তাইওয়ানের মঙ্গোলিও জনগোষ্ঠী

উইকিপিডিয়া, মুক্ত বিশ্বকোষ থেকে
(তাইওয়ানে মঙ্গোলিওরা থেকে পুনর্নির্দেশিত)
পরিভ্রমণে ঝাঁপ দিন অনুসন্ধানে ঝাঁপ দিন
তাইওয়ানে মঙ্গোলিওরা
মোট জনসংখ্যা
৫১৫ (এপ্রিল ২০১৩)[১]
উল্লেখযোগ্য জনসংখ্যার অঞ্চলসমূহ
তাইচুং১১৮[১]
তাইপে১১৫[১]
Hualien County৫২[১]
Kaohsiung৪৯[১]
Taoyuan City৪০[১]
ধর্ম
তিব্বতীয় বৌদ্ধ
সংশ্লিষ্ট জনগোষ্ঠী
মঙ্গলিয়ান

সংখ্যার বিচারে তাইওয়ানের মঙ্গোলিও জনগোষ্ঠী বড় নয়। মঙ্গোলিওরা তাইওয়ান দ্বীপের জনসংখ্যার একটি ছোট অংশ গঠন করে। ২০০৪ সালে মঙ্গোলিয়া থেকে তাইওয়ানে শ্রমিক অভিবাসন দ্বারা শুরু হয়েছিল। সেই থেকে তাইওয়ানে মঙ্গোলিও জনগোষ্ঠী বসবাসের সূত্রপাত।

ইনার মঙ্গোলিয়া থেকে অভিবাসন[সম্পাদনা]

চীনের ইনার মঙ্গোলিয়া প্রদেশের কিছু সংখ্যক মঙ্গোলিয়ান চীনের গৃহযুদ্ধ শেষ হওয়ার পর ১৯৪৯ সালে চীনের মূল ভূখন্ড থেকে কুয়োমিন্টাঙের সাথে তাইওয়ানে আসেন। [২] মঙ্গোলীয় ও তিব্বত বিষয়ক কমিশনের ১৯৫৯ সালের পরিসংখ্যান অনুযায়ী, তাইওয়ানে মোট ১৩৯ টি মঙ্গোল পরিবারে মোট ৪৩১ জনের মঙ্গোলিয়ান রয়েছে, এদের মধ্যে বেশির ভাগই জোসোটু, জেরেম এবং জু-উদ-এর অন্তর্ভুক্ত। [৩] কেএমটি থেকে পালিয়ে যাওয়া সবচেয়ে বিশিষ্ট ব্যক্তিদের মধ্যে একজন ছিলেন চাংকয়া খাতখাতু, লবসাঙ্গ পেলেন টেনে দোনেম, যিনি ১৯৪৯ সালে চীনের প্রধান ভূখণ্ড থেকে পালিয়ে যান এবং ১৯৫৭ সাল পর্যন্ত তাইপেইতে বসবাস করেন। [৪] অন্যদের উ হেলিং এবং সেভেনংরুব।

অভিবাসী শ্রমিক[সম্পাদনা]

যাইহোক, ২১ শতককের আগে পর্যন্ত মঙ্গোলিয়া এবং তাইওয়ানের মধ্যে সামান্যই যোগাযোগ ছিল। তাইওয়ানের কর্তৃপক্ষ মঙ্গোলিয়ার রাজধানী উলানবাটারের একটি তাইপেই অর্থনৈতিক ও সাংস্কৃতিক প্রতিনিধি কার্যালয় প্রতিষ্ঠার সাথে সাথে ২০০২ সালে মঙ্গোলিয়া থেকে অভিবাসী শ্রমিকদের আমদানির মূল ভিত্তি গঠিত হয় এবং সম্ভাব্য অভিবাসীদের অপরাধী রেকর্ড পরীক্ষা করার জন্য একটি পদ্ধতি বাস্তবায়ন শুরু করা হয়। পরিকল্পনাটি প্রাথমিকভাবে বিরোধী দলের মুখোমুখি হয়েছিল; মঙ্গোলিয়া ও তিব্বতি বিষয়ক কমিশনের প্রাক্তন চেয়ারম্যান এটি "কূটনৈতিক শুয়োরের মাংসের পিপা" হিসাবে সমালোচনা করেন এবং ডেমোক্রেটিক প্রগ্রেসিভ পার্টির একটি গোপন প্রচেষ্টাকে মঙ্গোলিয়ার সাথে দ্বিপক্ষীয় সম্পর্ক সম্প্রসারণের মাধ্যমে ডেসিন্যাইসিসেশনের জন্য তারা ধীরে ধীরে সমালোচনা করেন, যা চীনের প্রজাতন্ত্রের সরকার পূর্বে বিবেচনা করেছিল তাইওয়ানকে চীনের অঞ্চল এবং এটি স্বাধীন দেশ নয়।

তাইওয়ানের শ্রমিক কাউন্সিল বিষয়ক সংস্থা জানুয়ারী ২০০৪ সালে মঙ্গোলীয়ান কর্মীদের নিয়োগের অনুমোদন দেয়। মঙ্গোলিয়াতে প্রাথমিক প্রতিক্রিয়া ছিল খুবই শক্তিশালী। মঙ্গোলিয়ার কেন্দ্রীয় কর্মসংস্থান দপ্তরের রিপোর্টে বলা হয় যে ২০,০০০ এর বেশি মানুষ পেশাদার দক্ষতা এবং চীনা ভাষা প্রশিক্ষণ কোর্সে আগ্রহী ছিলেন। শ্রমিকদের জন্য তাইওয়ানের নেতৃত্বে অবশেষে প্রশিক্ষনে ভর্তি হন ৭,০০০ মানুষ; ৯০% আবেদনকারীর বয়স ২০ থেকে ৩৫ বছর এবং এর মধ্যে ৪৫% মহিলা ছিলেন। এক মঙ্গোলিয়ান কর্মকর্তা বলেছিলেন যে তাইওয়ান প্রবাসী কর্মীদের জন্য জাপান, দক্ষিণ কোরিয়া, বা পূর্ব ইউরোপীয় দেশগুলির মত উচ্চতর মজুরি (মঙ্গোলায় দেওয়া পাঁচবার) এবং স্বাস্থ্যবিধানের ঐতিহ্যগত গন্তব্যস্থলের তুলনায় অভিবাসী কর্মীদের জন্য ভালো কর্মসংস্থান সৃষ্টি করেছে।

ছাত্র[সম্পাদনা]

পাশাপাশি অভিবাসী শ্রমিকদের থেকে, ২০০৭ সাল পর্যন্ত তাইওয়ান বিশ্ববিদ্যালয়ের মোট ১০০ টি মৌলিক শিক্ষার্থী অধ্যয়নরত ছিলেন এবং মোট ১,৭০০ জন মঙ্গোলিয়ান পেশাদার প্রশিক্ষণের জন্য তাইওয়ান গিয়েছিলেন, বিশেষত আইনি ক্ষেত্রে। [৫]

তথ্যসূত্র[সম্পাদনা]

  1. [[:টেমপ্লেট:Asiantitle]], Republic of China: National Immigration Agency, এপ্রিল ২০১৩, সংগ্রহের তারিখ ২০১৩-০৫-৩১  ইউআরএল–উইকিসংযোগ দ্বন্দ্ব (সাহায্য)
  2. Loa, Iok-Sin (২০০৯-০৪-১৭), "Commission holds ritual to honor Genghis Khan", Taipei Times, সংগ্রহের তারিখ ২০০৯-০৫-১৮ 
  3. 楊嘉銘 [Yang Chia-ming] (ডিসেম্বর ২০১১), "臺灣蒙古族傳唱之成吉思汗紀念歌 [Mongolians in Taiwan pass down a song in memory of Genghis Khan]" (PDF), টেমপ্লেট:Asiantitle, 20 (4), সংগ্রহের তারিখ ২০১৩-০৫-৩১ 
  4. 迦陵 [Jia Ling] (মার্চ ১৯৯৮), "藏傳佛教在台灣的發展 [The development of Tibetan Buddhism in Taiwan]", টেমপ্লেট:Asiantitle, 28, সংগ্রহের তারিখ ২০১১-০১-২৫ 
  5. "Taiwan seeks to continue cooperation with Mongolia", Mongolia Web, ২০০৭-০৬-০৪, সংগ্রহের তারিখ ২০০৯-০৫-১৮