দিল চাহতা হ্যায়

উইকিপিডিয়া, মুক্ত বিশ্বকোষ থেকে
পরিভ্রমণে ঝাঁপ দিন অনুসন্ধানে ঝাঁপ দিন
দিল চাহতা হ্যায়
দিল চাহতা হ্যায়ের প্রচ্ছদ.jpg
दिल चाहता है
পরিচালকফারহান আখতার
রচয়িতাফারহান আখতার,
কাসিম জাগমাগিয়া
শ্রেষ্ঠাংশে
সুরকারশঙ্কর-এহসান-লায়
পরিবেশকএক্সেল এন্টারটেইনমেন্ট
মুক্তি
  • ২৪ জুলাই ২০০১ (2001-07-24)
দৈর্ঘ্য১৮৩ মিনিট
দেশভারত
ভাষাহিন্দি
নির্মাণব্যয়১৪০ মিলিয়ন (US$১.৯৫ মিলিয়ন)[১]

দিল চাহতা হ্যায় (হিন্দি: दिल चाहता है, অনুবাদ 'মন চায়') ২০০১ সালের একটি ভারতীয় কমেডি-ড্রামা চলচ্চিত্র যেখানে আমির খান, সাইফ আলি খান, প্রীতি জিন্টা, অক্ষয় খান্না, সোনালী কুলকার্নী এবং ডিম্পল কাপাডিয়া মুখ্য ভূমিকায় অভিনয় করেন। এই চলচ্চিত্রটি ফারহান আখতার এর লেখা এবং পরিচালনা করা প্রথম কাজ ছিলো, মুম্বাই এবং অস্ট্রেলিয়ার সিডনিতে শুটিং করা চলচ্চিত্রটি তিনজন তরুণ বন্ধুর জীবনের কিছু কাহিনীর আলোকপাত করে।

২০০১ সালে চলচ্চিত্রটি সেরা হিন্দি ভাষার চলচ্চিত্র বিভাগে জাতীয় চলচ্চিত্র পুরস্কার জিতেছিলো। চলচ্চিত্রটি ভারতের শহুরে মানুষদের জীবন কাহিনী দেখানোর কারণে ভারতের শহরগুলোতে জনপ্রিয়তা পেয়েছিলো, চরিত্রগুলো ছিলো উচ্চ শ্রেণীর মানুষের। চলচ্চিত্রটি ধীরে ধীরে কাল্ট মর্যাদা আয়ত্ত করে নেয়।[২]

কাহিনী সংক্ষেপ[সম্পাদনা]

তিনজন তরুণ বন্ধু আকাশ, সমীর এবং সিদ্ধার্থ। সিদ্ধার্থকে আকাশ এবং সমীর 'সিড' বলে ডাকে। আকাশ প্রেম-ভালোবাসায় বিশ্বাস করেনা, সমীর প্রেম করতে চায় আর তার একটি প্রেমিকাও আছে, সিদ্ধার্থ শখের বশে একজন চিত্রশিল্পী, সে ছবি আঁকতে পছন্দ করে।

একদা আকাশ দুষ্টামি করে শালিনী নামের এক মেয়েকে প্রেমের প্রস্তাব দেয়, কিন্তু শালিনীর সঙ্গে যার বাগদান হয়েছে যার নাম রোহিত সে আকাশকে একটা ঘুসি মারে। আকাশ সমীরের সঙ্গে তার প্রেমিকা প্রিয়ার সম্পর্ক ভেঙে দেয়।

তিন বন্ধু গোয়া ভ্রমণে যায়, ওখানে সমীর এক বিদেশী মেয়েকে পছন্দ করে এবং তার সঙ্গে বন্ধুত্ব করে বিপদে পড়ে। সমীর পরে পুজা নামের এক মেয়ের সঙ্গে পরিচিত হয় যেই মেয়ের সঙ্গে তার বাবামা তার বিয়ে ঠিক করার জন্য তাদের বাসায় নিয়ে আসে, এই মেয়েকে পরে সমীর পছন্দ করে ফেলে এবং মেয়েটিও সমীরের প্রতি আগ্রহী হয়।

সিদ্ধার্থ একবার তার বাসার কাছে তার চেয়ে এক বয়স্ক মহিলাকে তার লাগেজ উঠাতে দেখে সাহায্য লাগবে কিনা জিজ্ঞেস করে, মহিলাটি প্রথমে ঋণাত্মকতা দেখালেও পরে পরোক্ষভাবে বোঝায় যে তার সাহায্য লাগবে। সিদ্ধার্থ তার লাগেজ উঠিয়ে দেয় আর তারা জ্যাসওয়াল নামের ঐ নারীর সঙ্গে তার এক বন্ধুত্বপূর্ণ সম্পর্ক গড়ে ওঠে। এই মহিলাকে যে সিড ভালোবেসে ফেলে সেটা সে আকাশকে বললে আকাশ দুষ্টামি করে আর সিদ্ধার্থ তাকে রাগ করে চড় মারে, আকাশ আর সিডের মধ্যে সম্পর্ক এভাবে নষ্ট হয়ে যায়।

আকাশ অস্ট্রেলিয়াতে তার বাবার ব্যবসা সামলানোর জন্য গেলে প্লেনেই শালিনীর সঙ্গে দেখা হয়ে যায়, শালিনীর সঙ্গে বন্ধুত্ব বাড়তে থাকে আর তারা দুজন দুজনকে পছন্দও করতে থাকে।

আকাশের সঙ্গে পরে সিড এর সম্পর্ক ঠিক হয়ে যায়, কিন্তু সিডের তারা জ্যাসওয়াল গুরুতর অসুস্থ হয়ে হাসপাতালে মারা যায়।

কুশীলব[সম্পাদনা]

তথ্যসূত্র[সম্পাদনা]

  1. "Dil Chahta Hai"। IBOS। ২১ জুলাই ২০১২ তারিখে মূল থেকে আর্কাইভ করা। সংগ্রহের তারিখ ৪ জানু ২০১৫ 
  2. Sita Menon (১০ আগস্ট ২০০১)। "Trip on Dil Chahta Hai"Rediff.com। সংগ্রহের তারিখ ২২ সেপ্টেম্বর ২০১৫ 

বহিঃসংযোগ[সম্পাদনা]

টেমপ্লেট:জাতীয় চলচ্চিত্র পুরস্কার (ভারত) শ্রেষ্ঠ হিন্দি ভাষার চলচ্চিত্র