টাঙ্গাইল-৫

উইকিপিডিয়া, মুক্ত বিশ্বকোষ থেকে
(টাংগাইল-৫ থেকে পুনর্নির্দেশিত)
পরিভ্রমণে ঝাঁপ দিন অনুসন্ধানে ঝাঁপ দিন
টাঙ্গাইল-৫
জাতীয় সংসদ-এর
নির্বাচনী এলাকা
Tangail Upazilas bn.svg
জেলাটাঙ্গাইল জেলা
বিভাগঢাকা বিভাগ
নির্বাচকমণ্ডলী৩,৮০,২৭৯ (২০১৮)[১]
বর্তমান নির্বাচনী এলাকা
সৃষ্ট১৯৭৩
দলবাংলাদেশ আওয়ামী লীগ
বর্তমান সাংসদছানোয়ার হোসেন

টাঙ্গাইল-৫ হল বাংলাদেশের জাতীয় সংসদের ৩০০টি নির্বাচনী এলাকার একটি। এটি টাঙ্গাইল জেলায় অবস্থিত জাতীয় সংসদের ১৩৪নং আসন।

সীমানা[সম্পাদনা]

টাঙ্গাইল-৫ আসনটি টাঙ্গাইল জেলার টাঙ্গাইল সদর উপজেলা নিয়ে গঠিত।[২]

নির্বাচিত সাংসদ[সম্পাদনা]

নির্বাচন সদস্য দল
১৯৭৩ মির্জা তোফাজ্জল হোসেন মুকুল বাংলাদেশ আওয়ামী লীগ[৩]
১৯৭৯ আবদুর রহমান বাংলাদেশ জাতীয়তাবাদী দল[৪]
১৯৮৬ মীর মাজেদুর রহমান জাতীয় পার্টি[৫]
১৯৮৮ মাহমুদুল হাসান জাতীয় পার্টি[৬]
ফেব্রুয়ারি ১৯৯৬ মাহমুদুল হাসান বাংলাদেশ জাতীয়তাবাদী দল
জুন ১৯৯৬ আব্দুল মান্নান বাংলাদেশ আওয়ামী লীগ
২০০১ মাহমুদুল হাসান বাংলাদেশ জাতীয়তাবাদী দল
২০০৮ আবুল কাসেম জাতীয় পার্টি (এরশাদ)
আগস্ট ২০১২ মাহমুদুল হাসান বাংলাদেশ জাতীয়তাবাদী দল
২০১৪ ছানোয়ার হোসেন বাংলাদেশ আওয়ামী লীগ
২০১৮ ছানোয়ার হোসেন বাংলাদেশ আওয়ামী লীগ

নির্বাচন[সম্পাদনা]

২০১০-এর দশকে নির্বাচন[সম্পাদনা]

সাধারণ নির্বাচন ২০১৪: টাঙ্গাইল-৫[৭]
দল প্রার্থী ভোট % ±%
আওয়ামী লীগ ছানোয়ার হোসেন ৬৭,৯৫৯ ৫৩.১ প্র/না
স্বতন্ত্র মুরাদ সিদ্দিকী ৫৯,৩৯৮ ৪৬.৪ প্র/না
জাতীয় পার্টি (এ) সাদেক সিদ্দিকী ৪০০ ০.৩ -৫৫.৯
বিএনএফ আতাউর রহমান খান ২৪৫ ০.২ প্র/না
সংখ্যাগরিষ্ঠতা ৮,৫৬১ ৬.৭ -২১.৭
ভোটার উপস্থিতি ১২৮,০০২ ৩৭.৬ -৪৮.০
বিএনপি থেকে আওয়ামী লীগ অর্জন করে

২০০৮ সালের অনুষ্ঠিত সংসদ নির্বাচনে আবুল কাশেম নির্বাচিত হন। তবে তিনি ঋণ ও বিল খেলাপি উল্লেখ করে দ্বিতীয় বিজয়ী প্রার্থী মেজর জেনারেল (অব.) মাহামুদুল হাসান হাইকোর্টে (নির্বাচনী ট্রাইব্যুনাল) আবেদন করেন। একই বছরের ১৫ ডিসেম্বর শুনানির পর হাইকোর্ট রায়ে তার সংসদ সদস্য ঘোষণার গেজেট অবৈধ ও বাতিল ঘোষণা করে।[৮] পরে নির্বাচন কমিশন তার আসন শুন্য ঘোষণা করে ও দ্বিতীয় বিজয়ী প্রার্থী মাহামুদুল হাসানকে সংসদ সদস্য ঘোষণা করেন। পরে আপিল প্রক্রিয়া শেষ হবার পর সাংসদ হিসেবে মাহমুদুল হাসানে ৩০ মে ২০১২ সালে শপথ নেন।[৯]

২০০০-এর দশকে নির্বাচন[সম্পাদনা]

সাধারণ নির্বাচন ২০০৮: টাঙ্গাইল-৫[১০][১১]
দল প্রার্থী ভোট % ±%
জাতীয় পার্টি (এ) আবুল কাসেম ১৪৭,১৫২ ৫৬.২ প্র/না
বিএনপি মাহমুদুল হাসান ৭২,৮০৫ ২৭.৮ -৪.৪
কৃষক শ্রমিক জনতা লীগ মুরাদ সিদ্দিকী ৪০,৪৫৬ ১৫.৪ -৭.৩
ইসলামী আন্দোলন আবু ইউসুফ ১,১৯২ ০.৫ প্র/না
জাকের পার্টি মাহফুজ রেজা ৩১৯ ০.১ প্র/না
সংখ্যাগরিষ্ঠতা ৭৪,৩৪৭ ২৮.৪ +২৪.০
ভোটার উপস্থিতি ২৬১,৯২৪ ৮৫.৬ +৯.০
বিএনপি থেকে জাতীয় পার্টি (এ) অর্জন করে
সাধারণ নির্বাচন ২০০১: টাঙ্গাইল-৫[১২]
দল প্রার্থী ভোট % ±%
বিএনপি মাহমুদুল হাসান ৯৬,৫৪৪ ৩২.২ +৩.৮
আওয়ামী লীগ আব্দুল মান্নান ৮৩,৪৫৮ ২৭.৮ -১২.২
কৃষক শ্রমিক জনতা লীগ মুরাদ সিদ্দিকী ৬৮,১৬৭ ২২.৭ প্র/না
ইসলামী জাতীয় ঐক্যফ্রন্ট আবুল কাসেম ৫০,২৬৬ ১৬.৮ প্র/না
গণফোরাম আবুল হোসেন ৯৭০ ০.৩ ০.০
বাংলাদেশ প্রগ্রেসিভ পার্টি চাঁদ ইমরান মির্জা ১৯১ ০.১ প্র/না
জেপি (মঞ্জু) এ কে কে পাঠান আইয়ুব ১৬৫ ০.১ প্র/না
সংখ্যাগরিষ্ঠতা ১৩,০৮৬ ৪.৪ -৬.৬
ভোটার উপস্থিতি ২৯৯,৭৬১ ৭৬.৬ -১.২
আওয়ামী লীগ থেকে বিএনপি অর্জন করে

১৯৯০-এর দশকে নির্বাচন[সম্পাদনা]

সাধারণ নির্বাচন জুন ১৯৯৬: টাঙ্গাইল-৫[১২]
দল প্রার্থী ভোট % ±%
আওয়ামী লীগ আব্দুল মান্নান ৯৫,৯০৩ ৪০.০ +২.৯
জাতীয় পার্টি (এ) আবুল কাসেম ৬৯,৪৩০ ২৮.৯ -৯.৫
বিএনপি মাহমুদুল হাসান ৬৮,০৪২ ২৮.৪ +১২.৮
জামায়াতে ইসলামী শফিকুর রহমান ৩,৯৯৭ ১.৭ -০.১
গণফোরাম আবুল হোসেন ৭৭৬ ০.৩ প্র/না
ইসলামী ঐক্য জোট ইব্রাহিম ৬১৭ ০.৩ প্র/না
ডেমোক্রেটিক রিপাবলিকান পার্টি শাহজাহান আলী ৩৪৪ ০.১ প্র/না
জাকের পার্টি এ কে এম এম আশরাফুল হক ২৮২ ০.১ -০.১
ন্যাপ (ভাসানী) মোসলেম উদ্দিন ২৪৫ ০.১ প্র/না
জেএসডি আলতাব হোসেন মিয়া ২০৫ ০.১ প্র/না
স্বতন্ত্র সাদেক সিদ্দিকুল ১৪০ ০.১ প্র/না
সংখ্যাগরিষ্ঠতা ২৬,৪৭৩ ১১.০ +৯.৬
ভোটার উপস্থিতি ২৩৯,৯৮১ ৭৭.৮ +১৯.৯
জাতীয় পার্টি (এ) থেকে আওয়ামী লীগ অর্জন করে
সাধারণ নির্বাচন ১৯৯১: টাঙ্গাইল-৫[১২]
দল প্রার্থী ভোট % ±%
জাতীয় পার্টি (এ) মাহমুদুল হাসান ৭৪,১৪৪ ৩৮.৪
আওয়ামী লীগ আব্দুল মান্নান ৭১,৪৫৫ ৩৭.১
বিএনপি বাবুল চৌধুরী ৩০,১৬৮ ১৫.৬
জেএসডি (সিরাজ) মতিউর রহমান খান ৮,৯২০ ৪.৬
জামায়াতে ইসলামী নওশার আলী ৩,৫৩০ ১.৮
স্বতন্ত্র ওয়াজেদ আলী খান পন্নী ১,৪৭০ ০.৮
ন্যাপ (মুজাফফর) মোসলেম উদ্দিন ১,০১১ ০.৫
জাতীয় ঐক্যফ্রন্ট হযরত আলী শিকদার ৭০৪ ০.৪
ফ্রিডম পার্টি নজরুল ইসলাম খান ৪৬৩ ০.২
জাকের পার্টি এ কে এম এম আশরাফুল হক ৩৬৮ ০.২
বাংলাদেশ মুসলিম লীগ (কাদের) সৈয়দ এ আল ওয়াসেক ৩১৮ ০.২
কমিউনিস্ট পার্টি জোয়াদ আল মালুম ৩০০ ০.২
সংখ্যাগরিষ্ঠতা ২,৬৮৯ ১.৪
ভোটার উপস্থিতি ১৯২,৮৫১ ৫৭.৯
জাতীয় পার্টি (এ) নির্বাচনী এলাকা ধরে রাখে

তথ্যসূত্র[সম্পাদনা]

  1. এমরান হোসাইন শেখ (১০ অক্টোবর ২০১৮)। "কোন আসনে কত ভোটার"বাংলা ট্রিবিউন। ২৭ ডিসেম্বর ২০১৮ তারিখে মূল থেকে আর্কাইভ করা। 
  2. "জাতীয় সংসদীয় আসনবিন্যাস (২০১৩) গেজেট" (PDF)বাংলাদেশ নির্বাচন কমিশন। ১৬ জুন ২০১৫ তারিখে মূল (PDF) থেকে আর্কাইভ করা। সংগ্রহের তারিখ ৬ আগস্ট ২০১৫ 
  3. "১ম জাতীয় সংসদ সদস্যদের তালিকা" (PDF)বাংলাদেশ সংসদ। সংগ্রহের তারিখ ১৩ ফেব্রুয়ারি ২০১৮ 
  4. "২য় জাতীয় সংসদ সদস্যদের তালিকা" (PDF)বাংলাদেশ সংসদ। সংগ্রহের তারিখ ১৩ আগস্ট ২০১৪ 
  5. "৩য় জাতীয় সংসদ সদস্যদের তালিকা" (PDF)বাংলাদেশ সংসদ। সংগ্রহের তারিখ ১৩ আগস্ট ২০১৪ 
  6. "৪র্থ জাতীয় সংসদ সদস্যদের তালিকা" (PDF)বাংলাদেশ সংসদ। সংগ্রহের তারিখ ১৩ আগস্ট ২০১৪ 
  7. "Tangail-5"বাংলাদেশের নির্বাচনের ফলাফল ২০১৪ (ইংরেজি ভাষায়)। ঢাকা ট্রিবিউন। ৩১ জানুয়ারি ২০১৮ তারিখে মূল থেকে আর্কাইভ করা। সংগ্রহের তারিখ ৮ ফেব্রুয়ারি ২০১৮ 
  8. "আবুল কাশেমের সংসদ সদস্য পদ অবৈধ"www.prothom-alo.com। ১৪ ফেব্রুয়ারি ২০১২। 
  9. "সাংসদ হিসেবে মাহমুদুল হাসানের শপথ ৩০ মে"www.banglanews24.com। ২০১২। ২৫ ডিসেম্বর ২০১৮ তারিখে মূল থেকে আর্কাইভ করা। সংগ্রহের তারিখ ২৫ ডিসেম্বর ২০১৮ 
  10. "৯ম জাতীয় সংসদ নির্বাচন" (PDF)বাংলাদেশ নির্বাচন কমিশন। ২৮ নভেম্বর ২০১৮ তারিখে মূল (PDF) থেকে আর্কাইভ করা। সংগ্রহের তারিখ ২৮ নভেম্বর ২০১৮ 
  11. "মনোনয়ন জমাদানের তালিকা"বাংলাদেশ নির্বাচন কমিশন। ১১ ফেব্রুয়ারি ২০১৮ তারিখে মূল থেকে আর্কাইভ করা। সংগ্রহের তারিখ ৯ ফেব্রুয়ারি ২০১৮ 
  12. "Parliament Election Result of 1991,1996,2001 Bangladesh Election Information and Statistics"ভোট মনিটর নেটওয়ার্ক (ইংরেজি ভাষায়)। ২৯ ডিসেম্বর ২০০৮ তারিখে মূল থেকে আর্কাইভ করা। সংগ্রহের তারিখ ১১ ফেব্রুয়ারি ২০১৮ 

বহিঃসংযোগ[সম্পাদনা]

স্থানাঙ্ক: ২৪°১৫′ উত্তর ৮৯°৫৫′ পূর্ব / ২৪.২৫° উত্তর ৮৯.৯২° পূর্ব / 24.25; 89.92