ডাল্টন কনিংহাম

উইকিপিডিয়া, মুক্ত বিশ্বকোষ থেকে
ডাল্টন কনিংহাম
ডাল্টন কনিংহাম.jpg
আনুমানিক ১৯২০-এর দশকের সংগৃহীত স্থিরচিত্রে ডাল্টন কনিংহাম
ব্যক্তিগত তথ্য
পূর্ণ নামডাল্টন প্যারি কনকি কনিংহাম
জন্ম(১৮৯৭-০৫-১০)১০ মে ১৮৯৭
ডারবান, নাটাল উপনিবেশ
মৃত্যু৭ জুলাই ১৯৭৯(1979-07-07) (বয়স ৮২)
ডারবান, দক্ষিণ আফ্রিকা
ব্যাটিংয়ের ধরনডানহাতি
বোলিংয়ের ধরনডানহাতি মিডিয়াম
ভূমিকাবোলার
আন্তর্জাতিক তথ্য
জাতীয় পার্শ্ব
একমাত্র টেস্ট
(ক্যাপ ১০৯)
১৬ ফেব্রুয়ারি ১৯২৩ বনাম ইংল্যান্ড
ঘরোয়া দলের তথ্য
বছরদল
১৯২১/২২ - ১৯২৪/২৫নাটাল
১৯২৬/২৭ - ১৯২৭/২৮ট্রান্সভাল
১৯৩০/৩১ওয়েস্টার্ন প্রভিন্স
খেলোয়াড়ী জীবনের পরিসংখ্যান
প্রতিযোগিতা টেস্ট এফসি
ম্যাচ সংখ্যা ২২
রানের সংখ্যা ৩৪৮
ব্যাটিং গড় - ১৫.১৩
১০০/৫০ ০/০ ০/২
সর্বোচ্চ রান ৩* ৬৩
বল করেছে ৩৬৬ ৪৬৭৭
উইকেট ৮৬
বোলিং গড় ৫১.৫০ ২০.৬৭
ইনিংসে ৫ উইকেট
ম্যাচে ১০ উইকেট
সেরা বোলিং ১/৪০ ৫/২০
ক্যাচ/স্ট্যাম্পিং ১/- ১৮/-
উৎস: ইএসপিএনক্রিকইনফো.কম, ৮ জুন, ২০২০

ডাল্টন প্যারি কনকি কনিংহাম (ইংরেজি: Dalton Conyngham; জন্ম: ১০ মে, ১৮৯৭ - মৃত্যু: ৭ জুলাই, ১৯৭৯) নাটাল উপনিবেশের ডারবান এলাকায় জন্মগ্রহণকারী দক্ষিণ আফ্রিকান আন্তর্জাতিক ক্রিকেটার ছিলেন। দক্ষিণ আফ্রিকা ক্রিকেট দলের অন্যতম সদস্য ছিলেন তিনি। ১৯২০-এর দশকের শুরুরদিকে অত্যন্ত সংক্ষিপ্ত সময়ের জন্যে দক্ষিণ আফ্রিকার পক্ষে আন্তর্জাতিক ক্রিকেটে অংশগ্রহণ করেছেন।[১]

ঘরোয়া প্রথম-শ্রেণীর দক্ষিণ আফ্রিকান ক্রিকেটে নাটাল, ট্রান্সভাল ও ওয়েস্টার্ন প্রভিন্স দলের প্রতিনিধিত্ব করেন। দলে তিনি মূলতঃ ডানহাতি মিডিয়াম বোলার হিসেবে খেলতেন। এছাড়াও, ডানহাতে নিচেরসারিতে ব্যাটিং করতেন কনকি কনিংহাম নামে পরিচিত ডাল্টন কনিংহাম

প্রথম-শ্রেণীর ক্রিকেট[সম্পাদনা]

১৯২১-২২ মৌসুম থেকে ১৯৩০-৩১ মৌসুম পর্যন্ত ডাল্টন কনিংহামের প্রথম-শ্রেণীর খেলোয়াড়ী জীবন চলমান ছিল। মহান যুদ্ধের পরপরই নাটাল দলের প্রধান চালিকাশক্তি ছিলেন।

১৯২১-২২ মৌসুমে ডানহাতি মিডিয়াম পেস বোলার হিসেবে নাটালের পক্ষে খেলতে শুরু করেন। উদ্বোধনী মৌসুমেই ছয় খেলায় ৪০ উইকেট পান। তন্মধ্যে, গ্রিকুয়াল্যান্ড ওয়েস্টের বিপক্ষে ব্যক্তিগত সেরা বোলিং পরিসংখ্যান ৫/২০ লাভ করেন।[২] তবে, পরবর্তী মৌসুমগুলো খুব কমই সফলতার স্বাক্ষর রাখতে সক্ষম হয়েছিলেন। এরফলে, ১৯২৪-২৫ মৌসুমে দলের বাইরে চলে যেতে বাধ্য হন।

১৯২৬ সালে ট্রান্সভালের পক্ষে কয়েকটি খেলায় অংশগ্রহণের পর রোডেশিয়ায় একটি খেলায় প্রথম-শ্রেণীর ক্রিকেটে তার ব্যক্তিগত সর্বোচ্চ রানের ইনিংস খেলেন। এরপর, ১৯৩০-৩১ মৌসুমে ওয়েস্টার্ন প্রভিন্সের পক্ষে আরও দুইটি খেলায় অংশ নিয়েছিলেন।

আন্তর্জাতিক ক্রিকেট[সম্পাদনা]

সমগ্র খেলোয়াড়ী জীবনে একটিমাত্র টেস্টে অংশগ্রহণ করেছেন ডাল্টন কনিংহাম। ১৬ ফেব্রুয়ারি, ১৯২৩ তারিখে ডারবানে সফরকারী ইংল্যান্ড দলের বিপক্ষে টেস্ট ক্রিকেটে অভিষেক ঘটে তার। এটিই তার একমাত্র টেস্টে অংশগ্রহণ ছিল। এরপর আর তাকে কোন টেস্টে অংশগ্রহণ করতে দেখা যায়নি।

১৯২২-২৩ মৌসুমে ইংল্যান্ড দল ফ্রাঙ্ক মানের নেতৃত্বে দক্ষিণ আফ্রিকা গমনে আসে। সিরিজের চূড়ান্ত খেলায় অংশ নেন তিনি। উভয় ইনিংসেই তিন রান করে অপরাজিত ছিলেন ও উভয় ইনিংসেই একটি করে উইকেট লাভ করেছিলেন।[৩] সব মিলিয়ে খেলায় ১০৩ রান খরচায় দুই উইকেট পেয়েছিলেন।

১৯২৪-২৫ মৌসুমে এস. বি. জোয়েল একাদশের বিপক্ষে দুইটি খেলায় অংশ নেন। তবে, কোন সফলতা পাননি। এ সফরের শুরুতে নাটালের সদস্যরূপে সফরকারী একাদশের বিপক্ষে দুই খেলায় অংশ নেন। ইনিংসে তিনবার পাঁচ-উইকেট পান। তন্মধ্যে, দ্বিতীয় খেলায় ১৫০ রান খরচায় ১০ উইকেট দখল করেন।[৪]

৭ জুলাই, ১৯৭৯ তারিখে ৮২ বছর বয়সে ডারবান এলাকায় ডাল্টন কনিংহামের দেহাবসান ঘটে।

তথ্যসূত্র[সম্পাদনা]

  1. "Dalton Conyngham"। www.cricketarchive.com। সংগ্রহের তারিখ ২০১২-০১-১৫ 
  2. "Natal v Griqualand West 1921-22"CricketArchive। সংগ্রহের তারিখ ২ জানুয়ারি ২০১৮ 
  3. "Scorecard: South Africa v England"। www.cricketarchive.com। ১৯২৩-০২-১৬। সংগ্রহের তারিখ ২০১২-০১-১৫ 
  4. "Natal v SB Joel's XI (II) 1924-25"CricketArchive। সংগ্রহের তারিখ ২ জানুয়ারি ২০১৮ 

আরও দেখুন[সম্পাদনা]

বহিঃসংযোগ[সম্পাদনা]