জুম্ম জনগোষ্ঠী

উইকিপিডিয়া, মুক্ত বিশ্বকোষ থেকে
পরিভ্রমণে ঝাঁপ দিন অনুসন্ধানে ঝাঁপ দিন

জুম্ম জনগোষ্ঠী বলতে বাংলাদেশের পার্বত্য চট্টগ্রাম এলাকার আদিবাসী জনগণকে সামগ্রিকভাবে বোঝানো হয়ে থাকে। এদের মধ্যে রয়েছে চাকমা, মারমা, ত্রিপুরি, তনচংগা, চক, পাংখো, মুরং, বম, লুসাই, খিয়াং, গোর্খা, অসমীয়া, সাঁওতাল, এবং খুমি জনগোষ্ঠীর লোকজন।[১]

জুম ("কৃষক") শব্দটি জুম চাষ শব্দ থেকে আগত।[২] এই শব্দটি মূলত এই অঞ্চলের বাইরের বাসিন্দারা ব্যবহার করে।[৩] তাদেরকে পাহাড়ি নামেও ডাকা হয়, যা সাধারণত "পাহাড়ের বাসিন্দা" হিসেবে তাদের নির্দেশ করে।[৪]

জুম্মরা তিব্বতী বর্মণ ভাষাভাষীর লোক, যা বাঙ্গালী জাতির দ্বারা ব্যবহৃত বাংলার সাথে সম্পর্কহীন। ধর্মের দিক থেকেও তারা স্বতন্ত্র, যার অধিকাংশ বৌদ্ধ ধর্মাবলম্বী, কিছু হিন্দু এবং কিছু খ্রিস্টান সম্প্রদায়ভুক্ত, এমনকি সামান্য সংখ্যক ধর্মান্তরিত মুসলিমও রয়েছে। এছাড়াও, তাদের মধ্যে কতিপয় ঐতিহ্যবাহী ধর্মীয় বিশ্বাসীও রয়েছে।[৫]

তথ্যসূত্র[সম্পাদনা]

  1. Van Schendel, Willem (২০০১)। Willem van Schendel, Erik J. Zurcher, সম্পাদক। Identity Politics in Central Asia and the Muslim World। I.B.Tauris। পৃষ্ঠা 141। আইএসবিএন 978-1860642616 
  2. Roy, Rajkumari Chandra Kalindi (২০০০)। Land Rights of the Indigenous Peoples of the Chittagong Hill Tracts। IWGIA। পৃষ্ঠা 28। আইএসবিএন 978-87-90730-29-1 
  3. Ghanea-Hercock, Nazila; Xanthaki, Alexandra; Thornberry, Patrick (২০০৫)। Minorities, Peoples and Self-determination। Martinus Nijhoff Publishers। পৃষ্ঠা 115। আইএসবিএন 90-04-14301-7It differentiates them from their plains neighbours and was initially used in a derogatory manner. 
  4. International Labour Office (২০০০)। Traditional occupations of indigenous and tribal peoples: Emerging trends। International Labour Organization। পৃষ্ঠা 78। আইএসবিএন 978-92-2-112258-6 
  5. Samaddar, Ranabir (২০০৩-০৭-০৪)। Refugees and the State: Practices of Asylum and Care in India। SAGE Publications। পৃষ্ঠা 251। আইএসবিএন 978-81-321-0377-6