দিনা আল জুহানি আব্দুল আজিজ

উইকিপিডিয়া, মুক্ত বিশ্বকোষ থেকে
পরিভ্রমণে ঝাঁপ দিন অনুসন্ধানে ঝাঁপ দিন
দিনা আল জুহানি আব্দুল আজিজ
دينا الجهني
জন্ম (1975-03-01) ১ মার্চ ১৯৭৫ (বয়স ৪৪)
ক্যালিফোর্নিয়া, যুক্তরাষ্ট্র
দাম্পত্য সঙ্গীপ্রিন্স সুলতান বিন ফাহাদ বিন নাসের বিন আব্দুল আজিজ
রাজবংশহাউজ অফ সৌদ
পিতাআলি আল জুহানি
পেশাব্যবসা

প্রিন্সেস দিনা আলি আল-জুহানী আব্দুল আজিজ ( আরবি: دينا الجهني‎‎; জন্মঃ ১ মার্চ, ১৯৭৫) একজন সৌদি-আমেরিকান ব্যবসায়ী এবং সম্পাদক। তিনি রিয়াদের অবস্থিত ডিএনএ স্টোরের প্রতিষ্ঠাতা ও মালিক। তিনি ১৯৯৮ সালে সৌদি রাজ পরিবারের বিয়ে করেন এবং ভোগ আরব (Vogue Arabia) নামক একটি ম্যাগাজিনের প্রধান সম্পাদক হিসেবে কাজ করেন। ১৩ এপ্রিল, ২০১৭ সালে তাকে ২টি কারণে ম্যাগাজিন থেকে বরখাস্ত করা হয়। [১]

জন্ম এবং ব্যক্তিগত জীবন[সম্পাদনা]

তিনি ক্যালিফোর্নিয়া জন্মগ্রহণ করেন। তার বাবা ছিলেন সৌদি আরবের সাবেক যোগাযোগ মন্ত্রী আলী আল জুহানি। তিনি আমেরিকা ও মধ্যপ্রাচ্যে বসবাস করেন করেন। তার বাবা ছিলেন একজন অর্থনীতিবিদ, তিনি আমেরিকার বেশ কয়েকটি বিশ্ববিদ্যালয়ে শিক্ষাদান করতেন। ১৯৯৮ সালে দীনা আল জুহানি সৌদি আরবের রাজকুমার সুলতান বিন ফাহাদ বিন নাসের বিন আব্দুল আজিজকে বিয়ে করেন। তখন তার নামের সাথে প্রিন্সেস যুক্ত হয়।[২] তাদের তিনটি সন্তান হয়, একটি মেয়ে এবং দুইটি ছেলে।[৩]

পেশা[সম্পাদনা]

ছয় বছর বয়সে ব্রিটিশ পত্রিকা ট্যাটলারের একটি অনুলিপি দেখে তিনি ফ্যাশনে আগ্রহী হইয়ে উঠেন। তিনি বলেন, "আমি প্রতিটি পত্রিকা শুরু থেকে শেষ পর্যন্ত পড়তাম। ফ্যাশন সম্পর্কিত সবকিছুর জন্য আগ্রহী ছিলাম"।[৪] বিভিন্ন আন্তর্জাতিক ফ্যাশন শোতে যোগ দেওয়ার পর, তিনি ২০০৬ সালে রিয়াদে তার দোকান "ডিএনএ" প্রতিষ্ঠা করেন। ২০১৩ সালে এর একটি শাখা খোলা হয় কাতারের দোহায়[৫] পারসিয়ান উপসাগরীয় অঞ্চলে এক দশক সফল ব্যবসায় করার পর, তিনি DNACHIC.com নামের একটি ই-শপিং ওয়েবসাইট চালু করেন।[৬] এখানে মধ্য প্রাচ্যের গ্রাহকদের কথা মাথায় রেখে পোশাক তৈরী করা হয়। [৭] ২০১৬ সালের সেপ্টেম্বর [৮] মাসে তিনি ভোগ আরব (Vogue Arabia) এর সম্পাদক হিসেবে দায়িত্ব পান।[৯][১০] কিন্তু ম্যাগাজিন ব্যবস্থাপনা নিয়ে বিতর্কের কারণে তাকে অল্প সময় পরেই বরখাস্ত করা হয়।[৩][১১]

তথ্যসূত্র[সম্পাদনা]

  1. Ward, Mary (এপ্রিল ১৪, ২০১৭)। "Saudi princess Deena Aljuhani Abdulaziz fired from Vogue editor role after two issues"The Sydney Morning Herald। সংগ্রহের তারিখ আগস্ট ২৮, ২০১৭ 
  2. "Meet Deena Aljuhani Abdulaziz: the Saudi princess launching Vogue Arabia"The Telegraph। সংগ্রহের তারিখ সেপ্টেম্বর ১৮, ২০১৭ 
  3. Larocca, Amy (ফেব্রুয়ারি ৬, ২০১৭)। "Vogue Arabia's First Editor Is Literally a Princess"The Cut। সংগ্রহের তারিখ আগস্ট ২৮, ২০১৭ 
  4. Larocca, Amy (নভেম্বর ৮, ২০০৪)। "Deena Abdulaziz, Mother"New York Magazine। সংগ্রহের তারিখ আগস্ট ২৮, ২০১৭ 
  5. "5 Things to Know About Vogue Arabia's First Editor-in-Chief"observer.com। জুলাই ৫, ২০১৬। সংগ্রহের তারিখ আগস্ট ২৮, ২০১৭ 
  6. Hirschmiller, Stephanie (জুন ৯, ২০১৬)। "Deena Aljuhani Abdulaziz Launches Online Boutique DNACHIC.com"WWD (ইংরেজি ভাষায়)। সংগ্রহের তারিখ সেপ্টেম্বর ১৮, ২০১৭ 
  7. "The Saudi Arabian Princess of the 21st Century"brightside.me। এপ্রিল ৩, ২০১৭। সংগ্রহের তারিখ আগস্ট ২৮, ২০১৭ 
  8. Ward, Mary (জুলাই ৬, ২০১৬)। "Saudi princess Deena Aljuhani Abdulaziz to be first editor of Vogue Arabia"The Sydney Morning Herald (ইংরেজি ভাষায়)। সংগ্রহের তারিখ সেপ্টেম্বর ১৮, ২০১৭ 
  9. Pavia, Will (মার্চ ৪, ২০১৭)। "How a Saudi princess became the boss at Vogue"The Timesআইএসএসএন 0140-0460। সংগ্রহের তারিখ সেপ্টেম্বর ১৮, ২০১৭ 
  10. Pithers, Ellie। "Who Is Deena Aljuhani Abdulaziz?"। সংগ্রহের তারিখ ২০১৮-০৬-২৩ 
  11. Safronova, Valeriya (এপ্রিল ১৪, ২০১৭)। "Vogue Arabia Suddenly Changes Editors"The New York Times (ইংরেজি ভাষায়)। আইএসএসএন 0362-4331। সংগ্রহের তারিখ সেপ্টেম্বর ১৮, ২০১৭