তুমহারি সুলু

উইকিপিডিয়া, মুক্ত বিশ্বকোষ থেকে
তুমহারি সুলু
তুমহারি সুলু পোস্টার.jpg
পরিচালকসুরেশ ত্রিবেণী
প্রযোজকভূষণ কুমার
তনুজ গর্গ
কৃষ্ণ কুমার)
অতুল কাসবেকর
শান্তি শিবরাম মইনি
রচয়িতাগল্প এবং চিত্রনাট্য:
সুরেশ ত্রিবেণী
সংলাপ এবং অতিরিক্ত চিত্রনাট্য:
বিজয় মৌর্য
শ্রেষ্ঠাংশেবিদ্যা বালান
নেহা ধুপিয়া
মানব কৌল
অভিষেক শর্মা
সুরকারগান:
গুরু রনধাওয়া
রজত নাগপাল
তানিশক বাগচি
অমর্ত্য ববো রহোত
লক্ষ্মীকান্ত-প্যায়ারেলাল
শান্তনু ঘটক
স্কোর:
করণ কুলকার্নি
চিত্রগ্রাহকসৌরভ গোস্বামী
সম্পাদকশিবকুমার পানিকার
প্রযোজনা
কোম্পানি
টি-সিরিজ
এলিপ্সিস এন্টারটেইনমেন্ট
পরিবেশকটি-সিরিজ
মুক্তি
  • ১৭ নভেম্বর ২০১৭ (2017-11-17)[১]
দৈর্ঘ্য১৪০ মিনিট
দেশভারত
ভাষাহিন্দি
নির্মাণব্যয়20 কোটি[২]
আয়প্রা. ১.১৮ বিলিয়ন[৩]

তুমহারি সুলু (অনু. তোমার সুলু) হল সুরেশ ত্রিবেণী রচিত ও পরিচালিত ২০১৭ সালের একটি ভারতীয় কৌতুক-নাট্য চলচ্চিত্রটি-সিরিজ এবং এলিপ্সিস এন্টারটেইনমেন্টের অধীনে এটির প্রযোজনা করেছিলেন ভূষণ কুমার, তনুজ গর্গ, কৃষ্ণ কুমার, অতুল কাসবেকর এবং শান্তি শিবরাম মাইনি।[৪]

চলচ্চিত্রটির শীর্ষ চরিত্রে অভিনয় করেছিলেন বিদ্যা বালান, তাঁর চরিত্রটি ছিল একজন উচ্চাকাঙ্ক্ষী গৃহিনীর, পরে সে গভীর রাতে প্রচারিত সম্পর্কের পরামর্শ অনুষ্ঠানের পরিচালিকা রেডিও জকি হয়ে ওঠে। মানব কৌল এবং নেহা ধুপিয়া যথাক্রমে সুলুর স্বামী এবং ঊর্ধ্বতন কর্তৃপক্ষ হিসাবে অভিনয় করেছিলেন। তুমহারি সুলু বিশ্বব্যাপী মুক্তি পেয়েছিল ২০১৭ সালের ১৭ই নভেম্বর। এটি সমালোচনামূলক এবং বক্স অফিস উভয় দিকেই সাফল্য পেয়েছিল, নির্মাণ মূল্য ২০০ মিলিয়ন হলেও আয় করেছিল ৮৪০ মিলিয়ন।[৩] চলচ্চিত্রটি নয়টি ফিল্মফেয়ার পুরস্কারের জন্য মনোনয়ন পেয়েছিল এবং বিদ্যা তাঁর চতুর্থ সেরা অভিনেত্রী পুরস্কার জিতেছিলেন। এটি তামিল ভাষায় ক্যাটরিন মোঝি (২০১৮) নামে পুনর্নির্মিত হয়েছিল, সেখানে বিদ্যার ভূমিকায় অভিনয় করেছিলেন জ্যোতিকা[৫]

ঘটনা[সম্পাদনা]

সুলোচনা দুবে, ডাক নাম সুলু (বিদ্যা বালান), একটি মধ্যবিত্ত পরিবারের গৃহবধূ, সে তার পরিবারের সাথে ভিরারে বসবাস করে। সুলু তার স্বামী অশোক (মানব কৌল) এবং ১১ বছরের এক ছেলের সাথে পুরোপুরি জীবন উপভোগ করে। সে স্বপ্ন দেখে সে একজন চাকুরিরতা ​​মহিলা হবে, তবে যেহেতু সে উচ্চ বিদ্যালয়ের পড়া শেষ করতে পারেনি, তাই সে কোন উচ্চপদস্থ চাকরিতে আবেদন করতে পারে না। তার বড় যমজ বোনেরা পড়াশুনা না করার কারণে তাকে উপহাস করে। তার স্বামী অশোক একটি পোশাক তৈরির সংস্থায় ম্যানেজারের কাজ করে: সে এই কাজ করে হতাশায় ভোগে কারণ তার সহকর্মীরা সকলেই ষাটোর্দ্ধ এবং তারা সকলেই অযৌক্তিক কথা বলে এবং ব্যবহার করে। এর ওপরে আবার, মালিকের নাতি সংস্থাটি চালাতে শুরু করেছে, সে অত্যন্ত অভদ্র।

একদিন, সুলু তার প্রিয় রেডিও স্টেশন দ্বারা পরিচালিত একটি প্রতিযোগিতায় জিতে তার পুরস্কার সংগ্রহ করতে স্টেশনে যায়। সেখানে সে দেখে কোনও 'আরজে' পদের অডিশনের জন্য পোস্টার, সেটি দেখে তার মনে হয় যে এই কাজটিই হল তার উপযুক্ত। সে বস মারিয়ার (নেহা ধুপিয়া) সাথে সাক্ষাত করে, সুলুর বহির্মুখী প্রকৃতি দেখে আগ্রহী হয়ে মারিয়া তাকে অডিশনের সুযোগ দেয়। সুলু পুরো অডিশন জুড়ে হাসে কিন্তু শেষে, আনন্দময় সুরে বলে 'হ্যালো', এটি মারিয়াকে প্রভাবিত করে। মারিয়া জিজ্ঞাসা করে নেয় যে সে রাত্রে কথোপকথন চালানো অনুষ্ঠান করতে পারবে কিনা, যেখানে লোকেরা তাকে তার সমস্যাগুলি সম্পর্কে কথা বলতে ডাকবে। সুলু রাজি হয়।

অশোকের সাথে আলোচনা না করেই সুলু কাজটি হাতে নেওয়ায় অশোক প্রথমে বিরক্ত হয়েছিল, কিন্তু পরে তার প্রতি ভালবাসায় মেনে নেয়। প্রথম দিনে, সুলুকে এক বিরক্তিকর প্রশ্নকর্তার মুখোমুখি হতে হয়, যে তাদের আলাপচারিতাকে বারবার অশ্লীলতার দিকে নিয়ে যাবার চেষ্টা করছিল। সুলু দক্ষতার সাথে এই প্রশ্নকর্তাকে সামলায়। এর পরে, সে একটি গান করার অনুরোধ পায়। উত্তেজিত হয়ে সুলু এমন একটি গান গেয়ে ফেলে, যেটি সে শুধু তার স্বামীর জন্যই গায়। অশোক এই সব দেখে খুব রেগে যায়, পাশাপাশি তার নতুন মালিককে নিয়েও সে হতাশ হয়ে পড়ছিল, সে তার সাথে খুব খারাপ আচরণ করছিল। সুলুর পরিবার তার অনুষ্ঠান করাতে রাগ করে এবং তাকে সেটি ছেড়ে দিতে বলে, কিন্তু অশোক তার পক্ষে দাঁড়ায়। সুলুর অনুষ্ঠানটি সফল হয়ে ওঠে, তার রেডিও স্টেশন খুশি হয়। সুলুও তার কাজ উপভোগ করে কিন্তু অশোক তার নিজের এবং সুলুর কাজ উভয় সম্পর্কে বাড়িতে তার হতাশা প্রকাশ করতে থাকে। সুলু তার কর্মক্ষেত্রে খুব খুশী থাকে কিন্তু বাড়িতে সে বিষাদগ্রস্ত হয়ে পড়ে।

একদিন, তার ছেলের স্কুলের অধ্যক্ষ তাকে বলে যে, অশোকের কাছ থেকে চুরি করা ফোন ভিডিও দেখানোর জন্য তার ছেলে অন্যান্য বাচ্চাদের কাছ থেকে পয়সা নিচ্ছে, এছাড়াও সে অশোকের স্বাক্ষর জাল করেছে। তার ছেলে স্কুল থেকে বহিস্কৃত হয়, এটি বাড়িতে গুরুতর সমস্যা হয়ে দাঁড়ায়। তার বোনরা তাকে দোষারোপ করে বলে যে তার কাজের কারণে সে তার ছেলেকে অবহেলা করেছে এবং তার নিম্ন স্তরের পড়াশোনার জন্য তার ছেলে প্রভাবিত হয়েছে। তারা বলে যে সুলুকে চাকরি ছেড়ে দিতে হবে। কিন্তু সুলু তাদের শর্তে রাজী না হয়ে কঠোর অবস্থান নেয়। পরে সে একটি ফোন পায় যে তার ছেলেকে খুঁজে পাওয়া যাচ্ছেনা। তারা ছেলেটির একটি চিঠি পায়, সেখানে লেখা ছিল যে সে তার কাজের জন্য লজ্জিত এবং দুঃখিত কারণ তার মাকে তার কারণে চাকরি ছেড়ে দিতে হয়েছে। চিঠিতে সে তার বাবাকে অনুরোধ করেছিল তার মাকে এবং মায়ের কাজকে সমর্থন করার জন্য।

পরদিন পুলিশ সুলুর ছেলেকে খুঁজে পেয়ে তাকে বাড়িতে নিয়ে আসে। সুলু তার অনুষ্ঠান থেকে পদত্যাগ করে। তার মনে হয় যে, ঘরে যে সংঘাত সৃষ্টি হচ্ছে তা সে সামাল দিতে পারবে না। সে যখন তার কর্মক্ষেত্র ছেড়ে চলে আসছিল, তখন সে দেখল তাদের অফিসের অভ্যর্থনাবিদ (রিসেপশনিস্ট) টিফিন দিতে আসা ছেলেটির সাথে তর্ক করছে। তার মাথায় একটি পরিকল্পনা আসে, সে মারিয়াকে অনুরোধ করে টিফিন পরিষেবা চুক্তি তাকে দেওয়ার জন্য। এরপরে, আমরা দেখতে পাচ্ছি যে অশোক এখন টিফিন ব্যবসা পরিচালনা করছে এবং সুলু তার চাকরিতে যাচ্ছে। তার নিজস্ব শৈলীতে সে তার পরিবার এবং পেশাদার জীবন দুটিই সামলাচ্ছে।

চরিত্র চিত্রণ[সম্পাদনা]

  • বিদ্যা বালান- সুলোচন "সুলু" দুবে
  • মানব কৌল- অশোক দুবে, সুলুর স্বামী
  • বিজয় মৌর্য- পঙ্কজ রাই বাঘি, কবি এবং রেডিও স্টেশনে গভীর রাতের 'রেডিও ওয়াও'র আলোচনা অনুষ্ঠানের স্রষ্টা
  • নেহা ধুপিয়া- মরিয়ম "মারিয়া" সুদ, 'রেডিও ওয়াও'তে সুলুর নিয়োগকর্তা
  • আরজে মালিশকা- আর জে আলবেলি অঞ্জলি, 'রেডিও ওয়াও'তে সুলুর সহকর্মী
  • অভিষেক শর্মা- প্রণব, সুলুর ছেলে
  • আয়ুষ্মান খুরানা- স্বয়ং (বিশেষ উপস্থিতি)
  • মহেশ পিল্লাই- স্কুলের অধ্যক্ষ
  • সিন্ধু শেখরন- আরাধনা, সুলুর বড় যমজ বোনদের একজন
  • সীমা তানেজা- কল্পনা, দ্বিতীয় যমজ বোন
  • তৃপ্তি খামকার- মহিলা ট্যাক্সি চালক
  • শান্তনু ঘটক- সঞ্জয়, অশোক দুবে বস
  • উদয় লাগু- সুলুর বাবা
  • হিতেশ দেভ- মুদি দোকানের মালিক
  • শশী রঞ্জন- রমেশ
  • সোনেল সিং- গিরিজা, রেডিও স্টেশন 'রেডিও ওয়াও'-তে অভ্যর্থনাবিদ
  • বিভাবারী দেশপান্ডে- কনস্টেবল

তথ্যসূত্র[সম্পাদনা]

  1. "'Tumhari Sulu' release preponed to November 17"Times of India। সংগ্রহের তারিখ ১০ অক্টোবর ২০১৭ 
  2. "Tumhari Sulu Box Office Collection Day 3: Vidya Balan's film had a "super-strong weekend""NDTV। ২০ নভেম্বর ২০১৭। 
  3. Hungama, Bollywood (১৮ নভেম্বর ২০১৭)। "Box Office: Worldwide collections and day wise break up of Tumhari Sulu – Bollywood Hungama" 
  4. "Vidya Balan's Tumhari Sulu starts shooting. See pic"The Indian Express। ৩১ জানুয়ারি ২০১৭। সংগ্রহের তারিখ ১ ফেব্রুয়ারি ২০১৭ 
  5. Lakshmi, V. (১৬ নভেম্বর ২০১৮)। "Kaatrin Mozhi"The Times of India। সংগ্রহের তারিখ ১৬ নভেম্বর ২০১৮ 

বহিঃসংযোগ[সম্পাদনা]