ডেনমার্কের রাজনীতি

উইকিপিডিয়া, মুক্ত বিশ্বকোষ থেকে
সরাসরি যাও: পরিভ্রমণ, অনুসন্ধান
রাণী ২য় মার্গারেট

ডেনমার্কে সাংবিধানিক রাজতন্ত্র এবং সংসদীয় গণতন্ত্র পদ্ধতির শাসনব্যবস্থা প্রচলিত। বহুদলীয় গণতন্ত্রের এই সরকারব্যবস্থায় প্রধানমন্ত্রী হলেন সরকারের প্রধান।

রাজতন্ত্র[সম্পাদনা]

১৯৭২ সালের ১৪ জানুয়ারি থেকে রানি দ্বিতীয় মার্গারেট ২ (জন্ম : এপ্রিল ১৬, ১৯৪০)রানী হিসেবে এবং রাষ্ট্রের প্রধান হিসেবে দায়িত্ব পালন করেছেন। ডেনিশ সংবিধান অনুযায়ী ডেনিশ রাজা বা রানী, রাষ্ট্রপ্রধান হিসেবে, সকল প্রকার নির্বাহী ও আইনী ক্ষমতার মূল উৎস। তবে, ১৯৯১ সালে সংসদীয় সার্বভৌমত্ব প্রবর্তনের পর, ক্ষমতার বিভাজনে একটি কার্যকরী সিদ্ধান্ত কার্যকর হয়।[১]


ডেনমার্কের সংবিধান ১৮৪৯ সালে রচিত হয়েছিল। বিচারকরা আধুনিক অবস্থা অনুসারে সংবিধানটি ব্যাখা করেছেন। আনুষ্ঠানিকভাবে, রাজ্যপ্রধান রাজকীয় বিলে অসম্মতি জানাতে পারেন। একটি বিলকে আইনে রূপ নিতে হলে ঐ বিলে রাজা বা রানীর স্বাক্ষর এবং সরকারের একজন মন্ত্রীর প্রতিস্বাক্ষর করতে হবে।[২] রাজা বা রানী প্রধানমন্ত্রী মনোনীত করেন এবং বরখাস্ত করে থাকেন, যদিও বর্তমান সময়ে প্রধানমন্ত্রী বরখাস্তকরণ একটি সাংবিধানিক সংকট সৃষ্টি করে।

আরও দেখুন[সম্পাদনা]

তথ্যসূত্র[সম্পাদনা]

  1. Gunther, Richard; José R. Montero; Juan José Linz (২০০২-০৫-১৬)। Political Parties: Old Concepts and New Challenges। Oxford: Oxford University Press। আইএসবিএন 978-0-19-924674-8 
  2. উদ্ধৃতি ত্রুটি: অবৈধ <ref> ট্যাগ; monarchy2011 নামের সূত্রের জন্য কোন লেখা প্রদান করা হয়নি