দ্য বাস্কেটবল ডায়েরিজ (চলচ্চিত্র)

উইকিপিডিয়া, মুক্ত বিশ্বকোষ থেকে
পরিভ্রমণে ঝাঁপ দিন অনুসন্ধানে ঝাঁপ দিন
দ্য বাস্কেটবল ডায়েরিজ
দ্য বাস্কেটবল ডায়েরিজ.jpg
প্রেক্ষাগৃহে মুক্তির পোস্টার
পরিচালকস্কট কালভার্ট
প্রযোজকলিজ হেলার
জন বার্ড ম্যানুলিস
রচয়িতাজিম ক্যারল
(উপন্যাস)
ব্রায়ান গলুবফ (চিত্রনাট্য)
শ্রেষ্ঠাংশে
সুরকারগ্রায়েম রেভেল
চিত্রগ্রাহকডেভিড ফিলিপস
সম্পাদকডানা কংডন
প্রযোজনা
কোম্পানি
আইল্যান্ড রেকর্ডস
পরিবেশকনিউ লাইন সিনেমা
মুক্তি
  • ২১ এপ্রিল ১৯৯৫ (1995-04-21)
দৈর্ঘ্য১০৪ মিনিট
দেশযুক্তরাষ্ট্র
ভাষাইংরেজি
আয়$২.৪ মিলিয়ন[১]

দ্য বাস্কেটবল ডায়েরিজ ১৯৯৫ সালে মুক্তিপ্রাপ্ত মার্কিন সমকালীন ক্রাইম ড্রামা চলচ্চিত্র। লেখক জিম ক্যারলের একই নামের আত্মজীবনীমূলক গ্রন্থ অবলম্বনে ছবিটি পরিচালনা করেছেন স্কট কালভার্ট। লেখক জিম ক্যারলের কৈশোর বয়সে বাস্কেটবল খেলোয়াড় ও পরে লেখক হিসেবে নিজেকে উপস্থাপন এবং বাজে বন্ধুদের পাল্লায় পড়ে হিরোইনে আসক্ত হওয়া দেখানো হয়েছে। এতে জিম ক্যারলের ভূমিকায় অভিনয় করেছেন লিওনার্দো ডিক্যাপ্রিও। এছাড়া অন্যান্য ভূমিকায় রয়েছেন লরেন ব্রাকো, জেমস মাদিও, মার্ক ওয়ালবার্গ প্রমুখ।[২]

জিম ক্যারলের মূল বই দ্য বাস্কেটবল ডায়েরিজ ১৯৬০-এর দশকে লেখা হয় এবং ১৯৭৮ সালে প্রকাশিত হয়। কিন্তু চলচ্চিত্রটি ১৯৯০-এর দশকের আদলে নির্মিত হয়েছে।[৩]

কাহিনী সংক্ষেপ[সম্পাদনা]

জিম ক্যারল একজন হাইস্কুল বাস্কেটবল খেলোয়াড়। তার জীবন বাস্কেটবল কোর্টকে কেন্দ্র করে চলতে থাকে এবং বাস্কেটবল কোর্টই তার কাছে তার দুনিয়া। তার সবচেয়ে ঘনিষ্ঠ বন্ধু ববি লুকেমিয়া রোগে আক্রান্ত হয়ে মৃত্যুপথযাত্রী। কোচ সুইফটি বাস্কেটবল দলের খেলোয়াড়দের উপর কর্তৃত্ব স্থাপন ও তাদের কোকেইন ও হিরোইনে আসক্ত করে তুলে, যা জিমের একজন বাস্কেটবল তারকা হওয়ার পিছনে বাঁধা হয়ে দাড়ায়।

তার মা তাকে নিয়ে উদ্বিগ্ন হয়ে পরলে সে বাড়ি ফিরে না এবং নিউ ইয়র্ক শহরের রাস্তায় ঘুরে বেড়ায়। হিরোইনের নেশা করার জন্য সে চুরি করে, ডাকাতি করে। অবশেষে তার প্রতিবেশী বন্ধু রেজির সহায়তায় নিজেকে সংযত করে এবং সুস্থ জীবনে ফিরে আসে।

অভিনয়শিল্পী[সম্পাদনা]

সমালোচকদের প্রতিক্রিয়া[সম্পাদনা]

রজার ইবার্ট ছবিটিকে ৪-এ ২ রেটিং দেন এবং বলেন, "ছবির শেষের দিকে জিমকে একটি মঞ্চের দরজা দিয়ে যেতে দেখা যায় এবং তাকে তার বংশ পরিচয়ের গল্প বলতে শুনা যায়। এটি সত্য নাকি অভিনয় তা বুঝা যায় নি এবং এটিই এই চলচ্চিত্রের মূল সমস্যা।"[৪] রটেন টম্যাটোস-এ এই চলচ্চিত্রের রেটিং স্কোর ৪৬%।[৫]

আইনি প্রতিক্রিয়া[সম্পাদনা]

১৯৯৭ সালে হেলথ হাই স্কুলে গোলাগুলির পর ১৯৯৯ সালে সমাজকর্মী জ্যাক থম্পসন এই চলচ্চিত্রের বিরুদ্ধে $৩৩ মিলিয়নের মামলা করেন। তিনি অভিযোগ করেন এই চলচ্চিত্রের গল্পের (পাশাপাশি দুটি পর্ণোগ্রাফি সাইট, কয়েকটি কম্পিউটার গেইম কোম্পানি, ও ১৯৯৪ সালের ন্যাচারাল বর্ন কিলারস-এর নির্মাতা ও পরিবেশক) কারণে ১৪ বছর বয়সী কিশোর মাইকেল কার্নেয়াল একজন প্রার্থনা দলের সদস্যকে গুলি ছুড়েন।[৬] মামলাটি ২০০১ সালে খারিজ হয়।[৭]

চলচ্চিত্রটি কলম্বাইন হাই স্কুল দাঙ্গা ও হেলথ হাই স্কুলে গোলাগুলির পর বিতর্কিত হয়ে ওঠে। সমালচকেরা এই ছবির একটি স্বপ্ন দৃশ্যকে, যেখানে কেন্দ্রীয় চরিত্রাভিনেতা একটি কালো কোট পরে তার ছয় সহপাঠীকে তার শ্রেণীকক্ষে গুলি করছে, এই দুই আক্রমণের সাথে যোগসূত্র রয়েছে বলে উল্লেখ করেন। এছাড়া মৃতব্যক্তিদের আত্মীয়-স্বজনেরাও মামলায় এই চলচ্চিত্রের নাম উল্লেখ করেছেন।[৮][৯][১০][১১]

সঙ্গীত[সম্পাদনা]

পলিগ্রাম ১৯৯৫ সালে দ্য বাস্কেটবল ডাইরিজ চলচ্চিত্রের সাথে এর সঙ্গীত প্রকাশ করে। গ্রায়েম রেভেল সঙ্গীতায়োজনে বিভিন্ন গানে কণ্ঠ দেন পার্ল জেম, পি জে হার্ভি, রকারস হাই-ফাই, গ্রিন অ্যাপল কুইক স্টেপ, দ্য ডোর্‌স, দ্য পসিয়েজ, দ্য কাল্ট, ফ্লিয়া, সাউন্ডগার্ডেন। অলমিউজিক এই চলচ্চিত্রের সঙ্গীতকে ৫-এ ৩ রেটিং দিয়েছে।[১২]

নং.শিরোনামলেখককণ্ঠশিল্পীদৈর্ঘ্য
১."ক্যাথলিক বয়"জিম ক্যারলজিম ক্যারল ও পার্ল জেম৩:০৫
২."ডেভিল'স টো"জিম ক্যারলগ্রায়েম রেভেল ও জিম ক্যারল০:৫৬
৩."ডাউন বাই দ্য ওয়াটার"পি জে হার্ভিপি জে হার্ভি৩:১৪
৪."হোয়াট অ্যা লাইফ"গ্লিন "বিগা" বুশ, রিচার্ড "ডিজে ডিক" হুইটিংটন, রব ম্যাকেঞ্জিরকারস হাই-ফাই৪:০২
৫."আই অ্যাম অ্যালোন"জিম ক্যারলগ্রায়েম রেভেল ও জিম ক্যারল১:৩৩
৬."পিপল হু ডায়েড"জিম ক্যারল, ব্রায়ান লিনসে, স্টিভ লিনসে, টেরেল উইন, ওয়েন উডসদ্য জিম ক্যারল ব্যান্ড৫:০০
৭."রাইডার্স অন দ্য স্টর্ম"জিম মরিসন, জন ডেনসমোর, রবি ক্রিগার, রে মানজারেকদ্য ডোর্‌স৬:৫৬
৮."ডিজি"টাই উইলিয়াম, ম্যারি অ্যান ব্রিডেন, ড্যানি কে, বব "মিঙ্ক" মার্টিন, স্টিভ রসগ্রিন অ্যাপল কুইক স্টেপ৩:১০
৯."ইট'স বিন হার্ড"জিম ক্যারলগ্রায়েম রেভেল ও জিম ক্যারল০:৫৩
১০."কামিং রাইট এলং"জন অয়ার, কেন স্ট্রিংফেলোদ্য পসিয়েজ৬:১৭
১১."স্ট্রবেরি ওয়াইন"সালভেদর পো, অ্যাডাম ফ্লাক্সম্যাসিভ ইন্টারনাল কমপ্লিকেশনস৩:৫৯
১২."স্টার"ইয়ান এস্টবারি, বিলি ডাফিদ্য কাল্ট৫:০০
১৩."ড্রিম ম্যাসাকার" গ্রায়েম রেভেল১:২৩
১৪."আই'ভ বিন ডাউন"ফ্লিয়াফ্লিয়া৪:৩৮
১৫."ব্লাইন্ড ডগস"ক্রিস কর্নেল, কিম থায়িলসাউন্ডগার্ডেন৪:৪০
Not featured on CD
নং.শিরোনামলেখককণ্ঠশিল্পীদৈর্ঘ্য
১."ড্যন্সিং বেয়ারফুট"প্যাটি স্মিথ, ইভান ক্রালজননেট ন্যাপলিটানো 
২."ওয়াটুসি ল্যাতিন বোগালো"জোয়ি অ্যালট্রোডাদ্য জোয়ি অ্যালট্রোডা ল্যাতিন এক্সপ্লোসন 

তথ্যসূত্র[সম্পাদনা]

  1. "The Basketball Diaries"Box Office Mojo। সংগ্রহের তারিখ ১৪ ডিসেম্বর ২০১৬ 
  2. "Film / The Basketball Diaries"TVTropes। সংগ্রহের তারিখ ১৪ ডিসেম্বর ২০১৬ 
  3. "The Basketball Diaries: Problems with Scott Kalvert's Film"CatholicBoy.com। সংগ্রহের তারিখ ১৪ ডিসেম্বর ২০১৬ 
  4. Ebert, Roger। "The Basketball Diaries"শিকাগো সান-টাইমস। সংগ্রহের তারিখ ১৪ ডিসেম্বর ২০১৬ 
  5. "The Basketball Diaries"রটেন টম্যাটোস। সংগ্রহের তারিখ ১৪ ডিসেম্বর ২০১৬ 
  6. Chalk, Andy (২০০৭-০৭-০৭)। "Legally Insane: A History of Jack Thompson's Antics"The Escapist। সংগ্রহের তারিখ ১৪ ডিসেম্বর ২০১৬ 
  7. "Media Companies Are Sued in Kentucky Shooting"। দ্য নিউ ইয়র্ক টাইমস। এপ্রিল ১৩, ১৯৯৯। 
  8. Carter, Nick (1999-05-06). "Linking of 'Basketball Diaries,' Columbine Shootings Upsets Author". CatholicBoy.com. Retrieved 2011-08-20.
  9. "Moral Panics and Violence in the Media" ওয়েব্যাক মেশিনে আর্কাইভকৃত ১৮ নভেম্বর ২০১০ তারিখে. Mediaknowall.com. Retrieved 2011-08-20.
  10. "Media Companies Are Sued in Kentucky Shooting". NYTimes.com. Retrieved 2011-08-20.
  11. Sink, Mandy (2002-03-06). "National Briefing: Rockies; COLORADO: COLUMBINE LAWSUIT DISMISSED". NYTimes.com. Retrieved 2011-08-20.
  12. অলমিউজিকে দ্য বাস্কেটবল ডায়েরিজ (চলচ্চিত্র)

বহিঃসংযোগ[সম্পাদনা]