টাইগার হিল, কার্গিল

স্থানাঙ্ক: ৩৪°২৯′০৩.৮″ উত্তর ৭৫°৩৯′৩০.২″ পূর্ব / ৩৪.৪৮৪৩৮৯° উত্তর ৭৫.৬৫৮৩৮৯° পূর্ব / 34.484389; 75.658389
উইকিপিডিয়া, মুক্ত বিশ্বকোষ থেকে
টাইগার হিল
GangzLa
The Tiger Hill (3976856895).jpg
টাইগার হিল (পটভূমিতে দেখা সর্বোচ্চ পর্বত) কার্গিলের দ্রাস নদী থেকে দেখা যাচ্ছে
সর্বোচ্চ বিন্দু
উচ্চতা৫,০৬২ মিটার (১৬,৬০৮ ফুট) [১][২]
স্থানাঙ্ক৩৪°২৯′০৩.৮″ উত্তর ৭৫°৩৯′৩০.২″ পূর্ব / ৩৪.৪৮৪৩৮৯° উত্তর ৭৫.৬৫৮৩৮৯° পূর্ব / 34.484389; 75.658389[৩]
ভূগোল
টাইগার হিল লাদাখ-এ অবস্থিত
টাইগার হিল
টাইগার হিল
টাইগার হিল ভারত-এ অবস্থিত
টাইগার হিল
টাইগার হিল
মূল পরিসীমাহিমালয় পর্বতমালা

টাইগার হিল বা গাংজ লা (এটি পয়েন্ট 5062 নামেও পরিচিত[১][২]) হচ্ছে ভারতের কেন্দ্রশাসিত অঞ্চল লাদাখের দ্রাস-কার্গিল অঞ্চলের একটি পর্বত। এটি এই অঞ্চলের সর্বোচ্চ শৃঙ্গগুলির মধ্যে একটি। ১৯৯৯ সালের কার্গিল যুদ্ধের সময় পর্বতটি ব্যাপক আলোচনায় আসে। কারণ, এটি একটি গুরুত্বপূর্ণ যুদ্ধক্ষেত্র ছিল।[৪]

কৌশলগত গুরুত্ব[সম্পাদনা]

টাইগার হিল অঞ্চলের সর্বোচ্চ শৃঙ্গ হওয়ায়, এর উপর থেকে জাতীয় মহাসড়ক ১ডি-র উপর নজর রাখা যায়। মহাসড়কটি শ্রীনগরকে কার্গিলের সাথে যুক্ত করে এবং এটি কার্গিল সেক্টরের প্রধান সরবরাহ পথ। তাই এর চূড়ায় অবস্থানরত যে কোনও শত্রু এই অঞ্চলের প্রধান ভারতীয় ইউনিট ৫৬ ব্রিগেডের সদর দফতরের উপর প্রত্যক্ষ নজর রাখতে পারত। এছাড়াও শত্রুপক্ষ জাতীয় হাইওয়ের দুইদিকের ২৫ কিলোমিটার দূর পর্যন্ত আর্টিলারি ফায়ারও চালাতে পারত। যার ফলে এই গুরুত্বপূর্ণ পথে ভারতীয় সৈন্যদের চলাচল এবং সরবরাহে বাধা ছিল। এছাড়াও টাইগার হিলের চূড়ার আশেপাশেও অনেক গুরুত্বপূর্ণ নজরদারি পয়েন্ট ছিল।

কার্গিল যুদ্ধে টাইগার হিল[সম্পাদনা]

পাকিস্তান সেনাবাহিনীর নর্দান লাইট ইনফ্যান্ট্রির সৈন্যরা টাইগার হিলের উপর কর্তৃত্ব বজায় রেখেছিল। শিখে রেজিমেন্টের অষ্টম ব্যাটালিয়ন (৮ টি শিখ) ১৯৯৯ সালের মে মাসের শেষদিকে টাইগার হিল আক্রমণ করার চেষ্টা করেছিল, তবে দুর্বল সমন্বয়, অপর্যাপ্ত আর্টিলারি সমর্থন এবং পাহাড়ে অবস্থানরত পাকিস্তানি বাহিনীর প্রতিরোধের কারণে তারা ব্যর্থ হয়েছিল। পাহাড়ে অবস্থানরত পাকিস্তানি সৈন্যরা ভারতের আরও কয়েকটি হামলা প্রতিহত করে। ফলশ্রুতিতে ভারতীয় সেনারা পাহাড়ের চারপাশে পরিখা খনন করে। ৩ জুলাই বিকাল ৫টা ১৫ ঘটিকায় একটি আর্টিলারি গোলাবর্ষণের মধ্য দিয়ে চূড়ান্ত আক্রমণ শুরু হয়। ৮ শিখ ব্যাটালিয়ান পর্বতের বাম দিক দিয়ে, নাগা রেজিমেন্টের ২য় ব্যাটালিয়ন (২ নাগা) ডান প্রান্ত দিয়ে এবং ঘটক প্লাটুন, আলফা এবং চার্লি কোম্পানির ১৮ তম ব্যাটালিয়নের দ্য গ্রেনেডিয়ার্স (১৮ গ্রেনেডিয়ার্স) পর্বতের পিছনের দিকের এক হাজার ফুট লম্বালম্বি খাড়া পাহাড়টি বেয়ে উঠে। কয়েক দিন ধরে চূড়ান্ত লড়াইয়ের পর ১৮ জুলাই সকালে ১৮ গ্রেনেডিয়ার্স টাইগার হিলের চূড়াটি দখল করে।

তথ্যসূত্র[সম্পাদনা]

  1. Puri, Mohinder (২০১৫)। Kargil: Turning the Tide। Lancer Publishers LLC। পৃষ্ঠা 107। আইএসবিএন 9781940988238। ২০ মার্চ ২০২১ তারিখে মূল থেকে আর্কাইভ করা। সংগ্রহের তারিখ ৩ জুন ২০২০ 
  2. Singh, Amarinder (২০০১)। A Ridge Too Far: War in the Kargil Heights 1999। Motibagh Palace। পৃষ্ঠা 86। আইএসবিএন 9788193107416 
  3. "Tiger Hill"Tiger Hill 
  4. "Troops re-capture Tiger hill after 3 pronged attack"Jammu-Kashmir.com। ৪ জুলাই ১৯৯৯। ৩০ জানুয়ারি ২০১৪ তারিখে মূল থেকে আর্কাইভ করা। সংগ্রহের তারিখ ১৫ ডিসেম্বর ২০১৩