তাইন্দারেউস

উইকিপিডিয়া, মুক্ত বিশ্বকোষ থেকে
সরাসরি যাও: পরিভ্রমণ, অনুসন্ধান
তাইন্দারেউস
স্পার্টার রাজা
স্ত্রী লিডা
Issue
ক্যাস্টর 
ক্লাইমেনেস্ত্রা
তিমান্দ্রা
ফোয়েবে
ফিলোনে 
ট্রয়ের হেলেন  (সৎ কন্যা)
পোলাক্স (সৎ পুত্র)
পিতা
মাতা গর্গোফোন

গ্রিক পুরাণ মতে তাইন্দারেউস // (প্রাচীন গ্রিকΤυνδάρεος, Attic Τυνδάρεως গ্রিক উচ্চারণ: [tyndáreɔːs]) ছিলেন একজন স্পার্টান রাজা, তার পিতা ওয়েবালুস (বা পেরিয়েরেস) এবং মাতা গর্গোফোন (বা বাতিয়া), লিডার স্বামী, ক্যাস্টর, ক্লাইমেনেস্ত্রা, তিমান্দ্রা, ফোয়েবে ফিলোনের পিতা এবং ট্রয়ের হেলেন এবং পোলাক্সের সৎ পিতা।

তাইন্দারেউসের হিপ্পোকুন নামের এক ভাই ছিল, যে তার কাছ থেকে ক্ষমতা ছিনিয়ে তাঁকে নির্বাসিত করেছিল। তিনি হেরাক্লেসের সাহায্যে পুনরায় সিংহাসন আরোহণ করেন। এই হেরাক্লেস হিপ্পোকুন এবং তার পুত্রদের হত্যা করেন। তাইন্দারেউসের আরেক ভাইয়ের নাম ইকারিয়াস, তিনি পেনেলোপের পিতা।  

তাইন্দারেউসের স্ত্রী লিডা জিউসের দ্বারা আকর্ষিত হয়েছিলেন, যিনি নিজেকে মরালের ছদ্মবেশে সজ্জিত করেছিলেন। তিনি দুইটি ডিম প্রসব করেন, যার প্রত্যেকটি থেকে দুইটি করে শিশু জন্ম নেয়।

যখন থিয়েস্তেস মাইসিনির ক্ষমতা দখল করেন তখন মাইসিনির দুই নির্বাসিত রাজকুমার আগামেমনন এবং মেনেলাউস স্পার্টায় আশ্রয় নিয়েছিলেন এবং বেশ কয়েক বছর সেখানেই ছিলেন। একসময় রাজকুমারদ্বয় তাইন্দেরাসের দুই মেয়েকে বিয়ে করেন।

হেলেন এবং ট্রোজান যুদ্ধ[সম্পাদনা]

Tyndareus’ stepdaughter Helen of Troy

হেলেন ছিলেন পৃথিবীর সবচেয়ে সুন্দরী রমণী। যখন তিনি বিবাহযোগ্যা হলেন তখন অনেক গ্রিক রাজা এবং রাজকুমার তাঁকে বিয়ের প্রস্তাব পাঠান। তাদের মধ্যে ছিলেন ওডিসিউস, আজ্যাক্স দ্য গ্রেট, দায়োমিদেস, ইডোমেনিউস এবং মেনেলাউস ও আগামেমনন। এদের মধ্যে ওডিসিউস ছাড়া বাকি সকলে বহুমূল্যবান উপহারসামগ্রী নিয়ে এসেছিলেন সাথে করে। হেলেনের প্রিয়পাত্র ছিলেন মেনেলাউস, যিনি নিজে আসেননি। তার ভাই আগামেমনন এসেছিল তার পক্ষ থেকে এবং আগামেমনন নিজে হেলেনের সৎ বোন ক্লাইমেনেস্ত্রাকে বিয়ে করেন।  

তাইন্দারেউস পাণিপ্রার্থীদের আনা কোন উপহার স্বীকারও করতে চাচ্ছিলেন না, আবার তাদের ফিরিয়েও দিতে চাচ্ছিলেন না। ওডিসিউস তার এই সমস্যার সমাধান করে দেওয়ার প্রস্তাব দেন পেনেলোপেকে বিয়ে করার শর্তে। তাইন্দারেউস তৎক্ষণাৎ তার প্রস্তাবে রাজি হয়ে যান। ওডিসিউস এই বুদ্ধি দেন যে, সকল পাণিপ্রার্থীদের সিদ্ধান্ত গ্রহণের আগে শপথ করানো হোক যে, তাদের মধ্যে যে নির্বাচিত বরের বিরুদ্ধে যাবে সবাই তাকে প্রতিরোধ করে বরকে সমর্থন জানাবে। এই পরিকল্পনা কাজে লাগে এবং হেলেনের বিয়ে নির্বিঘ্নে মেনেলাউসের সাথে সম্পন্ন হয়। পরবর্তীতে তাইন্দারেউস মেয়ের জামাইয়ের জন্য অবসর গ্রহণ করেন এবং মেনেলাউস রাজা হন। 

কিছু বছর পর প্যারিস নামের এক ট্রোজান রাজকুমার হেলেনকে বিয়ে করতে আসে যাকে আফ্রোদিতি হেলেনকে দেওয়ার প্রতিজ্ঞা করেছিলেন। হেলেন মেনেলাউস এবং নিজ ৯ বছর বয়সী মেয়ে হারমাইওনিকে ফেলে প্যারিসের সাথে ট্রয় চলে যান, হয়তো হেলেন তাঁকে ভালোবেসে ফেলেছিলেন, হয়তো প্যারিস হেলেনকে অপহরণ করেছিল। মেনেলাউস হেলেনের পাণিপ্রার্থীদের তাদের প্রতিজ্ঞার কথা মনে করিয়ে একত্র করেন হেলেনকে উদ্ধার করতে। শুরু হয় ট্রোজান যুদ্ধ।

পরিশেষ[সম্পাদনা]

 ইউরিপিদেসের ওরেস্তেস অনুসারে, তাইন্দারেউস মেনেলাউসের ফিরে আসা পর্যন্ত বেঁচে ছিলেন এবং নিজের নাতি ওরেস্তেসকে মাতৃহত্যার দায়ে মৃত্যুদণ্ড দেওয়ার ব্যবস্থা করছিলেন। আবার কিছু কিছু জায়গায় দেখা যায় তিনি ট্রোজান যুদ্ধ চলাকালীন সময়ে মৃত্যুবরণ করেন।  [১]

পাদটীকা[সম্পাদনা]

  1. Euripides, Helen, in The Complete Greek Drama, edited by Whitney J. Oates and Eugene O'Neill, Jr. in two volumes. 1.