলিভাবে রাজকীয় অনুগ্রহের সমালোচনা করা ব্যক্তিদের মধ্যে প্রথম ছিলেন এবং বিবেচনা করে বলেন "পেডোফিল ড্যানিয়েল গালভানকে এটি (রাজকীয় অনুগ্রহ) প্রদানের সিদ্ধান্ত অগ্রহণযোগ্য এবং যত তাড়াতাড়ি সম্ভব প্রত্যাহার করা উচিত"।[৩][১০] সাহরাউয়ি প্রজাতন্ত্রকে স্বীকৃতি দেওয়ার জন্য সুইডিশ বিলের জের ধরে মরক্কো ও সুইডেনের মধ্যে রাজনৈতিক সংকট চলাকালীন, সঙ্কট সমাধানের জন্য ২০১৫ সালের নভেম্বরে ৪ ও ৭ তারিখের মধ্যে বামপন্থী দলগুলোর সমন্বয়ে স্টকহোমের একটি মরক্কো প্রতিনিধিদলের সভাপতিত্ব করেন নাবিলা মুনিব।[১১] জানুয়ারি ২০১৬-এ সুইডিশ পাবলিক টেলিভিশন এসভিটি ঘোষণা করে যে সুইডিশ সরকার স্বাধীন সাহারাকে স্বীকৃতি দিতে তাদের পরিকল্পনা ঘোষণা করেছে।[১২]

তথ্যসূত্র[সম্পাদনা]

  1. https://www.franceinter.fr/personnes/nabila-mounib
  2. "সংরক্ষণাগারভুক্ত অনুলিপি"। ১৩ অক্টোবর ২০১৬ তারিখে মূল থেকে আর্কাইভ করা। সংগ্রহের তারিখ ১৬ মে ২০১৯ 
  3. "Nabila Mounib, la femme qui ne mâche pas ses mots - La Nouvelle Tribune"La Nouvelle Tribune (ফরাসি ভাষায়)। ২০১৬-০৩-০৪। সংগ্রহের তারিখ ২০১৮-০৫-২৩ 
  4. "Biographie et actualités de Nabila Mounib France Inter"France Inter (ফরাসি ভাষায়)। সংগ্রহের তারিখ ২০১৮-০৫-২৩ 
  5. http://telquel.ma/2012/05/22/Reportage-Dans-la-peau-de-Nabila-Mounib_516_2005
  6. "Nabila Mounib, Secrétaire générale du PSU : «Ma victoire est celle de toutes les femmes» - La Nouvelle Tribune"La Nouvelle Tribune (ফরাসি ভাষায়)। ২০১২-০১-২৬। সংগ্রহের তারিখ ২০১৮-০৫-২৩ 
  7. "Nabila Mounib : bientôt à la tête du PSU?"Maghress। সংগ্রহের তারিখ ২০১৮-০৫-২৩ 
  8. From the TV program "Daif Assaa" on radio Aswat : https://www.youtube.com/watch?v=mXqpZu3dmuI
  9. "Nabila Mounib. "Pour une gauche unie""Telquel.ma (ফরাসি ভাষায়)। ২০১২-১১-০৫। সংগ্রহের তারিখ ২০১৮-০৫-২৩ 
  10. LakomeVideos (২০১৩-০৮-০৬), نبيلة منيب: إذا كان الملك لا يعلم فمن يحكم المغرب, সংগ্রহের তারিখ ২০১৮-০৫-২৩ 
  11. "Maroc : Nabila Mounib, l'émissaire rouge de Sa Majesté au chevet des relations avec la Suède – JeuneAfrique.com"JeuneAfrique.com (ফরাসি ভাষায়)। ২০১৫-১০-২৩। সংগ্রহের তারিখ ২০১৮-০৫-২৩ 
  12. "La Suède ne reconnaît pas le Sahara occidental"FIGARO। ২০১৬-০১-১৪। সংগ্রহের তারিখ ২০১৮-০৫-২৩ 

বহিঃসংযোগ[সম্পাদনা]