ট্রেভর গ্রিপার

উইকিপিডিয়া, মুক্ত বিশ্বকোষ থেকে
পরিভ্রমণে ঝাঁপ দিন অনুসন্ধানে ঝাঁপ দিন
ট্রেভর গ্রিপার
ব্যক্তিগত তথ্য
পূর্ণ নামট্রেভর রেমন্ড গ্রিপার
জন্ম২৮ ডিসেম্বর, ১৯৭৫
সলসবারি, রোডেশিয়া
ব্যাটিংয়ের ধরনডানহাতি
বোলিংয়ের ধরনডানহাতি অফ ব্রেক
ভূমিকাব্যাটসম্যান
সম্পর্করে গ্রিপার (পিতা)
আন্তর্জাতিক তথ্য
জাতীয় পার্শ্ব
টেস্ট অভিষেক
(ক্যাপ ৪১)
১৪ অক্টোবর ১৯৯৯ বনাম অস্ট্রেলিয়া
শেষ টেস্ট২৬ ফেব্রুয়ারি ২০০৪ বনাম বাংলাদেশ
ওডিআই অভিষেক
(ক্যাপ ৬৮)
২৮ অক্টোবর ২০০১ বনাম পাকিস্তান
শেষ ওডিআই২৬ নভেম্বর ২০০৩ বনাম ওয়েস্ট ইন্ডিজ
খেলোয়াড়ী জীবনের পরিসংখ্যান
প্রতিযোগিতা টেস্ট ওডিআই এফসি এলএ
ম্যাচ সংখ্যা ২০ ৬২ ৩৭
রানের সংখ্যা ৮০৯ ৮০ ৩৫১৫ ৯২১
ব্যাটিং গড় ২১.৮৬ ১০.০০ ৩৩.৭৯ ২৮.৭৮
১০০/৫০ ১/৫ ০/০ ৫/২৬ ১/৫
সর্বোচ্চ রান ১১২ ২৬ ২৩৪ ১০৩
বল করেছে ৭৯৩ ১২০ ৪৪৩০ ৭১৮
উইকেট ৭৮ ১৫
বোলিং গড় ৮৪.৮৩ ৩৮.০০ ৩১.৮৭ ৩৯.৯৩
ইনিংসে ৫ উইকেট
ম্যাচে ১০ উইকেট
সেরা বোলিং ২/৯১ ২/২৮ ৫/৪০ ৩/৩৪
ক্যাচ/স্ট্যাম্পিং ১৪/– ৪/– ৫৬/– ১৮/–
উৎস: ইএসপিএনক্রিকইনফো.কম, ১২ মে ২০২০

ট্রেভর রেমন্ড গ্রিপার (ইংরেজি: Trevor Gripper; জন্ম: ২৮ ডিসেম্বর, ১৯৭৫) সলসবারি এলাকায় জন্মগ্রহণকারী সাবেক জিম্বাবুয়ীয় আন্তর্জাতিক ক্রিকেটার। জিম্বাবুয়ে ক্রিকেট দলের অন্যতম সদস্য ছিলেন তিনি। ১৯৯৯ থেকে ২০০৪ সময়কালে সংক্ষিপ্ত সময়ের জন্যে জিম্বাবুয়ের পক্ষে আন্তর্জাতিক ক্রিকেটে অংশগ্রহণ করেছেন।[১][২][৩]

ঘরোয়া প্রথম-শ্রেণীর জিম্বাবুয়ীয় ক্রিকেটে মাতাবেলেল্যান্ডম্যাশোনাল্যান্ড দলের প্রতিনিধিত্ব করেন। দলে তিনি মূলতঃ ডানহাতি ব্যাটসম্যান হিসেবে খেলতেন। এছাড়াও, ডানহাতে অফ ব্রেক বোলিংয়ে পারদর্শী ছিলেন ট্রেভর গ্রিপার

প্রথম-শ্রেণীর ক্রিকেট[সম্পাদনা]

বিদ্যালয়ের ছাত্র অবস্থাতেই উদ্বোধনী ব্যাটসম্যান হিসেবে খেলতেন। একবার ইংল্যান্ড এ দলের বিপক্ষে ২৬৩ মিনিট ক্রিজ আঁকড়ে থেকে ২৮ রান তুলেছিলেন। বেশ দেরীতে নিজেকে উপযোগী করে তুলেন। ১৯৯৬-৯৭ মৌসুম থেকে ২০০৫ সাল পর্যন্ত ট্রেভর গ্রিপারের প্রথম-শ্রেণীর খেলোয়াড়ী জীবন চলমান ছিল।

১৯৯৯-২০০০ মৌসুমে জেডসিইউ সভাপতি একাদশের সদস্যরূপে সফররত অস্ট্রেলিয়া একাদশের বিপক্ষে অর্ধ-শতরানের ইনিংস খেলে দল নির্বাচকমণ্ডলীর নজর কাড়েন। অল্প কিছুদিন বাদেই বিস্ময়করভাবে টেস্ট দলে তাকে অন্তর্ভূক্ত করা হয়। দ্বিতীয় ইনিংসে ৬০ রানের অপূর্ব ইনিংস উপহার দেন। অন-সাইডে তিনি বেশ দক্ষতার পরিচয় দেন ও অল-সাইডে শট খেলায় জোর দিতেন।

আন্তর্জাতিক ক্রিকেট[সম্পাদনা]

সমগ্র খেলোয়াড়ী জীবনে বিশটি টেস্ট ও আটটিমাত্র একদিনের আন্তর্জাতিকে অংশগ্রহণ করেছেন ট্রেভর গ্রিপারের। ১৪ অক্টোবর, ১৯৯৯ তারিখে হারারেতে সফরকারী অস্ট্রেলিয়া দলের বিপক্ষে টেস্ট ক্রিকেটে অভিষেক ঘটে তার। ২৬ ফেব্রুয়ারি, ২০০৪ তারিখে বুলাওয়েতে সফরকারী বাংলাদেশ দলের বিপক্ষে সর্বশেষ টেস্টে অংশ নেন তিনি।

কিছুকাল দলের বাইরে থাকার পর ২০০১ সালের শেষদিকে বাংলাদেশ গমনার্থে তাকে দলে নেয়া হয়। চট্টগ্রাম টেস্টে নিজস্ব প্রথম শতরানের ইনিংস খেলেন। কিন্তু, এর পরপরই শ্রীলঙ্কা ও ভারত গমনে নিজেকে নিস্পৃহ করে রাখেন। ফলশ্রুতিতে, তাকে আবার দল থেকে বাদ দেয়া হয়।

আন্তর্জাতিক ক্রিকেট থেকে উপেক্ষিত হলেও ঘরোয়া পর্যায়ের প্রথম-শ্রেণীর ক্রিকেটে ম্যাশোনাল্যান্ডের পক্ষে বেশ ভালোমানের খেলা উপহার দিতে থাকেন। মনিকাল্যান্ডের বিপক্ষে ২৩৪ রানের ইনিংস খেলেন। এরফলে, পুণরায় তাকে জাতীয় দলে আমন্ত্রণ জানানো হয়। ২০০৩-০৪ মৌসুমে অস্ট্রেলিয়া গমন করেন।

অবসর[সম্পাদনা]

হিথ স্ট্রিকের সমর্থনে বিদ্রোহী দলে যুক্ত হলে তিনি বাদে বাদ-বাকী সকলেই পরবর্তীতে দলে ফিরে যান। এরপর, তিনি ইংল্যান্ডে লীগ ক্রিকেটে অংশ নেন। তাকে দলে আর ডাকা হয়নি। এর বিরূপ প্রতিক্রিয়া হিসেবে সাবেক রোডেশীয় অধিনায়ক ও তার পিতা রে গ্রিপারকে জিম্বাবুয়ে ক্রিকেট বোর্ডের শীর্ষস্থানীয় প্রতিপক্ষীয় বিবেচনায় এনে আস্তাকুঁড়ে নিক্ষেপ করা হয়।

তথ্যসূত্র[সম্পাদনা]

  1. "Players / Zimbabwe / ODI caps"Cricinfo। সংগ্রহের তারিখ ১২ মে ২০২০ 
  2. "Zimbabwe ODI Batting Averages"Cricinfo। সংগ্রহের তারিখ ১২ মে ২০২০ 
  3. "Zimbabwe ODI Bowling Averages"Cricinfo। সংগ্রহের তারিখ ১২ মে ২০২০ 

আরও দেখুন[সম্পাদনা]

বহিঃসংযোগ[সম্পাদনা]