ড্রাগন বল জি

উইকিপিডিয়া, মুক্ত বিশ্বকোষ থেকে
সরাসরি যাও: পরিভ্রমণ, অনুসন্ধান
ড্রাগন বল জি
Logo Dragon Ball Z.jpg
ドラゴンボールZ
(ডোরাগোন বোরু জেত্তো)
ধরন মার্শাল আর্ট, কমেডি, Science fantasy
আনিমে
পরিচালক ডাইসুকে নিসো (পর্ব ১–১৯৯)
প্রয়োজক কজো মরিসিটা
কেনজি সিমিজু
কোজি কানেডা
লেখক তাকায়ো কয়ামা
সঙ্গীত সিনজুকে কওচি
চিত্রশালা তোয়েই অ্যানিমেশন
অনুমতিপ্রাপ্ত
মুক্তিপ্রাপ্ত ২৬শে এপ্রিল, ১৯৮৯৩১শে জানুয়ারি, ১৯৯৬
পর্ব ২৯১ (পর্ব এর তালিকা)
আনিমে চলচ্চিত্র সিরিজ
চিত্রশালা তোয়েই অ্যানিমেশন
মুক্তিপ্রাপ্ত ১৫ই জুলাই, ১৯৮৯১৮ই এপ্রিল, ২০১৫
আনিমে
প্ল্যান টু ইরেডিকেট দ্যা সাইয়ানস
পরিচালক সেইযেয়য়াসু ইয়ামায়ুশি
প্রয়োজক কোজো মিরিসিটা
লেখক তাকায়ো কোয়োমা
সঙ্গীত সিনজুকে কায়কশি
চিত্রশালা তোয়েই অ্যানিমেশন, বার্ড স্টুডিও
মুক্তিপ্রাপ্ত ৬ই সেপ্টেম্বর, ১৯৯৩
আনিমে
প্ল্যান টু ইরেডিকেট দ্যা সাইয়ানস
পরিচালক উয়োসিহিরো
প্রয়োজক তোমোয়াকি ইমানিশিi
হিরোইয়ুকি কিনোশিটা
লেখক হিতশি তাংকা
সঙ্গীত হিরোসি তাকাকি
চিত্রশালা তোয়েই অ্যানিমেশন, বার্ড স্টুডিও
মুক্তিপ্রাপ্ত ১১ই নভেম্বর, ২০১০
আনিমে
ড্রাগন বল জি কাই
পরিচালক আয়শিহরো নাওয়াতাশি
সঙ্গীত কেনজি ইয়ামামোতো (১–৯৫)
সানাসুকে কিকুচি (৯৬–৯৮; re-aired ১–৯৫)
নোরিহিতো সুমিতোমো (৯৯–১৫৯~১৬৭)
চিত্রশালা তোয়েই অ্যানিমেশন
অনুমতিপ্রাপ্ত
মুক্তিপ্রাপ্ত ৫ই এপ্রিল, ২০০৯ – ২৭শে মার্চ, ২০১১
Continued run:
৬ই এপ্রিল, ২০১৪
২৮শে জুন, ২০১৫
পর্ব ১৫৯ (জাপান)
১৬৭ (আন্তর্জাতিক)[১] (পর্ব এর তালিকা)
Dragon Ball franchise
প্রবেশদ্বার আইকন আনিমে এবং মাঙ্গা প্রবেশদ্বার

ড্রাগন বল জি (জাপানি: ドラゴンボールZ (ゼット) হেপবার্ন: Doragon Bōru Zetto?, সংক্ষেপে DBZ) হলো ড্রাগন বল সিরিজের পরবর্তী পর্ব যা তোয়েই অ্যানিমেশন কর্তৃক প্রকাশিত হয়। ড্রাগন বল জি, ড্রাগন বল মাঙ্গার পরবর্তী ৩২৫ খন্ডের উপর নির্মিত। ড্রাগন বল জি অন্যান্য দেশে অনুবাদিত হওয়ার পূর্বে জাপানের ফুজি টিভিতে সম্প্রচারিত হয় ২৫শে এপ্রিল, ১৯৮৯ থেকে ৩১শে জানুয়ারি, ১৯৯৬ সালের মধ্যে। আনিমেটির এর জনপ্রিয়তার দরুন ড্রাগন বল জি-কে কেন্দ্র করে এ পর্যন্ত ১৫টি চলচিত্র এবং ১৪৮টি ভিডিও গেমস নির্মাণ করা হয়েছে, যদিও ভিডিও গেমসগুলোর বেশিরভাগই জাপানে মুক্তিপ্রাপ্ত হয়। ২০০৯ সালে আনিমেটির ২০ বছর পূর্ণ হওয়া উপলক্ষে ড্রাগন বল জি কাই নামে রিমাস্টার্ড সংস্করণ সম্প্রচার শুরু করে, যেখানে শব্দ এবং ভিডিও-এর গুনমান উন্নত করা হয় [২]। ড্রাগন বল জি-এর আরও দুটি পরিশিষ্ট (Sequel) রয়েছে, সেগুলো হল; ড্রাগন বল জিটি (১৯৯৬-১৯৯৭) এবং ড্রাগন বল সুপার (২০১৫-বর্তমান)।

পটভূমি[সম্পাদনা]

ড্রাগন বল আনিমের গল্প শেষ হওয়ার ৫ বছর পর শুরু হয় ড্রাগন বল জি-এর গল্প, যেখানে গোকু একজন তরুণ যুবক এবং গোহানের পিতা। গোকু তার দাদার নামানুসারে তার ছেলের নাম রাখে গোহান

রেডিটজ নামক এক এলিয়েন মহাকাশযানে করে পৃথিবীতে আসে গোকুকে খুঁজতে। সে দাবি করে সে গোকুর হারিয়ে যাওয়া বড় ভাই এবং তারা সাইয়ান (サイヤ人 Saiya-jin) নামক বিলুপ্ত প্রায় অতিপ্রাকৃতিক ভিনগ্রহী প্রাণীদের গোষ্ঠীর সদস্য। তারা গোকুকে (তাদের গ্রহে ক্যাকেরট নামে পরিচিত) শিশু অবস্থায় পৃথিবীতে পাঠায় গ্রহটিকে দখল করার জন্য, কিন্তু তার মস্তিষ্কজনিত আঘাতের জন্য পৃথিবী দখলের সকল স্মৃতি সে ভুলে যায় এবং সাইয়ানদের রক্ত-পিপাসু মনোভাবও লোপ পায়। গোকু যখন রেডিটজকে সাহায্য না করার মনোভাব পোষণ করে, তখন রেডিটজ গোকুর ছেলে গোহানকে অপহরণ করে। গোকু তার পুরনো শত্রু পিকোলোর সাথে ঐক্যবদ্ধ হয়ে রেডিটজকে হারানো এবং গোহানকে মুক্ত করার জন্য মনস্তির করে, ফলশ্রুতিতে গোকু মারা যায়।

পরকালে গোকু কাইয়ো-সামার নিকট প্রশিক্ষণ গ্রহণ করে এবং এক বছর পর ড্রাগন বল দ্বারা পুনর্জীবিত হয় পৃথিবীকে রেডিটজের সঙ্গী নাপা এবং সাইয়ানদের রাজপুত্র ভাজিটার নিকট থেকে রক্ষা করার জন্য। লড়াই চলাকালে পিকোলো, গোকুর সঙ্গী ইয়্যামচা, টিএনসিনহান এবং চাউজু মারা যায়। পিকোলো মারা যাওয়ার ফলে ড্রাগন বল গুলোও বিলুপ্ত হয়। গোকু যুদ্ধক্ষেত্রে দেরিতে পৌঁছায় এবং নাপাকে তার নতুন শক্তি দ্বারা পরাজিত করে তার সঙ্গীদের বদলা নেয়। ভাজিটা নিজে গোকুর বিরুদ্ধে লড়াইয়ে যোগদান করে। অনেক সংঘর্ষ এবং গোহান ও গোকুর প্রিয় বন্ধু ক্রিলেনের সাহায্যে গোকু তাকে পরাজিত করতে সমর্থ হয়। গোকুর অনুরোধে তারা ভাজিটাকে প্রাণভিক্ষা করে এবং পৃথিবী থেকে পালাতে দেয়।

লড়াই চলাকালে ক্রিলেন ভাজিটার নিকট থেকে জানতে পারে যে ড্রাগন বল গুলোর মূল সেট(৭টি ড্রাগন বল) পিকোলোর আদিবাসস্থান ন্যামেক গ্রহ(ナメック星 Namekku-sei) থেকে এসেছে। যখন গোকু হাসপাতালে তার আঘাত থেকে আরোগ্যলাভ করছিলো, গোহান, ক্রিলেন এবং গোকুর পুরনো বন্ধু বলমা ন্যামেক গ্রহের দিকে যাত্রা শুরু করে যাতে ড্রাগন বল দ্বারা তাদের মৃত বন্ধুদের পুনর্জীবিত করতে পারে। কিন্তু তারা সেখানে আবিষ্কার করে যে, ভাজিটার ঊর্ধতন, ছায়াপথের অত্যাচারী প্রভু ফ্রিজাও সেখানে উপস্থিত। যেকিনা অমরত্ব লাভের জন্য ড্রাগন বল খুঁজছে। পুরোপুরি স্বুস্থ ভাজিটাও নিজের জন্য ড্রাগন বল খুঁজতে ন্যামেকে উপস্থিত হয়, যার কারণে ফ্রিজার অনুচরদের সাথে তার বেশকিছু লড়াই হয়। ভাজিটা বুঝতে পারে যে গিনু ফোর্সের সাথে সে একা লড়াই করে পেরে উঠবে না, তাই সে গোহান এবং ক্রিলেনের সাথে জোট বাধেঁ। গিনু ফোর্স হল ফ্রিজার অর্থলুদ্ধ দল যারা ফ্রিজার নির্দেশ মোতাবেক কাজ করে। গোকু যখন ন্যামেকে উপস্থিত হয় তখন তার সাথে ফ্রিজার তীব্র লড়াই হয় পরবর্তীতে গোকু পৌরণিক সুপার সাইয়ানে (超サイヤ人 Sūpā Saiya-jin) রূপান্তরিত হয় এবং তাকে পরাজিত করতে সমর্থ হয়।

এক বছর পর পৃথিবীতে ফিরে আসার পর, গোকু ট্রাঙ্কস নামে একজন সময় ভ্রমণকারীর সাক্ষাৎ লাভ করে, যে কিনা বলমা এবং ভাজিটার ভবিষ্যৎ সন্তান। সে গোকুকে দুইজন কৃত্রিম মানুষ সম্পর্কে সতর্ক করে যারা তিন বছর পর আবির্ভূত হবে এবং তারা রেড রিবন আর্মি ধ্বংস করার জন্য গোকুর বিরুদ্ধে প্রতিশোধ নিতে চাইবে।

উৎপাদন এবং সম্প্রচার[সম্পাদনা]

ইংরেজিতে ভাষান্তর এবং সম্প্রচার[সম্পাদনা]

ড্রাগন বল কাই[সম্পাদনা]

ইংরেজিতে ভাষান্তর এবং সম্প্রচার[সম্পাদনা]

সম্পাদনা[সম্পাদনা]

সঙ্গীত[সম্পাদনা]

সম্পর্কিত মিডিয়া[সম্পাদনা]

স্বদেশে মুক্তি[সম্পাদনা]

কাই[সম্পাদনা]

মাঙ্গা[সম্পাদনা]

চলচিত্রসমূহ[সম্পাদনা]

২০১৫ সাল পর্যন্ত ড্রাগন বল জি কে কেন্দ্র করে ১৫টি চলচিত্র নির্মাণ করা হয়েছে। সাধারণত চলচিত্রগুলো মার্চ এবং জুলাই মাসে মুক্তি পায় যখন জাপানের স্কুলগুলোতে বসন্ত এবং গ্রীষ্মের ছুটি থাকে।

বিশেষ টিভি অনুষ্ঠান এবং অরিজিনাল ভিডিও অ্যানিমেশন[সম্পাদনা]

ভিডিও গেমস[সম্পাদনা]

সাউন্ডট্র্যাক[সম্পাদনা]

সমাদর[সম্পাদনা]

সাংস্কৃতিক প্রভাব এবং উত্তরাধিকার[সম্পাদনা]

নির্ধারণ[সম্পাদনা]

পণ্যদ্রব্য[সম্পাদনা]

Some Dragon Ball staction figures at the Romics 2015
পাঁচ তারার ড্রাগন বলের একটি এক্রাইলিক প্রতিরূপ।
ড্রাগন বল প্যাক

তথ্যসূত্র[সম্পাদনা]

  1. "Dragon Ball"। Toei Animation USA। সংগৃহীত জানুয়ারি ৮, ২০১৭ 
  2. "Japan's Remastered DBZ to Be Called Dragon Ball Z Kai"Anime News Network। ফেব্রুয়ারি ১৯, ২০০৯। সংগৃহীত ফেব্রুয়ারি ২১, ২০০৯ 

বহিঃসংযোগ[সম্পাদনা]

লুয়া ত্রুটি package.lua এর 80 নং লাইনে: module 'Module:প্রবেশদ্বার/চিত্র/ড' not found।

টেমপ্লেট:ড্রাগন বল