জেন্না প্রেস্‌লে

উইকিপিডিয়া, মুক্ত বিশ্বকোষ থেকে
পরিভ্রমণে ঝাঁপ দিন অনুসন্ধানে ঝাঁপ দিন
জেন্না প্রেস্‌লে
Jenna Presley 2010.jpg
২০১০ সালের সেপ্টেম্বরে ডিভিডি রিলিজ অনুষ্ঠানে প্রেস্‌লে
স্থানীয় নাম
Jenna Presley
জন্ম
Brittni Ruiz[১][২]

(1987-04-01) এপ্রিল ১, ১৯৮৭ (বয়স ৩২)[৩]
জাতীয়তামার্কিন যুক্তরাষ্ট্র আমেরিকান[৩]
প্রাপ্তবয়স্ক চলচ্চিত্রের
সংখ্যা
৩৩০ (IAFD-এ প্রাপ্ত তথ্য) [৩]

জেন্না প্রেস্‌লে (জন্ম ১ এপ্রিল, ১৯৮৭)[৩] হলেন যুক্তরাষ্ট্রের একজন প্রাক্তন পর্ণোগ্রাফিক অভিনেত্রী[২], যিনি Brittni De La Mora নামেও পরিচিত।[১]

প্রাথমিক জীবন[সম্পাদনা]

টিজুয়ানা, মেক্সিকো তে থাকা অবস্থায় প্রেস্‌লে তিনি স্ট্রিপিং এবং বক্ষ উন্মুক্ত করতে শুরু করে।[৪] অপ্রাপ্তবয়স্ক হওয়া সত্ত্বেও প্রায় ২ বছর তিজুয়ানাতে থাকা অবস্থায় প্রতি সাপ্তাহে স্ট্রাইপিং করতেন। [৫] ১৭ বছর বয়সে তিনি আনরেক্সিয়া নার্ভসা এর চিকিৎসা শুরু করেন। [৫][৬] ২০০৫ সালে হিলটপ হাই স্কুল থেকে তিনি স্নাতক পাস করেন এবং সান্টা বারবারা সিটি কলেজ এ ভর্তি হন। [৬] তিনি প্রচারণাসাংবাদিকতা বিষয়ে লেখাপড়া করেন এবং টেলিমেকার হিসেবে কাজ করেন।[৭] কলেজে পড়াকালীন সময়ে তিনি রোমান্স ছবি করার জন্য প্রস্তাব পেয়েছিলেন। [৮]

ক্যারিয়ার[সম্পাদনা]

২০০৫ সালের সেপ্টেম্বর মাসে ১৮ বছর বয়সে প্রেস্‌লে পর্ণগ্রাফির দুনিয়ায় প্রবেশ করেন। [২] কিন্তু ১ মাসের মতো কাজ করার পরে তার গনোরিয়া ধরা পরে।[২] তিনি পর্ণোগ্রাফির দুনিয়ায় প্রায় ২৭৫ টি প্রাপ্ত বয়স্কদের চলচ্চিত্রে অংশ নিয়েছেন এবং পরিচালনা করেছেন।[৩] ২০১০ সালে মাক্সিম ম্যাগাজিন তার নাম সেরা ১২ নারী পর্ণ অভিনেত্রীর তালিকাতে রাখে।[৯] ২০১১ সালে কমপ্লেক্স (ম্যাগাজিন) "The Top 100 Hottest Porn Stars (Right Now)" তালিকায় ১৭তম স্থানে তার অবস্থান প্রকাশ করে।[১০]

তার সমসাময়িক সময়ে প্রাপ্ত বয়স্ক চলচ্চিত্র শিল্পে তিনি পরিচিত ছিলেন নারী রাগমোচনের জন্য। নিক মান্নিং এর সাথে সঙ্গমরত অবস্থায় তিনি প্রথম ব্যপারটি আবিষ্কার করেন।[১১] ২০১২ সালে প্রেস্‌লে পর্ণোগ্রাফির দুনিয়া থেকে অবসর গ্রহণ করেন। [২]

ব্যক্তিগত জীবন[সম্পাদনা]

তিন বছর পর্ণোগ্রাফির দুনিয়ায় থাকার পরে তিনি তার দাদা-দাদির সাথে স্যান ডিয়েগো এ অবস্থিত রক চার্চে যান, সেখানে তিনি যিশুকে তার প্রভু হিসেবে স্বীকার এবং দ্যা রিভ. মাইলস এমসিফেরসন এর একটি সারমন শোনার পরে ধর্মীয় শিক্ষা গ্রহণ করেন।[১২] এক্সএক্সএক্স চার্চের একজন খ্রিস্টান পাস্টর এর অনুপ্রেরণায় প্রেস্‌লে পর্ণোগ্রাফির দুনিয়া ত্যাগ করার সিদ্ধান্ত নেন। ২০১২ সালের ডিসেম্বর মাসে লাস ভেগাসে তিনি তার শেষ পর্ণ ভিডিওতে অংশ নেন।[২][১৩][১৪][১৫] ২০১৩ সালে এক সাক্ষাৎকারে তিনি একটি বই সম্পর্কে বলেন যেখানে তিনি আর অতীত জীবনের মাদকের বিরুদ্ধে লড়াই, প্রাপ্ত বয়স্কদের চলচ্চিত্রের শিল্প এবং খ্রিস্টান ধর্মে তার নতুন বিশ্বাস সম্পর্কে জানাবেন। [১৬] ২০১৩ সালের আগস্টে দ্যা ভিউ অনুষ্ঠানে তার খ্রিস্টান ধর্মে দীক্ষিত হওয়ার ব্যপারটি নিয়ে খোলাখুলি কথা বলেন।[১]

পর্ণোগ্রাফির দুনিয়ায় তিনি ক্রিস্টাল মেথ, হেরোইন, কোকেইন (ওজন কম রাখতে), এস্টাসি এবং অক্সিকন্টিন ব্যবহার করতেন। [২] পর্ণোগ্রাফির দুনিয়ায় থাকা অবস্থায় তার দুইবার বাগদান হয় এবং তার সামনেই রাইভাল মোটরসাইকেল গ্যাং তার বয়ফ্রেন্ডকে হত্যা করে। [১৭]

পুরস্কার[সম্পাদনা]

বছর নাম ফলাফল বিষয়শ্রেণী কাজ
২০০৬ নাইট মোভস এওয়ার্ড বিজয়ী নতুন সেরা স্টারলেট (ভক্তদের পছন্দের ভিত্তিতে)[১৮] প্রযোজ্য নয়

ছবিঘর[সম্পাদনা]

তথ্যসূত্র[সম্পাদনা]

  1. Sarah Petersen (২০১৩-০৮-০৭)। "Former porn star Brittni Ruiz and her pastor appear on 'The View'"Deseret News। সংগ্রহের তারিখ ৮ আগস্ট ২০১৩ 
  2. "X-Rated High"Drugs, Inc.। 7 ধারাবাহিক। পর্ব 3 (English ভাষায়)। Los Angeles। ৩০ সেপ্টেম্বর ২০১৫। National Geographic Channel। ৮ অক্টোবর ২০১৫ তারিখে মূল থেকে আর্কাইভ করা। সংগ্রহের তারিখ ৯ অক্টোবর ২০১৫ 
  3. ইন্টারনেট অ্যাডাল্ট ফিল্ম ডাটাবেজে Jenna Presley (ইংরেজি)
  4. "Deviant Cult X"dv8cultx.com। ২৭ এপ্রিল ২০০৬ তারিখে মূল থেকে আর্কাইভ করা। সংগ্রহের তারিখ ২ অক্টোবর ২০১৫ 
  5. Big D (২০০৬-১১-৩০)। "Inside Jenna Presley"। XRentDVD। সংগ্রহের তারিখ ২০১৪-০৯-১৮ 
  6. Troy Michael। "Beating The Odds with Porn Performer Jenna Presley"। IWAdult.com। এপ্রিল ৩০, ২০১২ তারিখে মূল থেকে আর্কাইভ করা। সংগ্রহের তারিখ ২০১৪-১১-০৮ 
  7. Apache Warrior। "Jenna Presley interview"। XCritic। সংগ্রহের তারিখ ২০১৪-০৯-২৩ 
  8. http://www.timescolonist.com/the-woman-who-rejected-porn-for-god-1.2247360
  9. "The dirty dozen" Eduardo Anselmi,Maxim UK, June 2010[অকার্যকর সংযোগ]
  10. "The Top 100 Hottest Porn Stars (Right Now)"Complex। ২০১১-০৭-১১। সংগ্রহের তারিখ ২০১৪-১১-০৮ 
  11. Maya Cherry (২০১১-০৪-২৯)। "Jenna Presley: WOW"Xtreme। ২০১৪-০৯-০৫ তারিখে মূল থেকে আর্কাইভ করা। সংগ্রহের তারিখ ২০১৪-০৯-০৫ 
  12. Ellis, Mark (২৬ অক্টোবর ২০১৩)। "Pornstar Jenna Presley finds Jesus"। Christian Daily News। সংগ্রহের তারিখ ২৫ মার্চ ২০১৪“I had many lonely nights when I cut on my wrists. I tried to kill myself. I spent all my paycheck on drugs.” After three years in the adult film industry, she was fed up. She placed a 9-1-1 call to her grandmother. “I need you, grandma,” she said. “I’m done with this. Come and get me.” During her stay with her grandparents, they took her to the Rock Church in San Diego, led by Pastor Miles McPherson. Brittni was “bawling” through most of the sermon. In response to his invitation, she raised her hand to receive Jesus as her personal Lord and Savior. The church gave her a Bible and after she got home, she devoured Genesis. “I always wondered how we became human. Finally I had the answer and I was so excited. I couldn’t put it down.” 
  13. Herald, The Gospel (২০১৩-০৭-১২)। "Jenna Presley Retires from Porn Industry, Found New Life in Christ"Christian News, The Gospel Herald। সংগ্রহের তারিখ ২০১৬-১২-১০ 
  14. Hallowell, Billy (১ আগস্ট ২০১৩)। "'Thank You, Jesus!': One of the World's Most Famous Porn Stars Finds God, Leaves the Sex Industry"। TheBlaze। ১৩ এপ্রিল ২০১৫ তারিখে মূল থেকে আর্কাইভ করা। সংগ্রহের তারিখ ২৭ এপ্রিল ২০১৫Things finally changed when the former porn star met Rachel Collins, a Christian pastor who works with XXX Church, a ministry that works to alleviate issues associated with porn, and who has a passion for reaching out to workers in the sex industry. Ruiz encountered her at a porn convention and the two began to talk, the Daily Mail reports. The actress was impacted by the exchange, filming her last sex scene in November 2012 and now pledging never to go back, having found Jesus. “I never found love in my life and was looking for it in all the wrong places . . . I have finally encountered the unconditional love of God, and I will never go back,” she said. 
  15. James Nye (২০১৩-০৭-২৯)। "How the 'World's Hottest Pornstar' found God at the XXXChurch which campaigns to get sex workers to see the light"The Daily Mail। সংগ্রহের তারিখ ৮ আগস্ট ২০১৩ 
  16. Carmen Miller, From Porn to the Cross: An Interview with Brittni Ruiz ওয়েব্যাক মেশিনে আর্কাইভকৃত ১১ নভেম্বর ২০১৪ তারিখে, Whole Magazine, 22 August 2013, Retrieved 4 December 2014
  17. http://vancouversun.com/entertainment/movies/the-woman-who-rejected-porn-for-god
  18. "2006 Nightmoves Award Winners Announced"। Business.avn.com। ২০০৬-১০-০৯। ২০১২-০৬-২৯ তারিখে মূল থেকে আর্কাইভ করা। সংগ্রহের তারিখ ২০১১-১০-১১ 

বহিঃ সংযোগ[সম্পাদনা]