জীবিত ও মৃত

উইকিপিডিয়া, মুক্ত বিশ্বকোষ থেকে

জীবিত ও মৃত ১৮৯২ সালে রবীন্দ্রনাথ ঠাকুর কর্তৃক রচিত একটি বাংলা ছোটগল্প। এটি রবীন্দ্রনাথের একটি উল্লেখযোগ্য ছোটগল্প।[১] এটি গল্পগুচ্ছে অন্তর্ভুক্ত আছে।[২][৩]

সংক্ষিপ্ত কাহিনী[সম্পাদনা]

কাদম্বিনী সন্তানহীনা বিধবা মহিলা। ভাশুরের ছেলের সাথে তার দুর্দান্ত বন্ধন রয়েছে। একদিন রাতে হঠাৎ সে মারা যায়। চারজন ব্রাহ্মণ তাকে অন্ত্যেষ্টিক্রিয়ার জন্য শ্মশানে নিয়ে যান। কিন্তু হঠাৎ সে তার জীবন ফিরে পেয়ে হাঁটতে থাকে। তবে সে নিজেকে ভুত বলে মনে করে এবং সেজন্য সে তার বাড়িতে ফিরে যায় নি। একজন লোকের সহায়তায় সে তার বন্ধু যোগমায়ার বাড়িতে আসে। তবে সেখানে সে অস্বস্তিকর জীবনযাপন করে এবং তাই তাকে যোগামায়ার সঙ্গ ত্যাগ করতে হয়েছিল। পরে সে নিজের শ্বশুরবাড়িতে ফিরে আসে। কিন্তু পরিবারের সদস্যরা তাকে জীবিত হিসাবে গ্রহণ করে না। শেষ পর্যন্ত আত্মহত্যা করার পরে, কাদম্বিনী প্রমাণ করে যে সে বেঁচে ছিল।[৩][৪]

বিশ্লেষণ[সম্পাদনা]

গল্পটি সাহিত্যের দুটি অনন্য রূপকে একত্রিত করেছে: অতিপ্রাকৃত গল্প এবং ব্যঙ্গাত্মক উপমা। তবে এটি কোনও নিখুঁত অতিপ্রাকৃত গল্প নয়। কাদম্বিনীর অস্তিত্ব অতিপ্রাকৃত। এতে জীবন এবং মৃত্যুর মধ্যে আটকে থাকার ধারণা চিত্রিত হয়েছে। সংক্ষেপে, এটি মৃত্যুর রহস্য নিয়ে কাজ করে। গল্পটির প্রসিদ্ধ লাইনটি হ'ল "কাদম্বিনী মরিয়া প্রমাণ করিল, সে মরে নাই।"[৪]

তথ্যসূত্র[সম্পাদনা]

  1. "Voices of Tagore's women"The Statesman (ইংরেজি ভাষায়)। ২০১৭-০৩-১০। সংগ্রহের তারিখ ২০২১-০৫-১৭ 
  2. "রবীন্দ্র রচনাবলী | রবীন্দ্র রচনাবলী"rabindra-rachanabali.nltr.org। সংগ্রহের তারিখ ২০২১-০৫-১৭ 
  3. "Rabindranath Tagore - Stories - galpoguchchho - jibito o mrito"www.tagoreweb.in। সংগ্রহের তারিখ ২০২১-০৫-২৬ 
  4. GradeSaver। "Rabindranath Tagore: Short Stories “The Living and the Dead” Summary and Analysis | GradeSaver"www.gradesaver.com (ইংরেজি ভাষায়)। সংগ্রহের তারিখ ২০২১-০৫-১৭ 

বহিঃসংযোগ[সম্পাদনা]