জ্যোতিরাদিত্য মাধবরাও সিন্ধিয়া

উইকিপিডিয়া, মুক্ত বিশ্বকোষ থেকে
জ্যোতিরাদিত্য মাধবরাও সিন্ধিয়া
The Minister of State for Commerce and Industry, Shri Jyotiraditya Scindia addressing the first meeting of the India Colombia Business Forum, in Bogota, Columbia on July 06, 2012.jpg
রাজ্যসভার সদস্য
দায়িত্বাধীন
অধিকৃত কার্যালয়
২০ জুন ২০২০
পূর্বসূরীসত্যনারায়ণ জাতীয়া
সংসদীয় এলাকামধ্যপ্রদেশ
লোকসভা সদস্য
কাজের মেয়াদ
২৪ ফেব্রুয়ারি ২০০২ – ২৩ মে ২০১৯
পূর্বসূরীমাধবরাও সিন্ধিয়া
উত্তরসূরীকৃষ্ণ পাল সিং যাদব
সংসদীয় এলাকাগুনা
বিদ্যুতমন্ত্রী
কাজের মেয়াদ
২৮ অক্টোবর ২০১২ – ২৬ মে ২০১৪
প্রধানমন্ত্রীমনমোহন সিং
পূর্বসূরীভীরাপ্পা মৈলি
উত্তরসূরীপিযুষ গয়াল
ব্যক্তিগত বিবরণ
জন্ম (1971-01-01) ১ জানুয়ারি ১৯৭১ (বয়স ৫০)
মুম্বাই, মহারাষ্ট্র, ভারত
রাজনৈতিক দলভারতীয় জনতা পার্টি
(২০২০–বর্তমান)
অন্যান্য
রাজনৈতিক দল
ভারতীয় জাতীয় কংগ্রেস
(২০০১–২০২০)
দাম্পত্য সঙ্গীপ্রিয়দর্শিনী রাজে সিন্ধিয়া ১৯৯৪
সন্তান
পিতামাধবরাও সিন্ধিয়া
আত্মীয়স্বজন
বাসস্থানজয় বিলাস প্রাসাদ, গোয়ালিয়র, মধ্যপ্রদেশ, ভারত
নতুন দিল্লী, ভারত
প্রাক্তন শিক্ষার্থীহার্ভার্ড বিশ্ববিদ্যালয় (স্নাতক)
স্ট্যানফোর্ড বিশ্ববিদ্যালয় (এমবিএ)

জ্যোতিরাদিত্য মাধবরাও সিন্ধিয়া (জন্ম: ১ জানুয়ারী ১৯৭১) একজন ভারতীয় রাজনীতিবিদ যিনি রাজ্যসভার সদস্য হিসাবে মধ্যপ্রদেশ হতে প্রতিনিধিত্ব করেন।[১] যিনি একসময়কার গোয়ালিয়র রাজ্য শাসনকারী সিন্ধিয়া পরিবারের সদস্য। তিনি ২০১২ সালে ভারতের সাধারণ নির্বাচনে পরাজয়ের পূর্ব পর্যন্ত মধ্যপ্রদেশের গুনা আসন হতে লোকসভায় প্রতিনিধিত্ব করেন। রাজনৈতিক জীবনে তিনি প্রথমে ভারতীয় জাতীয় কংগ্রেসের (আইএনসি) এবং বর্তমানে ভারতীয় জনতা পার্টির (বিজেপি) সদস্য হিসাবে আছেন।

কংগ্রেসের সদস্য থাকাকালীন ২০১২'এর অক্টোবর থেকে ২০১৪'এর মে পর্যন্ত তিনি প্রধানমন্ত্রী মনমোহন সিংয়ের মন্ত্রিসভায় বিদ্যুত মন্ত্রণালয়ের দায়িত্বে ছিলেন। ২০২০ সালের মার্চ মাসে তিনি কংগ্রেসের সাথে সমস্ত সম্পর্ক ছিন্ন করে বিজেপিতে যোগ দেন।

জন্ম ও পারিবারিক পরিচিতি[সম্পাদনা]

সিন্ধিয়া ১৯৭১ সালের ১ জানুয়ারি বোম্বেতে জন্মগ্রহণ করেন। তার পিতা মাধবরাও সিন্ধিয়া এবং মাতা মাধবী রাজে সিন্ধিয়া; যারা ব্রিটিশ ভারতের প্রাক্তন গোয়ালিয়র রাজ্য শাসনকারী সিন্ধিয়া পরিবারের সদস্য।[১] তিনি নিজেকে কুরমি জনগোষ্ঠীর লোক হিসাবে দাবি করেন।[২][৩]

শিক্ষাজীবন[সম্পাদনা]

তিনি মুম্বাইয়ের ক্যাম্পিয়ন স্কুলে এবং দেরাদুনের দুন স্কুলে পড়াশোনা শেষ করার পর[৪] ১৯৯৩ সালে অর্থনীতিতে স্নাতক হন হার্ভার্ড বিশ্ববিদ্যাল হতে এবং ২০০১ সালে এমবিএ করেন স্ট্যানফোর্ড বিশ্ববিদ্যালয় থেকে।[১]

তথ্যসূত্র[সম্পাদনা]

  1. "হার্ভার্ডের অর্থনীতির স্নাতক, স্ট্যানফোর্ডের এমবিএ থেকে অন্যতম ধনী মন্ত্রী হন জ্যোতিরাদিত্য"। আনন্দবাজার অনলাইন। ১১ মার্চ ২০২০। সংগ্রহের তারিখ ২১ জুন ২০২১ 
  2. "Congress has never been a party of OBCs, but something's changing now" (ইংরেজি ভাষায়)। দ্যাপ্রিন্ট। ১২ মার্চ ২০১৯। সংগ্রহের তারিখ ২১ জুন ২০২১ 
  3. "Diggy-Jyoti feud may have roots in history" (ইংরেজি ভাষায়)। দ্যা সানডে গার্ডিয়ান লাইভ। ১৪ মার্চ ২০২০। সংগ্রহের তারিখ ২১ জুন ২০২১ 
  4. "The evolution of Honorable Shri. Jyotiraditya Scindia"। টাইমস অফ ইন্ডিয়া। ২ জুন ২০০২। সংগ্রহের তারিখ ২১ জুন ২০২১ 

বহিঃসংযোগ[সম্পাদনা]