দ্য গ্রেট গ্যাটসবি (চলচ্চিত্র)

উইকিপিডিয়া, মুক্ত বিশ্বকোষ থেকে
(দ্যা গ্রেট গেটসবি (চলচ্চিত্র) থেকে পুনর্নির্দেশিত)
পরিভ্রমণে ঝাঁপ দিন অনুসন্ধানে ঝাঁপ দিন
দ্য গ্রেট গ্যাটসবি
দি গ্রেট গেটসবি.jpg
পরিচালকব্যাজ ল্যুরমন
প্রযোজকলুসি ফিশার
ক্যাথরিন ন্যাপম্যান
ব্যাজ ল্যুরমন
ক্যাথরিন মার্টিন
ডগলাস উইক
চিত্রনাট্যকারব্যাজ ল্যুরমন
ক্রেইগ পিয়ার্স
উৎসএফ. স্কট ফিটজেরাল্ড কর্তৃক 
দ্য গ্রেট গ্যাটসবি
শ্রেষ্ঠাংশেলিওনার্দো ডিক্যাপ্রিও
টোবি ম্যাগুইর
কেরি মুলিগান
জুয়েল এডগার্টন
ইসলা ফিশার
জেসন ক্লার্ক
বর্ণনাকারীটোবি ম্যাগুইর
সুরকারক্রেইগ আর্মস্ট্রং
চিত্রগ্রাহকসিমন ডুগান
সম্পাদকজেসন ব্যালেন্টাইন
জোনাথান রেডমন্ড
ম্যাট ভিলা
প্রযোজনা
কোম্পানি
পরিবেশকওয়ার্নার ব্রস. পিকচার্স
রেড ওয়াগন এন্টারটেইনমেন্ট
মুক্তি
  • ১ মে ২০১৩ (2013-05-01) (নিউ ইয়র্ক সিটি প্রিমিয়ার)
  • ১০ মে ২০১৩ (2013-05-10) (যুক্তরাষ্ট্র)
  • ৩০ মে ২০১৩ (2013-05-30) (অস্ট্রেলিয়া)
দৈর্ঘ্য১৪২ মিনিট[১]
দেশঅস্ট্রেলিয়া
যুক্তরাষ্ট্র
ভাষাইংরেজি
নির্মাণব্যয়$১০৫ মিলিয়ন[২]
আয়$৩৫১ মিলিয়ন[২]

দ্য গ্রেট গ্যাটসবি ২০১৩ সালে মুক্তিপ্রাপ্ত মার্কিন রোমান্টিক নাট্য চলচ্চিত্র। এটি এফ. স্কট ফিটজেরাল্ড-এর ১৯২৫ সালে লেখা একই নামের উপন্যাসের উপর ভিত্তি করে নির্মিত হয়। বাজ লুরম্যান ও ক্রেইগ পিয়ার্সের চিত্রনাট্যে ছবিটি পরিচালনা করেন ব্যাজ ল্যুরমন। এতে নাম ভূমিকায় অভিনয় করেন লিওনার্দো ডিক্যাপ্রিও, ছবির কাহিনী বর্ণনা করেন টোবি ম্যাগুইয়ার এবং গেটসবির প্রেমিকা ডেইজির ভূমিকায় অভিনয় করেন কেরি মুলিগান

চলচ্চিত্রটির বাজেট ১০৫ মিলিয়ন অস্ট্রেলিয়ান ডলার। এতে আর্থিক সহায়তা দিয়েছে অস্ট্রেলিয়ান সরকার। প্রথম দিকে ২০১০ সালে ছবিটি সনি পিকচার এন্টারটেইমেন্ট-এর ব্যানারে তৈরীর কথা থাকলেও পরবর্তীতে তা নির্মানে আর্থিক সহায়তায় ও সারা বিশ্বে এর প্রচারে চুক্তিবদ্ধ করে নেয় 'ওয়ার্নার ব্রস.'। ছবিটি ১০ মে ২০১৩ তে মুক্তি পায়।

কাহিনী সংক্ষেপ[সম্পাদনা]

নিক ক্যারাওয়ে একজন মদ্যপ ও ইনসোমনিয়ায় আক্রান্ত মানুষ। সে নিজের চিকিৎসার জন্য অবস্থান করছে একটি স্বাস্থ্যসেবা কেন্দ্রে। চিকিৎসককে নিজের কথাগুলো বর্ণনা করছে অনেক ভেবে ভেবে, অতীতের দিনগুলিতে চলে গিয়ে। পুরনো সেই দিনগুলি তাকে করে দিচ্ছিল নস্টালজিক। কথাগুলো বলতে বলতে সে যেন সাজিয়ে নিচ্ছিল নিজের জীবনের একটি গল্প। চিকিৎসক নিকের অবস্থা বিবেচনা করে তাকে বললেন তার সেই কথাগুলোকে সাদা কাগজে কালির আচঁরে সাজিয়ে নিতে। নিক খুব অবাক হলো, অস্বীকৃতি জানালো। কিন্তু চিকিৎসকের বাড়িয়ে দেয়া কাগজ আর কলমের দিকে তাকিয়ে তার যেন কী হয়ে গেল। একসময় নিক তার মনের কথাগুলোকে কলমের খোঁচায় বাস্তবে রুপ দিতে লাগলো। চোখের সামনে ভেসে উঠতে লাগলো ১৯২২ সালের সেই দিনগুলি। নিক ক্যারাওয়ে তার লেখার মাধ্যমে ফিরে যাচ্ছিল ১৯১২ সালের সেই দিনগুলিতে। যখন সে আমেরিকার লং আইল্যান্ডের একটি বাড়িতে বসবাসের জন্য স্থায়ী হয়। বাড়িটির চারপাশে ছিল অসংখ্য গাছপালা আর পাশ দিয়ে বয়ে চলা সমুদ্র। শীত, বর্ষায় নিক তার সেই সুন্দর ছায়াঘেরা বাড়িতে একাকী জীবন যাপন করত। গ্রীষ্মকালে মানুষজন যখন সমুদ্রের তীরে আনন্দ করত নিক তখন তার বারান্দা থেকে তা দেখত। তবে মাঝে মাঝে নিক অনুভব করতে পারত কেউ একজন সারাক্ষন আড়াল থেকে তাকে দেখছে। একদিন সে পাশের বাড়িটি, যেটা ছিল একটি বিশাল ম্যানশন সেখানকার এক জানালা দিয়ে একজনকে লুকিয়ে তার দিয়ে তাকিয়ে থাকতে দেখল। এই সেই লোক যার নাম জে গেটসবি, লোকটা একাই থাকে আর বেশিরভাগ সময় পার্টি, লোকবল আর হৈ চৈ নিয়ে থাকতে ভালবাসে। ধীরে ধীরে গেটসবির সাথে নিকের বন্ধুত্ব গড়ে ওঠে। নানা অনুষ্ঠানের নিমন্ত্রন পেতে থাকে নিক গেটসবির কাছ থেকে। আর একে একে গেটসবি সম্পর্কে অনেক কিছুই জানতে পারে নিক। অবাক থেকে অবাক হতে থাকে সব জেনে। এমন কিছু চরম সত্য সে জানে যে তা গোপন রাখতে নানা অভিনয়ও নিককে করতে হয়।

অপর দিকে , নিকের বাড়ি থেকে  খুব বেশি দূরে নয় এমন এক জায়গায় থাকে নিকের কাজিন ডেইজি। ডেইজি বিবাহিত নিকেরই কলেজের এক পরিচিত ব্যক্তি টমের সাথে। নিক ডেইজির সাথে দেখা করতে প্রায়ই তার বাড়িতে যেত। সেখানে গিয়ে সে ডেইজি আর টমের বিবাহিত জীবন সম্পর্কেও অনেক অজানা তথ্য জানতে পারে। সব রহস্যই নিকের কাছে এক সময় পরিষ্কার হয়। নিক একাধারে একজন ভালো বন্ধু আর একজন ভালো ভাই। বন্ধু গেটসবির জীবনের নানা সমস্যা আর বোন ডেইজির বিবাহিত জীবনের নানা চড়াই-উৎরাই তাকে চিন্তিত করে তোলে। সাহায্যের হাত বাড়িয়ে দেয় নিক।

অভিনয়শিল্পী[সম্পাদনা]

  • লিওনার্ডো ডিক্যাপ্রিও - জেয় গেটসবি
  • টোবি ম্যাগুইয়ার - নিক ক্যারাওয়ে
  • কেরি মুলিগান - ডেইজি বুচানন
  • এমিলি ফোরম্যান - পামেলা বুচানন
  • জুয়েল এডগার্টন - টম বুচানন
  • এলিজাবেথ ডেবিকি - জর্ডান বেকার
  • ইসলা ফিশার - মার্টল উইলসন
  • জেসন ক্লার্ক - জর্জ উইলসন
  • জ্যাক থমসন - ডঃ ওয়াল্টার পারকিনস
  • অমিতাভ বচ্চন - মেয়ার উলফশেম
  • এডিলেড ক্লেমেন্স - ক্যাথরিন
  • রিচাড কার্টার - হারজগ
  • ম্যাক্স কুলেন - আউল
  • হিদার মাইকেল - ডেইজির মা
  • গাস মুরে - টেডি বার্টন
  • স্টিভ বিসলে - ড্যান কোডি
  • ভিন্স কলোসিমো - মাইকেলিস
  • ফেলিক্স উইলিয়ামসন - হেনরি
  • কেট মালভানি - মিসেস ম্যাককি
  • ইডেন ফাক - চেস্টার ম্যাককি
  • নিক জানৎ - রবার্ট স্টেলেনবস
  • ব্রেন্ডন ম্যাক্লিন - এউইং ক্লিপস্প্রিঙ্গার
  • কাহলিয়া ও কারিনা গ্রেকসা - যমজ
সিডনীতে দ্য গ্রেট গ্যাটসবির প্রিমিয়ারে (বাম থেকে) জুয়েল এডগার্টন, পরিচালক বাজ লুরম্যান, এলিজাবেথ ডেবিকি, কেরি মুলিগান, টোবি ম্যাগুইর, এবং প্রযোজক ও পোশাক পরিকল্পনাকারী ক্যাথরিন মার্টিন, ২২ মে, ২০১৩

সঙ্গীত[সম্পাদনা]

মূল্যায়ন[সম্পাদনা]

বক্স অফিস[সম্পাদনা]

"দ্য গ্রেট গ্যাটসবি" চলচ্চিত্রটি ১৪৪.৮ মিলিওন মার্কিন ডলার উত্তর আমেরিকায় এবং ২০৬.২ মিলিয়ন মার্কিন ডলার আয় করে। সারা বিশ্বে মোট ৩৫১ মিলিয়ন মার্কিন ডলার আয় করে।[৩]

মুক্তির প্রথম দিন ১৯.৪ মিলিয়ন মার্কিন ডলার আয় করে "দ্য গ্রেট গ্যাটসবি"।[৪]

পুরস্কার[সম্পাদনা]

তথ্যসূত্র[সম্পাদনা]

  1. "THE GREAT GATSBY (12A)"Warner Brothers Entertainment UK Ltd.British Board of Film Classification। এপ্রিল ২২, ২০১৩। ৭ মে ২০১৩ তারিখে মূল থেকে আর্কাইভ করা। সংগ্রহের তারিখ আগস্ট ২০, ২০১৩ 
  2. "The Great Gatsby (2013)"Box Office Mojo। Amazon। সংগ্রহের তারিখ এপ্রিল ১৪, ২০১৪ 
  3. Mike Fleming Jr (মার্চ ২১, ২০১৪)। "2013 Most Valuable Blockbuster – #7 'Monsters University' Vs. #10 'Thor: The Dark World'; #2 'Frozen' Vs. #15 'The Great Gatsby'"Deadline.com। সংগ্রহের তারিখ মার্চ ২২, ২০১৫ 
  4. Kilday, Gregg (মে ১১, ২০১৩)। "Box Office Report: 'Great Gatsby' Has Jazzy $19.4 Million Opening Friday"The Hollywood Reporter। সংগ্রহের তারিখ ২৫ ডিসেম্বর ২০১৬ 

বহিঃসংযোগ[সম্পাদনা]