দীপ্তি ভটনাগর

উইকিপিডিয়া, মুক্ত বিশ্বকোষ থেকে
পরিভ্রমণে ঝাঁপ দিন অনুসন্ধানে ঝাঁপ দিন
দীপ্তি ভটনাগর
Deepti Bhatnagar01.jpg
২০১৩ সালে দীপ্তি ভটনাগর
জন্ম (1967-09-30) ৩০ সেপ্টেম্বর ১৯৬৭ (বয়স ৫৩)
পেশা
  • মডেল
  • অভিনেত্রী
  • টেলিভিশন উপস্থাপক
ওয়েবসাইটwww.deeptibhatnagar.com

দীপ্তি ভটনাগর (জন্ম: ৩০শে সেপ্টেম্বর ১৯৬৭) হলেন একজন ভারতীয় প্রাক্তন চলচ্চিত্র অভিনেত্রী এবং মডেল। ১৯৯৫ সালে সঞ্জয় গুপ্তার রাম শাস্ত্রতে অভিনয়ের মাধ্যমে তিনি অভিনয় জগতে পদার্পণ করেছিলেন; উক্ত চলচ্চিত্রে তিনি জ্যাকি শ্রফ এবং মনীষা কৈরালার মতো অভিনয়শিল্পীদের সাথে অভিনয় করেছেন।[১] তাঁর বেশ কয়েকটি পরিচিত কাজের মধ্যে রয়েছে পেলে সানাদাদি নামক একটি তেলুগু চলচ্চিত্র, ইনফার্নো নামক মার্কিন চলচ্চিত্র এবং মন নামক বলিউড চলচ্চিত্র।

প্রারম্ভিক জীবন[সম্পাদনা]

দীপ্তি ভটনাগর ১৯৬৭ সালের ৩০শে সেপ্টেম্বর তারিখে ভারতের উত্তর প্রদেশের মিরাটে জন্মগ্রহণ করেছিলেন।[২][৩] তিনি দিল্লি থেকে তাঁর প্রাথমিক শিক্ষা সম্পন্ন করেছেন এবং পরবর্তীতে তিনি মিরাট বিশ্ববিদ্যালয়ে পড়াশোনা করেছেন। উত্তর প্রদেশের মিরাট শহরে তাঁর হস্তশিল্প কারখানার প্রচারের জন্য একটি ভাল বিজ্ঞাপন সংস্থা খুঁজতে ১৯৯২ সালে তিনি মুম্বই চলে আসেন।

কর্মজীবন[সম্পাদনা]

১৯৯২ সালে, যখন ভটনাগর মুম্বইতে তাঁর হস্তশিল্পের প্রচার করছিলেন, তখন তিনি রূপমিলন'স শাড়িস এর প্রেস বিজ্ঞাপনের জন্য একজন মডেল হিসেবে একটি চুক্তি স্বাক্ষর করার সুযোগ পেয়েছিলেন এবং সেই বিজ্ঞাপনে কাজ করার পর তিনি আরও ১২টি বিজ্ঞাপনে কাজ করার চুক্তি স্বাক্ষর করেন।[৪] তিনি হস্তশিল্প কারখানা পরিচালনায় তাঁর আগ্রহ ছেড়ে দিয়ে পেশাদার মডেলিং জগতে প্রবেশ করেন। তিনি ১৯৯০ সালে ইভস সাপ্তাহিক প্রতিযোগিতা জয়লাভ করেছেন।[৪] এর পরেই তিনি সিঙ্গাপুরে বিভিন্ন আন্তর্জাতিক ফ্যাশন অনুষ্ঠানের জন্য মডেলিং করার সুযোগ পেয়েছিলেন।[৪]

টেলিভিশন[সম্পাদনা]

১৯৯৮ সালে, ভটনাগর ইয়ে হ্যায় রাজ নামক একটি টেলিভিশন অনুষ্ঠানে অংশগ্রহণ করেছিলেন; যেখানে তিনি রুবি ভাটিয়ার পরিবর্তে একজন শক্ত ও ঋজু পুলিশের চরিত্রে অভিনয় করেছেন।[৫] ২০০১ সালে, তিনি ভ্রমণভিত্তিক টেলিভিশন যাত্রার প্রযোজনা করেছেন। এই অনুষ্ঠানটি একটি ধর্মীয় ভ্রমণ গাইড অনুষ্ঠান ছিল; যেটি স্টার প্লাসে সম্প্রচারিত হতো।[৬] অতঃপর তিনি মুসাফির হুঁ ইয়ারোঁ নামে আরেকটি ভ্রমণভিত্তিক অনুষ্ঠানের কাজ করেছেন। তিনি উভয় অনুষ্ঠানেই একজন উপস্থাপক হিসেবে উপস্থিত হয়েছিলেন।[৭] মুসাফির হুঁ ইয়ারোঁ অনুষ্ঠানের জন্য ৬ বছরের তিনি প্রায় ৮০-টিরও বেশি দেশে ভ্রমণ করেছিলেন। অতঃপর তিনি তাঁর নিজস্ব প্রযোজনা সংস্থা, দীপ্তি ভটনাগর প্রোডাকশনস শুরু করেছিলেন; যার মধ্যে স্বর প্রক্ষেপন (ডাবিং), সম্পাদনা এবং প্রাক-প্রযোজনার সুবিধা রয়েছে। টেলিভিশন ধারাবাহিকে অভিনয় করার পর তাঁর প্রচুর ভক্ত হয়েছিল।

ব্যক্তিগত জীবন[সম্পাদনা]

ভটনাগর রনদীপ আর্যের (মুসাফির হুঁ ইয়ারোঁ অনুষ্ঠানটির পরিচালক ছিলেন) সাথে বিবাহ বন্ধনে আবদ্ধ হয়েছেন।[৮] তাঁদের দুটি পুত্র রয়েছে; একজন হচ্ছে শুভ (২০০৩ সালের ২৫শে জুলাই তারিখে জন্মগ্রহণ করেছে), যে উডস্টক স্কুলে পড়াশোনা করে এবং অন্যজন হচ্ছে শিব।[৮]

তথ্যসূত্র[সম্পাদনা]

  1. Ahuja, Asha। "A career reborn on small screen"The Tribune। সংগ্রহের তারিখ ২০১১-০৯-০৮ 
  2. Wadhwa, Akash (১৭ ফেব্রুয়ারি ২০১৩)। "I want to use my brains, not just my face: Deepti Bhatnagar"The Times of India। সংগ্রহের তারিখ ৫ মে ২০১৬ 
  3. "Deepti Bhatnagar"Seasons India। ১৮ জুলাই ২০১৩ তারিখে মূল থেকে আর্কাইভ করা। সংগ্রহের তারিখ ৫ মে ২০১৬ 
  4. K. Devgan (১৭ নভেম্বর ২০০২)। "One-way yatra to success"The Sunday Tribune। সংগ্রহের তারিখ ২০১১-০৯-০৮ 
  5. Khosla, Mukesh (১১ অক্টোবর ১৯৯৮)। "Deepti has a lot to smile about"The Tribune। সংগ্রহের তারিখ ২০১৬-০৭-০২ 
  6. Prabha, Kanak (২৪ ফেব্রুয়ারি ২০১২)। "What's cooking!"The Hindu। সংগ্রহের তারিখ ৫ মে ২০১৬ 
  7. "Interview with producer - anchor Deepti Bhatnagar"। Indiantelevision.com। ১৩ ডিসেম্বর ২০০২। সংগ্রহের তারিখ ২০১১-০৯-০৮ 
  8. "About Deepti"Deepti Bhatnagar Productions। সংগ্রহের তারিখ ৫ মে ২০১৬ 

বহিঃসংযোগ[সম্পাদনা]