তৃতীয় রেল

উইকিপিডিয়া, মুক্ত বিশ্বকোষ থেকে
পরিভ্রমণে ঝাঁপ দিন অনুসন্ধানে ঝাঁপ দিন

তৃতীয় রেল হ'ল রেল ট্র্যাকের রেলের পাশাপাশি বা তার মাঝে স্থাপন করা অর্ধ-ধারাবাহিক অনমনীয় পরিবাহী মাধ্যমে রেলওয়ে লোকোমোটিভ বা ট্রেনকে বৈদ্যুতিক শক্তি সরবরাহ করার একটি পদ্ধতি। এটি সাধারণত গণপরিবহন বা দ্রুতগামী গণপরিবহন ব্যবস্থায় ব্যবহৃত হয়, যার নিজস্ব করিডোরগুলি সম্পূর্ণ বা প্রায় সম্পূর্ণরূপে বাইরের পরিবেশ থেকে বিচ্ছিন্ন। তৃতীয় রেল ব্যবস্থাগুলি সর্বদা একমুখী বিদ্যুৎ প্রবাহ সরবরাহ করে।

বিদ্যুতায়নের তৃতীয় রেল ব্যবস্থা দ্বৈত গেজ রেলপথে ব্যবহৃত তৃতীয় রেলের সাথে সম্পর্কিত নয়।

বিবরণ[সম্পাদনা]

তৃতীয় রেল ব্যবস্থাগুলি হল অতিরিক্ত রেল ("কন্ডাক্টর রেল" নামে পরিচিত) ব্যবহার করে ট্রেনগুলিকে আকর্ষিত ভাবে (ট্র্যাকশন) বৈদ্যুতিক শক্তি সরবরাহ করার একটি মাধ্যম। বেশিরভাগ ব্যবস্থায় বিদ্যুৎ পরিবাহী রেলটি চলমান রেলের বাইরে স্লিপার প্রান্তে স্থাপন করা হয়, তবে কিছু ব্যবস্থায় একটি কেন্দ্রীয় বিদ্যুৎ পরিবাহী রেল ব্যবহৃত হয়। কন্ডাক্টর রেল বা বিদ্যুৎ পরিবাহী রেল সিরামিক অন্তরকগুলিতে ("পট" নামে পরিচিত) বা অন্তরক বন্ধনীগুলি দ্বারা সমর্থিত হয়, সাধারণত প্রায় ১০ ফুট (৩.০ মিমি) বিরতিতে।

ট্রেনগুলিতে সংগ্রাহক জুতা (বা যোগাযোগের জুতা বা পিকআপ জুতা) নামে ধাতব যোগাযোগের ব্লক রয়েছে যা বিদ্যুৎ পরিবাহী রেল বা কন্ডাক্টর রেলের সাথে যোগাযোগ করে। ট্র্যাকশন বিদ্যুৎ চলমান রেলগুলির মাধ্যমে উৎপাদন স্টেশনে ফিরে আসে। উত্তর আমেরিকাতে, কন্ডাক্টর রেল সাধারণত উচ্চ পরিবাহিতা ইস্পাত বা অ্যালুমিনিয়াম নিরূদ্ধ ইস্পাত দ্বারা নির্মিত হয় পরিবাহিতা বৃদ্ধি করতে। বিশ্বের অন্য কোথাও, মরিচা রোধক ইস্পাতের (স্টেইনলেস স্টিলের) যোগাযোগের পৃষ্ঠ বা টুপির (ক্যাপ) সাথে এক্সট্রুড অ্যালুমিনিয়াম কন্ডাক্টরগুলি কম বিদ্যুৎ প্রতিরোধক ক্ষমতা, দীর্ঘ জীবন এবং হালকা ওজনের কারণে পছন্দসই প্রযুক্তি।[১] চলমান রেলগুলি বৈদ্যুতিক সার্কিটের প্রতিরোধকে হ্রাস করতে, তারের বন্ধন বা অন্যান্য ডিভাইসগুলি ব্যবহার করে বৈদ্যুতিনভাবে সংযুক্ত। তৃতীয় রেলে ব্যবহৃত ধরনের উপর নির্ভর করে যোগাযোগের জুতা নিচে, উপরে বা তৃতীয় রেলের পাশে অবস্থিত হতে পারে: এই তৃতীয় রেলগুলি যথাক্রমে তলদেশ-যোগাযোগ, শীর্ষ-যোগাযোগ, বা পার্শ্ব-যোগাযোগ হিসাবে উল্লেখ করা হয়।

কন্ডাক্টর রেলগুলি লেভেল ক্রসিং, ক্রসওভার এবং সাবস্টেশনে বিচ্ছিন্ন থাকে। ট্রেনের যোগাযোগের জুতাগুলির একটি মসৃণ চলচলের অনুমতি দেওয়ার জন্য প্রতিটি বিভাগের শেষ প্রান্তে ট্যাপার্ড বা বক্র রেলগুলি স্থাপন করা হয়।

সুবিধাগুলি এবং অসুবিধাগুলি[সম্পাদনা]

নিরাপত্তা[সম্পাদনা]

যেহেতু তৃতীয় রেল ব্যবস্থাগুলি মাটির নিকটবর্তী বিদ্যুৎস্পৃষ্ট হওয়ার বিপদগুলি উপস্থিত করে, সেই কারণে উচ্চ ভোল্টেজের (১৫০০ ভি এর উপরে) এই ব্যবস্থা নিরাপদ বলে বিবেচিত হয় না। অতএব পর্যাপ্ত শক্তি হস্তান্তর, উচ্চ প্রতিরোধক ক্ষতি ফলে এবং তুলনামূলকভাবে ঘনসন্নিবিষ্ট ফিড পয়েন্টগুলির (বৈদ্যুতিক সাবস্টেশনগুলি) প্রয়োজনে খুব উচ্চতর বিদ্যুৎ ব্যবহার করা আবশ্যক।

বৈদ্যুতিকৃত রেল যে কেউ কে বিচলিত বা ট্র্যাকের উপর পড়ে তাদের বিদ্যুৎস্পৃষ্ট হওয়ার হুমকি দেয়। প্ল্যাটফর্মের স্ক্রিনের দরজা ব্যবহার করে এটি এড়ানো যায়, বা স্টেশন বিন্যাস দ্বারা প্ল্যাটফর্ম থেকে দূরে ট্র্যাকের পাশে কন্ডাক্টর রেল রেখে ঝুঁকি হ্রাস করা যায়। যোগাযোগ থেকে তৃতীয় রেল রক্ষা করার জন্য একটি অন্তরণকৃত আবরণবোর্ড ব্যবহারের দ্বারা বিদ্যুৎস্পৃষ্টের ঝুঁকি হ্রাস করা যায়, যদিও অনেকগুলি ব্যবস্থা এটি ব্যবহার করে না।

আবহাওয়ার প্রভাব[সম্পাদনা]

শীর্ষ-যোগাযোগ ব্যবহার করে তৃতীয় রেল ব্যবস্থাগুলি তুষার সঞ্চয়ন প্রবণ, যা ব্যবস্থাটিকে ঝুঁকিপূর্ণ করে তোলে এবং এর ক্রিয়াকলাপকে বাধা দিতে পারে। কিছু ব্যবস্থা তৃতীয় রেলে বরফ জমা প্রতিরোধের জন্য কন্ডাক্টর রেলের উপর তৈলাক্ত তরল বা অ্যান্টিফ্রিজে (যেমন প্রোপিলিন গ্লাইকোল) জমা করতে ডেডিকেটেড ডি-আইসিং ট্রেন পরিচালনা করে। তৃতীয় রেলও বরফের সমস্যা কমাতে উত্তপ্ত হতে পারে।

তৃতীয় রেল ব্যবস্থার বিপরীতে, ওভারহেড লাইন ব্যবস্থায় তীব্র বাতাস বা হিমশীতল বৃষ্টির ফলে বিদ্যুৎবাহী তারগুলি ছিঁড়ে পরতে এবং সমস্ত ট্রেন চলাচল বন্ধ হতে পারে। বজ্রঝড়গুলি বজ্রপাতের সাহায্যে ওভারহেড তারের সাথে ব্যবস্থার বিদ্যুৎ প্রবাহকে অক্ষম করতে পারে, বিদ্যুৎ প্রবাহ বা তার ছিঁড়ে থাকলে ট্রেন চলাচল বন্ধ থাকে।

ইতিহাস[সম্পাদনা]

তৃতীয় রেল বিদ্যুতায়ন ব্যবস্থা হ'ল বোর্ডের ব্যাটারিগুলি ছাড়াও, তাদের নিজস্ব করিডোর ব্যবহার করে রেলপথে ট্রেনগুলিতে বৈদ্যুতিক শক্তি সরবরাহের প্রাচীনতম উপায়, বিশেষত শহরে। ওভারহেড বিদ্যুৎ সরবরাহ শুরুতে ট্রামওয়ের মতো রেলপথে প্রায় একচেটিয়াভাবে ব্যবহৃত হত, যদিও এই পদ্ধতি মূল রেলপথ ব্যবস্থায় ধীরে ধীরে উপস্থিত হয়।

বিদ্যুৎ সরবরাহের এই পদ্ধতিটি ব্যবহার করে একটি পরীক্ষামূলক বৈদ্যুতিক ট্রেন জার্মান সিমেন্স অ্যান্ড হালস্কের ফার্ম দ্বারা বিকাশিত হয়েছিল এবং চলমান রেলের মধ্যে তৃতীয় রেল'সহ ১৮৭৯ সালের বার্লিন শিল্প প্রদর্শনীতে প্রদর্শিত হয়। ১৮৮৩ সালে ব্রাইটনের ভলকের বৈদ্যুতিন রেলপথের মতো কিছু প্রাথমিক বিদ্যুৎ রেলপথ চলমান রেলকে বিদ্যুৎ কন্ডাক্টর হিসাবে ব্যবহার করত। এটিতে ১৮৮৬ সালে একটি অতিরিক্ত ক্ষমতার রেল স্থাপন করা হয় এবং এটি এখনও চলছে। ১৮৮৩ সালে বাইরের দিকে সজ্জিত উত্তোলিত তৃতীয় রেল ব্যবস্থা জায়ান্ট'স কোজওয়ে ট্রামওয়ে অনুসরণ করে, পরে তা ওভারহেড তারে রূপান্তরিত হয়। মধ্যবর্তী বা কেন্দ্রীয় তৃতীয় রেল ব্যবহারকারী প্রথম রেলপথটি হল আয়ারল্যান্ডের বেসব্রুক ও নিউরি ট্রামওয়ে, ১৮৮৫ সালে এটি চালু হয়, কিন্তু এখন জায়ান্ট'স কজওয়ে লাইনের মতো বন্ধ হয়ে গেছে।

তথ্যসূত্র[সম্পাদনা]

বহিঃসংযোগ[সম্পাদনা]