দুই লেগ সমতা

উইকিপিডিয়া, মুক্ত বিশ্বকোষ থেকে

খেলাধুলায় (বিশেষত ফুটবল) দুই লেগ সমতা হছে দুটি দলের মধ্যে একটি প্রতিযোগিতা, যা দুটি ম্যাচ বা "লেগ" নিয়ে গঠিত, প্রতিটি দল একটি লেগ হোম দল হিসেবে খেলে। বিজয়ী দলটি সাধারণত দুইটি লেগের সামগ্রিক ফলাফলের মাধ্যমে নির্ধারিত হয়। উদাহরণস্বরূপ, যদি দুটি লেগের স্কোর হয়:

  • প্রথম লেগ: ক দল ৪–১ খ দল
  • দ্বিতীয় লেগ: খ দল ২–১ ক দল

তবে সামগ্রিক ফলাফলের হুবে ক দল ৫–৩ খ দল, যার মানে হচ্ছে ক দল জয়লাভ করেছে। কিছু প্রতিযোগিতায়, সামগ্রিক ফলাফল নির্বিশেষে প্রতিটি দল একটি লেগ জয়লাভ করলে একটি সমতা বিবেচিত করা হয়। নক-আউট কাপ প্রতিযোগিতা এবং প্লে অফে দুই লেগ সমতা ব্যবহার করা যেতে পারে।

উত্তর আমেরিকাতে, দুই লেগ সমতার সমতুল্য শব্দ হচ্ছে হোম-অ্যান্ড-হোম সিরিজ বা সমষ্টিগতভাবে ফলাফল নির্ধারিত হলে, দুই-খেলা সর্বমোট গোলসংখ্যা সিরিজ

টাইব্রেকিং[সম্পাদনা]

যদি দুটি লেগের পরে সামগ্রিক ফলাফল সমতায় থাকে, তবে সমতা ভঙ্গ করতে বিভিন্ন পদ্ধতি ব্যবহার করা যেতে পারে। অ্যাওয়ে গোলের নিয়মের অধীনে, যে দল বেশি গোল করেছে তারা অগ্রসর হয়। যদি অ্যাওয়ে গোলসংখান সমান হয়, বা বিবেচনা না করা হয়, তবে সমতাটি অতিরিক্ত সময় এবং / অথবা পেনাল্টি শুটআউট দ্বারা বিজয়ীর সিদ্ধান্ত গ্রহণ যেতে পারে। পূর্বে ইউরোপীয় ক্লাবের প্রতিযোগিতায় দ্বিতীয় লেগের ভেন্যু বা একটি নিরপেক্ষ ভেন্যুতে পুনরায় খেলার ব্যবহৃত হতো।[১] প্রিমেরা দিভিসিওন দে মেক্সিকোর "লিগিলা" (প্লে অফ)-এ, নিয়মিত মৌসুমের সর্বাধিক ভালো ফলাফল অর্জনকারী দলটি অগ্রসর হয়; কিছু লীগ একে অপরের বিরুদ্ধে দুটি দলের রেকর্ডকে আমলে নেয়। ইতালির সেরিয়ে বিতে উন্নিতের জন্য আয়োজিত প্লে অফে (যা সাধারণত সকল মৌসুমে ঘটে না), দ্বিতীয় লেগের নিয়মিত সময় শেষে সামগ্রিক ফলাফলের ভিত্তিতে দুই লেগের সমতা ভঙ্গ করার মাধ্যমে অতিরিক্ত সময় (অ্যাওয়ে গোলের নিয়ম ব্যবহৃত হয় না) খেলা হয়; অতিরিক্ত সময়ের পরেও যদি সমতা ভঙ্গ না হয়, তবে লীগ টেবিলের শীর্ষে থাকা দলটি এগিয়ে যায়।

তথ্যসূত্র[সম্পাদনা]

  1. Ross, James M. (২৭ জুন ২০০৭)। "Inter-Cities Fairs Cup 1960-61"RSSSF। সংগ্রহের তারিখ ২০০৯-০৩-২৬