বিষয়বস্তুতে চলুন

জুগাড়

উইকিপিডিয়া, মুক্ত বিশ্বকোষ থেকে

জুগাড় বলতে একধরনের অপ্রচলিত ও মিতব্যয়ী উদ্ভাবন বোঝায়।[১] এছাড়া এটি উদ্ভাবনী সংশোধন কিংবা সরল সমাধান বোঝাতে পারে। এই শব্দটি অনেকসময় সৃজনশীলতাকে বোঝায়, যেখানে সীমিত সম্পদের মাধ্যমে নতুন জিনিস তৈরি করা হয়।

ব্যবস্থাপনার পদ্ধতি হিসাবে জুগাড় পদ্ধতি ক্রমশ গ্রহণযোগ্য হয়ে উঠেছে[২][৩] এবং সমগ্র বিশ্বে এটি একধরনের ফ্রুগাল ইঞ্জিনিয়ারিং হিসাবে পরিচিত।[৪] দক্ষিণপূর্ব এশিয়ার বিভিন্ন কোম্পানি গবেষণা ও উন্নয়ন কমানোর জন্য জুগাড় পদ্ধতি গ্রহণ করছে।[৫]

তথ্যসূত্র[সম্পাদনা]

  1. "जुगाड़" [Creative improvisation]। aamboli.com। ১২ মে ২০১৭ তারিখে মূল থেকে আর্কাইভ করা। সংগ্রহের তারিখ ২৬ ডিসেম্বর ২০২৩ 
  2. "Jugaad: A New Growth Formula for Corporate America"Harvard Business Review Blog Network। ২৫ জানুয়ারি ২০১০। 
  3. "Bricolage in R&D Settings"। IEEE Transactions on Engineering Managementhdl:11343/241260অবাধে প্রবেশযোগ্যএসটুসিআইডি 225681071ডিওআই:10.1109/TEM.2020.2997796 
  4. "India's Next Global Export: Innovation"Bloomberg Businessweek। ২ ডিসেম্বর ২০০৯। 
  5. "A snip at the price"The Economist। ২৮ মে ২০০৯।