বিষয়বস্তুতে চলুন

ধার রাজ্য

উইকিপিডিয়া, মুক্ত বিশ্বকোষ থেকে
ধার রাজ্য
धार
ব্রিটিশ ভারত দেশীয় রাজ্য
১৭৩০–১৯৪৭
পতাকা

ইম্পেরিয়াল গেজেটিয়ার অব ইন্ডিয়া থেকে প্রাপ্ত ধার রাজ্যের মানচিত্র
আয়তন 
• ২৯৪২
৪,৬৬০ বর্গকিলোমিটার (১,৮০০ বর্গমাইল)
জনসংখ্যা 
• ২৯৪২
২,৫৩,২১০
ইতিহাস 
• প্রতিষ্ঠিত
১৭৩০
১৯৪৭
উত্তরসূরী
ভারত
বর্তমানে যার অংশমধ্যপ্রদেশ, ভারত
কলম্বিয়া-লিপিনকট গেজেটিয়ার (নিউইয়র্ক: কলম্বিয়া ইউনিভার্সিটি প্রেস, ১৯৫২) পৃ. ৫১০
ধার রাজ্যের মহারাজা হিস হাইনেস দ্বিতীয় উদজীরাও পারমার
১৮৭৫ খ্রিস্টাব্দে নির্মিত রাজপ্রাসাদের শহরমুখী প্রবেশপথ

ধার রাজ্য ছিলো ব্রিটিশ শাসিত ভারতে অবস্থিত একটি দেশীয় রাজ্য, যা বর্তমানে ভারতের অন্তর্গত৷ মধ্য ভারত এজেন্সিতে অবস্থিত রাজ্যগুলির মধ্যে এটি ছিল একটি তোপ সেলামী সম্মানপ্রাপ্ত আশ্রিত রাজ্য। ১৭৩০ খ্রিস্টাব্দের আশেপাশে এই রাজ্যটি মারাঠা সাম্রাজ্যের অন্যতম গুরুত্বপূর্ণ হয়ে ওঠে। ১৯৪১ খ্রিস্টাব্দের জনগণনা অনুসারে রাজ্যটি ১,৭৯৮ বর্গমাইল (৪,৬৬০ কিমি) ক্ষেত্রফল জুড়ে বিস্তৃত ছিল এবং এর মোট জনসংখ্যা ছিল ২,৫৩,২১০ জন। বর্তমান মধ্যপ্রদেশের ধার জেলায় অবস্থিত ধার শহরটি ছিল এই রাজ্যের রাজধানী এবং প্রশাসনিক সদর। তবে ১৯২৮ খ্রিস্টাব্দের পূর্বে বর্তমান মহারাষ্ট্রের মলথান অঞ্চলে এই রাজ্যের শাসকগণের রাজ নিবাস ছিল, ১৯৩২ খ্রিস্টাব্দের মধ্যে তা পরিবর্তিত হয়। ১৯৪৮ খ্রিস্টাব্দে এটি ভারতীয় অধিরাজ্যের মধ্য ভারতের অংশীভূত করা হয়।[তথ্যসূত্র প্রয়োজন]

২১°৫৭' ও ২৩°১৫' উত্তর অক্ষাংশ এবং ৭৪°৩৭' ও ৭৫°৩৭' পূর্ব দ্রাঘিমার মধ্যে অবস্থিত ধার রাজ্যটির উত্তর দিকে ছিল রৎলাম এবং সৈলানা রাজ্য; পূর্ব দিকে ছিল গোয়ালিয়র এবং ইন্দোর রাজ্যদুটি; দক্ষিণ দিকে ছিল বড়ওয়ানি রাজ্য, এবং পশ্চিম দিকে ছিল ঝাবুয়া রাজ্য এবং গোয়ালিয়রইন্দোর রাজ্যের অংশবিশেষ।

পূর্বতন এই রাজ্যটির রাজপরিবারের বর্তমান প্রধান হলেন শ্রী হেমেন্দ্র সিংহ রাও পাওয়ার।[১][২][৩][৪][৫]

ইতিহাস

[সম্পাদনা]

১৭২৯ খ্রিস্টাব্দে রাজা উদজীরাও পাওয়ার বর্তমান (ব্রিটিশ ভারতে অবস্থিত) ধার দেশীয় রাজ্যটির পত্তন ঘটান। বিশ্বাসযোগ্যতা এবং দক্ষতার কারণে এই মারাঠা সেনাধ্যক্ষ ছত্রপতি থেকে প্রাপ্ত উপহারস্বরূপ ওই রাজ্যটি পান এবং ধার রাজবংশের সূত্রপাত করেন। [তথ্যসূত্র প্রয়োজন] তৃতীয় ইঙ্গ মারাঠা যুদ্ধের সময় এই রাজ্যটি নিজেও ঐতিহ্য হারিয়ে বিলুপ্ত হতে থাকে। পরে ১৮১৯ খ্রিস্টাব্দে দশই জানুয়ারি রাজ্যটির শাসক ব্রিটিশ কোম্পানির সাথে একটি সম্পূরক চুক্তি স্বাক্ষর করেন এবং ব্রিটিশ ইস্ট ইন্ডিয়া কোম্পানির অন্যতম বৃহৎ করদ রাজ্যে পরিণত হয়। করদ রাজ্য হওয়ার ফলে প্রত্যক্ষভাবে ব্রিটিশ শাসনের প্রভাব এই রাজ্যে লক্ষ্য করা যেত।[তথ্যসূত্র প্রয়োজন]

শাসকবর্গ

[সম্পাদনা]

ধার দেশীয় রাজ্যের শাসকগণ ব্রিটিশদের থেকে বংশপরম্পরায় ১৫ তোপ সেলামী সম্মান অর্জন করেছিলেন।[তথ্যসূত্র প্রয়োজন]

সিংহাসনে আরোহণ অন্তিম রাজত্বকাল নাম
১৭২৮ ১৭৩২ প্রথম উদজী রাজে পাওয়ার
১৭৩২ ১৭৩৬ প্রথম আনন্দ রাজে পাওয়ার
১৭৩৬ ১৭৬১, ৬ জানুয়ারি প্রথম যশবন্ত রাজে পাওয়ার
১৭৬১, ৬ জানুয়ারি ১৭৮২ খাণ্ডে রাজে পাওয়ার
১৭৮২ ১৮০৭, ১০ জুন দ্বিতীয় আনন্দ রাজে পাওয়ার
১৮০৭, ডিসেম্বর ১৮১০ প্রথম রামচন্দ্র রাজে পাওয়ার
১৮০৭, ডিসেম্বর ১৮১০ ময়না বাঈ (স্ত্রী) (রাজপ্রতিনিধি)
১৮১০ ১৮৩৩, অক্টোবর দ্বিতীয় রামচন্দ্র রাজে পাওয়ার
১৮৩৪, ২১ এপ্রিল ১৮৫৭, ২৩ মে দ্বিতীয় যশবন্ত রাজে পাওয়ার
১৮৫৭, ২৩ মে ১৮৫৮, ১৯ জানুয়ারি তৃতীয় আনন্দ রাজে পাওয়ার (প্রথমবার)
১৮৫৮, ১৯ জানুয়ারি ১৮৬০, ১ মে রাজ্য লুপ্তি
১৮৬০, ১ মে ১৮৯৮, ২৯ জুলাই তৃতীয় আনন্দ রাজে পাওয়ার (দ্বিতীয়বার)
১৮৯৮, ২৯ জুলাই ১৯২৬ দ্বিতীয় উদজী রাজে পাওয়ার "বাবা সাহেব"
১৯২৬ ১৯৮৬ চতুর্থ আনন্দ রাজে পাওয়ার
১৯২৬ ১৯৩১ লক্ষ্মীবাঈ সাহেবা (স্ত্রী) (রাজপ্রতিনিধি)

তথ্যসূত্র

[সম্পাদনা]
  1. "Hemendra Singh Puar is head of erstwhile princely state of Dhar"। ১৫ জানুয়ারি ২০১৫। ১ আগস্ট ২০১৫ তারিখে মূল থেকে আর্কাইভ করা। সংগ্রহের তারিখ ২৫ অক্টোবর ২০২০ 
  2. "Hemendra Puar to be new Dhar maharaja - Times of India" 
  3. "404 Page not found…"freepressjournal.in। ২৫ জুলাই ২০১৫ তারিখে মূল থেকে আর্কাইভ করা। সংগ্রহের তারিখ ৭ সেপ্টেম্বর ২০১৭ 
  4. "Administration to remove seal on Dhar royal estates on HC orders - Times of India" 
  5. Solomon, R. V.; Bond, J. W. (৭ সেপ্টেম্বর ২০১৭)। "Indian States: A Biographical, Historical, and Administrative Survey"। Asian Educational Services – Google Books-এর মাধ্যমে।