ডরোথি মেরি হজকিন

উইকিপিডিয়া, মুক্ত বিশ্বকোষ থেকে
Jump to navigation Jump to search
ডরোথি মেরি হজকিন
Dorothy Hodgkin Nobel.jpg
জন্ম ডরোথি মেরি ক্রোফুট
(১৯১০-০৫-১২)১২ মে ১৯১০
কায়রো, মিশর
মৃত্যু ২৯ জুলাই ১৯৯৪(১৯৯৪-০৭-২৯) (৮৪ বছর)
ইমিংটন, ওয়ারউইকশায়ার, ইংল্যান্ড
জাতীয়তা ব্রিটিশ
কর্মক্ষেত্র প্রাণরসায়ন
প্রতিষ্ঠান অক্সফোর্ড বিশ্ববিদ্যালয়
প্রাক্তন ছাত্র সমারভিল কলেজ, অক্সফোর্ড
কেমব্রিজ বিশ্ববিদ্যালয়
পিএইচডি উপদেষ্টা জে. ডি. বার্নাল
পিএইচডি ছাত্ররা জুডিথ হাওয়ার্ড
টম ব্লান্ডেল[১]
অন্যান্য উল্লেখযোগ্য ছাত্ররা মার্গারেট থ্যাচার
পরিচিতির কারণ প্রোটিন কেলাসবিদ্যার উন্নয়ন
ইনসুলিন এর কাঠামো নির্ধারণের
উল্লেখযোগ্য পুরস্কার রসায়নে নোবেল পুরস্কার (১৯৬৪)
কপলে পদক (১৯৭৬)
লোমনোসভ স্বর্ণ পদক (১৯৮২)

ডরোথি মেরি হজকিন (১২ মে, ১৯১০ - ২৯ জুলাই, ১৯৯৪) ছিলেন একজন ব্রিটিশ রসায়নবিজ্ঞানী। তিনি প্রোটিন কেলাসবিদ্যার উন্নয়নের জন্য ১৯৬৪ সালে রসায়নে নোবেল পুরস্কার লাভ করেন।[২][৩][৪]

প্রাথমিক জীবন[সম্পাদনা]

ডরোথি ১৯১০ সালের ১২ মে মিশরের কায়রোতে জন্মগ্রহণ করেন। তার জন্ম নাম ডরোথি মেরি ক্রোফুট। তার পিতা জন উইন্টার ক্রোফুট (১৮৭৩-১৯৫৯) ছিলেন মিশরের শিক্ষা বিভাগের সহকারী পরিচালক এবং মাতা গ্রেস মেরি ক্রোফুট (প্রদত্ত নাম হুড) (মলি নামেও পরিচিত) (১৮৭৭-১৯৫৭) প্রত্নতাত্ত্বিক বুননে দক্ষ ছিলেন। তার পরিবার শীতকালে কায়রোতে থাকত এবং গ্রীষ্মে ইংল্যান্ডে চলে যেত। তিনি

শিক্ষা ও গবেষণা[সম্পাদনা]

শৈশব থেকেই ডরোথির রসায়নের প্রতি আগ্রহ ছিল এবং তার মা সকল বিজ্ঞানের প্রতি তার আগ্রহ বাড়িয়ে দেয়। তার মা মলি প্রখ্যাত উদ্ভিদবিদ ছিলেন। তার রাজ্য স্কুলের শিক্ষায় লাতিন ভাষা অন্তর্ভুক্ত ছিল না, ফলে তার অক্সব্রিজে পড়ার প্রয়োজন ছিল। লেমান স্কুলের প্রধান শিক্ষক তাকে এই প্রতিবন্ধকতা দূর করতে সাহায্য করে এবং তাকে অক্সফোর্ড বিশ্ববিদ্যালয় ভর্তি পরীক্ষায় ভালো করার উৎসাহ দেন।

১৮ বছর বয়সে তিনি অক্সফোর্ড বিশ্ববিদ্যালয় অধীনস্ত সমারভিল কলেজে রসায়ন বিষয়ে ভর্তি হন।[৫] ১৯৩২ সালে ডরোথি এই বিশ্ববিদ্যালয় থেকে তৃতীয় নারী হিসেবে প্রথম শ্রেণীতে স্নাতক সম্মান লাভ করেন।[৬]

১৯৩৩ সালে সমারভিল কলেজ থেকে রিসার্চ ফেলোশিপ লাভ করেন, এবং ১৯৩৪ সালে তিনি অক্সফোর্ডে ফিরে যান। তিনি ১৯৩৬ সালে এই কলেজের প্রথম ফেলো ও রসায়নের শিক্ষক হিসেবে নিয়োগ লাভ করেন, এবং ১৯৭৭ সাল পর্যন্ত এই পদে নিয়োজিত ছিলেন। ১৯৪০ এর দশকে তার ছাত্রী ছিলেন মার্গারেট রবার্টস, যিনি পরে ইংল্যান্ডের প্রথম নারী প্রধানমন্ত্রী মার্গারেট থ্যাচার এবং ১৯৮০ এর দশকে ডাউনিং স্ট্রিটে হজকিনের পোর্ট্রেট স্থাপন করেন।[৫]

১৯৭০ থেকে ১৯৮৮ সাল পর্যন্ত ব্রিস্টল বিশ্ববিদ্যালয়ের চ্যান্সেলর এর দায়িত্ব পালন করেন।

সম্মাননা[সম্পাদনা]

  • অর্ডার অব মেরিট, ১৯৬৫
  • কপলি মেডেল
  • ফেলো অব দ্য রয়েল সোসাইটি
  • সম্মানসূচক ডক্টর অব সায়েন্স, ইউনিভার্সিটি অব বাথ, ১৯৭৮

তথ্যসূত্র[সম্পাদনা]

  1. PMID 4932997 (PubMed)
    কয়েক মিনিটের মধ্যে স্বয়ংক্রিয়ভাবে উদ্ধৃতি সম্পন্ন করা হবে। Jump the queue বা expand by hand
  2. Dodson, G. (২০০২)। "Dorothy Mary Crowfoot Hodgkin, O.M. 12 May 1910 - 29 July 1994"। Biographical Memoirs of Fellows of the Royal Society48 (0): 179–219। doi:10.1098/rsbm.2002.0011আইএসএসএন 0080-4606 
  3. Glusker, J. P.; Adams, M. J. (১৯৯৫)। "Dorothy Crowfoot Hodgkin"। Physics Today48 (5): 80। doi:10.1063/1.2808036বিবকোড:1995PhT....48e..80G 
  4. Johnson, L. N.; Phillips, D. (১৯৯৪)। "Professor Dorothy Hodgkin, OM, FRS"। Nature Structural Biology1 (9): 573–576। doi:10.1038/nsb0994-573PMID 7634095 
  5. Ferry, Georgina (১৯৯৯)। Dorothy Hodgkin : a life। London: Granta Books। আইএসবিএন 186207285X 
  6. "Hodgkin, Dorothy Mary Crowfoot"Encyclopedia.com। Charles Scribner's Sons। 

বহিঃসংযোগ[সম্পাদনা]