জুটি (ক্রিকেট)

উইকিপিডিয়া, মুক্ত বিশ্বকোষ থেকে
ভারতীয় ক্রিকেটার হরভজন সিং (ডানে) ও শচীন তেন্ডুলকর ইনিংসের মাঝামাঝি একে-অপরকে সমর্থন দিচ্ছেন।

জুটি (ইংরেজি: Partnership) ক্রিকেট খেলার পরিভাষাবিশেষ। দুইজন ব্যাটসম্যানকে সর্বদাই মাঠে অবস্থান করতে হয়। তবে, যে-কোন সময়ে কেবলমাত্র একজন ব্যাটসম্যানকে স্ট্রাইকারের ভূমিকায় অবতীর্ণ হতে হয়। দুইজন ব্যাটসম্যানের ঐ জুটি তখনই শেষ হবে যখন - তাদের কেউ আউট হবে বা রিটায়ার হবে বা ইনিংস ঘোষণা হলে বা ওভার শেষ হয়ে গেলে বা দূর্যোগপূর্ণ আবহাওয়ার কারণে ইনিংসের মাঝখানে পরিত্যক্ত ঘোষণা করা হলে বা খেলার পরিবেশ বিপজ্জ্বনক হলে।

বিভিন্ন ক্রিকেট পরিসংখ্যানবিদগণ এ জুটিতে রান সংগ্রহ, তা অতিরিক্ত রান কিনা, কত মিনিট সময় ব্যয় ও কতসংখ্যক বল মোকাবেলা করেছেন - তা তুলে ধরেন। প্রায়শঃই নির্দিষ্ট উইকেটে কি ধরনের ভূমিকা রেখেছে তা বর্ণনা করা হয়ে থাকে। যেমন - তৃতীয় উইকেট জুটি বা উদ্বোধনী জুটি বা প্রথম উইকেট জুটি হিসেবে বলা হয়। যদি কোন কারণে মূল ব্যাটসম্যান মাঠ থেকে রিটায়ার হার্ট হয়েছেন কিন্তু অপরাজিত অবস্থায় মাঠ ত্যাগ করেছেন, তাহলে একাধিক ব্যাটসম্যানের সমন্বয়ে জুটি হতে পারে।

ব্যাটিং জুটি[সম্পাদনা]

ব্যাটিংকালে জুটির গুরুত্বতা অপরিসীম। সাধারণতঃ দলের সেরা ব্যাটসম্যানদ্বয় একত্রে মুক্তভাবে নিজস্ব ধরনে খেলে থাকেন। অনেকক্ষেত্রে এর ব্যতিক্রম হতে পারে। যেমন: মার্কাস ট্রেসকোথিক আক্রমণাত্মক স্ট্রোকপ্লেয়ার ও মাইক অ্যাথারটন রক্ষণাত্মক ভঙ্গীমায় বাঁধার প্রাচীর গড়ে তুলে ইংল্যান্ডের পক্ষে অনেকগুলো সফলতম উদ্বোধনী জুটি গড়েছেন। তবে, স্ট্রাইক পরিবর্তনের মাধ্যমে নিজেদের পছন্দের বোলারদের মোকাবেলায় উদ্বুদ্ধ করে থাকেন ও সাড়া দেয়ার মাধ্যমে রান সংগ্রহে ভূমিকা রাখেন। উদ্বোধনী জুটি ব্যাপক অর্থে নতুন বল মোকাবেলা করতে হয়। পরবর্তী জুটিতে এ চাপ কমে যায়, প্রায়শঃই স্পিন বোলিংয়ে পুরনো বলের মুখোমুখি হতে হয় ও এক পর্যায়ে দ্বিতীয় নতুন বলকে মোকাবেলা করতে হতে পারে।

সচরাচর বলা হয়ে থাকে যে, বামহাতি ও ডানহাতি ব্যাটসম্যানের মধ্যকার জুটি অন্য একইজাতীয় জুটির তুলনায় অধিক সফলতার স্বাক্ষর রাখে।[১] বেসবলের ক্ষেত্রে এ ধরনের বিষয়টি ‘লেফটি-রাইটি সুইচ’ নামে পরিচিত।

বোলিং জুটি[সম্পাদনা]

নির্দিষ্ট দুইজন বোলার প্রায়শঃই বিভিন্ন খেলায় একত্রে অনেকগুলো ওভার বোলিং করতে থাকলে সচরাচর তাদেরকে বোলিং জুটিরূপে পরিচিতি ঘটানো হয়। [২]

উইকেট অনুযায়ী টেস্টে রেকর্ডধারী জুটি[সম্পাদনা]

নভেম্বর, ২০২০ সাল অনুযায়ী সঠিক:[৩]

উইকেট রান জুটি ব্যাটিংকারী দল ফিল্ডিংয়ে অবস্থানকারী দল মাঠ মৌসুম
১ম ৪১৫ গ্রেইম স্মিথনিল ম্যাকেঞ্জি দক্ষিণ আফ্রিকা বাংলাদেশ চট্টগ্রাম ২০০৮
২য় ৫৭৬ রোশন মহানামাসনাথ জয়াসুরিয়া শ্রীলঙ্কা ভারত কলম্বো ১৯৯৭
৩য় ৬২৪ মাহেলা জয়াবর্ধনেকুমার সাঙ্গাকারা শ্রীলঙ্কা দক্ষিণ আফ্রিকা কলম্বো ২০০৬
৪র্থ ৪৪৯ অ্যাডাম ভোজেসশন মার্শ অস্ট্রেলিয়া ওয়েস্ট ইন্ডিজ হোবার্ট ২০১৫-১৬
৫ম ৪০৫ ডোনাল্ড ব্র্যাডম্যানসিড বার্নস অস্ট্রেলিয়া ইংল্যান্ড সিডনি ১৯৪৬-৪৭
৬ষ্ঠ ৩৯৯ বেন স্টোকসজনি বেয়ারস্টো ইংল্যান্ড দক্ষিণ আফ্রিকা কেপ টাউন ২০১৬
৭ম ৩৪৭ ক্লেয়ারমন্ট দেপিয়াজাডেনিস অ্যাটকিনসন ওয়েস্ট ইন্ডিজ অস্ট্রেলিয়া ব্রিজটাউন ১৯৫৪-৫৫
৮ম ৩৩২ জোনাথন ট্রটস্টুয়ার্ট ব্রড ইংল্যান্ড পাকিস্তান লর্ডস ২০১০
৯ম ১৯৫ এমভি বাউচারপ্যাট সিমকক্স দক্ষিণ আফ্রিকা পাকিস্তান জোহেন্সবার্গ ১৯৯৮
১০ম ১৯৮ জো রুটজেমস অ্যান্ডারসন ইংল্যান্ড ভারত নটিংহাম ২০১৪

যে-কোন উইকেটে শীর্ষ ১০ টেস্ট জুটি[সম্পাদনা]

১৮ মার্চ, ২০১৭ তারিখ অনুযায়ী সঠিক:[৪]

উইকেট রান জুটি ব্যাটিংকারী দল ফিল্ডিংয়ে অবস্থানকারী দল মাঠ মৌসুম
৬২৪ ৩য় মাহেলা জয়াবর্ধনেকুমার সাঙ্গাকারা শ্রীলঙ্কা দক্ষিণ আফ্রিকা কলম্বো ২০০৬
৫৭৬ ২য় রোশন মহানামাসনাথ জয়াসুরিয়া শ্রীলঙ্কা ভারত কলম্বো ১৯৯৭
৪৬৭ ৩য় অ্যান্ড্রু জোন্সমার্টিন ক্রো নিউজিল্যান্ড শ্রীলঙ্কা ওয়েলিংটন ১৯৯০-৯১
৪৫১ ২য় ডোনাল্ড ব্র্যাডম্যানডব্লিউ এইচ পন্সফোর্ড অস্ট্রেলিয়া ইংল্যান্ড সিডনি ১৯৩৪
৪৫১ ৩য় মুদাসসর নজরজাভেদ মিয়াঁদাদ পাকিস্তান ভারত হায়দ্রাবাদ, পাকিস্তান ১৯৮২-৮৩
৪৪৯ ৪র্থ অ্যাডাম ভোজেসশন মার্শ অস্ট্রেলিয়া ওয়েস্ট ইন্ডিজ বেলেরিভ ওভাল ২০১৫-১৬
৪৪৬ ২য় কনরাড হান্টগারফিল্ড সোবার্স ওয়েস্ট ইন্ডিজ পাকিস্তান দি ওভাল ১৯৫৭-৫৮
৪৩৮ ২য় মারভান আতাপাত্তুকুমার সাঙ্গাকারা শ্রীলঙ্কা জিম্বাবুয়ে বুলাওয়ে ২০০৪
৪৩৭ ৪র্থ মাহেলা জয়াবর্ধনেথিলান সামারাবীরা শ্রীলঙ্কা পাকিস্তান করাচী ২০০৮-০৯
৪২৯* ৩য় জ্যাকুয়েস রুডল্ফবোয়েতা ডিপেনার দক্ষিণ আফ্রিকা বাংলাদেশ চট্টগ্রাম ২০০৩

উইকেট অনুযায়ী প্রথম-শ্রেণীর ক্রিকেটে রেকর্ডধারী জুটি[সম্পাদনা]

১৪ অক্টোবর, ২০১৬ তারিখ অনুযায়ী সঠিক:[৫]

উইকেট রান জুটি ব্যাটিংকারী দল ফিল্ডিংয়ে অবস্থানকারী দল মাঠ মৌসুম
১ম ৫৬১ ওয়াহিদ মির্জামনসুর আখতার করাচী হোয়াইটস কোয়েটা করাচী ১৯৭৬-৭৭
২য় ৫৮০ রাফাতুল্লাহ মোহমান্দআমির সাজ্জাদ ওয়াপদা এসএসজিসি শেখুপুরা ২০০৯-১০
৩য় ৬২৪ মাহেলা জয়াবর্ধনেকুমার সাঙ্গাকারা শ্রীলঙ্কা দক্ষিণ আফ্রিকা কলম্বো ২০০৬
৪র্থ ৫৭৭ বিজয় হাজারেগুল মোহাম্মদ বরোদরা হোলকার বরোদরা ১৯৪৬-৪৭
৫ম ৫২০* চেতেশ্বর পুজারারবি জাদেজা সৌরাষ্ট্র ওড়িসা রাজকূট ২০০৮-০৯
৬ষ্ঠ ৪৮৭* জর্জ হ্যাডলিক্লেরেন্স পাসাইলাইগু জ্যামাইকা লর্ড টেনিসন একাদশ কিংস্টন ১৯৩১-৩২
৭ম ৪৬০ ভুপিন্দার সিংপঙ্কজ ধর্মানি পাঞ্জাব দিল্লি দিল্লি ১৯৯৪-৯৫
৮ম ৪৩৩ আর্থার সিমসভিক্টর ট্রাম্পার অস্ট্রেলিয়া ক্যান্টারবারি ক্রাইস্টচার্চ ১৯১৩-১৪
৯ম ২৮৩ জন চ্যাপম্যানআর্নল্ড ওয়ারেন ডার্বিশায়ার ওয়ারউইকশায়ার ব্ল্যাকওয়েল ১৯১০
১০ম ৩০৭ অ্যালেন কিপাক্সহল হুকার নিউ সাউথ ওয়েলস ভিক্টোরিয়া এমসিজি ১৯২৮-২৯

* = নিরবিচ্ছিন্ন জুটি

যে-কোন উইকেটে প্রথম-শ্রেণীর ক্রিকেটে রেকর্ডসংখ্যক জুটি[সম্পাদনা]

১৪ অক্টোবর, ২০১৬ তারিখ অনুযায়ী সঠিক:[৬]

উইকেট রান জুটি ব্যাটিংকারী দল ফিল্ডিংয়ে অবস্থানকারী দল মাঠ মৌসুম
৬২৪ ৩য় মাহেলা জয়াবর্ধনেকুমার সাঙ্গাকারা শ্রীলঙ্কা দক্ষিণ আফ্রিকা কলম্বো ২০০৬
৫৯৪* ৩য় এসএম গুগলে ও এআর বনে মহারাষ্ট্র দিল্লি মুম্বই ২০১৬-১৭
৫৮০ ২য় রাফাতুল্লাহ মোহমান্দআমির সাজ্জাদ ওয়াপদা এসএসজিসি শেখুপুরা ২০০৯-১০
৫৭৭ ৪র্থ বিজয় হাজারেগুল মোহাম্মদ বরোদরা হোলকার বরোদরা ১৯৪৬-৪৭
৫৭৬ ২য় রোশন মহানামাসনাথ জয়াসুরিয়া শ্রীলঙ্কা ভারত কলম্বো ১৯৯৭
৫৭৪* ৪র্থ এফএমএম ওরেল ও সিএল ওয়ালকট বার্বাডোস ত্রিনিদাদ পোর্ট অব স্পেন ১৯৪৫-৪৬
৫৬১ ১ম ওয়াহিদ মির্জামনসুর আখতার করাচী হোয়াইটস কোয়েটা করাচী ১৯৭৬-৭৭
৫৫৫ ১ম পি হোমস ও এইচ সাটক্লিফ ইয়র্কশায়ার এসেক্স লেটন ১৯৩২
৫৫৪ ১ম জেটি ব্রাউন ও জে টানিক্লিফ ইয়র্কশায়ার ডার্বিশায়ার চেস্টারফিল্ড ১৮৯৮
৫৩৯ ৩য় এসডি জোগিয়ানি ও আর জাদেজা সৌরাষ্ট্র গুজরাত সুরাট ২০১২-১৩

* নিরবিচ্ছিন্ন জুটি

উইকেট অনুযায়ী একদিনের আন্তর্জাতিকে রেকর্ডধারী জুটি[সম্পাদনা]

৫ মে, ২০১৯ তারিখ অনুযায়ী সঠিক:[৭]

উইকেট রান জুটি ব্যাটিংকারী দল ফিল্ডিংয়ে অবস্থানকারী দল মাঠ মৌসুম
১ম ৩৬৫ জন ক্যাম্পবেলশাই হোপ ওয়েস্টইন্ডিজ আয়ারল্যান্ড ডাবলিন ৫ মে, ২০১৯
২য় ৩৭২ ক্রিস গেইলমারলন স্যামুয়েলস ওয়েস্টইন্ডিজ জিম্বাবুয়ে ক্যানবেরা ২৪ ফেব্রুয়ারি, ২০১৫
৩য় ২৫৮ ড্যারেন ব্র্যাভোদিনেশ রামদিন ওয়েস্টইন্ডিজ বাংলাদেশ বাসেতেরে ২৫ আগস্ট, ২০১৪
৪র্থ ২৭৫* মোহাম্মদ আজহারউদ্দিনঅজয় জাদেজা ভারত জিম্বাবুয়ে কটক ৯ এপ্রিল, ১৯৯৮
৫ম ২৫৬* ডেভিড মিলারজেপি ডুমিনি দক্ষিণ আফ্রিকা জিম্বাবুয়ে হ্যামিল্টন ১৫ ফেব্রুয়ারি, ২০১৫
৬ষ্ঠ ২৬৭* গ্রান্ট এলিয়টলুক রঙ্কি নিউজিল্যান্ড শ্রীলঙ্কা ডুনেডিন ২৩ জানুয়ারি, ২০১৫
৭ম ১৭৭ জোস বাটলারআদিল রশীদ ইংল্যান্ড নিউজিল্যান্ড বার্মিংহাম ৯ জুন, ২০১৫
৮ম ১৩৮* জাস্টিন কেম্পঅ্যান্ড্রু হল দক্ষিণ আফ্রিকা ভারত কেপ টাউন ২৬ নভেম্বর, ২০০৬
৯ম ১৩২ অ্যাঞ্জেলো ম্যাথিউসলাসিথ মালিঙ্গা শ্রীলঙ্কা অস্ট্রেলিয়া মেলবোর্ন ৩ নভেম্বর, ২০১০

* = নিরবিচ্ছিন্ন জুটি

রান অনুযায়ী ওডিআইয়ে সর্বোচ্চ রানের জুটি[সম্পাদনা]

৫ মে, ২০১৯ তারিখ অনুযায়ী সঠিক:[৮]

উইকেট রান জুটি ব্যাটিংকারী দল ফিল্ডিংয়ে অবস্থানকারী দল মাঠ মৌসুম
১ম ৩৭৫ ক্রিস গেইলমারলন স্যামুয়েলস ওয়েস্ট ইন্ডিজ জিম্বাবুয়ে ক্যানবেরা ২৪ ফেব্রুয়ারি, ২০১৫
২য় ৩৬৫ জন ক্যাম্পবেলশাই হোপ ওয়েস্ট ইন্ডিজ আয়ারল্যান্ড ডাবলিন ৫ মে, ২০১৯
৩য় ৩৩১ শচীন তেন্ডুলকররাহুল দ্রাবিড় ভারত নিউজিল্যান্ড হায়দ্রাবাদ ৮ নভেম্বর, ১৯৯৯
৪র্থ ৩১৮ সৌরভ গাঙ্গুলীরাহুল দ্রাবিড় ভারত শ্রীলঙ্কা টানটন ২৬ মে, ১৯৯৯
৫ম ৩০৪ ইমাম-উল-হকফখর জামান পাকিস্তান জিম্বাবুয়ে বুলাওয়ে ২০ জুলাই, ২০১৮
৬ষ্ঠ ২৯২ তামিম ইকবাললিটন দাস বাংলাদেশ জিম্বাবুয়ে সিলেট ৬ মার্চ, ২০২০
৭ম ২৮২* কুইন্টন ডি ককহাশিম আমলা দক্ষিণ আফ্রিকা বাংলাদেশ কিম্বার্লী ১৫ অক্টোবর, ২০১৭
৮ম ২৮২ উপুল থারাঙ্গাতিলকরত্নে দিলশান শ্রীলঙ্কা জিম্বাবুয়ে পল্লেকেলে ১০ মার্চ, ২০১১
৯ম ২৭৫* মোহাম্মদ আজহারউদ্দিনঅজয় জাদেজা ভারত জিম্বাবুয়ে কটক ৯ এপ্রিল, ১৯৯৮
১০ম ৩৭২ জেমস মার্শালব্রেন্ডন ম্যাককুলাম নিউজিল্যান্ড আয়ারল্যান্ড আবেরদিন ১ জুলাই, ২০০৮

* = নিরবিচ্ছিন্ন জুটি

  • শচীন তেন্ডুলকর ও সৌরভ গাঙ্গুলী উদ্বোধনী জুটিতে সর্বাধিক রান সংগ্রহের বিশ্বরেকর্ড গড়েন। তারা একত্রে ১৩৬ ইনিংসে ৬,৬০৯ রান করেন। তন্মধ্যে, ২১টি শতরান ও ২৩টি অর্ধ-শতরানের জুটি ছিল। উদ্বোধনী জুটিতে ২১টি শতরানের জুটিও বিশ্বরেকর্ডরূপে স্বীকৃত।

তথ্যসূত্র[সম্পাদনা]

বহিঃসংযোগ[সম্পাদনা]