নরল্যান্ডের বিশ্ববিদ্যালয় হাসপাতাল

উইকিপিডিয়া, মুক্ত বিশ্বকোষ থেকে
সরাসরি যাও: পরিভ্রমণ, অনুসন্ধান
উমিয়ার বিশ্ববিদ্যালয় হাসপাতাল
Norrlands universitetssjukhus 2006 dec.jpg
স্থাপিত ১৯০৭
অবস্থান উমিয়া, ভ্যাস্টারবটেন প্রদেশ, সুইডেন
শিক্ষাঙ্গন শহুরে
অধিভুক্তি উমিয়া বিশ্ববিদ্যালয়
উমিয়া বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রাঙ্গন উপরে বাম কোণায় এবং নিচে উমিয়া পূর্ব স্টেশনসহ নরল্যান্ডের বিশ্ববিদ্যালয় হাসপাতাল।

উমিয়ার বিশ্ববিদ্যালয় হাসপাতাল, (সুয়েডীয়: Norrlands universitetssjukhus (Nus)), হল উত্তর সুইডেনের উমিয়াতে অবস্থিত বড় হাসপাতাল। এতে প্রায় ৫,৬০০জন মানুষ কাজ করে।[১]

এটি উমিয়া বিশ্ববিদ্যালয়-এর অধীন একটি শিক্ষণ হাসপাতালও বটে। এতে ঔষধ বিভাগ নামে দায়িত্ববান কর্তৃপক্ষ রয়েছে। এছাড়াও এতে রয়েছে ১৩টি বিভাগ এবং ১১টি একাডেমিক কর্মসূচী অনুষদে প্রায় ২,৮৬০ অস্নাতক এবং ৪৫০টি স্নাতকোত্তর ছাত্র রয়েছে। আরো রয়েছে ১,০২০ জন কর্মকর্তা এবং তাদের মধ্যে প্রায় ৫০০জন শিক্ষক-গবেষক।

ইতিহাস[সম্পাদনা]

১৭৮৪ সালে এটি উমিয়ার স্টোরগাটান ২৮-এ লাসারেট হিসেবে প্রতিষ্ঠিত হয়েছিল যা পরিচিত ছিল হলুদ বাড়ি (গুলা হুসেট) হিসেবে। এর আটটি সেবামূলক অঞ্চল ছিল। ভবনটি এখনও বর্তমান, কিন্তু সেটি আর হাসপাতাল হিসেবে ব্যবহৃত হয়না।[২]

উমিয়া সম্প্রসারিত হওয়ায় কেন্দ্রীয় উমিয়াতে অ্যালিডব্যাকেন নামক একটি নতুন হাসপাতাল নির্মিত হয়। ১৯০৭ সালে এটি গড়ে ওঠে (২০০৭ সালে এর শতবার্ষিকী উদ্‌যাপিত হয়)। এর ১৩৪টি সেবামূলক অঞ্চল ছিল[২]

১৯১৮ সালে হাসপাতালটি আরো সম্প্রসারিত হয়। ১৯২৬ সালে একটি চক্ষু ক্লিনিকের নির্মাণ কাজ শেষ হয়, ১৯৩৭ সালে একটি নতুন শিশুরোগচিকিত্সা বিভাগ খোলা হয় এবং ১৯৫৭ সালে গাইনোকোলজি এবং ধাত্রীবিদ্যা বিভাগও খোলা হয়।[২]

আজকে অ্যালিডব্যাকেন-এর সকল মূল ভবনগুলো ধ্বংসপ্রাপ্ত হয়েছে এবং বর্তমান হাসপাতালের সাথে স্থানান্তর করা হয়েছে।[২]

২০১১ সালে ভ্যাস্টারবটেন কান্ট্রি কাউন্সিল কর্তৃক একটি ফোটোগ্রাফির নিষেধাজ্ঞা আরোপ করা হয় এবং এর কারণ ছিল রোগী এবং কর্মীদের অখণ্ডতা রক্ষা করা। তবে এই নিষেধাজ্ঞা হাসপাতালে সীমিত না থাকলেও কান্ট্রি কাউন্সিলের পূর্বানুমান রক্ষিত হয়।[৩][৪] এই নিষেধাজ্ঞার বিরুদ্ধে আন্দোলন হয় এবং এই আন্দোলন করে সভেরিংস টেলিভিশন, টিভি৪ এবং ভ্যাস্টারবটেনস-কুরিরেন[৫]

তথ্যসূত্র[সম্পাদনা]

  1. "Om Nus" (Swedish ভাষায়)। Västerbotten County Council। ২৩ অক্টোবর ২০১১ তারিখে মূল থেকে আর্কাইভ করা। সংগ্রহের তারিখ ২৩ অক্টোবর ২০১১ 
  2. Asplund, Kjell। "Medicinska kliniken och medicinska institutionen vid NUS- en kort historik" (Swedish ভাষায়)। Umeå University। ২৩ অক্টোবর ২০১১ তারিখে মূল থেকে আর্কাইভ করা। সংগ্রহের তারিখ ২৩ অক্টোবর ২০১১ 
  3. "Nya regler för filminspelning, fotografering och ljudupptagning i landstinget" (Swedish ভাষায়)। Västerbotten County Council। ১৮ অক্টোবর ২০১১। ২ এপ্রিল ২০১২ তারিখে মূল থেকে আর্কাইভ করা। সংগ্রহের তারিখ ২ এপ্রিল ২০১২ 
  4. Engström, Monica G (১৮ অক্টোবর ২০১১)। "Fotoförbud införs inom vården"Västerbottens-Kuriren (Swedish ভাষায়)। ২ এপ্রিল ২০১২ তারিখে মূল থেকে আর্কাইভ করা। সংগ্রহের তারিখ ২ এপ্রিল ২০১২ 
  5. "Protest mot fotoförbudet"Västerbottens-Kuriren (Swedish ভাষায়)। ২৮ অক্টোবর ২০১১। ২ এপ্রিল ২০১২ তারিখে মূল থেকে আর্কাইভ করা। সংগ্রহের তারিখ ২ এপ্রিল ২০১২ 

বহিঃসংযোগ[সম্পাদনা]