বিষয়বস্তুতে চলুন

তোহির ইউলদোশ

উইকিপিডিয়া, মুক্ত বিশ্বকোষ থেকে
তৌহির ইউলদোশ (ইউনুসোভ উমিদ)
জন্ম নামতৌহির আব্দুলহালিলোভিচ (ইউনুসোভ উমিদ)
জন্ম(১৯৬৭-১০-০২)২ অক্টোবর ১৯৬৭
ফারগানা, উজবেকিস্তান
মৃত্যু১ অক্টোবর ২০০৯(2009-10-01) (বয়স ৪১)
বেলুচিস্তান, পাকিস্তান
আনুগত্য ইসলামিক মুভমেন্ট অফ উজবেকিস্তান
কার্যকাল১৯৯৭–২০০৯
যুদ্ধ/সংগ্রাম

তোহির ইউলদোশ বা তোহির আব্দুলহালিলোভিচ ইউলদাশেভ (১৯৬৭ -২০০৯) একজন প্রাক্তন উজবেক ইসলামপন্থী জিহাদি যিনি ১৯৯৮ সালের আগস্ট মাসে জুমা নামাঙ্গানির সাথে মধ্য এশিয়ায় সক্রিয় একটি ইসলামী জিহাদি সংগঠন ইসলামিক মুভমেন্ট অফ উজবেকিস্তান (IMU) এর সহ-প্রতিষ্ঠা ছিলেন।[১][২] ডিফেন্স ইন্টেলিজেন্স এজেন্সির মতে অপারেশন অ্যানাকোন্ডা চলাকালীন মার্কিন বাহিনীর বিরোধিতাকারী একজন প্রধান নেতা ছিলেন। জাতিসংঘ তাঁর আইএমইউকে একটি ইসলামী সন্ত্রাসী সংগঠন হিসেবে বিবেচনা করে।[৩] ২০০১ সালে আফগানিস্তানে একটি বিমান হামলায় IMU-এর সামরিক নেতা এবং সহ-প্রতিষ্ঠাতা জুমা নামাঙ্গানি যখন নিহত হন, তখন ইউলদোশ আইএমইউয়ের দৈনিক কার্যক্রমের দায়িত্ব নেন।[৪]

বিবিসির তথ্য অনুসারে ইউলদোশ জানতে পেরেছিলেন যে, ১১ সেপ্টেম্বর মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রে হামলা করার জন্য আল কায়েদা হাইজ্যাক করা একটি বিমান ব্যবহার করার পরিকল্পনা করছে।[৫]বিবিসি জানিয়েছিল যে, ইউলদোশ তখন তালেবানের পররাষ্ট্রমন্ত্রী ওয়াকিল আহমেদ মুত্তাওয়াকিলকে অবহিত করেছিলেন, যিনি ২০০১ সালের ১১ সেপ্টেম্বরের আগে আল কায়েদার হামলার পরিকল্পনা সম্পর্কে মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রকে সতর্ক করার জন্য একজন দূত পাঠিয়েছিলেন। বিবিসির তথ্য অনুসারে ইউলদোশ আক্রমণ সম্পর্কে মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রকে একটি আগাম সতর্কতা শুরু করতে বলেছিলেন। কারণ তিনি উদ্বিগ্ন ছিলেন যে মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রে আল কায়েদার হামলা আমেরিকান পাল্টা আক্রমণের সূত্রপাত করবে, যা তার গোষ্ঠীর আফগানিস্তানে নিরাপদ আশ্রয়কে ক্ষতিগ্রস্ত করবে।

আমেরিকান প্রিডেটর ড্রোন থেকে ছোড়া ক্ষেপণাস্ত্রে বাইতুল্লাহ মেহসুদ নিহত হওয়ার খবর পাওয়ার পর এশিয়া টাইমস জানিয়েছিল যে, ইউলদোশ বাইতুল্লাহর আদর্শিক পরামর্শদাতা ছিলেন। তোহির তার হাতে ২৫০০ জন অভিজ্ঞ যোদ্ধা রেখেছিলেন এবং বাইতুল্লাহ উজবেকদের সাথে থাকতেন। তিনি তার সবচেয়ে বড় আদর্শিক অনুপ্রেরণা হয়ে ওঠেন।[৬]

২০০৯ সালের ৩০ সেপ্টেম্বরে একজন নিজেকে ইউলদোশের দেহরক্ষী বলে দাবি করে পাকিস্তানের সংবাদপত্র দ্য নিউজ ইন্টারন্যাশনালকে রিপোর্ট করেছিলেন যে, মেহসুদের মৃত্যুর পরপরই ইউএস প্রিডেটর ড্রোন বিমান হামলায় ইউলদোশ নিহত হয়েছিলেন।[৭][৮] পাকিস্তান ও মার্কিন কর্মকর্তারা পরে নিশ্চিত করে যে, ইউলদোশ ২০০৯ সালের ২৭ আগস্ট একটি বিমান হামলায় নিহত হয়েছেন।[৯] সেই ড্রোন ক্ষেপণাস্ত্র হামলায় ইউলদাশেভ একটি পা ও একটি হাত হারিয়েছিলেন বলে জানা এবং তাকে বেলুচিস্তানের ঝাব জেলার একটি বেসরকারি হাসপাতালে নিয়ে যাওয়া হয়। সেখানে তিনি ১লা অক্টোবর মারা যান।[১০][১১][১২] ২০১০ সালের ১৬ তারিখে আইএমইউ কর্তৃক তার মৃত্যুর আনুষ্ঠানিক ঘোষণা করা হয়।

তথ্যসূত্র

[সম্পাদনা]
  1. "Pakistan's 'fanatical' Uzbek militants"BBC News। ৭ অক্টোবর ২০১৪। সংগ্রহের তারিখ ১৩ অক্টোবর ২০১৪ 
  2. "Wanted: Tohir Yaldeshev"Defense Intelligence Agency। অক্টোবর ২০০৬। ফেব্রুয়ারি ৪, ২০০৯ তারিখে মূল থেকে আর্কাইভ করা। সংগ্রহের তারিখ ২০০৯-০২-০৪ 
  3. "In the spotlight: The Islamic Movement of Uzbekistan (IMU)]"Center for Defense Information। মার্চ ২৫, ২০০২। জুলাই ২৩, ২০১২ তারিখে মূল থেকে আর্কাইভ করা। সংগ্রহের তারিখ ২০০৭-০৮-২৮ 
  4. "Terrorist Organizations"। World Statesmen। সংগ্রহের তারিখ ২০০৭-০৮-২৮ 
  5. Kate Clark (সেপ্টেম্বর ৭, ২০০২)। "Taleban 'warned US of huge attack'"BBC। আগস্ট ২৫, ২০০৭ তারিখে মূল থেকে আর্কাইভ করা। সংগ্রহের তারিখ ২০০৭-০১-১৬An aide to the former Taleban foreign minister, Wakil Ahmad Muttawakil, has revealed that he was sent to warn American diplomats and the United Nations that Osama bin Laden was due to launch a huge attack on American soil. 
  6. Syed Saleem Shahzad (২০০৯-০৮-০৮)। "Baitullah: Dead or alive, his battle rages"Asia Times। Archived from the original on ২০০৯-০৮-১০। সংগ্রহের তারিখ ২০০৯-০৮-০৭ 
  7. Yusufzai, Rahimullah (২০০৯-০৯-৩০)। "Tahir Yuldachev is dead: bodyguard"The News International। ২০২২-০৬-১০ তারিখে মূল থেকে আর্কাইভ করা। সংগ্রহের তারিখ ২০০৯-১০-০২ 
  8. David Ignatius (২০১০-০২-১৭)। "What the partisan squabbles miss on Obama's terror response"Washington Post। ২০১২-১১-১০ তারিখে মূল থেকে আর্কাইভ করা। These raids have ravaged the top tier of al-Qaeda's lieutenants. The victims include Saleh al-Somali, the chief of external operations, who was killed Dec. 8; Abdullah Said al-Libi, the chief of operations in Pakistan, who was killed Dec. 17; and Tahir Yuldashev, the leader of the Islamic Movement of Uzbekistan, who was killed in August. 
  9. "Tahir Yuldashev killed in Aug 27 drone attack"Daily Times। ২০০৯-১০-০২। সংগ্রহের তারিখ ২০০৯-১০-০২ 
  10. "Uzbek militants name Yaldashev's successor - DAWN.COM"। ৩ অক্টোবর ২০০৯। 
  11. Roggio, Bill (October 4, 2009). "Tahir Yuldashev Confirmed Killed In US Strike In South Waziristan". The Long War Journal.
  12. Roggio, Bill (আগস্ট ১৬, ২০১০)। "Islamic Movement of Uzbekistan confirms leader Tahir Yuldashev killed"The Long War Journal