টিওএন ৬১৮

উইকিপিডিয়া, মুক্ত বিশ্বকোষ থেকে
পরিভ্রমণে ঝাঁপ দিন অনুসন্ধানে ঝাঁপ দিন

টিওএন ৬১৮ একটি অত্যন্ত দূরবর্তী এবং অত্যন্ত উজ্জ্বল কোয়াসার; প্রযুক্তিগতভাবে একটি অতিউজ্জ্বল, বিস্তৃত-শোষণ রেখা, রেডিও-লাউড কোয়াসার যা উত্তর ছায়াপথ খুঁটির কেনিস ভেনাটিসি নক্ষত্রমন্ডলের কাছে অবস্থিত। টিওএন ৬১৮ বর্তমানে পর্যবেক্ষনীয় মহাবিশ্বে পাওয়া ৬৬ বিলিয়ন সৌরভরবিশিষ্ট সবচেয়ে বৃহৎ কৃষ্ণগহ্বর[১]

পর্যবেক্ষণমূলক ইতিহাস[সম্পাদনা]

যেহেতু কোয়াসার ১৯৬৩ সাল পর্যন্ত স্বীকৃত ছিল না, এর প্রকৃতি অজানা ছিল যখন এটি প্রথম ১৯৫৭ সালে আকাশগঙ্গা থেকে দূরে অবস্থিত নীল তারার(প্রধানত শ্বেত বামন) একটি জরিপে দেখা গিয়েছিল। মেক্সিকোর টোনান্টজিন্টলা অবজারভেটরিতে ০.৭ মিটার শ্মিড নভোবীক্ষণ যন্ত্র দিয়ে তোলা ফটোগ্রাফিক প্লেটে এটিকে "নিশ্চিতভাবে বেগুনি" বলে মনে হয়েছিল এবং টোনান্টজিন্টলা ক্যাটালগে ৬১৮ নাম্বার হিসেবে তালিকাভুক্ত করা হয়েছিল।

১৯৭০ সালে বোলোনার একটি রেডিও জরিপে টিঅএন ৬১৮ থেকে রেডিও নির্গমন আবিষ্কার করা হয়, যা নির্দেশ করে যে এটি একটি কোয়াসার। মারি-হেলেন উলরিচ এরপর ম্যাকডোনাল্ড অবজারভেটরিতে টিওএন ৬১৮ এর আলোকিক বর্ণালী পর্যবেক্ষণ করেন যা একটি কোয়াসারের সাধারণ নির্গমন রেখা প্রদর্শন করে। রেখার রেডশিফট থেকে উলরিচ ধারণা করেন যে টিওএন ৬১৮ অনেক দূরে ছিল, এবং এটাই জানা সবচেয়ে উজ্জ্বল কোয়াসারগুলোর মধ্যে অন্যতম।[২]

অতিবৃহৎ কৃষ্ণগহ্বর[সম্পাদনা]

একটি কোয়াসার হিসেবে, টিওএন ৬১৮ একটি ছায়াপথের কেন্দ্রে একটি অতিবৃহৎ কৃষ্ণগহ্বরের চারপাশে ঘূর্ণায়মান তীব্র গরম গ্যাসের একটি ডিস্ক বলে মনে করা হয়। কোয়াসার থেকে উৎপন্ন আলো ১০.৪ বিলিয়ন বছর পুরনো বলে অনুমান করা হয়। পার্শ্ববর্তী ছায়াপথ পৃথিবী থেকে দৃশ্যমান নয়, কারণ কোয়াসার নিজেই এটিকে ছাড়িয়ে যায়। -৩০.৭ মাত্রার একটি চরম মাত্রার মাধ্যমে, এটি ৪×১০৪০ ওয়াটের উজ্জ্বলতায় দীপ্তিমান, অথবা ১৪০ ট্রিলিয়ন সূর্যের সমান উজ্জ্বল, যা এটিকে জানা মহাবিশ্বের অন্যতম উজ্জ্বল বস্তু তে পরিণত করে।

ব্রড-লাইন অঞ্চলের আকার কোয়াসার বিকিরণের উজ্জ্বলতা থেকে নির্ণয় করা যেতে পারে। এই অঞ্চলের আকার এবং এটি যে গতি কে প্রদক্ষিণ করছে তা থেকে মহাকর্ষের সূত্র থেকে জানা যায় যে টিওএন ৬১৮-এ কৃষ্ণগহ্বরের ভর ৬৬ বিলিয়ন সৌরভরের সমান। এই উচ্চ ভরের সঙ্গে, টিওএন ৬১৮ অতিবৃহৎ কৃষ্ণগহ্বরের নতুন শ্রেণীবিভাগের মধ্যে পড়ে। এই ভরের কৃষ্ণগহ্বরের শোয়ার্জশিল্ড ব্যাসার্ধ ১,৩০০ AU(প্রায় ৩৯০ বিলিয়ন কিলোমিটার ব্যাস, নেপচুনের কক্ষপথের আকারের ৪০ গুণ বেশি)।

তথ্যসূত্র[সম্পাদনা]

  1. Silvertant, Martin (২০২০-০১-১৮)। "The largest object in the universe"Medium (ইংরেজি ভাষায়)। সংগ্রহের তারিখ ২০২০-১০-১৫ 
  2. Ulrich, M.-H. (১৯৭৬-০৭-০১)। "Optical spectrum and redshifts of a quasar of extremely high intrinsic luminosity - B2 1225 + 31"The Astrophysical Journal Letters207: L73। ডিওআই:10.1086/182182